Connect with us

লাইফস্টাইল

সূর্যগ্রহণ সম্পর্কে যত ‘ভুল ধারণা’

Published

on

মূলধন

সূর্য ও পৃথিবীর মধ্যকার কক্ষপথে চাঁদ এসে পড়লে পৃথিবীর একটা অংশ সম্পূর্ণ ঢেকে যায় সেই ছায়ায়। আর এ কারণেই অন্ধকারে দিন হয়ে যায় রাতের মতো। মহাজাগতিক এ ঘটনাকে বলে পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ। আজ সোমবার (৮ এপ্রিল) এমনই এক বিরল পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণের সাক্ষী হতে যাচ্ছে বিশ্ব।

সোমবারের মহাজাগতিক এই দৃশ্য সরাসরি দেখা যাবে শুধুমাত্র যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা এবং মেক্সিকো থেকে। স্থানীয় সময় ১১টা ৭ মিনিটে মেক্সিকোর প্রশান্ত মহাসাগরীয় উপকূলে দেখা যাবে প্রথম সূর্যগ্রহণ। এরপর চাঁদের ছায়া আস্তে আস্তে সরে যাওয়ার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ২৭ মিনিটে দৃশ্যমান হবে সূর্যগ্রহণ।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আজ যেভাবে পূর্ণ সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে ২০৪৪ সালের মধ্যে এমনটি আর দেখা যাবে না। মহাজাগতিক এ ঘটনা ঘিরে যুগ যুগ ধরে বাংলাদেশসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মানুষের মাঝে নানারকম ‘ভুল ধারণা’ আছে। চলুন সেগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিই-

সূর্যগ্রহণ দেখা বিপজ্জনক

যতক্ষণ আপনি সঠিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা অনুসরণ করে চলবেন ততক্ষণ সূর্যগ্রহণ দেখা সম্পূর্ণ নিরাপদ। সূর্যকে পর্যবেক্ষণ করার সময় আপনার প্রতিরক্ষামূলক চশমা পরা উচিত, অর্থাৎ গ্রহণের শুরু থেকে আংশিক পর্যায় এবং সম্পূর্ণতা পর্যন্ত। এছাড়া অনেকে মাঝে চশমা খুলে পরে আবার পরে। এটি না করে চেষ্টা করুন পুরো সময় চশমা পরিধান করার।

রান্না করা

এরকম একটি কুসংস্কার প্রচলিত রয়েছে যে, সূর্যগ্রহণের সময় কোনো ধরণের খাবার বা পানীয় গ্রহণ করলে তা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। অনেক জায়গায় এরকমও ধারণা রয়েছে যে, সূর্যগ্রহণের সময় রান্না করা হলে ক্ষতিকর সূর্য রশ্মি এক ধরণের বিকিরণ তৈরি করে যা খাবারের ক্ষতি করে। তবে এ বিষয়ে বৈজ্ঞানিক ভিত্তি বিজ্ঞানীরা কখনোই পাননি।

গর্ভবতী নারীদের বাইরে বের হওয়া

গর্ভবতী নারীদের সূর্যগ্রহণ এড়ানো উচিত, কেননা এটি তার অনাগত সন্তানের জন্য ঝুঁকি তৈরি করে। অনেকেই মনে করেন, সূর্যগ্রহণের সময় গর্ভবতী নারীরা ঘরের বাইরে বের হলে গর্ভের সন্তানের শরীরে বিশেষ ধরণের জন্মদাগ থাকতে পারে। এমনকি হৃৎপিণ্ডে ছিদ্র থাকা বা বিকলঙ্গতা নিয়েও সন্তান জন্ম নিতে পারে। তাই ‘কুসংস্কার’ আছে, সূর্যগ্রহণের সময়ে গর্ভবতী নারীদের ঘরের বাইরে যাওয়া ঠিক হবে না। তবে নাসা বলছে, এই ধারণার কোনো বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই।

ভ্রমণ না করা

সূর্যগ্রহণ চলাকালীন ভ্রমণ করলে তা অমঙ্গলজনক- এমন একটি ধারণা প্রচলিত রয়েছে। আরেকটি ধারণা রয়েছে যে, সূর্যগ্রহণের সময় ভ্রমণ করলে গ্রহণের সময় সূর্য থেকে নিঃসৃত ক্ষতিকর রশ্মি গায়ে লেগে ত্বকের ক্ষতি করতে পারে।

