Connect with us

লাইফস্টাইল

পানিশূন্যতা তৈরি করে যেসব খাবার

Published

on

ডিএসই

সুস্থ থাকার জন্য হাইড্রেটেড থাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু আপনি কি জানেন যে, কিছু খাবার আপনাকে গোপনে ডিহাইড্রেট করতে পারে? যদিও আমরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ডিহাইড্রেশনকে পর্যাপ্ত পানি না খাওয়ার ফল হিসেবে মনে করি। তবে কিছু খাবার মূত্রবর্ধক বৈশিষ্ট্য বা অতিরিক্ত লবণের কারণে ডিহাইড্রেশন বা পানিশূন্যতা বাড়িয়ে তুলতে পারে। সেই খাবারগুলো সম্পর্কে জানা থাকলে পানিশূন্যতা প্রতিরোধ করা সহজ হবে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক-

ক্যাফেইনযুক্ত পানীয়
কফি, চা এবং কিছু কোমল পানীয়তে ক্যাফেইন থাকে, যা হালকা মূত্রবর্ধক। যদিও সকালে এককাপ কফি বা চা উপভোগ করা ভালো, তবে অত্যধিক পান করার ফলে প্রস্রাব বাড়তে পারে। পর্যাপ্ত পানি পানের সঙ্গে ভারসাম্য না থাকলে ডিহাইড্রেশন হতে পারে।

অ্যালকোহল
অ্যালকোহলযুক্ত পানীয় এর মূত্রবর্ধক প্রভাবের কারণে আপনাকে ডিহাইড্রেট করতে পারে। এগুলো প্রস্রাব উৎপাদন বৃদ্ধি করে, যার ফলে শরীরের তরল কমে যায় হয়। তাই অ্যালকোহলযুক্ত পানীয় পান করা থেকে বিরত থাকাই শরীরের জন্য সবচেয়ে ভালো।

লবণাক্ত স্ন্যাকস
চিপস, প্রিটজেল এবং ক্র্যাকারের মতো প্রক্রিয়াজাত খাবারে সোডিয়াম বেশি থাকে। অত্যধিক লবণ গ্রহণ করলে তা আপনাকে তৃষ্ণার্ত করে তুলতে পারে এবং প্রস্রাবের মাধ্যমে পানির ক্ষয় বৃদ্ধি করতে পারে। নোনতা নাস্তা খাওয়ার বিষয়ে সচেতন হোন এবং পানি-সমৃদ্ধ খাবারের সঙ্গে ভারসাম্য বজায় রাখুন।

উচ্চ প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার
প্রোটিন-সমৃদ্ধ খাবার, যেমন লাল মাংস, হাঁস-মুরগি এবং দুগ্ধজাত পণ্য ইত্যাদি ডিহাইড্রেশনে অবদান রাখতে পারে। আপনি যখন প্রোটিন গ্রহণ করেন, তখন আপনার শরীর অতিরিক্ত ইউরিয়া তৈরি করে। এটি একটি বর্জ্য পদার্থ যা প্রস্রাবের মাধ্যমে বের করে দিতে হয়, এর ফলে পানির ক্ষয় বৃদ্ধি পায়।

চিনিযুক্ত খাবার
কেক, কুকিজ এবং ক্যান্ডির মতো চিনিযুক্ত খাবারও আপনাকে ডিহাইড্রেট করতে পারে। আপনি যখন প্রচুর পরিমাণে চিনি গ্রহণ করেন, তখন আপনার শরীর এটিকে পাতলা করতে পানি ব্যবহার করে, যা ডিহাইড্রেশনের দিকে নিয়ে যা। তাই হাইড্রেটেড থাকার জন্য তাজা ফল বেছে নিন।

ঝাল খাবার
মসলাদার খাবার আপনার বিপাককে উদ্দীপিত করতে পারে এবং শরীরের তাপমাত্রা বাড়াতে পারে, যার ফলে ঘাম হতে পারে, যা আপনাকে ডিহাইড্রেট করে। মসলাদার খাবার উপভোগ করার সময় হাইড্রেটেড থাকার জন্য প্রচুর পানি পান করতে ভুলবেন না।

