Connect with us

লাইফস্টাইল

ইফতারে মুসলিম দেশে যেসব খাবার প্রচলিত

Published

on

হিলি

সিয়াম সাধনার মাস রমজান। এ মাসে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসরত ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা মাসব্যাপী রোজা রাখেন। পূণ্য অর্জন ও আত্মশুদ্ধির আশায় সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত তারা পানাহার থেকে বিরত থাকেন। মাগরিবের আজান শুনে মুখে খাবার তুলে রোজা ভাঙ্গেন। রোজা ভাঙ্গার এসময়কে বলা হয় ‘ইফতার’।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলমানদের ইফতার আয়োজনে রয়েছে বৈচিত্র্য। যদিও প্রায় সব দেশেই সাধারণত খেজুর বা পানির মতো হালকা কিছু দিয়ে ইফতার শুরু হতে দেখা যায়, কিন্তু দেশে দেশে ইফতার আয়োজনে বাহারি পদের খাবার দেখা যায়।

পাকিস্তান

পাকিস্তানে ইফতার আয়োজনে পানি এবং খেজুর তো থাকেই তবে সেখানে প্রাধান্য পেতে দেখা যায় মাংস ও রুটির মতো সেখানকার ঐতিহ্যবাহী খাবারগুলো। নানা ধরনের কাবাব, তান্দুরি, কাটলেট, টিক্কার উপস্থিতি প্রায় প্রতিদিনের ইফতারেই রেখে থাকেন বড় অংশের পাকিস্তানি।

এসব ভারী খাবারের পাশাপাশি ইফতারের সময় বিভিন্ন ভাজাপোড়া খাবারও খেয়ে থাকেন তারা। যেমন- রোল, নিমকি, মাংস ও সবজি দিয়ে তৈরি করা এক ধরনের বিশেষ সমুচা, বিভিন্ন ধরনের চপ, পাকোড়া ইত্যাদি।

এ ছাড়া নানারকম শরবত, ফল বা ফলের সালাদ, ছোলা-বুট, ফালুদা, জিলাপি, এমনকি বিরিয়ানি দিয়েও তাদের ইফতারের টেবিল সাজানো হয়। তবে পানীয় হিসেবে রুহ আফজার কদর এ দেশে সবচেয়ে বেশি।

ইন্দোনেশিয়া

দেশটির মানুষজন ইফতারে তেল ও মশলা জাতীয় খাবারের পরিবর্তে বিভিন্ন রকম ফল এবং ফলের শরবতকে প্রাধান্য দেয়। এ ছাড়া তাদের ইফতার আয়োজনে নানা রকম মিষ্টি জাতীয় খাবারও থাকে।

ইন্দোনেশিয়ার সংবাদপত্র দ্য জাকার্তা পোস্টের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, বুবুর চ্যান্ডিল নামক এক ধরনের মিষ্টান্ন; মিষ্টি আলু দিয়ে তৈরি বিজি সালাক; কলা, মিষ্টি আলু অথবা কুমড়া দিয়ে তৈরি কোলাক; কলা দিয়ে তৈরি এস পিসাং ইজোসহ আরও নানা ধরনের ঐতিহ্যবাহী খাবার এসময় ইন্দোনেশিয়ানরা তৈরি করে থাকে।

ভারত

দেশটির একেক রাজ্যের ইফতার আয়োজনে একেক খাবার জনপ্রিয়। যেমন ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদন বলছে, ভারতের হায়দ্রাবাদের মুসলিমরা ইফতারে হালিম খেতে পছন্দ করেন। আবার কেরালা ও তামিলনাড়ুর মুসলমানরা ইফতার করেন ‘নমবু কাঞ্জি’ নামে এক ধরনের খাবার দিয়ে।

নমবু কাঞ্জি হলো মাংস, সবজি এবং পরিজের সমন্বয়ে তৈরি এক ধরনের ঐতিহ্যবাহী খাবার। তবে সামগ্রিকভাবে দেখলে ভারতেও ইফতারে ভাজাপোড়া জাতীয় খাবার খাওয়ার চল আছে। ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের অলিতে-গলিতে ইফতারের আগে আগে নানা ধরনের পাকোড়া, সমুচা, চপ ইত্যাদি বিক্রির ধুম পড়ে যায়।

তবে দিল্লিসহ দেশটির উত্তর প্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ এবং পশ্চিমবঙ্গে ইফতারের শুরুতে পানির সাথে থাকে খেজুর, ছোলা-বুট, হরেক রকম ফল ও ফলের শরবত, দুধ, ডিম, দইয়ের মতো খাবার।

ভারী খাবারের মাঝে থাকে বিভিন্ন ধরনের কাবাব, হালিম, কাটলেট, শর্মা, স্যুপ, বিরিয়ানি ইত্যাদি।