সূর্যগ্রহণের সময় গাছ রোপণে ফুল প্রাণবন্ত হয়

কিছু ইউরোপীয় জাতির মধ্যে একটি প্রচলিত ধারণা আছে যে, সূর্যগ্রহণের সময় লাগানো ফুল অন্য সময়ে লাগানো ফুলের চেয়ে বেশি প্রাণবন্ত হয়ে ফুটে। সূর্যগ্রহণের সময় উদ্ভিদ কীভাবে প্রতিক্রিয়া জানায় সে সম্পর্কে যথেষ্ট তথ্য রয়েছে। এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, গাছপালা সূর্যগ্রহণের প্রতি অনেকটা সাড়া দেয়। মূলত গাছ দিনে কম পানি গ্রহণ করতে পারে এবং সালোকসংশ্লেষণ যা মূলত সূর্যালোকের উপর নির্ভর করে তা হ্রাস পেতে পারে।

গ্রহণের পর গোসল করা

সূর্যগ্রহণের ফলে তথাকথিত যেসব ক্ষতিকর রশ্মি শরীরের সংষ্পর্শে আসে, সেসব রশ্মির ক্ষতিকর প্রভাব থেকে ত্বককে রক্ষা করতে গ্রহণের শেষে গোসল করার উপদেশ দেয়া হয়ে থাকে কিছু ক্ষেত্রে। এটির কোনো ভিত্তি নেই।

বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যাহত

অনেকে বিশ্বাস করেন, সূর্যগ্রহণের সময় বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যাহত করতে পারে। আসল বিষয়টি হল- এটি বিদ্যুৎ সরবরাহকে প্রভাবিত করবে না। এমনকি সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদনে মিনিটের ব্যবধান বিদ্যুত গ্রিডের জন্য কোনো হুমকি সৃষ্টি করে না।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

লাইফস্টাইল

অ্যাপ বারবার ক্র্যাশ করছে? মেনে চলুন এসব টিপস

Published

on

মূলধন

স্মার্টফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে অ্যাপ ক্র্যাশ হওয়া একটি সাধারণ সমস্যা। চলাফেরা করার সময় হঠাৎ কোনো অ্যাপ বন্ধ হয়ে যায় বা হ্যাং হয়ে যায়, যখন এমনটি বারবার হয়, তখন যে কেউ বিরক্ত হতে পারে।

আসলে অ্যান্ড্রয়েডে অ্যাপ ক্র্যাশ হওয়ার অনেক কারণ থাকতে পারে। অ্যাপ ক্র্যাশ হওয়ার প্রধান কারণগুলোর মধ্যে রয়েছে পুরোনো সেকেলে অ্যাপ, অ্যাপ ডেটা লিক এবং সফ্টওয়্যার সংক্রান্ত যে কোনও সমস্যা।

এছাড়া, এটি ফোনে স্টোরেজ সমস্যা বা অ্যাপের পারমিশনের কারণেও ঘটে। কিছু টিপস অনুসরণ করে অ্যাপ ক্র্যাশ হওয়ার সমস্যা সমাধান করা যেতে পারে।

স্মার্টফোনে অ্যাপ ক্র্যাশের জন্য এই টিপসগুলো অনুসরণ করা উচিত;

ফোন রিস্টার্ট করা : যদি স্মার্টফোনে অ্যাপ ক্র্যাশ হওয়ার সমস্যার হয়, তাহলে ফোনটি রিস্টার্ট করে সমস্যা সমাধান করা যেতে পারে। ফোন বন্ধ করার পরে, অ্যাপটি আবার চালু করে চেক করা যেতে পারে।

সফ্টওয়্যার আপডেট : যদি প্রায়ই ফোনে আসা সফ্টওয়্যার আপডেটগুলোকে অ্যাক্টিভ না করা হয়, তবে এটিও অ্যাপ ক্র্যাশ হওয়ার একটি কারণ হিসেবে বিবেচিত হতে পারে।

পুরোনো সফ্টওয়্যার : পুরনো সফ্টওয়্যারগুলো অ্যাপের হ্যাং হয়ে যাওয়ার অন্যতম বড় কারণ। এমন পরিস্থিতিতে ফোন আপডেট করার পরামর্শ দেওয়া হয়।

অ্যাপ চিহ্নিত করা : যদি ফোনে একটি মাত্র অ্যাপই এই সমস্যার সম্মুখীন হয়, তাহলে অ্যাপ আপডেট করলেই সমাধান হতে পারে। এর জন্য প্লে স্টোরে গিয়ে অ্যাপটি সার্চ করে আপডেটে ক্লিক করতে হবে।

