Connect with us

আন্তর্জাতিক

ইউরোপে বেড়েছে অস্ত্র বাণিজ্য

Published

on

ন্যায্য

বিশ্বজুড়ে গত পাঁচ বছরে অস্ত্র বাণিজ্য কমে আসার দিনে ইউরোপে বেড়েছে প্রায় ৯৪ শতাংশ। ইউক্রেন ও গাজা যুদ্ধ এ সময় অস্ত্র বাণিজ্যকে প্রভাবিত করেছে বলে স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (এসআইপিআরআই) এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। খবর ইউরো নিউজ।

ইউরোপে ২৩ শতাংশ হিস্যা নিয়ে ২০১৯-২৩ সাল মেয়াদে বিশ্বের বৃহত্তম আমদানিকারক ছিল ইউক্রেন। এরপর রয়েছে যুক্তরাজ্য, ইউরোপের মোট অস্ত্র আমদানির ১১ শতাংশ দেশটির দখলে। নেদারল্যান্ডস আমদানি করেছে ৯ শতাংশ।

এ সময়ে ইউরোপীয় দেশগুলোর আমদানি করা অস্ত্রের ৫৫ শতাংশ সরবরাহকারী ছিল যুক্তরাষ্ট্র, ২০১৪-১৮ সাল সময়সীমায় বৈশ্বিক অস্ত্র বাণিজ্যে এ হিস্যা ছিল ৩৫ শতাংশ। সর্বশেষ পাঁচ বছরে ইউরোপে আমদানি করা অস্ত্রের অন্যান্য উৎস হলো এশিয়া, ওশেনিয়া ও মধ্যপ্রাচ্য।

সর্বশেষ পাঁচ বছরে অস্ত্র বিক্রেতা হিসেবে এগিয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্স। ওয়াশিংটন ২০১৪-১৮ সালের তুলনায় ২০১৯-২৩ সাল মেয়াদে ১৭ শতাংশ এবং প্যারিস ৪৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি দেখেছে।

এ সময় ১০৭টি দেশে অস্ত্র সরবরাহ করে মোট বৈশ্বিক রফতানির ৪২ শতাংশ ছিল যুক্তরাষ্ট্রের ঝুলিতে। অন্যদিকে ভারত, কাতার ও মিসরে যুদ্ধবিমান সংগ্রহের কারণে ফ্রান্সের রফতানি বেড়েছে।

এছাড়া প্রথমবারের মতো অস্ত্র রফতানিতে রাশিয়ার তুলনায় এগিয়ে গেছে ফ্রান্স। এবার রাশিয়ার রফতানি কমেছে ৫৩ শতাংশ। ২০১৯ সালের ৩১টি দেশে মস্কো অস্ত্র রফতানি করলেও গত বছর নেমে আসে ১২-তে।

ফরাসি অস্ত্রের সবচেয়ে বড় ক্রেতা ছিল ভারত, যা দেশটির মোট রফতানির প্রায় ৩০ শতাংশ। তবে ভারতের অস্ত্রের প্রধান সরবরাহকারী ছিল রাশিয়া। মস্কো থেকে মোট আমদানির ৩৬ শতাংশ পেয়েছে দিল্লি।

একই সময়ে কিছু দেশে অস্ত্র রফতানি কমেছে। চীন ৫ দশমিক ৩ শতাংশ, জার্মানি ও যুক্তরাজ্য ১৪, স্পেন ২ দশমিক ২ ও ইসরায়েলের ২৫ শতাংশ অস্ত্র রফতানি কমেছে।

২০১৯-২৩ সালে পশ্চিম ইউরোপের ৭২ শতাংশ আমদানি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র থেকে, আবার একই সময়ের বৈশ্বিক রফতানির এক-তৃতীয়াংশ করেছে ইউরোপ। বিশ্বের শীর্ষ ১০ অস্ত্র রফতানিকারকের মধ্যে রাশিয়া বাদে মোট পাঁচটি দেশই ইউরোপীয়— ফ্রান্স (দ্বিতীয়), জার্মানি (পঞ্চম), ইতালি (ষষ্ঠ), যুক্তরাজ্য (সপ্তম) ও স্পেন (অষ্টম স্থান)। একই সময়ে আন্তর্জাতিক অস্ত্র স্থানান্তরের প্রায় ৩০ শতাংশ গেছে মধ্যপ্রাচ্যে, এ অঞ্চলের শীর্ষ তিন ক্রেতা ছিল সৌদি আরব, কাতার ও মিসর। মধ্যপ্রাচ্যে বেশির ভাগ অস্ত্র সরবরাহ করেছিল যুক্তরাষ্ট্র (৫২ শতাংশ), ফ্রান্স (১২ শতাংশ), ইতালি (১০ শতাংশ) ও জার্মানি (৭ দশমিক ১ শতাংশ)।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আন্তর্জাতিক