বাংলাদেশ

উপমহাদেশের অন্য দেশের মতো বাংলাদেশের মানুষকেও ইফতারে অনেক ভাজা-পোড়া খাবার খেতে দেখা যায়। এর মধ্যে থাকে- পেঁয়াজু, বেগুনি, আলুর চপ, বিভিন্ন ধরনের সবজির পাকোড়া ইত্যাদি। এ ছাড়া ইফতার আয়োজনে আরও থাকে মুড়ি, ছোলা বুট, জিলাপি, হালিমসহ নানা রকমের শরবত ও ফল।

এসব হালকা খাবারের পাশাপাশি অনেক পরিবার ইফতারের সময় হাতে তৈরি নানা রকমের পিঠা-পুলি, তেহারি, বিরিয়ানি, খিচুড়ি, তন্দুরি চিকেনের মতো ভারী খাবারও খায়।

তবে ফলের মধ্যে খেজুর প্রায় অপরিহার্যই বলা যেতে পারে। এটি ছাড়া বাংলাদেশি মুসলিমদের ইফতার টেবিল একরকম অসম্পূর্ণই বলা যায়। মসজিদগুলোতে যে ইফতার আয়োজন করা হয়, সেখানেও খেজুরের উপস্থিতি থাকে। মূলত, মহানবী (সা.) ইফতারের শুরুতে খেজুর খেতেন বলে বিশ্বব্যাপী এটি এত জনপ্রিয়।

নাইজেরিয়া

নাইজেরিয়ার বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, সেখানে ইফতারে শর্করা জাতীয় খাবার ও ফলমূলকে প্রাধান্য দেওয়া হয়। যেমন জল্লফ রাইস, এটি নাইজেরিয়ানদের অন্যতম প্রধান খাবার। চাল, পেঁয়াজ, টমেটো, মরিচ ইত্যাদির সমন্বয়ে এটি তৈরি করা হয়। এটি তারা সবজি বা মাংসের সাথে খান।

পাশাপাশি মই মই (পুডিং), ইয়াম (এক ধরনের আলু), আকারা (বিন কেক), মাসা (রাইস কেক), ইলুবো ও আমালার (ইয়াম দিয়ে তৈরি এক বিশেষ খাবার) মতো আরও নানা ধরনের ঐতিহ্যবাহী খাবারও তাদের ইফতার তালিকায় থাকে।

মিশর

রমজানে মিশরের মানুষের ইফতার টেবিলে থাকে নানা ধরনের খাবারের সমারোহ। তার মাঝে উল্লেখযোগ্য হলো ‘আতায়েফ’ ও ‘কুনাফা’। আতায়েফ হলো এক ধরনের প্যানকেক ও কুনাফা এক ধরনের সিরাপ।

এ দুটো খাবার মিশরীয় মুসলমানদের ইফতারের অবিচ্ছেদ্য অংশ বলা যেতে পারে। তবে দেশটির অনেক পরিবার ইফতারে বাদামি রুটি এবং মটরশুঁটি, টমেটো, বাদাম ও অলিভ অয়েল দিয়ে তৈরি ‘ফুল মেদেমাস’ নামক এক ধরনের খাবার খেতে পছন্দ করেন।

মিডল ইস্ট আই’র একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, মিশরীয়রা তাদের ইফতারে এপ্রিকটস ফল দিয়ে তৈরি কামার-আল-দিনান্দ আরায়সি এবং দুধ, ভ্যানিলা ও নারিকেল দিয়ে তৈরি সোবিয়া নামক পানীয় পান করেন। এ ছাড়া তাদের খাবার টেবিলে বিভিন্ন ধরনের ফল, ফলের রস, সবজি ইত্যাদিও থাকে।

তুরস্ক

অন্য মুসলিম দেশগুলোর মতো ইফতারের তাদেরও পছন্দের শীর্ষে থাকে খেজুর। সেইসাথে বিভিন্ন ফলমূল, শরবত, হরেক রকম কাবাব তাদের খাদ্য তালিকায় থাকে। তবে রমজানে দেশটির মুসলমানদের সবচেয়ে পছন্দের খাবার হলো রামাজান পিদেসি, যা মূলত এক ধরনের রুটি।

এটি নান রুটির মতো একই পদ্ধতিতে তৈরি করা হয়। প্রথমে ময়দার সাথে দুধ, মাখন, জলপাই দিয়ে খামির তৈরি করা হয়। পরে রুটির ভেতর ডিম ও গরুর মাংসের পুর দিয়ে সেটিকে চুলায় বেক করা হয়।

ইরান

রুটি, স্যুপ, র‍্যাপ, কাবাবের মতো সুপরিচিত খাবারের পাশাপাশি ইফতারে ইরানের ঘরে ঘরে তৈরি হয় জাফরানের ঘ্রাণযুক্ত এক ধরনের ঐতিহ্যবাহী পার্শিয়ান হালুয়া। এ ছাড়া জাফরান চাল দিয়ে তৈরি ‘শোলেহ জার্দ’ নামক এক ধরনের পুডিংও ইরানিদের খুব প্রিয়।

পার্শিয়ান নুডুলস, সবজি, পেঁয়াজ, বিন ইত্যাদি দিয়ে তৈরি আশ রাসতেহ নামক ঘন স্যুপ ও হালিমও সেখানে ইফতারের সময় আগ্রহ নিয়ে খাওয়া হয়।

