Connect with us

সারাদেশ

পাটকলের আগুন আংশিক নিয়ন্ত্রণে, যোগ দিয়েছে নৌবাহিনী

Published

on

বাজার মূলধন

খুলনার রূপসায় সালাম জুট মিলের আগুন আংশিক নিয়ন্ত্রণে এসেছে। পাঁচ ঘণ্টার বেশি সময়ের চেষ্টায় ফায়ার সার্ভিস ও নৌবাহিনীর ফায়ার ইউনিটের সমন্বিত ১৬টি ইউনিট আগুন আংশিক নিয়ন্ত্রণে এনেছে।

ফায়ার সার্ভিস খুলনার সহকারী পরিচালক মো. ফারুক হোসেন সিকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনতে আরও সময় লাগবে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, বুধবার (৩ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রূপসা উপজেলার জাবুসা এলাকায় অবস্থিত সালাম জুট মিলের পাটের গুদামে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিস খুলনা ও বাগেরহাটের সঙ্গে নৌ বাহিনীর দুটিসহ মোট ১৬টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে যাচ্ছে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে আগুন আংশিক নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়।

আগুনে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া না গেলেও আশপাশের এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সালাম জুট মিলে শুকনো পাট থাকায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। ফলে আগুন নেভাতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে। সূতা ও রপ্তানিযোগ্য পাটজাত পণ্য সেখানে মজুত করা ছিল। মূলত পাটের সূতা উৎপাদন করা হতো। প্রথমে জুট মিলটির ৩ নম্বর গুদামে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে বিভিন্ন গুদামে ছড়িয়ে পড়ে।

মিল কর্তৃপক্ষ বলেছে, মিলটিতে উৎপাদিত সাড়ে ৭০০ টন সূতা মজুত ছিল।

পাটকলের শ্রমিকরা জানান, বিকেলে হঠাৎ করে জুট মিলে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১৪টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় নৌবাহিনীর দুটি ইউনিট। এখনো আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আগুনে অনেক পাট পুড়ে গেছে। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

জুট মিলের মালিক এম এম এ সালাম বলেন, আগুনে প্রায় ৭৫০ টন রপ্তানি উপযোগী পাটজাতপণ্য, প্রায় ৩৫ হাজার মণ কাঁচাপাট এবং মিলের যন্ত্রপাতি পুড়ে গেছে। সবমিলিয়ে ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১২৫ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে। কন্টিনেন্টাল ইনস্যুরেন্সে তার ৫০ কোটি টাকার ইনস্যুরেন্স করা রয়েছে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সারাদেশ

ঝালকাঠিতে ত্রিমুখী সংঘর্ষে ১২ জনের মৃত্যু

Published

on

বাজার মূলধন

ঝালকাঠিতে ট্রাক-প্রাইভেটকার-অটোরিকশার ত্রিমুখী সংঘর্ষে ১২ জন মারা গেছে। আহত হয়েছেন অন্তত ১৭ জন। আহতদের ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে ১০ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আজ বুধবার (১৭ এপ্রিল) ঝালকাঠি পৌরসভার গাবখান ব্রিজের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

তাৎক্ষণিকভাবে নিহত ও আহতদের নাম-পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। এ ঘটনায় খুলনা-বরিশাল সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আফরুজুল হক টুটুল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, টোল প্লাজায় টাকা দেওয়ার অপেক্ষায় ছিল অটোরিকশা, প্রাইভেটকারসহ কয়েকটি গাড়ি। এ সময় সিমেন্টবোঝাই ট্রাকটি সামনে থাকা এসব গাড়িকে ধাক্কা দিলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও স্থানীয়রা উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানান তারা।

দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ঝালকাঠির সিভিল সার্জন জয়নুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। ঘটনাস্থলে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস। সাথে স্থানীয়রাও পুলিশকে সহায়তা করছেন।

ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক তারাহ গুল নিঝুম গণমাধ্যমকে জানান, ঝালকাঠির গাবখান সেতু টোল প্লাজায় সিমেন্টবোঝাই ট্রাক তিনটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও একটি প্রাইভেটকারকে পেছন থেকে চাপা দেয়। এতে বড় ধরনের হতাহতের ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনা তদন্তে ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. রুহুল আমিনকে প্রধান করে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ঝালকাঠি ফায়ার সার্ভিসের স্পেশাল অফিসার শফিকুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় সিমেন্টবোঝাই ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। এ ছাড়া দুর্ঘটনাকবলিত যানবাহনগুলোর উদ্ধার কার্যক্রম চলমান আছে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম জানান, দুর্ঘটনায় ১২ জন নিহত হয়েছেন। মরদেহ ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে রয়েছে। দ্রুতই যান চলাচল স্বাভাবিক হবে।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