ভাজা খাবার
ভাজা খাবারে লবণ এবং চর্বি বেশি থাকে, যা আপনাকে ডিহাইড্রেট করতে পারে। উচ্চ চর্বিযুক্ত উপাদান হজমকেও ধীর করে দিতে পারে। ভাজা খাবার খাওয়া সীমিত করুন এবং শাকসবজির মতো পানি-সমৃদ্ধ খাবার বেশি খান।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

লাইফস্টাইল

কোরবানির আগে গুছিয়ে রাখবেন যেসব কাজ

Published

on

ডিএসই

ঈদুল আজহা বা কোরবানি ঈদের বাকি আর মাত্র এক দিন। এই ঈদে গৃহিণীদের কাজ অনেক বেড়ে যায়। কারণ ঈদুল আজহায় পশু কোরবানির পর মাংস ভাগ করে ধুয়ে সংরক্ষণ করা থেকে শুরু করে রান্না করা পর্যন্ত অনেক কিছুই লাগে হাতের কাছে।

তখন এটা সেটা হাতের কাছে না পেলে যেমন ঈদের দিন বিরক্ত হবেন, একই সঙ্গে সময়ও নষ্ট হয়। তাই ঈদুল আজহার প্রস্তুতি নিন এখন থেকেই। জেনে নিন কী কী-

রান্নার মসলা প্রস্তুত রাখুন

কোরবানির মাংস রাঁধতে প্রয়োজন হয় অনেক মসলার। পেঁয়াজ-রসুন-আদা বাটা থেকে শুরু করে গুঁড়া মসলা যেমন- হলুদ, মরিচ, জিরা, ধনিয়া ও গরম মসলাসহ যাবতীয় নানা মসলা আগে থেকেই সংরক্ষণ করুন।

যন্ত্রপাতি গুছিয়ে নিন

পশু জবাই করার জন্য খুটিনাটি যন্ত্রপাতি হাতের নাগালে রাখতে হবে। অনেকের বাড়িতেই হয়তো পুরোনো ছুরি, বটি বা ইত্যাদি যন্ত্রপাতি থেকে থাকবে।

সেগুলো ঈদের আগেই ধারালো করে নিন ও গরম পানিতে ১-২ মিনিট ডুবিয়ে রেখে ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন। এতে জীবাণু আর না থাকবে না। আর যাদের যন্ত্রপাতি নেই, তারা ঈদের আগেই কিনে রাখুন।

আর যদি বিরিয়ানি রান্না করতে চান, সেক্ষেত্রে আরও কিছু মসলা আগের থেকেই গুছিয়ে রাখুন। চাইলে এখন থেকেই গুঁড়া মসলাগুলো প্রস্তুত করে কৌটায় ভরে রাখুন। আর বাটা ও কাটা মসলাগুলো জিপলক ব্যাগ বা কৌটায় ফ্রিজের ডিপে রেখে সংরক্ষণ করুন।

মাংস সংরক্ষণের ব্যবস্থা করে রাখুন

কোরবানির মাংস ঘরে আনার পর সব আলাদা করে ভাগ করে রাখুন। যেমন-সিনার মাংস, কলিজা, ভুড়ি, পায়ের মাংস, মগজ, ইত্যাদি ভাগ করে ফেলতে হবে।

ফ্রিজে রাখার আগে ভালো করে মাংস ধুয়ে রাখবেন। ফুড গ্রেডের প্লাস্টিকের ব্যাগেই মাংস রাখা উত্তম। এই প্যাকেটগুলো ঈদের আগেই গুছিয়ে করে রাখুন। যাতে প্রয়োজনের সময় খুঁজতে না হয়। মাংস ছোট ছোট করে প্যাকেট করে রাখুন।

প্রতিটি প্যাকেটের গায়ে কোন মাংস তা লিখে রাখলে খুঁজে বের কররাও সহজ হবে। অবশ্যই কোরবানির মাংস ৪-৬ মাসের বেশি সংরক্ষণ করবেন না। তাহলে মাংসের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়।

ঈদের বাজার

যেহেতু ঈদের বাকি আর মাত্র কয়দিন, তাই সময় বাঁচাতে এখনই করে রাখুন ঈদের বাজার। সেমাই-চিনি থেকে শুরু করে ঈদের দিন মিষ্টান্ন রান্নার জন্য যাবতীয় পদ তৈরির প্রয়োজনী উপকরণ কিনুন মনে করে।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