সেইসাথে তাদের ইফতারে আরও থাকে স্যান্ডউইচ, চা, তাবরেজি চিজ, জুলবিয়া (বাংলায় যাকে জিলাপি বলা হয়), বামিয়েহ নামক এক ধরনের মিষ্টান্ন ইত্যাদি।

উল্লেখ্য, ইরানের অন্যতম প্রধান খাবার হলো খেজুর। তাই, ইফতার টেবিলে এর উপস্থিতি অনেকটাই অপরিহার্য।

আলজেরিয়া

আলজেরিয়ান মুসলিমরা পিজ্জা ‘সোয়ারবা’, সবজি রোল, আলু, সবজি দিয়ে তৈরি দোলমা ইত্যাদি দিয়ে তাদের ইফতার শুরু করেন।

মাগরিবের নামাজের পর তারা ‘সিগার’ নামক এক ধরনের পানীয় পান করেন, যা বাদাম দিয়ে তৈরি। এ ছাড়া তাদের ইফতারের তালিকায় বিভিন্ন স্যুপও থাকে।

সৌদি আরব

আরব নিউজের এক প্রতিবেদন বলছে, সৌদিরা ইফতারের শুরুতে ‘গাহওয়া’ নামক অ্যারাবিক কফি পান করেন এবং সেইসাথে অবশ্যই খেজুর খান। এরপর তারা মাগরিবের নামাজ পড়েন।

নামাজ শেষে তারা ভারী খাবার খান। সৌদি আরবেও অঞ্চলভেদে ইফতারের খাবারে ভিন্নতা রয়েছে। দেশটির পশ্চিম অঞ্চলের মানুষ তাদের ইফতারে শৌরাইক রুটি ও দুজ্ঞাহ নামক ঐতিহ্যবাহী খবার খান। আবার পূর্বাঞ্চলের লোকেরা ইফতারে সালুনা নামের একটি খাবার খান, যা মাংস ও সবজির স্টু দিয়ে তৈরি।

দেশটির কেন্দ্রীয় অঞ্চলের মানুষ তাদের রোজা ভাঙ্গেন আসিদাহ, মারগগ, মাফরৌক ও মাতাজিজ নামক ঐতিহ্যবাহী খাবার দিয়ে। এগুলো বাদামি আটা, গরুর মাংস, সবজি, মধু, পেঁয়াজ বা ঘি দিয়ে তৈরি করা হয়।

দেশটির আরেকটি জনপ্রিয় খাবার থারিদ, যা মূলত ভেড়ার মাংস ও সবজি দিয়ে তৈরি স্যুপ জাতীয় খাবার।

ইফতারকে ইউনেস্কোর স্বীকৃতি

বিশ্বজুড়েই ইফতারের আয়োজন মানেই মুসলিমদের কাছে যেন উৎসব। যারা রোজা পালন করেন না তাদের অনেককেও ইফতারের আচার-অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

যেমন- শিশুদের জন্য রোজা রাখার বিধান না থাকলেও অনেক পরিবারেই দেখা যায় যে বড়দের পাশাপাশি তরুণরা, এমনকি শিশুরাও ইফতারের খাবার প্রস্তুত করতে এগিয়ে আসে। তবে পরিবারের সাথে ইফতার করার পাশাপাশি অনেক মুসলিম মসজিদে গিয়ে সবার সঙ্গে মিলেমিশে ইফতার করেন। এতে সমাজে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি মজবুত হয়।

ইফতারের অনন্য বৈশিষ্ট্যের কারণে ২০২৩ সালের ৬ ডিসেম্বর একে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো।

ইফতারকে বিশ্বের ‘অপরিমেয় সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের’ স্বীকৃতি দিতে তুরস্ক, ইরান, উজবেকিস্তান ও আজারবাইজান ইউনেস্কোর কাছে যৌথভাবে আবেদন করেছিল।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

লাইফস্টাইল

ক্ষতিকর কোলেস্টেরল দূর করার পানীয়

Published

on

হিলি

কোলেস্টেরল রক্তে পাওয়া একটি পদার্থ, যা সুস্থ কোষ তৈরির জন্য অত্যাবশ্যক। তবে উচ্চ মাত্রার এলডিএল (লো-ডেনসিটি লাইপোপ্রোটিন) কোলেস্টেরল, যাকে ক্ষতিকর কোলেস্টেরল বলা হয়, এটি হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়াতে পারে। সুষম খাদ্য কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। স্যাচুরেটেড ফ্যাট কম এবং ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খেলে তা এলডিএল কোলেস্টেরল কমাতে এবং হার্টের স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে সাহায্য করে।
খাবারের তালিকায় পরিবর্তন করে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ সহজ করতে পারেন। সকালের নাস্তায় সুস্বাদু স্মুদি আপনার শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে কাজ করতে পারে। কীভাবে? চলুন জেনে নেওয়া যাক-

কোলেস্টেরলের জন্য সেরা পানীয় কোনটি?

