Connect with us

লাইফস্টাইল

রমজানে ওজন কমানোর সহজ উপায়

Published

on

ন্যাশনাল হাউজিং

রোজার মাসে সেহরি এবং ইফতারে সুস্বাদু খাবার খাওয়ার ইচ্ছে আপনার হতেই পারে। অবশ্য বেশিরভাগই এই এক মাসে কযেক কেজি ওজন কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তাই না? তবে এসময় ইফতারে নানা রকম মুখরোচক খাবার বিশেষ করে ভাজা খাবার এবং মিষ্টি খাওয়ার ফলে অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে ওজন বৃদ্ধি পায়। আপনি যদি রোজার মাসে সেহরি ও ইফতারে খাবারের দিকে খেয়াল রাখতে পারেন তাহলে ওজন কমানো বেশ সহজ হয়ে যাবে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক-

সেহরির জন্য

১. দুই গ্লাস পানি, পাঁচ থেকে সাতটি ভেজানো বাদাম, একটি আখরোট এবং আপনার পছন্দের একটি ফল দিয়ে সেহরি শুরু করুন। পুষ্টিবিদ মোহিতার মতে, আপনি আপেল, পেঁপে, ডালিম এবং আঙুর থেকে বেছে নিতে পারেন।

২. আপনার পছন্দের সবজির সঙ্গে তিনটি ডিম রান্না করে এবং একটি টোস্ট বা পরোটার সঙ্গে মুড়িয়ে নিন। বিশেষজ্ঞ বলেছেন যে, ডিমের পালং শাক, মাশরুম, বেল মরিচ বা টমেটো যোগ করতে পারেন। এরপর সেটি খেয়ে নিন।

ইফতারের জন্য

১. খেজুর দিয়ে রোজা ভাঙুন, তারপরে এক গ্লাস পানি, ডাবের পানি, লাচ্ছি ইত্যাদি খান।

২. এর পরে এক কাপ চা এবং কিছু ভাজা ছোলা খেতে পারেন।

রাতের খাবারের জন্য

১. এক কাপ মুরগি বা মাছ বা চিংড়ি রাখুন।

২. দুই কাপ ভাজা বা ভাপানো সবজি যোগ করুন। সালাদও খেতে পারেন।

৩. কিছু ভাত বা রুটি নিন।

৪. মিষ্টি বা চকলেটের একটি ছোট টুকরো ডেজার্টের জন্য নিন।

রমজানে ওয়ার্কআউট খাবারের পরিকল্পনা

সন্ধ্যায় রোজা ভাঙার পর অন্তত আধা ঘণ্টা ব্যায়াম করার বা দ্রুত হাঁটার পরামর্শ দেওয়া হয়। পুষ্টিবিদ মোহিতা আরও বলেছেন যে, আপনি বাড়িতে কিছু ওজন উত্তোলন বা কম প্রভাবের কার্ডিও করতে পারেন।

– জিমে যাওয়ার আগে বা হাঁটতে যাওয়ার আগে একটি কলা খান।

– ওয়ার্কআউটের পরে পানির সঙ্গে প্রোটিন পাউডার মিশিয়ে খান।

অবশ্যই সপ্তাহে একটি দিন নিজের পছন্দের খাবার উপভোগের জন্য রাখতে হবে তবে খাবারের পরিমাণের দিকে নজর রাখতে হবে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

লাইফস্টাইল

হাত-পায়ের তালু ঘামলে যা করবেন

Published

on

ন্যাশনাল হাউজিং

ঘাম হওয়া মানুষের জীবনে স্বাভাবিক ব্যাপার। এটি কোনো অসুখ নয়। তবে অতিরিক্ত ঘাম নিয়ে অনেকেই অস্বস্তিতে ভোগেন। দেহের স্বাভাবিক তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে অতিরিক্ত ও অপ্রয়োজনীয় ঘাম হওয়াকে চিকিৎসা-বিজ্ঞানে ‘হাইপারহাইড্রোসিস’ বলা হয়।