ব্রেন টিউমারের পাঁচ লক্ষণ জেনে নিন

Published

on

ডিএসই

ব্রেন টিউমারের বিভিন্ন লক্ষণ প্রকাশ হতে পারে। অনেক সময় সাধারণ লক্ষণগুলো সহজে চেনা যায় না। ফলে চিকিৎসা নিতে দেরি হয়ে যায়। তাই সাধারণ লক্ষন দেখা দিলেও অবহেলা করা একদমই উচিত নয়। কারণ দেরি করলে তখন অবস্থা আরও খারাপ হয়ে যেতে পারে। তাই আগেভাগে লক্ষণ জেনে নেওয়া জরুরি। এতে লক্ষণ চেনা এবং চিকিৎসা নেওয়া সহজ হয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক ব্রেন টিউমারের লক্ষণ-

অনবরত মাথাব্যথা
আপনার কি মাথাব্যথা লেগেই থাকে? তাহলে এটি সাধারণ সমস্যা মনে করে এড়িয়ে যাবেন না। বরং মারাত্মক কোনো সমস্যার কারণ হতে পারে এটি। তাই একটানা মাথাব্যথা থাকলে বিশেষ করে যা কাশির সঙ্গে কিংবা সকালে বাড়ে এমন মাথাব্যথা হলে হতে পারে তা টিউমারের লক্ষণ। তাই এ ধরনের সমস্যায় সতর্ক হোন।

ব্যক্তিত্বের পরিবর্তন
আপনি হয়তো আগে অনেক হাসিখুশি ছিলেন কিন্তু ইদানিং অনেকটাই চুপচাপ হয়ে যাচ্ছেন। বিরক্তি, উদাসীনতা বা অনুপযুক্ত আচরণ, মানসিক নিয়ন্ত্রণ এবং আবেগ নিয়ন্ত্রণের জন্য দায়ী নির্দিষ্ট মস্তিষ্কের টিউমার হতে পারে। তাই আচরণে বড় ধরনের পরিবর্তন এলে সতর্ক হোন।

দৃষ্টিতে সমস্যা
ব্রেন টিউমারের কারণে দৃষ্টিতে সমস্যা দেখা দিতে পারে। অপটিক স্নায়ু, পিটুইটারি গ্রন্থি বা ওসিপিটাল লোবকে প্রভাবিত করে এমন টিউমার ডাবল ভিশন, ঝাপসা দৃষ্টি অথবা এক বা উভয় চোখে আংশিক কিংবা সম্পূর্ণ দৃষ্টি কমে যাওয়ার মতো সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। তাই আপনার যদি দৃষ্টিতে সমস্যা হয় তাহলে দ্রুত চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

দুর্বলতা
দুর্বলতা নানা কারণেই হতে পারে। এই সমস্যা মানেই ব্রেন টিউমার নয়। তবে ব্রেন টিউমারের অন্যতম লক্ষণ হলো দুর্বলতা। তাই কোনো কারণ ছাড়াই দুর্বলতা লেগে থাকলে কিংবা শরীরের বিভিন্ন স্থানে অসাড়তা অনুভব করলে চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলুন। হতে পারে এটি ব্রেন টিউমারের লক্ষণ।

হরমোনের ভারসাম্যহীনতা
পিটুইটারি বা হাইপোথ্যালামিক টিউমার হরমোনের সূক্ষ্ম ভারসাম্যকে ব্যাহত করতে পারে, যে কারণে অকারণেই অনেকটা ওজন বেড়ে কিংবা কমে যায়। সেইসঙ্গে তৃষ্ণা বা প্রস্রাবের ধরনেও পরিবর্তন দেখা দিতে পারে। তাই এ ধরনের লক্ষণ দেখলে সতর্ক হোন এবং দ্রুত চিকিৎসা নিন।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

কুরবানির গোশত জমিয়ে রাখা কি জায়েজ?