সারাদেশ

মুক্তি পাওয়া ২৩ নাবিক দেশে ফিরবেন যেভাবে

Published

on

বাজার মূলধন

সোমালিয়ান জলদস্যুদের কবল থেকে মুক্ত হওয়া জাহাজ এমভি আবদুল্লাহর ২১ নাবিক ওই জাহাজে করেই দেশে ফিরবেন। এছাড়া ২ নাবিক সংযুক্ত আরব আমিরাতের আল হারমিয়া বন্দরে পৌঁছে বিমানযোগে দেশে ফিরবেন। নাবিকদের নিজ নিজ ইচ্ছায় এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে জাহাজের মালিকপক্ষ।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) এ বিষয়ে কেএসআরমের মালিকানাধীন এসআর শিপিংয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মেহেরুল করিম বলেন, এমভি আবদুল্লাহ আগামী ২২ এপ্রিল সকালে আল হারমিয়া বন্দরে পৌঁছবে। সেখান থেকে দুজন নেমে গিয়ে বিমানযোগে দেশে ফিরবেন। বাকিরা জাহাজে করেই দেশে ফিরবেন।

বাংলাদেশ সময় শনিবার (১৩ এপ্রিল) দিবাগত রাত ৩টা ৮ মিনিটের দিকে এমভি আবদুল্লাহ থেকে দস্যুরা নেমে যায়। এর আগে একইদিন বিকেলে দস্যুরা তাদের দাবি অনুযায়ী মুক্তিপণ বুঝে নেয়। একটি বিশেষ উড়োজাহাজে মুক্তিপণ বাবদ ৩ ব্যাগ ডলার এমভি আবদুল্লাহর পাশে সাগরে ছুড়ে ফেলা হয়। স্পিড বোট দিয়ে দস্যুরা ব্যাগ ৩টি কুড়িয়ে নেন।

দস্যুমুক্ত হয়ে শনিবার রাতে সোমালিয়ার উপকূল থেকে আরব আমিরাতের পথে রওনা দেয় এমভি আবদুল্লাহ। এরপর নিরাপদ জলসীমায় আনা পর্যন্ত এমভি আবদুল্লাহকে নিরাপত্তা দেয় ইউরোপীয় ইউনিয়নের নৌবাহিনীর দুটি যুদ্ধজাহাজ। একইসঙ্গে এমভি আবদুল্লাহর চারদিকে কাঁটাতারের নিরাপত্তা বেষ্টনী লাগানো হয়। প্রস্তুত করে রাখা হয় জাহাজে নিরাপত্তার জন্য সংরক্ষিত এলাকা সিটাডেল, ইমার্জেন্সি ফায়ার পাম্প এবং সাউন্ড সিগন্যাল।

এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

সারাদেশ

ফরিদপুরে বাস-পিকআপ সংঘর্ষে নিহত ১২

Published

on

বাজার মূলধন

ফরিদপুরে বাস ও পিকআপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১২ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে ১১ জন ঘটনাস্থলে এবং একজন হাসপাতালে মারা যান। আজ মঙ্গলবার সকাল পৌনে ৮টার দিকে ফরিদপুর সদরের কানাইপুর ইউনিয়নের দিগনগর তেঁতুলতলা এলাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা থেকে মাগুরাগামী ইউনিক পরিবহনের সঙ্গে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থেকে আসা একটি পিকআপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে ১১ জন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজন মারা যান।

এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে করিমপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সালাউদ্দিন চৌধুরী বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহত ব্যক্তিদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে হতাহতদের নাম-ঠিকানা জানা সম্ভব হয়নি।

এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

সারাদেশ

পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় একজন নিহত

Published

on

বাজার মূলধন

পদ্মা সেতুতে দ্রুতগতির একটি মোটরসাইকেলের ধাক্কায় এক মাইক্রোবাস চালক নিহত হয়েছেন। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সেতুর ওপর পেছনের চাকা বিস্ফোরিত হলে মাইক্রোবাসের চালক মোহাম্মদ তৈয়ব আলী (৩৪) গাড়ি থামিয়ে সেটি পরীক্ষা করার জন্য নামেন। তখন দ্রুতগতির ওই মোটরসাইকেলটি এসে তাকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