আনইনস্টল করা ও পুনরায় ইনস্টল করা : যদি ফোনে অ্যাপটি ক্র্যাশ হয়ে যায়, তাহলে এই অ্যাপটিকে আনইনস্টল করার অপশনে যেতে হবে। তবে, এই অ্যাপটি প্রয়োজন তাই অ্যাপটি প্লে স্টোরে গিয়ে আবার ইনস্টল করলেই সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে।

ফোন স্টোরেজ রাখা : অনেক সময় অ্যাপে অনেক ডেটা জমে যাওয়ায় বা ডেটার পরিমাণ বেড়ে যাওয়ায় ফোন ক্রাশ হতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে, যদি আমাদের ফোনটিও পুরনো হয়ে যায় এবং এতে ফটো, ভিডিও, মুভি এবং আরও অনেক ভারি ফাইল থাকে, তাহলে ফোনের স্টোরেজ খালি করতে হবে।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

রক্তদানের উপকারিতা জেনে নিন

Published

on

মূলধন

পৃথিবীতে যত ভালো কাজ আছে তার মধ্যে অন্যতম হলো রক্তদান করা। যারা নিঃস্বার্থভাবে রক্তদান করেন তাদের সম্মান জানাতে প্রতি বছর জুন মাসের ১৪ তারিখ বিশ্ব রক্তদাতা দিবস পালন করা হয়। ইভেন্টটি নিরাপদ রক্ত ​​এবং এর প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সচেতনতা ছড়িয়ে দেওয়ারও কাজ করে। বিশ্ব রক্তদাতা দিবস ২০২৪-এর থিম ছিল ‌‘দান উদযাপনের ২০ বছর: ধন্যবাদ, রক্তদাতারা!’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মতে, ইভেন্টের ২০ তম বার্ষিকী শুধুমাত্র রক্তদাতাদের ধন্যবাদ জানানোর একটি সময়োপযোগী সুযোগই নয়, এটি নিরন্তর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করার এবং নিরাপদ রক্তের ভবিষ্যতের দিকে অগ্রগতি ত্বরান্বিত করার একটি গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত।

রক্তদানের নিঃস্বার্থ কাজ অনেকের জীবন বাঁচাতে পারে এবং অনেক গ্রহীতাকে উপকৃত করতে পারে, আপনি কি জানেন যে রক্তদান রক্তদাতাকেও বিভিন্ন সুবিধা প্রদান করে? বিশেষজ্ঞদের মতে রক্তদানের অনেকগুলো উপকারিতা রয়েছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখে

রক্ত দেওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এটি জীবন বাঁচায়। প্রত্যেক দাতার রক্ত ​​তিনজন পর্যন্ত ভিন্ন ব্যক্তি ব্যবহার করতে পারেন যাদের ট্রান্সফিউশন বা অন্যান্য রক্তের পণ্য প্রয়োজন। নিঃস্বার্থভাবে করা এই কাজ পরিপূর্ণতা এবং ইতিবাচকতার অনুভূতি তৈরি করে। যা মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতি করে। রক্ত দান করলে তা মানসিক চাপ কমাতে কাজ করে, আত্মীয়তার অনুভূতি দিতে পারে এবং একাকিত্বের অনুভূতি কমাতে কাজ করে।

মিনি স্বাস্থ্য স্ক্রীনিং

রক্ত দান করার আগে কিছু শারীরিক পরীক্ষা এবং স্ক্রীনিং করতে হয়। এর মধ্যে রয়েছে নাড়ি, রক্তচাপ, শরীরের তাপমাত্রা এবং হিমোগ্লোবিনের মাত্রা পরীক্ষা করা। একজন ডাক্তার আপনার ক্লিনিকাল ইতিহাস পর্যালোচনা করে এবং স্বাস্থ্য মূল্যায়ন পরিচালনা করে। এতে করে আপনার স্বাস্থ্যের ছোটখাটো পরীক্ষা হয়ে যায়। যা আপনার কোনো রোগের ঝুঁকি থাকলে তা বুঝতে সাহায্য করে।

বিনামূল্যে রক্ত ​​বিশ্লেষণ

রক্তদানের মাধ্যমে আপনি বিনামূল্যে রক্তের বিশ্লেষণও পান, যা এইচআইভি, হেপাটাইটিস বি এবং সি সংক্রমণের পাশাপাশি সিফিলিসের মতো রোগের জন্য পরীক্ষা করে। রক্তদাতার কোনো সমস্যা থাকলে তা জানানো হয়, যাতে সে অতিরিক্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে পারে।