Published

on

ডিএসই

কুরবানি ইসলামি শরিয়তের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত। রাসুলুল্লাহ (সা.) হিজরতের পর প্রতি বছর কুরবানি করেছেন। তিনি কখনও কুরবানি পরিত্যাগ করেননি; বরং কুরবানি পরিত্যাগকারীদের ওপর অভিসম্পাত করেছেন।

প্রাপ্তবয়ষ্ক, সুস্থ মস্তিষ্কসম্পন্ন প্রত্যেক মুসলমান নর-নারী মুকিম ব্যক্তি, যে ১০ জিলহজ সুবহে সাদিক থেকে ১২ জিলহজ সূর্যাস্ত পর্যন্ত সময়ের মধ্যে প্রয়োজনের অতিরিক্ত নেসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক হবে, তার ওপর কুরবানি করা ওয়াজিব হবে।

নেসাব হলো: স্বর্ণের ক্ষেত্রে সাড়ে সাত ভরি। আর রুপার ক্ষেত্রে সাড়ে বায়ান্ন ভরি। আর অন্যান্য বস্তুর ক্ষেত্রে সাড়ে বায়ান্ন ভরি রুপার সমমূল্যের সম্পদ।

মদীনার প্রথম যুগে খাদ্যের সংকট ছিল। তখন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সাহাবায়ে কেরামকে কুরবানির গোশত তিন দিনের বেশি জমিয়ে রাখতে নিষেধ করেছিলেন। পরে যখন অভাব কমে গেল তখন আবার সংরক্ষণ করে রাখার অনুমতি দিয়েছিলেন।

হাদিসে ইরশাদ হয়েছে, জাবির রা. বলেন- নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তিন দিনের পর কুরবানির গোশত খেতে নিষেধ করেছিলেন। এরপর (অবকাশ দিয়ে) বললেন, খাও, পাথেও হিসেবে সঙ্গে নাও এবং সংরক্ষণ করে রাখ। (সহিহ মুসলিম, হাদিস ১৯৭২)

অন্যত্র বর্ণিত হয়েছে- রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, আমি তোমাদেরকে তিন দিনের পর কুরবানির গোশত খেতে নিষেধ করেছিলাম, যেন স্বচ্ছল ব্যক্তিরা অসামর্থ্যদের তা উদারভাবে দিতে পারে। এখন তোমরা যা ইচ্ছা খাও, অন্যকে খাওয়াও এবং সঞ্চয় করে রাখতে পার। (জামে তিরমিযী, হাদিস ১৫১০)

আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে সামর্থ্য অনুযায়ী কুরবানি করার তাওফিক দান করুন। ভুল-ত্রুটি থেকে রক্ষা করুন। এবং কেবল তার সন্তুষ্টির জন্যই কুরবানি করার তাওফিক দান করুন।

পরিশেষে আমাদেরকে আল্লাহ তাআলার সেই বাণী স্মরণে রাখতে হবে, তিনি ইরশাদ করেন- আল্লাহর কাছে না পৌঁছে তাদের গোশত আর না তাদের রক্ত, বরং তার কাছে তোমাদের তাকওয়াই পৌঁছে। এভাবেই তিনি এসব পশুকে তোমাদের বশীভূত করে দিয়েছেন, যাতে তোমরা একারণে আল্লাহর তাকবীর বল যে, তিনি তোমাদেরকে হেদায়েত দান করেছেন। যারা সুচারুরূপে সৎকর্ম করে তাদেরকে সুসংবাদ দিন। (সুরা হজ্ব (২২): ৩৫)

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

স্ট্রেস দূর করার ৭ উপায়

Published

on

ডিএসই

স্ট্রেস জীবনের একটি অনিবার্য অংশ, কিন্তু যেভাবে আমরা স্ট্রেস নিয়ন্ত্রণ করি এবং মানিয়ে নিই তা আমাদের সামগ্রিক সুস্থতায় প্রভাব ফেলে। কিছু স্বাস্থ্যকর অভ্যাস মেনে চললে তা আমাদের মানসিক চাপকে আরও ভালোভাবে মোকাবিলা করার ক্ষমতা বাড়াতে পারে। চলুন জেনে নেওয়া যাক স্ট্রেস দূর করার উপায়-