শরীরের পাশাপাশি দেহের নির্দিষ্ট জায়গাতেও এরকম হতে পারে। যেমন- হাত ও পায়ের তালু। এতে করে প্রতিদিনের বিভিন্ন কাজ যেমন লেখালেখি, মোবাইল-কম্পিউটার চালানোতে অসুবিধা হয়। কেডস, বুট বা স্নিকার্স পরলে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়। এই সমস্যাটি শীতকালে বেশি দেখা যায়। তবে গরমেও হতে পারে। এই ধরনের সমস্যা নিয়ন্ত্রণের কিছু ঘরোয়া উপায় আছে:

পানি
পানি শরীর ঠাণ্ডা রাখে। ফলে ঘাম নিয়ন্ত্রণে থাকে। তাই হাত ও পায়ের তালুর ঘাম রোধে প্রতিদিন পর্যাপ্ত পানি পান করুন। নিয়মিত বিরতিতে হাত ও পা ধোয়ার চেষ্টা করুন।

গোলাপজল
ঘাম প্রতিরোধে গোলাপজল অত্যন্ত কার্যকর। এ ক্ষেত্রে বাজার থেকে কেনা কিংবা ঘরে বানানো উভয় গোলাপজলই ব্যবহার করা যাবে। প্রতিদিন অন্তত তিনবার তুলা বা সুতি কাপড়ের সাহায্যে হাত ও পায়ের তালুতে গোলাপজল ম্যাসাজ করতে পারেন।

ব্ল্যাক টি’তে হাত ও পা ভিজিয়ে রাখা
প্রতিদিন ২০ থেকে ৩০ মিনিট সময় নিয়ে ব্ল্যাক টি’তে হাত ও পা ডুবিয়ে রাখা ঘাম কমাতে সহায়তা করে। গবেষণায় দেখা গেছে, এতে থাকা ট্যানিন প্রাকৃতিক অ্যাস্ট্রিজান্ট’য়ের প্রভাব রাখে যা ঘাম কমাতে সহায়তা করে।

বেকিং সোডা
হাত ও পায়ের তালুর অতিরিক্ত ঘাম প্রতিরোধে অন্যতম ঘরোয়া উপায় হলো বেকিং সোডা। প্রথমে এক বোল কুসুম গরম পানি নিন। এতে দুই থেকে তিন চামচ বেকিং সোডা মেশান। সোডা মিশ্রিত পানিতে অন্তত ৩০ মিনিট হাত ও পা ডুবিয়ে রাখুন। পরে শুকনা কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন। এতে ঘামের সমস্যায় উপকার পাওয়া যাবে।

লেবুর রস
অ্যাস্ট্রিজান্ট উপাদান সমৃদ্ধ যা অতিরিক্ত ঘাম কমাতে সহায়তা করে। তাজা লেবুর রস হাতের তালুতে ঘষে শুকানোর জন্য অপেক্ষা করতে হবে। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। নিয়মিত ব্যবহারে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে।

কর্পূর
সামান্য গরম পানিতে কর্পূর গুলে হাত ও পা ১৫ থেকে ২০ মিনিট ডুবিয়ে রাখতে হবে। কর্পূর শীতলকারক উপাদান যা ঘাম কমাতে সহায়তা করে। এছাড়াও কর্পূরের গুঁড়ার সাথে ট্যালকম পাউডার বা নারিকেল তেল মিশিয়ে হাত ও পায়ের তালুতে ব্যবহার করা যায়। সপ্তাহে কয়েকবার ব্যবহারে ভালো ফলাফল আসে। ক্রমাগত হাত ও পা ঘামা খুবই বিরক্তিকর বিষয়। তবে সঠিকভাবে খেয়াল রাখলে আর সতর্ক হলে এর প্রকোপ অনেকটাই কমিয়ে আনা যায়।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