হৃদরোগ প্রতিরোধ

নিয়মিত রক্তদান রক্তে আয়রনের মাত্রা কমিয়ে হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে, যা অক্সিডেটিভ কমায়। এটি কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেমের ক্ষতি রোধ করে। ২০২২ সালে ট্রান্সফিউশন মেডিসিন রিভিউ জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় দেখা গেছে যে, রক্তদান হৃদরোগের বিরুদ্ধে লড়াই করতে কাজ করে। তবে রক্তদান হৃদরোগের ঝুঁকিকে প্রভাবিত করে কিনা তা নিশ্চিতভাবে নির্ধারণ করার জন্য আরও উচ্চ-মানের গবেষণা প্রয়োজন।

ক্যান্সার ঝুঁকি হ্রাস

জাতীয় ক্যান্সার ইনস্টিটিউটের জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণায় বলা হয়েছে যে, রক্তে আয়রনের মাত্রা হ্রাস হলে তা ক্যান্সারের ঝুঁকিকে প্রভাবিত করতে পারে। গবেষকরা দেখেছেন যে, যারা আয়রন রিডাকশন থেরাপি বা ফ্লেবোটমি করেছেন তাদের কন্ট্রোল গ্রুপের তুলনায় নতুন ভিসারাল ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি কম ছিল। রক্তদান শরীরের আয়রন সঞ্চয়কেও কমিয়ে দেয়, যা প্রমাণ করে যে আয়রনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখলে ক্যান্সারের ঝুঁকি কম হতে পারে।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

কোরবানির মাংস ফ্রিজে সংরক্ষণের আগে জেনে নিন বিষয়গুলো

Published

on

মূলধন

দরজায় কড়া নাড়ছে পবিত্র ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ। আর কোরবানির ঈদে গরু কিংবা খাসির মাংসের বেশ বড় একটা অংশ ফ্রিজে সংরক্ষণ করা হয়।

আর এ কোরবানির মাংস হক অনুযায়ী সবাইকে পৌঁছে দেওয়ার পর নিজেদের ভাগের মাংস পরবর্তীতে খাওয়ার জন্য সংরক্ষণ করেন অনেকেই।

তবে সঠিক উপায় না জেনে টাটকা মাংস সংরক্ষণ করলে দীর্ঘদিন তা ভালো নাও থাকতে পারে এবং মাংসের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই ফ্রিজে মাংস রাখার আগে কিছু বিষয় জেনে নেয়া জরুরি।

(১) কটি সাধারণ ভুল হলো মাংসের বড় অংশ একসঙ্গে ফ্রিজারে রাখা। এতে হিমায়িত হওয়ার পাশাপাশি ডিফ্রস্ট করাও বেশ ঝামেলাপূর্ণ হয়ে যায়। বারবার ভিজিয়ে রেখে ডিফ্রস্ট করার কারণে মাংসের স্বাদ নষ্ট হয়ে যায়। এমন পরিমাণে মাংস এক ব্যাগে রাখুন যেটা ডিফ্রস্ট করে রান্না করে ফেলবেন সঙ্গে সঙ্গে।

(২) ফ্রিজারের তাপমাত্রা শূন্য ডিগ্রি ফারেনহাইটে আছে কিনা তা নিশ্চিত করুন। এতে মাংসের পৃষ্ঠের সঙ্গে বড় বরফের স্ফটিক গঠিত হবে না। বড় আকৃতির বরফে মাংস আচ্ছাদিত হয়ে গেলে পরবর্তীতে মাংস শুকিয়ে যায় দ্রুত।

(৩) মাংসে চর্বির পরিমাণ যত কম হবে তত বেশিদিন সংরক্ষণ করা যাবে। তাই, মাংসের গায়ে লেগে থাকা চর্বিগুলো কেটে ফেলে দিন। এতে কোলেস্টেরলের পরিমাণও কমবে। মাংস কাটার দিকেও নজর দিতে হবে। মাংস বাসায় এনে চেষ্টা করুন ছোট ছোট স্লাইস করে রাখার। তা সম্ভব না হলে হাড় থেকে ছাড়িয়ে ছোট টুকরা করে ভালো করে ধুয়ে রাখুন।