১. নিয়মিত শরীরচর্চা

ব্যায়াম একটি শক্তিশালী স্ট্রেস রিলিভার। এটি এন্ডোরফিন বৃদ্ধি করে আপনার মেজাজকে উন্নত করে তুলতে পারে, সেইসঙ্গে উদ্বেগ এবং বিষণ্ণতা কমাতেও সাহায্য করে। সপ্তাহের বেশিরভাগ দিন কমপক্ষে ৩০ মিনিট ব্যায়ামের লক্ষ্য রাখুন।

২. মেডিটেশন

আপনাকে শান্ত এবং ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থা অর্জন করতে সাহায্য করবে, যা আপনার মানসিক স্থিতিস্থাপকতা উন্নত করতে পারে। দিনে কয়েক মিনিট মেডিটেশনে ব্যয় করলে তা স্ট্রেস নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী ভূমিকা রাখবে।

৩. পর্যাপ্ত ঘুম

মস্তিষ্কের চাপ থেকে পুনরুদ্ধারের জন্য ঘুম অপরিহার্য। বেশিরভাগ প্রাপ্তবয়স্কদের প্রতি রাতে ৭-৯ ঘণ্টা ঘুম প্রয়োজন। নিয়মিত ঘুমের সময়সূচী বজায় রাখা এবং একটি বিশ্রামের পরিবেশ তৈরি করার মাধ্যমে স্ট্রেস দূর করা সহজ হয়ে উঠবে।

৪. সুষম পুষ্টি

স্বাস্থ্যকর খাবার খেলে তা ইমিউন সিস্টেমকে শক্তিশালী করে এবং রক্তচাপ কমিয়ে দেয়। ফলে স্ট্রেসের প্রভাব মোকাবিলা করা সহজ হয়। আপনার ডায়েটে প্রচুর ফল, শাকসবজি, চর্বিহীন প্রোটিন এবং দানাশস্য যোগ করুন। এতে মন ও শরীর দুটোই সুস্থ থাকবে।

৫. গভীর শ্বাস-প্রশ্বাস

গভীর শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম আপনার মনকে শান্ত করতে এবং উত্তেজনা কমাতে সাহায্য করবে। ডায়াফ্রাম্যাটিক শ্বাস, পেটের শ্বাস এবং দ্রুত শ্বাস-প্রশ্বাসের মতো কৌশলগুলো আপনাকে তীব্র মানসিক চাপ পরিচালনা করতে সহায়তা করতে পারে।

৬. সামাজিকতা বজায় রাখুন

শক্তিশালী সামাজিক নেটওয়ার্ক একাকীত্ব এবং স্ট্রেস কমায়। পরিবার এবং বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটান, যারা আপনাকে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করতে সাহায্য করবে। নতুন বন্ধুত্ব গড়ে তুলতে আপনার পছন্দ কিংবা মতের সঙ্গে মেলে এমন মানুষ খুঁজে নিন।

৭. টাইম ম্যানেজমেন্ট

কার্যকরী টাইম ম্যানেজমেন্ট স্ট্রেস দূর করার ক্ষেত্রে খুবই প্রয়োজন। এটি বিশ্রাম এবং জীবন উপভোগ করার জন্য সময় বের করে স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করবে। কাজকে অগ্রাধিকার দিন, বাউন্ডারি সেট করুন এবং করণীয় কাজগুলো ধাপে ধাপে করুন।

এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

গরমে ক্লান্ত? শক্তি বাড়ানোর উপায় জেনে নিন

Published

on

ডিএসই

গরমের সময়ে ক্লান্ত বোধ করা স্বাভাবিক। কারণ এময় আমাদের শরীর থেকে ঘামের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় লবণ ও পানির অনেকটাই বের হয়ে যায়। ফলস্বরূপ দেখা দেয় দুর্বলতা। বিশেষ করে তাপমাত্রা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এই সমস্যা বাড়তে থাকে। তবে দুশ্চিন্তার কারণ নেই। গরমের সময়ে ক্লান্তি ও দুর্বলতা কাটিয়ে শক্তিশালী হয়ে ওঠার কিছু উপায়ও রয়েছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