ঘরোয়া উপায়ে ব্রণ দূর করবেন যেভাবে

Published

on

ন্যাশনাল হাউজিং

ব্রণের সমস্যা গুরুতর না হলেও ভোগান্তির কারণ হতে পারে। এটি কেবল চেহারা সৌন্দর্যই নষ্ট করে ক্ষান্ত হয় না, সেইসঙ্গে ত্বকে জ্বালা, চুলকানির মতো সমস্যাও তৈরি করতে পারে। তবে ব্রণ হলে দুশ্চিন্তার কিছু নেই। এক্ষেত্রে অনেকগুলো ঘরোয়া উপায় রয়েছে। প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহারের হলে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ভয়ও থাকবে না। ব্রণ হলে তাই প্রাকৃতিক উপায়ে প্রতিকারের চেষ্টা করুন। এর পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনও বজায় রাখতে হবে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়-

অ্যালোভেরা
অ্যালোভেরা অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য সমৃদ্ধ একটি প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার। এটি ত্বককে প্রশমিত করতে সাহায্য করে এবং ব্রণ নিরাময় করে। খাঁটি অ্যালোভেরা জেল সরাসরি ব্রণের স্থানে করুন এবং এটি ধুয়ে ফেলার আগে কমপক্ষে ৩০ মিনিটের জন্য রেখে দিন। দিনে দুইবার এভাবে ব্যবহার করতে পারেন।

টি ট্রি অয়েল
টি ট্রি অয়েল তেল তার অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্যের জন্য বিখ্যাত। এটি ব্রণ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া কমাতে এবং প্রদাহ প্রশমিত করতে সাহায্য করে। নারিকেল বা জোজোবা তেলের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে তুলোর সাহায্যে আক্রান্ত স্থানে লাগান। ভালো ফলাফলের জন্য এটি প্রতিদিন দুইবার ব্যবহার করুন।

আপেল সাইডার ভিনেগার
আপেল সাইডার ভিনেগারে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলতে এবং ত্বকের পিএইচ স্তরের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। এক ভাগ আপেল সাইডার ভিনেগার দুই ভাগ পানির সঙ্গে মিশিয়ে একটি তুলোর বল দিয়ে আক্রান্ত স্থানে লাগান। এটি ধুয়ে ফেলার আগে এটি ১০-১৫ মিনিটের জন্য রেখে দিন। দিনে দুইবার এভাবে ব্যবহার করুন।

যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি
ব্রণ প্রতিরোধের জন্য ভালো স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিদিন গোসল করুন, বিশেষ করে ঘামের পরে, ত্বক পরিষ্কারে ক্লিনজার ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে সাবান এড়িয়ে চলুন যা ত্বকের প্রাকৃতিক তেল নষ্ট করে ফেলতে পারে এবং আরও জ্বালা সৃষ্টি করতে পারে।

এক্সফোলিয়েশন
নিয়মিত এক্সফোলিয়েশন ত্বকের মৃত কোষগুলোকে অপসারণ করতে সাহায্য করতে পারে যা ছিদ্রগুলোকে আটকে রাখে। সপ্তাহে একবার বা দুইবার ত্বকে এক্সফোলিয়েট করুন। সেজন্য একটি মৃদু এক্সফোলিয়েটিং স্ক্রাব বা লুফা ব্যবহার করুন। অতিরিক্ত এক্সফোলিয়েট না করার বিষয়ে সতর্ক থাকুন, কারণ এটি আরও জ্বালা সৃষ্টি করতে পারে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

যেভাবে পেঁয়াজ কাটলে চোখে পানি আসবে না

Published

on

ন্যাশনাল হাউজিং

আমাদের প্রতিদিনের রান্নায় পেঁয়াজের প্রয়োজন হয়ই। ঝাঁঝালো স্বাদের এই ভেষজ না থাকলে অনেক খাবারই পানসে লাগে। তবে একটা মুশকিল, পেঁয়াজ কাটতে গেলে চোখে পানি আসার সমস্যা হয় অনেকেরই। অনেক সময় বেশি পেঁয়াজও কাটার প্রয়োজন হয়। তখন পড়তে হয় অসুবিধায়। কারণ চোখের পানির কারণে পেঁয়াজ কাটাই সম্ভব হয় না বলতে গেলে। তবে ঘাবড়ানোর কিছু নেই, এমন অবস্থারও রয়েছে সমাধান।

পেঁয়াজ কাটার সময় চোখে পানি আসে কেন?