গ্রিন টি এবং জুসের মতো বেশ কিছু পানীয় রয়েছে যা উচ্চ কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। মেডিকেল নিউজ টুডে অনুসারে, কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রেখে আপনার দিন শুরু করার জন্য উদ্ভিদ-ভিত্তিক দুধের স্মুদি একটি পুষ্টিকর পছন্দ হতে পারে। সয়া দুধ এবং ওট মিল্কের মতো উদ্ভিদের দুধ বিশেষভাবে উপকারী।

সয়া দুধের উপকারিতা

সয়া দুধে স্বাভাবিকভাবেই স্যাচুরেটেড ফ্যাট এবং কোলেস্টেরল কম থাকে। এফডিএ কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করার জন্য খাবারের তালিকায় সয়া পণ্য যোগ করার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। সয়া দুধ প্রোটিনের একটি ভালো উৎস। এটি কোলেস্টেরল-হ্রাসকারী স্মুদি তৈরিতে ব্যবহার করতে পারেন।

ওট মিল্কের উপকারিতা

ওটসে বিটা-গ্লুকান নামে এক ধরনের দ্রবণীয় ফাইবার থাকে, যা এলডিএল কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে কাজ করে। ওট মিল্ক পান করলে বা স্মুদিতে ওটস ব্যবহার করলে তা হার্ট ভালো রাখতে কাজ করে। গবেষণায় দেখা গেছে, দেয় যে ওট মিল্ক কঠিন ওটসের তৈরি অন্যান্য খাবারের তুলনায় কোলেস্টেরল কমাতে বেশি কাজ করে।

স্মুদি তৈরি

একটি ব্লেন্ডারে ২৫০ মিলি সয়া মিল্ক বা ওট মিল্কের সঙ্গে তাজা ফল বা সবজি যেমন কলা, আঙ্গুর, আম, তরমুজ, বরই, পালং শাক ইত্যাদি পছন্দমতো মিশিয়ে নিন। মসৃণ এবং ক্রিমি হওয়া পর্যন্ত ব্লেন্ড করুন। এবার সকালের নাস্তায় এই স্বাস্থ্যকর ও সুস্বাদু স্মুদিতে চুমুক দিন। এভাবে নিয়মিত খেলে ক্ষতিকর কোলেস্টেরল দূর করা নিয়ে আর দুশ্চিন্তা করতে হবে না।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

খালি পেটে যে পাঁচ খাবার ক্ষতিকর

Published

on

হিলি

খালি পেটে কিছু খাবার যেমন উপকারী, তেমনই কিছু খাবার আবার ক্ষতিকরও। আমরা না জেনেই অনেক সময় সেসব খাবার খেয়ে ফেলি। যে কারণে শরীরে দেখা দেয় নানা সমস্যা। তাই নিজের শরীরের সুস্থতার জন্য জানা থাকা চাই কোন খাবারগুলো খালি পেটে খাওয়া মোটেও ঠিক নয়। আগে থেকেই জানা থাকলে ভুল করার ভয় থাকে না। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক খালি পেটে কোন ৫ খাবার ক্ষতিকর এবং এড়িয়ে চলতে হবে-

১. মসলাদার খাবার
মসলাদার খাবার সকালে খাওয়া একেবারেই ঠিক নয়। সকালে যখন আপনি মসলাদার কিছু খাবেন তখন তা আপনার পেটের আস্তরণে জ্বালাতন করতে শুরু করবে, এর ফলে পেটে অস্বস্তি সৃষ্টি হবে। এ ধরনের সমস্যা এড়াতে পেট ঠান্ডা রাখে এমন খাবার খেতে হবে। সকালে খালি পেটে সব ধরনের মসলাদার খাবার এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন।

২. চিনিযুক্ত খাবার
আপনি কি সকালের নাস্তায় প্যানকেক এবং ওয়াফলের মতো চিনিযুক্ত খাবার খেয়ে থাকে? যদি তাই হয়, তাহলে এ ধরনের অভ্যাস এখনই ত্যাগ করতে হবে। কারণ সকালে অতিরিক্ত চিনিযুক্ত খাবার কেবল ওজনই বাড়ায় না সেইসঙ্গে আপনার লিভারের উপর অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি করতে পারে।

৩. ঠান্ডা পানীয়
আপনার সকালের রুটিনে ঠান্ডা পানীয় যেমন আইসড কফি এবং জুস এড়িয়ে উচিত। কারণ এ ধরনের পানীয় ভালোর চেয়ে বেশি ক্ষতি করতে পারে। ঠান্ডা পানীয় শ্লেষ্মা ঝিল্লির ক্ষতি করে এবং হজমকে ধীর করে দিতে পারে। তাই সকালে ফ্রিজের ঠান্ডা পানীয় সব সময় বাদ দেওয়া উচিত।

৪. সাইট্রাস ফল
সকালে সাইট্রাস ফল খেতে ভালোবাসেন? আপনার এ ধরনের ফল খাওয়া থেকে বিরত থাকা উচিত। কারণ এ ধরনের ফল আপনার পেটে অ্যাসিডের মাত্রা বাড়িয়ে তুলতে পারে। যখন এটি ঘটে, তখন আপনার হজম প্রক্রিয়া ধীর হয়ে যেতে পারে, যার ফলে অস্বস্তি হতে পারে। তাই এদিকে খেয়াল রাখা জরুরি।