(৪) মাংস রাখার আগে ফ্রিজের প্রতিটি চেম্বার বা ড্রয়ার ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে। শুধু মাংস ফ্রিজে ফেলে রাখা যাবে না। এতে করে ফ্রিজের অন্যান্য খাবারের সঙ্গে ক্রস কনটামিনেশন ঘটতে পারে। এভাবে ফেলে রাখতে পরবর্তীতে মাংস বের করতেও সমস্যা হব
(৫) ধুয়ে সংরক্ষণ করতে না চাইলে শুকনো কাপড় দিয়ে মাংসের রক্ত পরিষ্কার করে ফ্রিজে রেখে সংরক্ষণ করতে পারেন।

(৬) ফ্রিজার বার্ন রোধে জিপলক ব্যাগের পাশাপাশি অতিরিক্ত এক লেয়ারের পাতলা প্লাস্টিক অথবা ফয়েল পেপার ব্যবহার করতে পারেন।

(৭) মাংস সংরক্ষণের সময় প্যাকেটের গায়ে সংরক্ষণের তারিখ এবং গরু না খাসি সেটা লিখে রাখতে পারেন। এতে পরবর্তীতে চিনতে সমস্যা না হয় না

(৮) মাংস রাখার পর ঘন ঘন ফ্রিজের দরজা খুলবেন না। পাশাপাশি সঠিকভাবে দরজা বন্ধ করাও জরুরি।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

কোরবানির আগে গুছিয়ে রাখবেন যেসব কাজ

Published

on

মূলধন

ঈদুল আজহা বা কোরবানি ঈদের বাকি আর মাত্র এক দিন। এই ঈদে গৃহিণীদের কাজ অনেক বেড়ে যায়। কারণ ঈদুল আজহায় পশু কোরবানির পর মাংস ভাগ করে ধুয়ে সংরক্ষণ করা থেকে শুরু করে রান্না করা পর্যন্ত অনেক কিছুই লাগে হাতের কাছে।

তখন এটা সেটা হাতের কাছে না পেলে যেমন ঈদের দিন বিরক্ত হবেন, একই সঙ্গে সময়ও নষ্ট হয়। তাই ঈদুল আজহার প্রস্তুতি নিন এখন থেকেই। জেনে নিন কী কী-

রান্নার মসলা প্রস্তুত রাখুন

কোরবানির মাংস রাঁধতে প্রয়োজন হয় অনেক মসলার। পেঁয়াজ-রসুন-আদা বাটা থেকে শুরু করে গুঁড়া মসলা যেমন- হলুদ, মরিচ, জিরা, ধনিয়া ও গরম মসলাসহ যাবতীয় নানা মসলা আগে থেকেই সংরক্ষণ করুন।

যন্ত্রপাতি গুছিয়ে নিন

পশু জবাই করার জন্য খুটিনাটি যন্ত্রপাতি হাতের নাগালে রাখতে হবে। অনেকের বাড়িতেই হয়তো পুরোনো ছুরি, বটি বা ইত্যাদি যন্ত্রপাতি থেকে থাকবে।

সেগুলো ঈদের আগেই ধারালো করে নিন ও গরম পানিতে ১-২ মিনিট ডুবিয়ে রেখে ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন। এতে জীবাণু আর না থাকবে না। আর যাদের যন্ত্রপাতি নেই, তারা ঈদের আগেই কিনে রাখুন।

আর যদি বিরিয়ানি রান্না করতে চান, সেক্ষেত্রে আরও কিছু মসলা আগের থেকেই গুছিয়ে রাখুন। চাইলে এখন থেকেই গুঁড়া মসলাগুলো প্রস্তুত করে কৌটায় ভরে রাখুন। আর বাটা ও কাটা মসলাগুলো জিপলক ব্যাগ বা কৌটায় ফ্রিজের ডিপে রেখে সংরক্ষণ করুন।

মাংস সংরক্ষণের ব্যবস্থা করে রাখুন

কোরবানির মাংস ঘরে আনার পর সব আলাদা করে ভাগ করে রাখুন। যেমন-সিনার মাংস, কলিজা, ভুড়ি, পায়ের মাংস, মগজ, ইত্যাদি ভাগ করে ফেলতে হবে।

ফ্রিজে রাখার আগে ভালো করে মাংস ধুয়ে রাখবেন। ফুড গ্রেডের প্লাস্টিকের ব্যাগেই মাংস রাখা উত্তম। এই প্যাকেটগুলো ঈদের আগেই গুছিয়ে করে রাখুন। যাতে প্রয়োজনের সময় খুঁজতে না হয়। মাংস ছোট ছোট করে প্যাকেট করে রাখুন।