পেঁয়াজে থাকে সালফেনিক অ্যাসিড। যখন আমরা পেঁয়াজ কাটি তখন সেই অ্যাসিড অন্য এনজাইমের সঙ্গে মিশে যায়। এর ফলে তৈরি হয় সালফার গ্যাস। তখন এই গ্যাস চোখে গেলেই চোখ জ্বলতে থাকে এবং পানি পড়া শুরু হয়। তবে রান্নার সময় আর এই এনজাইম কাজ করে না। যে কারণে কাটার সময় সমস্যা হলেও রান্নার সময় সমস্যা হয় না। এখন চলুন জেনে নেওয়া যাক পেঁয়াজ কাটার সময় কী করলে চোখে পানি আসবে না-

চুইংগাম চিবানো

অবাক হলেন নিশ্চয়ই? ভাবছেন, পেঁয়াজ কাটার সঙ্গে চুইংগাম চিবানোর সম্পর্ক কোথায়? একটা সম্পর্ক তো রয়েছেই। আপনি যদি পেঁয়াজ কাটার সময় চুইংগাম চিবুতে থাকেন তাহলে আর চোখ দিয়ে পানি পড়ার মতো সমস্যা হবে না। কারণ আপনার মুখে যদি চুইংগাম থাকে তাহলে পেঁয়াজের ঝাঁঝ আর চোখ পর্যন্ত যাবে না। ফলে চোখে পানি আসার সমস্যাও বন্ধ হবে।

ফ্রিজে রাখুন

পেঁয়াজ কাটার কিছুক্ষণ অর্থাৎ অন্তত ১৫ মিনিট আগে ফ্রিজে রেখে দিন। এরপর বের করে কেটে নিন। তাহলে আর চোখে পানি আসবে না। কারণ পেঁয়াজ ঠান্ডা হয়ে গেলে এনজাইম ভালোভাবে কাজ করতে পারবে না। এর ফলে আর চোখ জ্বলবে না এবং চোখ থেকে পানিও পড়বে না।

ধারালো ছুরি বা বটি ব্যবহার

আপনি যখন ভোঁতা ছরি বা বটি ব্যবহার করেন তাহলে কিন্তু পেঁয়াজ কাটতে গেলে চোখ থেকে পানি পড়বেই। এর বদলে ধারালো ছুরি বা বটি ব্যবহার করলে আর সমস্যা হবে না। তাই এক্ষেত্রে সব সময় ধারালো বটি বা ছুরি বেছে নিন। এতে সমস্যা থেকে অনেকটাই রেহাই পাবেন।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

ডায়াবেটিসের ‘যম’ দারুহরিদ্রার যত গুণ

Published

on

ন্যাশনাল হাউজিং

শুধু দামি ওষুধ ও পণ্য কিনেই যে আমাদের স্বাস্থ্যের যত্ন নিতে হবে, এমনটি কিন্তু নয়। কিছু কিছু প্রাকৃতিক উপাদানও স্বাস্থ্যের জন্য আশীর্বাদের মতো। দারুহরিদ্রা এমনই একটি চমৎকার আয়ুর্বেদিক ওষুধ।

এটি ব্যবহারে শরীরে আশ্চর্যজনক উপকারিতা দেখা যায়। এটি পেট সংক্রান্ত যে কোনও রোগ নিরাময় করতে খুবই উপকারী। এই ফলটি চোখের জন্যও খুব উপকারী বলে মনে করা হয়। এই ওষুধটি চর্মরোগ এবং ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যও ভালো।