৫. কাঁচা সবজি
কাঁচা শাক-সবজি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য দারুণ, কিন্তু খালি পেটে খাওয়া হলে তা ক্ষতিকর হতে পারে। এতে থাকা উচ্চ ফাইবার সামগ্রী পেট ভার করতে পারে, যার ফলে আপনার পেট ফুলে যেতে পারে। তাই সকালে খালি পেটে সব ধরনের সালাদ খাওয়া এড়িয়ে চলুন।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

এই নিয়মগুলো মানলেই ছাড়তে পারবেন ধূমপান

Published

on

হিলি

চিকিৎসকদের মতে, ধূমপান ছাড়ার বিষয়টি হল সিদ্ধান্তের। ছাড়তে হলে এখনই ছাড়ার প্রতিজ্ঞা করুন। ডাস্টবিনে ফেলুন পকেটে থেকে সিগারেট। কোনও একদিন ধূমপান না করে পার্থক্য অনুভব করার চেষ্টা করুন। তারপর আস্তে আস্তে ধূমপান না করা দিনের সংখ্যা বাড়ান তাহলেই গড়ে উঠবে অভ্যাস।

আপনার পরিচিত যাদের ধূমপান ছেড়ে দিয়েছেন তাদের লক্ষ্য করুন। ধূমপান না করার সিদ্ধান্তের জন্য তাদের স্বাস্থ্যে কী পরিবর্তন এসেছে দেখুন তাও।

ধূমপান ছাড়তে হলে সঙ্গ ছাড়তে হবে আপনার সেই সমস্ত বন্ধুদের যারা ধূমপান করেন। কারণ, না হলে আপনি ধূমপান ছেড়ে দেওয়ার পরও আবার এতে আসক্ত হতে পারেন।

বিড়ি বা সিগারেট খাওয়ার খুব ইচ্ছা হলে মুখে রাখতে পারেন আদা বা চুইংগাম। একদিনে না হলেও এর ফলে আস্তে আস্তে কমে আসবে ধূমপানের প্রতি আকর্ষণ। দিনের শেষে হিসেব করে দেখুন সিগারেট বা ওই জাতীয় তামাকজাত জিনিসের জন্য আপনার কত খরচ হচ্ছে। তাহলে অনেকটাই সহজ হবে তা ছাড়া।

স্বাস্থ্য চেতনতার বই বা তামাকজাত পণ্য বিরোধী বই পড়ুন। তাহলে এর ক্ষতি সম্পর্কে জানতে পারবেন। যা সাহায্য করবে আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে। যদি কখনও তামাকজাত পণ্য ব্যবহার করার ইচ্ছা হয় তখন রাস্তায় হাঁটুন। তাহলেই দেখবেন আস্তে আস্তে তার প্রতি টান কমে যাচ্ছে।

একান্তই যদি ধূমপান না করা ছাড়তে পারেন তাহলে যোগাযোগ করুন চিকিৎসকের সঙ্গে। তার পরামর্শে আস্তে আস্তে এই মরণনেশা থেকে নিজেকে সরিয়ে আনতে অনেকটাই সুবিধা হবে।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

ঘরের যে কাজগুলো আপনার মেদ কমাবে

Published

on

হিলি

ফ্যাট কমানোর প্রসঙ্গ এলে প্রথম যে জিনিসটি সাধারণত মনে আসে তা হলো কঠোর তীব্র ব্যায়াম বা জিমে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাটানো। ফ্যাট কমানো আসলে এতটাও কঠিন নয়। আপনার প্রতিদিনের চলাফেরা এবং কিছু কাজই এক্ষেত্রে আপনাকে দারুণ সাহায্য করতে পারে। পেটে জমে থাকা বাড়তি মেদ ঝরানোর জন্য বাড়িতে কিছু কাজ করতে পারেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

হাঁটা
মেদ ঝরানোর সবচেয়ে আন্ডাররেটেড উপায়গুলোর মধ্যে একটি হলো হাঁটা। এটি এমন এক কাজ যা সহজেই আপনার দৈনন্দিন রুটিনে যোগ করতে পারেন। হাঁটা হৃদস্পন্দন বাড়াতে, সঞ্চালন উন্নত করতে এবং বিপাককে বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে, যা সমস্ত ক্যালোরি এবং মেদ ঝরাতে সাহায্য করে। লিফট বা এসকেলেটর ব্যবহার না করে সিঁড়ি বেছে নিন। এই সাধারণ পরিবর্তনটি আপনার প্রতিদিনের হাঁটার পরিমাণ বৃদ্ধি করবে। এছাড়া হাঁটার দূরত্বে গাড়ি বা রিকশার পরিবর্তে হেঁটেই যাতায়াত করুন। কাজের ফাঁকে ফাঁকে কিছুক্ষণের জন্য
হাঁটাহাঁটি করুন।