প্রতিটি প্যাকেটের গায়ে কোন মাংস তা লিখে রাখলে খুঁজে বের কররাও সহজ হবে। অবশ্যই কোরবানির মাংস ৪-৬ মাসের বেশি সংরক্ষণ করবেন না। তাহলে মাংসের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়।

ঈদের বাজার

যেহেতু ঈদের বাকি আর মাত্র কয়দিন, তাই সময় বাঁচাতে এখনই করে রাখুন ঈদের বাজার। সেমাই-চিনি থেকে শুরু করে ঈদের দিন মিষ্টান্ন রান্নার জন্য যাবতীয় পদ তৈরির প্রয়োজনী উপকরণ কিনুন মনে করে।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

ব্রেন টিউমারের পাঁচ লক্ষণ জেনে নিন

Published

on

মূলধন

ব্রেন টিউমারের বিভিন্ন লক্ষণ প্রকাশ হতে পারে। অনেক সময় সাধারণ লক্ষণগুলো সহজে চেনা যায় না। ফলে চিকিৎসা নিতে দেরি হয়ে যায়। তাই সাধারণ লক্ষন দেখা দিলেও অবহেলা করা একদমই উচিত নয়। কারণ দেরি করলে তখন অবস্থা আরও খারাপ হয়ে যেতে পারে। তাই আগেভাগে লক্ষণ জেনে নেওয়া জরুরি। এতে লক্ষণ চেনা এবং চিকিৎসা নেওয়া সহজ হয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক ব্রেন টিউমারের লক্ষণ-

অনবরত মাথাব্যথা
আপনার কি মাথাব্যথা লেগেই থাকে? তাহলে এটি সাধারণ সমস্যা মনে করে এড়িয়ে যাবেন না। বরং মারাত্মক কোনো সমস্যার কারণ হতে পারে এটি। তাই একটানা মাথাব্যথা থাকলে বিশেষ করে যা কাশির সঙ্গে কিংবা সকালে বাড়ে এমন মাথাব্যথা হলে হতে পারে তা টিউমারের লক্ষণ। তাই এ ধরনের সমস্যায় সতর্ক হোন।

ব্যক্তিত্বের পরিবর্তন
আপনি হয়তো আগে অনেক হাসিখুশি ছিলেন কিন্তু ইদানিং অনেকটাই চুপচাপ হয়ে যাচ্ছেন। বিরক্তি, উদাসীনতা বা অনুপযুক্ত আচরণ, মানসিক নিয়ন্ত্রণ এবং আবেগ নিয়ন্ত্রণের জন্য দায়ী নির্দিষ্ট মস্তিষ্কের টিউমার হতে পারে। তাই আচরণে বড় ধরনের পরিবর্তন এলে সতর্ক হোন।

দৃষ্টিতে সমস্যা
ব্রেন টিউমারের কারণে দৃষ্টিতে সমস্যা দেখা দিতে পারে। অপটিক স্নায়ু, পিটুইটারি গ্রন্থি বা ওসিপিটাল লোবকে প্রভাবিত করে এমন টিউমার ডাবল ভিশন, ঝাপসা দৃষ্টি অথবা এক বা উভয় চোখে আংশিক কিংবা সম্পূর্ণ দৃষ্টি কমে যাওয়ার মতো সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। তাই আপনার যদি দৃষ্টিতে সমস্যা হয় তাহলে দ্রুত চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

দুর্বলতা
দুর্বলতা নানা কারণেই হতে পারে। এই সমস্যা মানেই ব্রেন টিউমার নয়। তবে ব্রেন টিউমারের অন্যতম লক্ষণ হলো দুর্বলতা। তাই কোনো কারণ ছাড়াই দুর্বলতা লেগে থাকলে কিংবা শরীরের বিভিন্ন স্থানে অসাড়তা অনুভব করলে চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলুন। হতে পারে এটি ব্রেন টিউমারের লক্ষণ।

হরমোনের ভারসাম্যহীনতা
পিটুইটারি বা হাইপোথ্যালামিক টিউমার হরমোনের সূক্ষ্ম ভারসাম্যকে ব্যাহত করতে পারে, যে কারণে অকারণেই অনেকটা ওজন বেড়ে কিংবা কমে যায়। সেইসঙ্গে তৃষ্ণা বা প্রস্রাবের ধরনেও পরিবর্তন দেখা দিতে পারে। তাই এ ধরনের লক্ষণ দেখলে সতর্ক হোন এবং দ্রুত চিকিৎসা নিন।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