দারুহরিদ্রা প্রসঙ্গে তথ্য দিতে গিয়ে আয়ুর্বেদিক চিকিৎসকরা জানান, আয়ুর্বেদে শত শত বছর ধরে দারুহরিদ্রা ব্যবহার হয়ে আসছে। এর ব্যবহার শরীরে আশ্চর্যজনক উপকার এনে দেয়। এই ফলটি আমাদের পেটের রোগ নিরাময়েও ব্যবহৃত হয়।

এটি পেটের সমস্ত রোগ নিরাময় করে এবং শরীর ভেতর থেকে শক্তিশালী করে তোলে। দারুহরিদ্রা চোখ ও কানের রোগও নিরাময় করতে সাহায্য করে। এটি শরীরের অভ্যন্তরীণ এবং বাহ্যিকভাবে ঘটতে থাকা প্রদাহকে দ্রুত নিরাময় করে।

এ ছাড়া, এই ফলটি ক্ষত নিরাময়ের পাশাপাশি ত্বক সংক্রান্ত সমস্যাকেও দ্রুত নিরাময়ে সাহায্য করে। এই ওষুধে সুগারও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

এটি ব্যবহার করা খুব সহজ। এটি সহজেই যে কোনও জায়গায় কিনতে পাওয়া যায়। এই ফলটি জলে সেদ্ধ করে ক্বাথ তৈরি করে পান করা যেতে পারে। এ ছাড়া, এর পাউডারও তৈরি করা যায়। দারুহরিদ্রা পাউডার দুধ এবং জলে এক সঙ্গে মিশিয়ে খাওয়া যেতে পারে।

আয়ুর্বেদিক চিকিৎসকরা জানান, কম খরচে চিকিৎসার জন্য দারুহরিদ্রা একটি ভালো বিকল্প। এটি পিসিওডি রোগে নারীদের প্রাকৃতিকভাবে চিকিৎসা করতে ব্যবহার করা হয়। এই ফলটিতে প্রোটিন, আয়রন এবং জিংক ও ম্যাঙ্গানিজের মতো নানা প্রয়োজনীয় খনিজ উপাদান পাওয়া যায়। তাই এটি সবার জন্যই উপকারী।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

বর্ষায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে তুলসি পাতা

Published

on

ন্যাশনাল হাউজিং

বর্ষাকালে প্রকৃতির সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায়, সেইসঙ্গে বৃদ্ধি পায় সংক্রমণের ঝুঁকিও। এসময় হঠাৎ পরিবর্তন আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে দুর্বল করে দিতে পারে, যার ফলে আমরা প্রায়ই অসুস্থ হয়ে পড়ি। বছরের এই সময়ে সর্দি, কাশি, গলা ব্যথা এবং জ্বরের মতো রোগ দেখা দিতে পারি। এই কারণে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা আমাদের খাবারের তালিকায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিকারী খাবার এবং পানীয় যোগ করার পরামর্শ দেন। এই কাজে আপনাকে সাহায্য করতে পারে তুলসি পাতা।

বর্ষায় তুলসি পাতা কেন খাবেন?
এই ভেষজটি উল্লেখযোগ্য স্বাস্থ্য উপকারিতা দিতে পারে। বর্ষাকালে যখন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় তখন তাকে শক্তিশালী করে আমাদের ফিট ও সুস্থ রাখতে সাহায্য করে তুলসি পাতা। তুলসী পাতায় নির্দিষ্ট তেল রয়েছে যা ক্ষতিকারক সংক্রমণ এবং অ্যালার্জির বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করে। এই কারণেই বর্ষাকালের খাবারের তালিকায় তুলসি পাতা যোগ করার পরামর্শ দেওয়া হয়।

১. তুলসী এবং হলুদ
হলুদ আমাদের রান্নাঘরের একটি প্রধান উপাদান, যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য পরিচিত। এই বর্ষায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করতে দ্রুত এবং সহজে তুলসি এবং হলুদের পানীয় তৈরি করে খেতে পারেন। এই দুই উপাদানেরই প্রদাহ-বিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে এবং সংক্রমণকে দূরে রাখতে সাহায্য করে। এক্ষেত্রে মিষ্টি স্বাদ যোগ করতে চাইলে সামান্য মধু মিশিয়ে নিতে পারেন।