গৃহস্থালির কাজ

গৃহস্থালির কাজ আশ্চর্যজনকভাবে ক্যালোরি পোড়াতে এবং মেদ কমানোর ক্ষেত্রে কার্যকর হতে পারে। ভ্যাকুয়ামিং, মোপিং, বাগান করা এবং এমনকী গাড়ি ধোয়ার মতো কাজগুলো শারীরিক মুভমেন্টের সঙ্গে জড়িত। এগুলো হৃদস্পন্দনকে বাড়িয়ে তোলে এবং বিভিন্ন পেশী সচল করতে কাজ করে। বাগান করা, মাটি খনন করা, রোপণ করা, আগাছা পরিষ্কার করা ইত্যাদি মেদ ঝরাতে দারুণভাবে কাজ করে। এছাড়া বাড়ি পরিষ্কারের কাজ, আসবাবপত্র মোছা, কাপড় ধোয়াও এক্ষেত্রে সহায়ক।

দাঁড়িয়ে থাকা
দাঁড়িয়ে থাকলেও কিন্তু ক্যালোরি বার্ন হতে পারে। দাঁড়িয়ে থাকলে তা বসে থাকার চেয়ে বেশি ক্যালোরি পোড়ায়। সম্ভব হলে কর্মক্ষেত্রে একটি স্ট্যান্ডিং ডেস্ক ব্যবহার করুন বা সারাক্ষণ বসে না থেকে মাঝে মাঝে উঠে কিছুক্ষণের জন্য দাঁড়ান। টিভি দেখার সময় সোফায় শুয়ে-বসে না থেকে দাঁড়িয়ে দেখতে পারেন। লাইনে অপেক্ষা করার সময় বসে না থেকে দাঁড়িয়ে থাকতে পারেন।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

যেসব খাবার খাবেন স্মৃতিশক্তি বাড়াতে

Published

on

হিলি

মানুষের বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে স্মৃতিশক্তি কমতে থাকে। ফলে এসময় মানুষ অনেক কিছুই ভুলে যায়। যখন এটি গুরুতর আকার ধারণ করে এবং স্বাভাবিক জীবনযাপনে বাধা সৃষ্টি করে, তখন একে ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিভ্রম বলে। নানা কারণে এই রোগ হতে পারে। যেমন- অ্যালঝেইমার ডিজিজ, থাইরয়েড ও অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস, ভিটামিন ও খনিজের ঘাটতি, মস্তিষ্কে রক্ত চলাচলে বাধা ইত্যাদি।

গবেষণা বলছে, আমাদের খাদ্যাভ্যাসও এর জন্য কিছুটা দায়ী। স্মৃতিভ্রম রোধে খাদ্যাভ্যাস বেশ ভালো সুফল আনে। তাই আপনি যদি স্মৃতিশক্তি ধরে রাখতে চান, তবে খেতে হবে পুষ্টিকর খাবার। বিশেষ করে এমন কিছু খাবার আছে যেগুলো খেলে স্মৃতিশক্তি বাড়ে। অল্পবয়সীরাও মনোযোগ ও স্মৃতিশক্তি বাড়াতে খেতে পারেন এসব খাবার। জেনে নিন স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর ডায়েট-

পালং শাক মস্তিষ্কে বয়সের প্রভাব ও স্মৃতিভ্রমের সমস্যা কমাতে সাহায্য করে। এতে ভিটামিন-ই থাকে। বাদামেও ভিটামিন-ই থাকায় স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। যেমন- কাঠবাদাম ও আখরোট ভিটামিন-ই এর ভাল উৎস।

সামুদ্রিক মাছ বা যে কোনো তৈলাক্ত মাছে থাকা ফ্যাটি অ্যাসিড মস্তিষ্কের জন্য উপকারী। এতে স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায়।

ডিমের হলুদ অংশ কোলিন নামক অত্যাবশ্যকীয় উপাদানে ভরপুর। যা কোষে সংকেত পৌঁছাতে সাহায্য করে। আর ‘শর্ট-টার্ম’ মেমোরির সমস্যা সমাধানে সাহায্য করে।

টমেটোতে লাইকোপেন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যায়। যা মস্তিষ্কের কোষের রেডিকল ক্ষয়ের বিরুদ্ধে কাজ করে।

এক মুঠো কুমড়ার বীজ জিংক স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। এ ছাড়াও কুমড়ার বীজ থেকে ভিটামিন-বি ও ট্রিপ্টোফেন মেলে।

ব্রকোলি ভিটামিন-কে তে ভরপুর। এটি গ্লুকোসিনোলেটসের ভাল উৎস। যা কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রে সঠিক কার্যকারিতা পরিচালনা করে এবং স্মৃতি ভাল রাখতে সাহায্য করে।

চকলেটে প্রায় ৮০ শতাংশ কোকো থাকায় এটা ধমনীর কার্যকারিতা উন্নত করে। মস্তিষ্ক ও স্মৃতিশক্তির কার্যকারিতা বাড়াতে সাহায্য করে।

