Connect with us

জাতীয়

দূষিত বায়ুর শহরের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে ঢাকা

Published

on

ক্যাটাগরি

জলবায়ু পরিবর্তন, অপরিকল্পিত নগরায়নসহ নানা কারণে বিশ্বের বহু শহর বেশ কয়েক বছর ধরেই বায়ুদূষণের কবলে রয়েছে। মেগাসিটি ঢাকার বাতাসেও নেই কোনো স্বস্তির খবর।

মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) ভারতের রাজধানী দিল্লির বাতাস ‘খুব অস্বাস্থ্যকর’ অবস্থায় রয়েছে। এ ছাড়া বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার বাতাসেও রয়েছে স্বাস্থ্যঝুঁকি।

এদিন সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটের দিকে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক বায়ুমান পর্যবেক্ষণকারী প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সে (একিউআই) ১৮২ স্কোর নিয়ে বিশ্বে দূষিত শহরের তালিকায় দ্বিতীয় নম্বরে রয়েছে ঢাকা।

এ সময় একিউআই স্কোর নিয়ে দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ভারতের দিল্লি। যার ২৩৩ স্কোর, দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে রাজধানী ঢাকা, স্কোর ১৮২। এ ছাড়া তৃতীয় স্থানে ভারতের আরেক শহর কলকতা, যার স্কোর ১৭৯। চতুর্থ স্থানে থাকা পাকিস্তানের শহর করাচি রয়েছে, যার স্কোর ১৭০, পঞ্চম অবস্থানে থাকা মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুনের স্কোর ১৬৭।

আন্তর্জাতিক বায়ুমান প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আইকিউএয়ারের মানদণ্ড অনুযায়ী, একিউআই স্কোর শূন্য থেকে ৫০ ভালো হিসেবে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ মাঝারি হিসেবে গণ্য করা হয়; আর সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর বিবেচিত হয় ১০১ থেকে ১৫০ স্কোর। স্কোর ১৫১ থেকে ২০০ হলে তাকে ‘অস্বাস্থ্যকর’ বায়ু বলে মনে করা হয়। ২০১ থেকে ৩০০-এর মধ্যে থাকা একিউআই স্কোরকে ‘খুব অস্বাস্থ্যকর’ বলা হয়। এ অবস্থায় শিশু, প্রবীণ এবং অসুস্থ রোগীদের বাড়ির ভেতরে এবং অন্যদের বাড়ির বাইরের কার্যক্রম সীমাবদ্ধ রাখার পরামর্শ দেয়া হয়ে থাকে। এ ছাড়া ৩০১ থেকে ৪০০-এর মধ্যে থাকা একিউআই ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ বলে বিবেচিত হয়, যা নগরের বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে।

সাধারণত একিউআই নির্ধারণ করা হয় দূষণের পাঁচটি ধরনকে ভিত্তি করে; যেমন: বস্তুকণা (পিএম১০ ও পিএম২.৫), এনও২, সিও, এসও২ ও ওজোন (ও৩)। বায়ুদূষণ গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে থাকে। এটা সব বয়সী মানুষের জন্য ক্ষতিকর। তবে শিশু, অসুস্থ ব্যক্তি, প্রবীণ ও অন্তঃসত্ত্বাদের জন্য বায়ুদূষণ খুবই ক্ষতিকর।

লাগামহীন ঢাকার বায়ুদূষণ যেন দিনের পর দিন বেড়েই চলছে এর মাত্রা। ২০১৬ সালের পর গত আট বছরে ২০২৩ সাল পর্যন্ত ঢাকার বায়ুমান সবচেয়ে খারাপ ছিল। আট বছরের মধ্যে ঢাকায় ২০২৩ সাল ছিল সবচেয়ে বেশি বায়ুদূষণের বছর। চলতি বছরের শুরুতে দূষণের মাত্রা কিছুটা কমলেও প্রথম ১৩ দিনের সাত দিনই শীর্ষে ছিল ঢাকার অবস্থান। নানা উন্নয়ন প্রকল্পসহ দূষণের উৎসগুলো নিয়ন্ত্রণে কর্তৃপক্ষের এক ধরনের নির্লিপ্ততাকে দায়ী করে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এখনই ব্যবস্থা না নিলে চড়া মূল্য দিতে হতে পারে।