২. তুলসি এবং আদা চাটনি
আপনি কি জানেন তুলসি চাটনি তৈরিতেও ব্যবহার করা যায়? আপনার খাবারের স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি এটি সুস্থও রাখবে। চাটনিতে আদা এবং তেঁতুলও থাকে, যা এর পুষ্টিগুণকে আরও বাড়িয়ে দেয়। আপনি যদি এই চাটনিটি দীর্ঘ সময় ভালো রাখতে চান তবে এটি একটি এয়ারটাইট পাত্রে সংরক্ষণ করতে ভুলবেন না।

৩. তুলসি পনির স্যান্ডউইচ
তুলসি এবং পনির দিয়ে তৈরি এই স্যান্ডউইচ সকালে খেলে তা আপনার দিনটিকে স্বাস্থ্যকর উপায়ে শুরু করার অভিজ্ঞতা দেবে। এটি বেশ স্বাস্থ্যকর এবং মাত্র ১৫ মিনিটের মধ্যে প্রস্তুত হয়ে যাবে। এটি ছোট-বড় সবার জন্যই আকর্ষণীয় খাবার। এর সঙ্গে স্যান্ডউইচে আপনার পছন্দের অন্য সবজি যোগ করুন।

আপনি যদি চা প্রেমী হন তবে সাধারণ চায়ের বদলে এ ধরনের হার্বাল চা বেছে নিতে পারেন। তুলসি, আদা এবং অন্যান্য বিভিন্ন মসলা দিয়ে তৈরি এই চা বর্ষাকালে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে একটি চমৎকার পানীয় হিসেবে কাজ করে। তুলসি এবং আদার এই চায়ে মিষ্টি স্বাদ যোগ করতে চাইলে মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। তবে চিনি মেশাবেন না।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

শেয়ারবাজারের সর্বশেষ

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার4 hours ago

ফের ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্সের এমডি শামসুল ইসলাম

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স পিএলসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে পুনরায় নিযুক্ত হয়েছেন মোহাম্মদ শামসুল ইসলাম। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) থেকে...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার8 hours ago

শেয়ারবাজারেও বড় বিনিয়োগ ছিল প্রধানমন্ত্রীর পিয়ন জাহাঙ্গীরের

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক ব্যক্তিগত কর্মচারী জাহাঙ্গীর আলম নানান অপকর্মে লিপ্ত হয়ে ৪০০ কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। গতকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার9 hours ago

ব্লকে ৫১ কোটি টাকার লেনদেন

সপ্তাহের দ্বিতীয় কর্মদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লকে ৪০টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির মোট ৫১ কোটি ১২ লাখ...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার11 hours ago

লিন্ডে বিডির সর্বোচ্চ দরপতন

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৯৭টি কোম্পানির মধ্যে ১৯১ কোম্পানির শেয়ারদর কমেছে।...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার11 hours ago

দরবৃদ্ধির শীর্ষে ইনফরমেশন সার্ভিসেস নেটওয়ার্ক

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৯৭ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৪০টির শেয়ারদর বেড়েছে। এর...

Orion Infusion Orion Infusion
পুঁজিবাজার11 hours ago

লেনদেনের শীর্ষে ওরিয়ন ইনফিউশন

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৩৯৭টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট হাতবদল হয়েছে। এদিন লেনদেনের শীর্ষে...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার11 hours ago

লেনদেন বেড়েছে শেয়ারবাজারে

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্য সূচকের ইতিবাচক প্রবণতায় লেনদেন শেষে হয়েছে। একই সঙ্গে টাকার...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার12 hours ago

নগদ লভ্যাংশ পাঠিয়েছে প্রাইম ইন্স্যুরেন্স

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি প্রাইম ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড ৩১ ডিসেম্বর,২০২৩ সমাপ্ত হিসাববছরের ঘোষিত নগদ লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের কাছে পাঠিয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার12 hours ago