কফিতে ক্যাফেইন এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে। যা মস্তিষ্কের জন্য বেশ উপকারী। এছাড়া ক্যাফেইনের মনোযোগ বৃদ্ধি, কর্মক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

গ্রিন-টি স্মৃতিশক্তি বাড়াতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। মস্তিষ্কে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট দুশ্চিন্তা কমাতে সাহায্য করে। এ ছাড়া এই উপাদানটির উপস্থিতি উদ্বেগ, অতিরিক্ত চিন্তা, ভয় কমাতেও সাহায্য করে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

শেয়ারবাজারের সর্বশেষ

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার31 mins ago

লভ্যাংশ সংক্রান্ত তথ্য জানালো ফার্স্ট ফাইন্যান্স

গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২৩ তারিখে সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য লভ্যাংশ সংক্রান্ত তথ্য জানিয়েছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ফার্স্ট ফাইন্যান্স লিমিটেড। আলোচ্য বছরের জন্য...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার13 hours ago

ভারতের পুঁজিবাজারে ফিরছেন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা

ভারতে লোকসভা নির্বাচনের অনিশ্চয়তার করণে দেশটির পুঁজিবাজার ছেড়ে গিয়েছিলেন অনেক বিদেশি বিনিয়োগকারী। তবে সেই অনিশ্চয়তা কেটে যাওয়ার পর আবারও পুঁজিবাজারে...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার15 hours ago

সিটি ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পুনর্নির্বাচিত

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সিটি ব্যাংক পিএলসির পরিচালক আজিজ আল কায়সার চেয়ারম্যান এবং হোসেন খালেদ ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। সোমবার...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার17 hours ago

কর কমানোসহ পুঁজিবাজারের উন্নয়নে বিএমবিএর ৮ প্রস্তাব

২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেটে মার্চেন্ট ব্যাংকসমূহকে তাদের পরিচালন আয়ের ওপর ধার্যকৃত কর কমানোসহ পুঁজিবাজারের উন্নয়নে ৮ প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার17 hours ago

মনোস্পুল পেপারের পর্ষদ সভার তারিখ

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বাংলাদেশ মনোস্পুল পেপার ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড পর্ষদ সভার তারিখ ঘোষণা করেছে। আগামী ৩০ জুন বিকাল ৩টায় কোম্পানিটির পর্ষদ...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার17 hours ago

পর্ষদ সভার তারিখ জানালো পেপার প্রসেসিং

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত পেপার প্রসেসিং অ্যান্ড প্যাকেজিং লিমিটেড পর্ষদ সভার তারিখ ঘোষণা করেছে। আগামী ৩০ জুন বিকাল ৪টায় কোম্পানিটির পর্ষদ সভা...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার18 hours ago

চার্টার্ড লাইফের পর্ষদ সভার তারিখ ঘোষণা

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত চার্টার্ড লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড পর্ষদ সভার তারিখ ঘোষণা করেছে। আগামী ২৭ জুন বিকাল ৪টায় কোম্পানিটির পর্ষদ সভা...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার18 hours ago

আইএফআইসি ব্যাংকের ক্রেডিট রেটিং সম্পন্ন

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি আইএফআইসি ব্যাংক পিএলসির ক্রেডিট রেটিং সম্পন্ন করা হয়েছে। কোম্পানিটির ক্রেডিট রেটিং নির্ণয় করেছে ইর্মাজিং ক্রেডিট রেটিং লিমিটেড।...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার18 hours ago

ব্লকে ১৩৮ কোটি টাকার লেনদেন

সপ্তাহের দ্বিতীয় কর্মদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লক মার্কেটে ৪৮টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির মোট ১৩৮ কোটি ৮৬...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার19 hours ago

পাঁচ কোম্পানির সর্বোচ্চ দরপতন

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৯৫টি কোম্পানির মধ্যে ২৫৫ কোম্পানির শেয়ারদর কমেছে।...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার20 hours ago

দরবৃদ্ধির শীর্ষে সমতা লেদার

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৯৫ কোম্পানির মধ্যে ৯২টির শেয়ারদর বৃদ্ধি পেয়েছে।...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার20 hours ago

লেনদেনের শীর্ষে লিন্ডে বিডি

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৩৯৫টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট হাতবদল হয়েছে। এদিন লেনদেনের শীর্ষে...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার20 hours ago

২৫৫ কোম্পানির দরপতনে শেয়ারবাজারে কমেছে লেনদেন

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্য সূচকের নিম্নগতিতে লেনদেন শেষ হয়েছে। একইসাথে আগের কার্যদিবসের তুলনায়...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার21 hours ago

লাফার্জহোলসিমের লভ্যাংশ বিতরণ

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেড গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২৩ সমাপ্ত হিসাববছরে জন্য ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের কাছে পাঠিয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার22 hours ago

গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের নাম সংশোধন

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের নাম সংশোধনে সম্মতি দিয়েছে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) পিএলসি। ডিএসই সূত্রে...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার22 hours ago