স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির বায়ুমণ্ডলীয় দূষণ অধ্যয়ন কেন্দ্রের (ক্যাপস) বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২০১৬ সাল থেকে ২০২০ পর্যন্ত সংবেদনশীল গোষ্ঠীর যেমন শিশু ও প্রবীণ জনগোষ্ঠীর জন্য ঢাকার বাতাস অস্বাস্থ্যকর পর্যায়ে ছিল। সবশেষ তিন বছরসহ বাকি পাঁচ বছর ছিল অস্বাস্থ্যকর পর্যায়ে। ২০২৩ সালে যা আট বছরের সর্বোচ্চ ১৭১।

চলতি বছরের শুরুর দিন বাদ দিলে বাকি সময়টা বায়ুর মানের কিছুটা উন্নতি হলেও তা সন্তোসজনক নয়। বছরের শুরুর প্রথম ১৩ দিনের মধ্যে সাত দিনই বায়ুদূষণের শীর্ষে ছিল ঢাকা। এই সময়ে ২৮৪ পর্যন্ত উঠেছে।

তাই চলমান শৈত্যপ্রবাহের হাড় কাঁপানো শীতে কুয়াশাকে ধূলার মিশ্রণ অর্থাৎ ধোঁয়াশা বলছেন গবেষকরা। আইন বাস্তবায়নে এখনই কঠোর না হলে আরও চড়া মূল্য দেয়ার শঙ্কা পরিবেশবিদদের।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

জাতীয়

কেমিক্যালের অপব্যবহার বন্ধ করতে চায় সরকার

Published

on

ক্যাটাগরি

খাদ্যে ভেজালরোধে কেমিক্যালের অপব্যবহার বন্ধ করতে চায় সরকার। তাই এ বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে সুপারিশ করেছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি। রোববার (৩ মার্চ) সংসদে অনুষ্ঠিত কমিটির প্রথম বৈঠক এ সুপারিশ করা হয়।

এ সময় খাদ্যে ভেজালরোধে কেমিক্যালের অপব্যবহার বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে সুপারিশ করা হয়। এ ছাড়াও ব্লু ইকোনোমি নিয়ে কাজ করতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সমন্বয়ের তাগিদ দেওয়া হয়।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্ত মন্ত্রণালয়ের সার্বিক কার্যক্রম কমিটিতে উপস্থাপন করা হয়। সকল কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনের পাশাপাশি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কাজের সমন্বয় বৃদ্ধির সুপারিশ করা হয়। এ ছাড়া ক্যানসারের বিষয়ে গবেষণা বৃদ্ধিসহ স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন, কমিটির সভাপতি জাহিদ মালেক। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী স্থপতি ইয়ারফেস ওসমান। উপস্থিত ছিলেন কমিটির সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী, মির্জা আজম, ইকবালুর রহিম, মাহবুব উর রহমান, মো. আবদুস সবুর ও মো. ইয়াকুব আলী।

এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বৈঠকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সচিবসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

জাতীয়

বড় পীরের মাজার জিয়ারতে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ

Published

on

ক্যাটাগরি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আজ বড় পীর আবদুল কাদের জিলানীর (র:) মাজার জিয়ারত করার জন্য ইরাকের বাগদাদ শরীফের মোতওয়াল্লী হযরত শেখ খালিদ আবদুল কাদের মনসুর আল জিলানী (র:) আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে তিনি এ আমন্ত্রণ জানান।