শেয়ারবাজারের সর্বশেষ

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার21 hours ago

মূলধন বাড়ানোর অনুমতি পেল আল-আমিন কেমিক্যাল

পুঁজিবাজারে ওভার দ্য কাউন্টার (ওটিসি) মার্কেটে তালিকাভুক্ত কোম্পানি আল-আমিন কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডকে পরিশোধিত মূলধন বাড়ানোর বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার2 days ago

ডিএসইর পিই রেশিও কমেছে

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন -১৩ জুন) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পিই রেশিও (সার্বিক মূল্য আয় অনুপাত) কমেছে। আগের সপ্তাহের তুলনায়...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার2 days ago

বাংলাদেশ ফাইন্যান্সের সর্বোচ্চ দরপতন

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন-১৩ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হওয়া ৩৯৪ কোম্পানির মধ্যে ৩২৩টির শেয়ারদর কমেছে।...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার2 days ago

সাপ্তাহিক দরবৃদ্ধির শীর্ষে সমতা লেদার

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন-১৩ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হওয়া ৩৯৪ কোম্পানির মধ্যে ৫৪টির শেয়ার ও...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার2 days ago

সাপ্তাহিক লেনদেনের শীর্ষে বিকন ফার্মা

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন-১৩ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৩৯৪ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে লেনদেনের...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার3 days ago

ঈদের আগে নেতিবাচক শেয়ারবাজার

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন থেকে ১৩ জুন) গড় লেনদেন ১৬ শতাংশের বেশি কমেছে।...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার3 days ago

কাস্টমস লাইসেন্স পেয়েছে সামিট পোর্টের সহযোগী কোম্পানি

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট লিমিটেডের সাবসিডিয়ারি কনটেইনার ট্রান্সপোর্টেশন সার্ভিসেস লিমিটেড (সিটিএসএল) ফ্রেইট ফরোয়ার্ডিং ও শিপিং এজেন্সি ব্যবসার জন্য...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার3 days ago

বন্ড ছেড়ে ৫০০ কোটি টাকা তুলবে ট্রাস্ট ব্যাংক

সাব-অর্ডিনেটেড বন্ড ইস্যু করে পুঁজিবাজার থেকে ৫০০ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে তালিকাভুক্ত ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন)...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার3 days ago

ভিআইপিবি ফিক্সড ইনকাম ফান্ডের প্রসপেক্টাস অনুমোদন

সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোাম্পানি লিমিটেডের ফিক্সড ইনকাম ফান্ডের খসড়া প্রসপেক্টাস অনুমোদন করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার3 days ago

ইউনাইটেড ফাইন্যান্সের লভ্যাংশ অনুমোদন

সমাপ্ত ২০২৩ অর্থবছরের জন্য ঘোষিত ৬ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইউনাইটেড ফাইন্যান্স লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ। বৃহস্পতিবার (...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার3 days ago

সিকদার ইন্স্যুরেন্সের লভ্যাংশ ঘোষণা

গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২৩ তারিখে সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সিকদার ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। আলোচ্য বছরের জন্য...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার4 days ago

এনআরবিসি ব্যাংকের নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন

সমাপ্ত ২০২৩ হিসাববছরের জন্য ঘোষিত ১১ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এনআরবিসি ব্যাংক পিএলসি। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) অনুষ্ঠিত...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার4 days ago

টেকনো ড্রাগসের আইপিওতে বিনিয়োগকারীদের ব্যাপক সাড়া

টেকনো ড্রাগস পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের নিকট থেকে ১০০ কোটি টাকার প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) আহ্বান করে। আজ বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) কোম্পানিটির...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার4 days ago

ব্লকে ৯৫ কোটি টাকার লেনদেন

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লকে ৩৪টি কোম্পানির মোট ৯৫ কোটি ৪৬ লাখ ৫৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার4 days ago

এনসিসি ব্যাংক পরিচালকের দুই কোটি শেয়ার হস্তান্তরের ঘোষণা

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল ক্রেডিট অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের (এনসিসি) এক পরিচালক দুই কোটি ১৪ লাখ শেয়ার হস্তান্তরের ঘোষণা...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার4 days ago

নগদ লভ্যাংশ পাঠিয়েছে ইউনিলিভার

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইউনিলিভার কনজিউমার কেয়ার লিমিটেড গত ৩১ ডিসেম্বর,২০২৩ সমাপ্ত হিসাববছরে জন্য ঘোষিত নগদ লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের কাছে পাঠিয়েছে। ঢাকা স্টক...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার4 days ago