দুই কোম্পানির লেনদেন বন্ধ কাল

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত দুই কোম্পানির শেয়ার লেনদেন আগামীকাল মঙ্গলবার (২৫ জুন) রেকর্ড ডেটের কারণে বন্ধ থাকবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার22 hours ago

উৎপাদনে ফিরলো প্যাসিফিক ডেনিমস

পুঁজিবাজারে বস্ত্র খাতে তালিকাভুক্ত কোম্পানি প্যাসিফিক ডেনিমস লিমিটেডের উৎপাদন কার্যক্রম ফের চালু হয়েছে। সোমবার (২৪ জুন) ঢাকা স্টক একচেঞ্জ সূত্রে...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার22 hours ago

দুই ঘন্টায় লেনদেন ১৮১ কোটি টাকা

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্য সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় লেনদেন চলছে। এদিন প্রথম দুই ঘন্টায়...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার23 hours ago

তাকাফুল ইন্স্যুরেন্স স্পট মার্কেটে যাচ্ছে আগামীকাল

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি তাকাফুল ইসলামী ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড রেকর্ড ডেটের আগে আগামীকাল মঙ্গলবার (২৫ জুন) স্পট মার্কেটে যাচ্ছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ...

হিলি হিলি
পুঁজিবাজার23 hours ago

মীর আক্তারের ইজিএমের প্ল্যাটফর্ম পরিবর্তন

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি মীর আক্তার হোসেন লিমিটেডের বিশেষ সাধারণ সভার (ইজিএম) প্ল্যাটফর্ম পরিবর্তন করা হয়েছে। কোম্পানিটির আসন্ন ইজিএম ডিজিটাল প্লাটফর্মের...

Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

হিলি
পুঁজিবাজার31 mins ago

লভ্যাংশ সংক্রান্ত তথ্য জানালো ফার্স্ট ফাইন্যান্স

হিলি
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার34 mins ago

মেঘনা গ্রুপে চাকরির সুযোগ

হিলি
খেলাধুলা47 mins ago

সেমিতে খেলতে বাংলাদেশের সামনে যে সমীকরণ

হিলি
জাতীয়49 mins ago

অবসরে যাচ্ছেন বেবিচক চেয়ারম্যান মফিদুর

হিলি
জাতীয়1 hour ago

ভারত সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন আজ

হিলি
আবহাওয়া1 hour ago

যেসব অঞ্চলে ৬০ কিমি বেগে ঝড়ের আভাস

হিলি
রাজধানী1 hour ago

রাজধানীতে যেসব মার্কেট বন্ধ মঙ্গলবার

হিলি
টেলিকম ও প্রযুক্তি11 hours ago

মোবাইল হ্যাক হয়েছে কি না বোঝা যাবে এই লক্ষণ দেখলেই

হিলি
জাতীয়11 hours ago

যুক্তরাষ্ট্রের টিআইপি হিরো স্বীকৃতি পেলেন বাংলাদেশের আল-আমিন

হিলি
অর্থনীতি11 hours ago

আইএমএফের ঋণের তৃতীয় কিস্তি অনুমোদন

হিলি
জাতীয়11 hours ago

অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি পেলেন একজন যুগ্মসচিব

হিলি
রাজধানী11 hours ago

খাল দখলদারদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান মেয়র আতিকের

হিলি
অর্থনীতি12 hours ago

একদিনেই রেমিট্যান্স এসেছে ১৪ কোটি ডলার

হিলি
লাইফস্টাইল12 hours ago

ক্ষতিকর কোলেস্টেরল দূর করার পানীয়

হিলি
জাতীয়12 hours ago

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে সেনাপ্রধানের শ্রদ্ধা

হিলি
জাতীয়12 hours ago

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে চীনকে সহযোগিতার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

হিলি
খেলাধুলা13 hours ago

বিশ্বকাপের মাঝেই নতুন অধিনায়কের নাম ঘোষণা ভারতের

হিলি
জাতীয়13 hours ago

দেশের ২৪ জেলায় বয়ে যাচ্ছে বিস্তৃত তাপপ্রবাহ

হিলি
শিল্প-বাণিজ্য13 hours ago

জার্মান দূতের আমান বাংলাদেশের গাজীপুর প্লান্ট পরিদর্শন

হিলি
পুঁজিবাজার13 hours ago

ভারতের পুঁজিবাজারে ফিরছেন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা

হিলি
জাতীয়14 hours ago

জামিন পেলেন পাপিয়া, মুক্তিতে বাধা নেই

হিলি
অর্থনীতি14 hours ago

রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠানের কাছে ব্যাংকের পাওনা ৫১ হাজার কোটি টাকা

হিলি
জাতীয়14 hours ago

ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পরিবেশমন্ত্রীর বৈঠক

হিলি
অর্থনীতি14 hours ago

এজেন্ট ব্যাংকিংয়ে লেনদেন কমেছে

হিলি
সারাদেশ14 hours ago

পদ্মায় গোসলে নেমে দুই ভাইসহ ৩ শিশুর মৃত্যু

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০