১. হাইড্রেশন বজায় রাখুন

ডিহাইড্রেশন ক্লান্তি এবং শক্তির মাত্রা হ্রাস করতে পারে, বিশেষ করে গরম আবহাওয়ায়। ঘামের মাধ্যমে হারানো খনিজ পূরণ করতে পানি এবং ইলেক্ট্রোলাইট-সমৃদ্ধ পানীয় যেমন ডাবের পানি বা স্পোর্টস ড্রিঙ্কস পান করতে পারেন। এছাড়া সারা দিন প্রচুর পরিমাণে তরল প

২. হালকা ও পুষ্টিকর খাবার খান

হালকা, সতেজ ও পুষ্টিকর খাবার বেছে নিন যা আপনাকে ওজন না বাড়িয়েই শক্তি দেবে। প্রচুর পরিমাণে ফল এবং শাক-সবজি খান, যেগুলোতে পানি, প্রয়োজনীয় ভিটামিন এবং খনিজ রয়েছে। গ্রিলড চিকেন বা মাছের মতো চর্বিহীন প্রোটিন এবং অ্যাভোকাডো, বাদাম এবং অলিভ তেলের মতো উৎস থেকে স্বাস্থ্যকর চর্বি যুক্ত করুন। যা রক্তে শর্করার মাত্রা স্থিতিশীল করতে এবং দীর্ঘস্থায়ী শক্তি সরবরাহ করতে সাহায্য করবে। ভারী খাবার এড়িয়ে চলুন। কারণ গরমে এ ধরনের খাবার খেলে তা ক্লান্তি এবং অস্বস্তির কারণ হতে পারে।

৩. নিয়মিত বিরতি এবং বিশ্রাম নিন

আপনার শরীরের সংকেত শুনুন। বিশ্রামকে অগ্রাধিকার দিন, বিশেষ করে দিনের উষ্ণতম সময়গুলোতে। শীতল ও সতেজ হওয়ার জন্য ছায়াযুক্ত বা শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত স্থানে বিশ্রাম নিন। মানসিক চাপ কমাতে গভীর শ্বাস, ধ্যান বা মৃদু স্ট্রেচিংয়ের মতো মননশীলতা ব্যায়ামের চর্চা করুন। শক্তির মাত্রা বাড়াতে এবং সামগ্রিক সুস্থতা বজায় রাখতে প্রতি রাতে পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমও গুরুত্বপূর্ণ।

৪. গরমে ব্যায়াম নয়

দিনের শীতল সময়গুলোতে ব্যায়াম করুন। যেমন ভোরে বা সন্ধ্যায়। এতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা এড়ানো সম্ভব হবে। বাইরের ব্যায়াম সম্ভব না হলে সাঁতার, যোগব্যায়াম বা ইনডোর সাইকেল চালানোর মতো ব্যায়াম বেছে নিন। আপনার শরীরের কথা শুনুন। অতিরিক্ত গরম এবং ক্লান্তি রোধ করার জন্য প্রয়োজন অনুসারে বিরতি নিন।

৫. সূর্য থেকে নিজেকে রক্ষা করুন

অতিরিক্ত রোদ আপনার শক্তির মাত্রা কমাতে এবং তাপ-সংক্রান্ত অসুস্থতার ঝুঁকি বাড়াতে পারে। যেমন ক্লান্তি এবং হিটস্ট্রোক। সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে নিজেকে রক্ষা করার জন্য বাইরে বের হলে হালকা এবং আরামদায়ক পোশাক পরুন যা আপনার ত্বককে ঢেকে রাখে, সাথে একটি চওড়া টুপি এবং সানগ্লাস পরুন। নিয়মিত উচ্চ এসপিএফযুক্ত সানস্ক্রিন লাগান, বিশেষ করে যদি বাইরে দীর্ঘ সময় থাকার প্রয়োজন হয়।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

শেয়ারবাজারের সর্বশেষ

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার4 hours ago

ডিএসইর পিই রেশিও কমেছে

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন -১৩ জুন) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পিই রেশিও (সার্বিক মূল্য আয় অনুপাত) কমেছে। আগের সপ্তাহের তুলনায়...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার4 hours ago

বাংলাদেশ ফাইন্যান্সের সর্বোচ্চ দরপতন

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন-১৩ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হওয়া ৩৯৪ কোম্পানির মধ্যে ৩২৩টির শেয়ারদর কমেছে।...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার5 hours ago