মঙ্গলবার স্পট মার্কেটে যাচ্ছে দুই কোম্পানি

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত দুই কোম্পানি রেকর্ড ডেটের আগে আগামীকাল মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) স্পট মার্কেট যাচ্ছে। কোম্পানি দুটি হচ্ছে- বাংলাদেশ জেনারেল লাইফ...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার12 hours ago

দেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের লেনদেন চালু আগামীকাল

রেকর্ড ডেটের পর আগামীকাল মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) শেয়ার লেনদেন চালু হবে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিমা খাতের কোম্পানি দেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের।...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার13 hours ago

সিঙ্গার বাংলাদেশের পর্ষদ সভার তারিখ ঘোষণা

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সিঙ্গার বাংলাদেশ লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ সভার তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ২২ জুলাই বিকাল ৩টায় কোম্পানিটির পর্ষদ সভা...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার13 hours ago

ব্যাংকাস্যুরেন্স চালুর অনুমতি পেলো পুঁজিবাজারের ৬ ব্যাংক

বেসরকারি সাত ব্যাংককে ব্যাংকাস্যুরেন্স চালুর অনুমতি দিয়েছে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। এর মধ্যে দেশের পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত রয়েছে ছয়টি...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার14 hours ago

দুই ঘণ্টায় লেনদেন ৩২১ কোটি টাকা

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন চলছে। এদিন লেনদেন শুরুর প্রথম দুই...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
অর্থনীতি15 hours ago

মিউচুয়াল ফান্ড-বন্ডে বিনিয়োগ হবে সর্বজনীন পেনশনের অর্থ

সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু হওয়ার প্রায় ১১ মাস পর এর তহবিল বিধিমালার গেজেট জারি করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়। পেনশন কর্মসূচির আওতায়...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার16 hours ago

এনআরবি ব্যাংকের পর্ষদ সভার তারিখ ঘোষণা

পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের কোম্পানি এনআরবি ব্যাংক লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ সভার তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। কোম্পানিটির পর্ষদ সভা আগামী ১৮...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার1 day ago

সোনালী লাইফের ৫ কর্মকর্তাকে বরখাস্তের আদেশ স্থগিত

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের শীর্ষ পাঁচ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করার আদেশ ৩ মাসের জন্য স্থগিত করেছেন উচ্চ আদালত। একই সঙ্গে...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার1 day ago

মতিউরের কোম্পানি এস কে ট্রিমসের ব্যাংক হিসাব জব্দ

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সদ্য সাবেক সদস্য মতিউর রহমানের মালিকানাধীন কোম্পানি এস কে ট্রিমসের ব্যাংক হিসাব জব্দ করা হয়েছে। রোববার...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার1 day ago

আইএফআইসির সব ব্যাংকিং কার্যক্রম বন্ধ ১৮ জুলাই

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকিং খাতের বেসরকারি প্রতিষ্ঠান আইএফআইসি ব্যাংক পিএলসির সব ধরনের ব্যাংকিং কার্যক্রম আগামী বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) বন্ধ থাকবে। রোববার...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার1 day ago

সিএসইতে টেকনো ড্রাগসের লেনদেন শুরু

পুঁজিবাজারে সদ্য তালিকাভুক্ত হওয়া টেকনো ড্রাগস লিমিটেডের চিটাগাং স্টক এক্সচেঞ্জ পিএলসিতে (সিএসই) লেনদেন শুরু হয়েছে। রোববার (১৪ জুলাই) সিএসইর প্লাটফর্মে...

ন্যাশনাল হাউজিং ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার1 day ago

ব্লকে ৪৩ কোটি টাকার লেনদেন

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লকে মোট ৪৭টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মোট ২ কোটি ৩ লাখ...

Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

ন্যাশনাল হাউজিং
অর্থনীতি2 hours ago

গ্যাস সরবরাহ আগামী সপ্তাহে বাড়তে পারে: প্রতিমন্ত্রী

ন্যাশনাল হাউজিং
অর্থনীতি2 hours ago

বিজিএমইএ ও ক্যাসকেলের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত

ন্যাশনাল হাউজিং
আন্তর্জাতিক3 hours ago

শ্রীলঙ্কায় কমেছে বিদ্যুতের দাম, দরিদ্র ভোক্তাদের অতিরিক্ত ছাড়

ন্যাশনাল হাউজিং
লাইফস্টাইল3 hours ago

হাত-পায়ের তালু ঘামলে যা করবেন

ন্যাশনাল হাউজিং
আন্তর্জাতিক3 hours ago

ভাগ্য বা ঈশ্বর আমাকে রক্ষা করেছেন: ট্রাম্প

ন্যাশনাল হাউজিং
জাতীয়3 hours ago

১৭২ ইউপি ভোট: প্রতি কেন্দ্রে ২২ জনের ফোর্স

ন্যাশনাল হাউজিং
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার3 hours ago

চাকরির সুযোগ দিচ্ছে এসিআই

ন্যাশনাল হাউজিং
আন্তর্জাতিক4 hours ago

ব্যাংকের চাকরি ছেড়ে দিয়ে ইউটিউবার, বছরে আয় ১১ কোটি টাকা

ন্যাশনাল হাউজিং
জাতীয়4 hours ago

কোটাবিরোধী শিক্ষার্থীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

ন্যাশনাল হাউজিং
জাতীয়4 hours ago

এপিএ স্বাক্ষর করেছে ২৬ হাজার সরকারি অফিস

ন্যাশনাল হাউজিং
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার4 hours ago

বহিরাগতদের বের করতে ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েন: ঢাবি প্রক্টর

ন্যাশনাল হাউজিং
পুঁজিবাজার4 hours ago

ফের ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্সের এমডি শামসুল ইসলাম

ন্যাশনাল হাউজিং
আবহাওয়া5 hours ago

আট অঞ্চলে ৬০ কিমি বেগে ঝড় হতে পারে

ন্যাশনাল হাউজিং
অর্থনীতি5 hours ago

ক্রেডিট কার্ডে লেনদেন কমেছে বাংলাদেশিদের 

ন্যাশনাল হাউজিং
জাতীয়5 hours ago

প্রভোস্টদের বৈঠক শেষে যা জানালেন ঢাবি উপাচার্য

ন্যাশনাল হাউজিং
রাজধানী5 hours ago

তাজিয়া মিছিলে জঙ্গি হামলার শঙ্কা নেই: ডিএমপি কমিশনার

ন্যাশনাল হাউজিং
খেলাধুলা5 hours ago

বাংলাদেশ ছেড়ে পাকিস্তানে চাকরি নিলেন হেমিং

ন্যাশনাল হাউজিং
খেলাধুলা6 hours ago

নারী বিপিএল নিয়ে যা জানাল বিসিবি

ন্যাশনাল হাউজিং
জাতীয়6 hours ago

জুনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৬৪৪ জন

ন্যাশনাল হাউজিং
আন্তর্জাতিক6 hours ago

নেপালে চতুর্থবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন অলি

ন্যাশনাল হাউজিং
আন্তর্জাতিক6 hours ago

ভারতের নতুন পররাষ্ট্রসচিব বিক্রম মিশ্রি

ন্যাশনাল হাউজিং
আন্তর্জাতিক6 hours ago

জাপানি রাবারের দাম কমেছে

ন্যাশনাল হাউজিং
জাতীয়7 hours ago

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সৌ‌দি রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

ন্যাশনাল হাউজিং
টেলিকম ও প্রযুক্তি7 hours ago

তারবিহীন ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট চালু করল গ্রামীণফোন

ন্যাশনাল হাউজিং
জাতীয়7 hours ago

নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ গ্রাহকদের অন্যতম চাহিদা: নসরুল হামিদ

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বু বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১৩
১৫১৬১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
৩০৩১