প্রধানমন্ত্রীর ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি নূর এলাহী মিনা এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে বলেন, হযরত শেখ খালিদ আবদুল কাদের মনসুর আল জিলানী (র:) ১৯৭৪ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ইরাক সফরের সময় মাজার জিয়ারতের কথাও বলেন প্রধানমন্ত্রীকে । তিনি প্রধানমন্ত্রীকে জালিপাকের ছবি ও মাজারের গিলাফও উপহার দেন। বাংলাদেশ ও ইরাকের মধ্যে সম্পর্ক বন্ধুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে মোতওয়াল্লী বলেন, বাংলাদেশের মানুষ বড় পীরকে অনেক সম্মান করে।

শেখ হাসিনা বলেন, নিমতলীর ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের পর তিনি দুটি শিয়া মেয়েকে দত্তক নেন এবং তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান তাঁর মেয়ের মতো আয়োজন করেন। তিনি বাংলাদেশ সফরের জন্য হযরত শেখ খালিদ আব্দুল কাদের মনসুর আল জিলানী (র:)- কেও ধন্যবাদ জানান।

আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ এমপি, কাজী কেরামত আলী এমপি, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, সাবেক সংসদ সদস্য কোরায়েশী, আঞ্জুমান কাদেরিয়া বাংলাদেশের সভাপতি মো. মাহবুব উল আলম, কোষাধ্যক্ষ সৈয়দ মামনুন কাদের ও এর সদস্য জিয়াউল জামাল আবু সোয়াইদ সিদ্দিকী প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

অর্থনীতি

এমডি নিয়োগের যোগ্যতা যাচাইয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কমিটি

Published

on

ক্যাটাগরি

ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে ব্যাংকের মনোনীত ব্যক্তির যোগ্যতা যাচাইয়ের চার সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কমিটির নাম দেওয়া হয়েছে ব্যবস্থাপনা পরিচালক বা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পদে নিয়োগ/পুনঃনিয়োগ বিষয়ক মূল্যায়ন কমিটি।

রবিবার (৩ মার্চ) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করেছে।

ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা স্বেচ্ছায় বা পর্ষদের চাপে যেকোনোভাবে ব্যাংকের এমডি পদ ছাড়তে গেলেও বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন লাগবে। এমডি নিয়োগের আগে তার শিক্ষাগত যোগ্যতা, কর্ম অভিজ্ঞতাসহ প্রস্তাব পাঠাতে হবে বাংলাদেশ ব্যাংকে। মনোনীত ব্যক্তির সাক্ষাৎকার নেবে বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি কমিটি। ওই কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে এমডি নিয়োগে অনুমোদন দেবে বাংলাদেশ ব্যাংক।

প্রজ্ঞাপনে কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানায়, ব্যাংকের এমডি হিসেবে ব্যাংকের মনোনীত ব্যক্তির যোগ্যতা, উপযুক্ততা, অভিজ্ঞতা, বয়স ও নেতৃত্বের গুণাবলীর বিষয়াদি যাচাইয়ের একজন ডেপুটি গভর্নরের নেতৃত্বে চার সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। এমডি নিয়োগ মূল্যায়ন কমিটিতে সভাপতি হিসেবে থাকবেন ডেপুটি গভর্নর (ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত)। বাকি তিন সদস্যের মধ্যে রয়েছেন- নির্বাহী পরিচালক (ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত), নির্বাহী পরিচালক (ডিপার্টমেন্ট অব অফসাইট সুপারভিশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত) এবং পরিচালক (ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ, ডিভিশন-২)।

ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার নিয়োগের মেয়াদ হবে সাধারণভাবে তিন বছর। তবে তিনি পুনর্নিয়োগের যোগ্য হবেন। পুনর্নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রার্থীর বয়স যদি ৬৫ বছর অতিক্রান্ত হতে তিন বছরের কম সময় থাকে তবে সেক্ষেত্রে উক্ত সময়ের জন্যও তাকে নিয়োগ দেওয়া যাবে। তবে যে মেয়াদের জন্যই প্রস্তাব করা হোক না কেন বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক প্রার্থীর সাক্ষাৎকার গ্রহণের পর তার উপযুক্ততা পরীক্ষান্তে যে মেয়াদের জন্য নিয়োগ সুপারিশ করা হবে সে মেয়াদের জন্য তাকে ব্যাংক নিয়োগ প্রদান করবে।

এর আগের গত ২৭ ফেব্রুয়ারি এক নির্দেশনায় বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, এমডিকে অপসারণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমতি লাগবে। কোনো এমডি চরম স্খলন বা বিচ্যুতিপূর্ণ কাজ না করলে চুক্তির মেয়াদপূর্তির আগে কাউকে তার পদ থেকে অপসারণ বা চুক্তি বাতিল করা যাবে না। চুক্তি বাতিল বা অপসারণ করতে চাইলে সুনির্দিষ্ট কারণ উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে পাঠাতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক এরূপ প্রস্তাব অনুমোদন করলে এক মাস পর তা কার্যকর হবে। একইভাবে বাংলাদেশ ব্যাংক নাকচ করলে মেয়াদের অবশিষ্ট সময় এমডি স্বপদে বহাল থাকবেন। মেয়াদ শেষের আগে কেউ পদত্যাগ করতে চাইলে পরিচালনা পর্ষদের সুপারিশসহ বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠাতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকে ব্যক্তিগত শুনানির পর যে সিদ্ধান্ত দেবে, তা কার্যকর হবে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

জাতীয়

আঞ্চলিক-বৈশ্বিক ইস্যুতে বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করবে তুরস্ক

Published

on

ক্যাটাগরি

আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক ইস‌্যুতে বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করার পাশাপা‌শি রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে অব্যাহত সমর্থনের আশ্বাস দিয়েছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাকান ফিদান। রোববার (৩ মার্চ) আনতালিয়ায় তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। এ সময় বি‌ভিন্ন ইস‌্যুতে একসঙ্গে কাজ করার কথা জানান হাকান।

বৈঠকে আনতালিয়া ফোরামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ফেরত চিঠি হাকান ফিদানকে হস্তান্তর করেন হাছান।

তুরস্কের স্বাধীনতার শতবর্ষ এবং বাংলাদেশ ও তুরস্কের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর উপলক্ষ্যে হাকান ফিদানকে অভিনন্দন জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তুরস্কের জাতির পিতা কামাল আতাতুর্কের সংগ্রাম থেকে শক্তিশালী অনুপ্রেরণা পেয়েছিলেন এবং দুই ভ্রাতৃপ্রতিম জাতির বন্ধুত্বের উষ্ণ বন্ধন প্রতিনিয়ত দৃঢ়তর হচ্ছে।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে উপযুক্ত সময়ে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান ড. হাছান। তি‌নি দুই দেশের মধ্যে কন্ট্রাক্ট ফার্মিংয়ের প্রস্তাব করেন। যেখানে বাংলাদেশি কৃষক ও বিশেষজ্ঞরা তুরস্কে মৌসুমি চাষ করবেন এবং ফলনের পর বাংলাদেশে ফিরে যাবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রস্তাবের প‌রি‌প্রেক্ষি‌তে দেশ‌টির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, তুরস্ক বিষয়টি পরীক্ষা করবে এবং আগামী জুলাই মাসে ঢাকায় পররাষ্ট্র দপ্তরের পরবর্তী পরামর্শের সময় এটি নিয়ে আলোচনার সু‌যোগ র‌য়ে‌ছে।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানকে দেওয়া প্রশংসাপত্রের জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে এবং ফোরামে উপস্থিতির জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক বিষয়ে একসঙ্গে কাজ করা ও রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে তার দেশের অব্যাহত সমর্থনের আশ্বাস দেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ গাজায় ইসরায়েলি নৃশংসতা বন্ধ করতে এবং আরব দেশগুলোর সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠভাবে তুরস্কের আরও বৃহত্তর ভূমিকা কামনা করেন।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