পুলিশ জানায়, সকালে মুন্সিগঞ্জ সদরের সিপাহীপাড়া এলাকা থেকে যাত্রী নিয়ে একটি মাইক্রোবাস গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীর দিকে যাচ্ছিল। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সেতুর মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের ১১ ও ১২ নাম্বার পিলারের মাঝামাঝি বিকট শব্দে মাইক্রোবাসটির পিছনের চাকা বিস্ফোরিত হয়। পরে তৈয়ব আলী গাড়ি থেকে নেমে চাকা মেরামতের চেষ্টা চালানোর সময় মোটরসাইকেলটি তাকে ধাক্কা দেয়।

এরপর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত মোটরসাইকেল চালক আজমীর হোসেন (২৮) ও তার স্ত্রী শ্রাবণী ইসলামকে (২৭) আটক করে পুলিশ ও সেতু নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কর্মীরা। আটকের কথা নিশ্চিত করেন মাওয়া ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর এএসএম জিয়াউল হায়দার। তিনি বলেন, পদ্মা সেতু উত্তর থানা পুলিশের সদস্যরা তাদের আটক করেছেন।

পুলিশ আরো জানায়, নিহত তৈয়ব আলী গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী থানার বাগিয়া এলাকার মো. বেলায়েত শেখের ছেলে। তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

মোটরসাইকেলের অতিরিকত গতিকে দুর্ঘটনার প্রাথমিক কারণ মনে করছে পুলিশ। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে বিষয়টি পর্যালোচনা করছেন তারা।

এদিকে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের টোল ম্যানেজার আহামেদ হক জানান, দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থল থেকে মাইক্রোবাস ও মোটরসাইকেলসহ মরদেহ সরিয়ে নিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় সেতুতে যানবাহন চলাচলে কোনো বিঘ্ন সৃষ্টি হয়নি। যান চলাচল পুরোপুরি স্বাভাবিক রয়েছে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

সারাদেশ

ঈদের দিনে বেপরোয়া মোটরসাইকেলে প্রাণ গেলো তিনজনের

Published

on

বাজার মূলধন

নেত্রকোনার কলমাকান্দা সীমান্ত এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে এক মোটরসাইকেলের তিনজন আরোহীই নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) ঈদের দিন বিকালে উপজেলার লেঙ্গুড়া ইউনিয়নের লেঙ্গুরা চেংনী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- হৃদয় নিয়া (২২), হালিম হোসেন (১৮) ও নবী হোসেন (৩৫)। তারা সবাই কলমাকান্দা উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানের বাসিন্দা।

কলমাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ লুৎফুল হক সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খালি সীমান্ত সড়কে একটি মোটরসাইকেলে তিনজন বেপরোয়া গতিতে যাচ্ছিল। এসময় চেংনী বাজারের কাছে পৌঁছতেই মোটরসাইকেলের সামনের চাকা পাংচার হয়। এতে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তিন আরোহী নিহত হন।

ওসি আরও জানান, এ ব্যাপারে আইনি পদক্ষেপ নিয়ে লাশ হস্তান্তর করা হবে। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে কলমাকান্দা থানায় নিয়ে আসে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন
বাজার মূলধন
আন্তর্জাতিক11 hours ago

চ্যালেঞ্জের মুখে ইন্দোনেশিয়ার পাম অয়েল উৎপাদন ও রফতানি

বাজার মূলধন
খেলাধুলা11 hours ago

আর্জেন্টাইন গোলরক্ষককে ১১ ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা

বাজার মূলধন
জাতীয়11 hours ago

পালিয়ে আসা ২৮৫ জনকে ফেরত নিচ্ছে মিয়ানমার

বাজার মূলধন
আবহাওয়া11 hours ago

দেশব্যাপী তিনদিনের হিট অ্যালার্ট জারি

বাজার মূলধন
পুঁজিবাজার11 hours ago

ডিএসইর বাজার মূলধন বাড়লো সাড়ে ২১ হাজার কোটি টাকা

বাজার মূলধন
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার12 hours ago

রোজা-ঈদের ছুটি শেষে রবিবার খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

বাজার মূলধন
জাতীয়12 hours ago

শিশু হাসপাতালে আগুনের ঘটনায় ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি

বাজার মূলধন
আন্তর্জাতিক12 hours ago

এশিয়ার মুদ্রা শক্তিশালী করতে সমন্বিত পদক্ষেপের ইঙ্গিত

বাজার মূলধন
আবহাওয়া13 hours ago

দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায়, হিট এলার্ট জারি 

বাজার মূলধন
জাতীয়13 hours ago

ভাষানটেক পুনর্বাসন প্রকল্পের কাজ দ্রুত শুরুর তাগিদ

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০