বিমা খাতের তিন কোম্পানির ক্রেডিট রেটিং সম্পন্ন

পুঁজিবাজারে বিমা খাতে তালিকাভুক্ত তিন কোম্পানির ক্রেডিট রেটিং সম্পন্ন করা হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার4 days ago

রেসের সকল ফান্ডের ব্যাংক হিসাবের লেনদেন স্থগিতাদেশ বিএফআইইউয়ের

বাংলাদেশ রেস অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট পিসিএল এবং তার অধীনে পরিচালিত ফান্ডসমূহের সকল ব্যাংক হিসাবের লেনদেন স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার4 days ago

বাংলাদেশ ফাইন্যান্সের সর্বোচ্চ দরপতন

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৯৬টি কোম্পানির মধ্যে ১১৩টির দর কমেছে। সবচেয়ে বেশি দর কমেছে...

মূলধন মূলধন
পুঁজিবাজার4 days ago

দর বৃদ্ধির শীর্ষে লিগ্যাসি ফুটওয়্যার

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৯৬ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২২৪টির শেয়ারদর বেড়েছে। এর...

Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

মূলধন
আন্তর্জাতিক8 hours ago

পারিশ্রমিক ছাড়াই মক্কায় মসজিদের নকশা করেন তিনি

মূলধন
খেলাধুলা8 hours ago

সিঙ্গাপুরকে ৭ গোলে হারিয়ে শূভ সূচনা বাংলাদেশের

মূলধন
সারাদেশ8 hours ago

সিলেটে কখন কোথায় ঈদের জামাত

মূলধন
ধর্ম ও জীবন9 hours ago

কোরবানির পশুর গোশত ভাগ করার বিধান

মূলধন
জাতীয়9 hours ago

দেশের নিরাপত্তায় সশস্ত্র বাহিনী প্রস্তুত আছে: হানিফ

মূলধন
জাতীয়9 hours ago

রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আজহা

মূলধন
আন্তর্জাতিক9 hours ago

চীনে চাহিদার তুলনায় ভুট্টা উৎপাদন বাড়বে

মূলধন
আন্তর্জাতিক10 hours ago

সৌদিতে অন্তত ১৯ হজযাত্রী নিহত

মূলধন
খেলাধুলা10 hours ago

নেপালের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

মূলধন
জাতীয়10 hours ago

সেন্টমার্টিন নিয়ে গুজব ছড়ানো হচ্ছে: আইএসপিআর

মূলধন
জাতীয়11 hours ago

একই স্থানে কোরবানি হবে ৫০০ গরু-ছাগল

মূলধন
আন্তর্জাতিক11 hours ago

ভারতে পাঠ্যবই থেকে মুছে গেলো বাবরি মসজিদের নাম

মূলধন
অর্থনীতি11 hours ago

দেশের ভেতরে ক্রেডিট কার্ডের ব্যবহার কমেছে

মূলধন
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার11 hours ago

ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ দিচ্ছে আইএফআইসি ব্যাংক

মূলধন
আবহাওয়া11 hours ago

ঈদে ভ্যাপসা গরম, কোথাও কোথাও বৃষ্টিপাতের আভাস

মূলধন
জাতীয়12 hours ago

ঈদের দিন চলবে একটি ট্রেন

মূলধন
জাতীয়13 hours ago

মাটির নিচে থেকে উদ্ধার চুরির ৫২ লাখ টাকার

মূলধন
জাতীয়13 hours ago

ঈদে প্রস্তুত চিড়িয়াখানা-জাদুঘর-পার্ক ও বিনোদনকেন্দ্র

মূলধন
স্বাস্থ্য13 hours ago

ঈদে জরুরি সেবায় থাকবেন ৪০ শতাংশ স্বাস্থ্যকর্মী

মূলধন
খেলাধুলা14 hours ago

সুপার এইট নিশ্চিতের লক্ষ্যে আগামীকাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ

মূলধন
জাতীয়14 hours ago

ট্রেনে মাংস পরিবহন না করার অনুরোধ

মূলধন
জাতীয়14 hours ago

ঈদের দিন সকালে বন্ধ থাকবে রাজধানীর যেসব সড়ক

মূলধন
অর্থনীতি14 hours ago

‘ভুটানিজ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল’ দ্রুত বাস্তবায়নে পদক্ষেপের আহ্বান

মূলধন
অর্থনীতি15 hours ago

ঈদের আগে বাড়লো রিজার্ভ

মূলধন
অর্থনীতি15 hours ago

বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায়ে নতুন রেকর্ড

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০