সাপ্তাহিক দরবৃদ্ধির শীর্ষে সমতা লেদার

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন-১৩ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হওয়া ৩৯৪ কোম্পানির মধ্যে ৫৪টির শেয়ার ও...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার5 hours ago

সাপ্তাহিক লেনদেনের শীর্ষে বিকন ফার্মা

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন-১৩ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৩৯৪ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে লেনদেনের...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার22 hours ago

ঈদের আগে নেতিবাচক শেয়ারবাজার

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন থেকে ১৩ জুন) গড় লেনদেন ১৬ শতাংশের বেশি কমেছে।...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার1 day ago

কাস্টমস লাইসেন্স পেয়েছে সামিট পোর্টের সহযোগী কোম্পানি

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট লিমিটেডের সাবসিডিয়ারি কনটেইনার ট্রান্সপোর্টেশন সার্ভিসেস লিমিটেড (সিটিএসএল) ফ্রেইট ফরোয়ার্ডিং ও শিপিং এজেন্সি ব্যবসার জন্য...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার1 day ago

বন্ড ছেড়ে ৫০০ কোটি টাকা তুলবে ট্রাস্ট ব্যাংক

সাব-অর্ডিনেটেড বন্ড ইস্যু করে পুঁজিবাজার থেকে ৫০০ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে তালিকাভুক্ত ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন)...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার1 day ago

ভিআইপিবি ফিক্সড ইনকাম ফান্ডের প্রসপেক্টাস অনুমোদন

সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোাম্পানি লিমিটেডের ফিক্সড ইনকাম ফান্ডের খসড়া প্রসপেক্টাস অনুমোদন করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

ইউনাইটেড ফাইন্যান্সের লভ্যাংশ অনুমোদন

সমাপ্ত ২০২৩ অর্থবছরের জন্য ঘোষিত ৬ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইউনাইটেড ফাইন্যান্স লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ। বৃহস্পতিবার (...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

সিকদার ইন্স্যুরেন্সের লভ্যাংশ ঘোষণা

গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২৩ তারিখে সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সিকদার ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। আলোচ্য বছরের জন্য...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

এনআরবিসি ব্যাংকের নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন

সমাপ্ত ২০২৩ হিসাববছরের জন্য ঘোষিত ১১ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এনআরবিসি ব্যাংক পিএলসি। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) অনুষ্ঠিত...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

টেকনো ড্রাগসের আইপিওতে বিনিয়োগকারীদের ব্যাপক সাড়া

টেকনো ড্রাগস পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের নিকট থেকে ১০০ কোটি টাকার প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) আহ্বান করে। আজ বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) কোম্পানিটির...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

ব্লকে ৯৫ কোটি টাকার লেনদেন

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লকে ৩৪টি কোম্পানির মোট ৯৫ কোটি ৪৬ লাখ ৫৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

এনসিসি ব্যাংক পরিচালকের দুই কোটি শেয়ার হস্তান্তরের ঘোষণা

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল ক্রেডিট অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের (এনসিসি) এক পরিচালক দুই কোটি ১৪ লাখ শেয়ার হস্তান্তরের ঘোষণা...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

নগদ লভ্যাংশ পাঠিয়েছে ইউনিলিভার

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইউনিলিভার কনজিউমার কেয়ার লিমিটেড গত ৩১ ডিসেম্বর,২০২৩ সমাপ্ত হিসাববছরে জন্য ঘোষিত নগদ লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের কাছে পাঠিয়েছে। ঢাকা স্টক...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

বিমা খাতের তিন কোম্পানির ক্রেডিট রেটিং সম্পন্ন

পুঁজিবাজারে বিমা খাতে তালিকাভুক্ত তিন কোম্পানির ক্রেডিট রেটিং সম্পন্ন করা হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

রেসের সকল ফান্ডের ব্যাংক হিসাবের লেনদেন স্থগিতাদেশ বিএফআইইউয়ের

বাংলাদেশ রেস অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট পিসিএল এবং তার অধীনে পরিচালিত ফান্ডসমূহের সকল ব্যাংক হিসাবের লেনদেন স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

বাংলাদেশ ফাইন্যান্সের সর্বোচ্চ দরপতন

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৯৬টি কোম্পানির মধ্যে ১১৩টির দর কমেছে। সবচেয়ে বেশি দর কমেছে...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

দর বৃদ্ধির শীর্ষে লিগ্যাসি ফুটওয়্যার

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৯৬ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২২৪টির শেয়ারদর বেড়েছে। এর...