জাতীয়

দেশের পরিবেশ নিজেদের প্রয়োজনেই ঠিক রাখতে হবে: স্পিকার

Published

on

ক্যাটাগরি

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বাংলাদেশের ক্ষয়ক্ষতি অনেক বেশি। জলবায়ুবিষয়ক সম্মেলনগুলোতে বাংলাদেশের ওপর জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব তুলে ধরতে হবে এবং বিরূপ প্রভাব মোকাবিলায় ক্ষতিপূরণ আদায়ে সচেষ্ট হতে হবে।

রবিবার (৩ মার্চ) সংসদ ভবনে তার কার্যালয়ে নেদারল্যান্ডসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রিয়াজ হামিদুল্লাহ সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে এলে তিনি এ কথা বলেন। সাক্ষাৎকালে তারা জলবায়ু পরিবর্তন, ব্যবসা-বাণিজ্য, নেদারল্যান্ডসে অনুষ্ঠিত ট্রেড ফেয়ারসহ (বাণিজ্যমেলা) বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, নিজের দেশের পরিবেশ নিজেদের প্রয়োজনেই ঠিক রাখতে হবে। তাই নদীদূষণ, চামড়া শিল্পের বর্জ্য ও অপরিকল্পিত ইটভাটার মাধ্যমে পরিবেশ দূষণরোধে সবাইকে সচেষ্ট হতে হবে।

স্পিকার বলেন, বাংলাদেশের বাইরে প্রতিবছর বাণিজ্যমেলার আয়োজন করা যেতে পারে। বাংলাদেশি বিভিন্ন সেবা ও শিল্পের প্রসারে এ ধরনের মেলার ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারে।

নেদারল্যান্ডসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রিয়াজ হামিদুল্লাহ এসময় স্পিকারকে আয়োজিত ট্রেড ফেয়ার উপলক্ষে ‘বেস্ট অব বাংলাদেশ’ নামে একটি প্রকাশনা প্রদান করেন। তিনি বলেন, বিশ্ববাজারে বাংলাদেশি পণ্যের বিকাশে কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

এসময় জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন
ক্যাটাগরি
আন্তর্জাতিক5 hours ago

পাকিস্তানে ভারী বৃষ্টি, ২৯ জনের প্রাণহানি

ক্যাটাগরি
কর্পোরেট সংবাদ6 hours ago

ওয়ালটনের ‘এসি সার্ভিস পার্টনার কনফারেন্স’ অনুষ্ঠিত

ক্যাটাগরি
কর্পোরেট সংবাদ6 hours ago

দিনাজপুরের আফতাবগঞ্জে এসবিএসি ব্যাংকের উপশাখা উদ্বোধন

ক্যাটাগরি
কর্পোরেট সংবাদ6 hours ago

সিটি ব্যাংকের ‘ব্যাংকাস্যুরেন্স’ পরিষেবা উদ্বোধন

ক্যাটাগরি
জাতীয়6 hours ago

কেমিক্যালের অপব্যবহার বন্ধ করতে চায় সরকার

ক্যাটাগরি
জাতীয়6 hours ago

বড় পীরের মাজার জিয়ারতে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ

ক্যাটাগরি
খেলাধুলা7 hours ago

লঙ্কা বধের মিশনে কাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ

ক্যাটাগরি
অর্থনীতি7 hours ago

এমডি নিয়োগের যোগ্যতা যাচাইয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কমিটি

ক্যাটাগরি
আবহাওয়া7 hours ago

তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রিতে উঠার পূর্বাভাস!

ক্যাটাগরি
সারাদেশ7 hours ago

অগ্নিনির্বাপক না থাকায় চার রেস্টুরেন্টকে জরিমানা

Advertisement
Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১