ডিএসই ডিএসই
পুঁজিবাজার2 days ago

দিনভর উত্থান দেখিয়ে ঈদের ছুটিতে শেয়ারবাজার

ঈদুল আজহার ছুটি পূর্ববর্তী এবং সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দিনভর দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সব মূল্যসূচকের ইতিবাচক ধারায়...

Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

ডিএসই
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার3 mins ago

ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মূল্যায়নে ১৩ নির্দেশনা

ডিএসই
জাতীয়29 mins ago

চামড়া বেচাকেনায় প্রভাব বিস্তার করলে ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার

ডিএসই
জাতীয়1 hour ago

মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা চলছে: কাদের

ডিএসই
জাতীয়2 hours ago

কর্মী নিতে আজারবাইজানকে অনুরোধ জানালো বাংলাদেশ

ডিএসই
জাতীয়2 hours ago

পদ্মা সেতুতে একদিনে প্রায় ৫ কোটি টাকা টোল আদায়

ডিএসই
জাতীয়2 hours ago

আজ ট্রেনযোগে ঢাকা ছাড়বে দেড় লাখ মানুষ

ডিএসই
রাজধানী3 hours ago

বাস টার্মিনালে মানুষের উপচেপড়া ভিড়

ডিএসই
লাইফস্টাইল3 hours ago

কোরবানির আগে গুছিয়ে রাখবেন যেসব কাজ

ডিএসই
আন্তর্জাতিক4 hours ago

পাকিস্তানে দাম কমলো পেট্রোলের

ডিএসই
জাতীয়4 hours ago

দেশে ১৯৭৪ সালের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টির ষড়যন্ত্র চলছে: প্রধানমন্ত্রী

ডিএসই
পুঁজিবাজার4 hours ago

ডিএসইর পিই রেশিও কমেছে

ডিএসই
পুঁজিবাজার4 hours ago

বাংলাদেশ ফাইন্যান্সের সর্বোচ্চ দরপতন

ডিএসই
পুঁজিবাজার5 hours ago

সাপ্তাহিক দরবৃদ্ধির শীর্ষে সমতা লেদার

ডিএসই
পুঁজিবাজার5 hours ago

সাপ্তাহিক লেনদেনের শীর্ষে বিকন ফার্মা

ডিএসই
জাতীয়6 hours ago

শিডিউল মেনেই ছাড়ছে ট্রেন, নেই ভোগান্তি

ডিএসই
জাতীয়6 hours ago

ঈদ নিরাপত্তায় নাগরিকদের যেসব পরামর্শ দিলো পুলিশ

ডিএসই
আন্তর্জাতিক6 hours ago

সিকিমে ভূমিধস, আটকা পড়েছেন ১০ বাংলাদেশি

ডিএসই
রাজধানী6 hours ago

আজ ঢাকার বাতাসের মান ‘মাঝারি’

ডিএসই
জাতীয়7 hours ago

বঙ্গবন্ধু সেতুতে ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ৪ কোটি টাকার টোল আদায়

ডিএসই
জাতীয়7 hours ago

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ১৩ কিলোমিটার যানজট

ডিএসই
আবহাওয়া7 hours ago

দুপুরের মধ্যে যেসব অঞ্চলে ঝড়ের আভাস

ডিএসই
ধর্ম ও জীবন7 hours ago

আজ পবিত্র হজ, আরাফাত ময়দানে মুখর লাব্বাইক ধ্বনি

ডিএসই
জাতীয়17 hours ago

বঙ্গবন্ধু সেতুতে ২৪ ঘন্টায় টোল আদায় তিন কোটি টাকা

ডিএসই
জাতীয়17 hours ago

সংসদ ভবনে ঈদের জামাত সকাল ৮ টায়

ডিএসই
জাতীয়17 hours ago

বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে সেনাপ্রধানের শ্রদ্ধা

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০