পশ্চিমবঙ্গে রেল দুর্ঘটনায় নিহত বেড়ে ৮

Published

on

ন্যায্য

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে রেল দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮ জনে। ভারতীয় রেলের তরফে বলা হয়েছে, আটজনের মৃত্যু হয়েছে; এরমধ্যে তিনজন রেলকর্মী এবং ৫ জন রেলযাত্রী।

তবে বেসরকারি সূত্র জানাচ্ছে, এ দুর্ঘটনায় ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
ইতোমধ্যে পশিমবঙ্গ ও কেন্দ্রীয় সরকারের দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনী উদ্ধারকাজে গ্যাস কাটার ব্যবহার করছে। অর্থাৎ ট্রেনের বগি কেটে যাত্রীদের বের করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

সোমবার (১৭ জুন) শিয়ালদহের দিকে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস ট্রেন। একটি মালবাহী ট্রেনের ধাক্কায় কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের পেছন দিকের কয়েকটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে হতাহতের এ ঘটনা ঘটে।

এ দিন সকালে নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন (এনজেপি) থেকে শিয়ালদহের উদ্দেশে রওনা করে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস। ট্রেনটি স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ রাঙাপানি স্টেশনের কাছে এলে পেছন থেকে সজোরে ধাক্কা দেয় মালবাহী ট্রেনটি। এ সময় ট্রেনের তিনটি বগি লাইনচ্যুত হয়, দুমড়ে মুচড়ে উল্টে যায় একটি। আরেকটি বগি উঠে যায় মালবাহী ইঞ্জিনের ওপরে।

ভারতে বর্তমানে ঈদের ছুটি চলছে। এই মুহূর্তে বহু বাংলাদেশি কলকাতায় অবস্থান করছেন। এ সময় কলকাতা হয়ে বহু বাংলাদেশি দার্জিলিং বেড়াতে যান। মূলত, দার্জিলিং ভ্রমণের জন্য অনেক পর্যটক কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস ট্রেন ব্যবহার করেন। ফলে ভারতীয়দের সঙ্গে কোনো বাংলাদেশি দুর্ঘটনার কবলে পড়েছেন কি না, সেদিকে নজর রয়েছে কলকাতাস্থ বাংলাদেশ উপহাইকমিশনের।

কলকাতা উপহাইকমিশন জানিয়েছে, প্রতি মুহূর্তেই ভারতীয় রেলের সঙ্গে বাংলাদেশ মিশন যোগাযোগ রেখে চলেছে।

ভয়াবহ এ দুর্ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নারেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাচ্ছেন ভারতের রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। বিকেলের দিকে রওনা দেবেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য সরকারের তরফে মালদা স্টেশনে হেল্পলাইন চালু করা হয়েছে।

দিল্লি থেকে রেল বোর্ডের সিইও জয়া ভার্মা সিনহা জানিয়েছেন, সিগন্যালিং ব্যবস্থা ঠিক ছিল। পণ্যবাহী ট্রেন চালকের ভুলেই এত বড় দুর্ঘটনা, প্রাথমিকভাবে এমনটাই অনুমান করা হচ্ছে। তবে পুরোটাই তদন্তসাপেক্ষ বলেও জানান তিনি।

এ রেল দুর্ঘটনা নিয়ে সোমবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে জয়া ভার্মা জানান, আপাতত দ্রুত উদ্ধারকাজ চালানো এবং ওই লাইনে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করাই রেলের প্রাথমিক লক্ষ্য। এরপরেই ঘটনার পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত করা হবে।

তবে ঘটনাটি ‘হিউম্যান এরর’ বলেই আখ্যায়িত করেছেন ভারতের রেলমন্ত্রী। তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে যা জানা যাচ্ছে, লাইনে সিগন্যাল ঠিক ছিল। কিন্তু চালক সম্ভবত সিগন্যাল মানেননি। এর ফলেই এই দুর্ঘটনা ঘটে। তবে এখনই নিশ্চিত করে দুর্ঘটনার কারণ বলা সম্ভব নয়। ইতোমধ্যে দুর্ঘটনায় মালবাহী গাড়ির চালক ও একজন কর্মী প্রাণ হারিয়েছেন। একই ভাবে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের পেছন যে গার্ড ছিলেন তারও মুত্যু হয়েছে।

জানা যায়, একই লাইনের প্রথমদিকে ছিল কলকাতাগামী কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস। ঠিক তার পেছন নির্দিষ্ট দূরত্বে ছিল মালবাহী ট্রেনটি। দূরত্ব বজায় রাখার জন্যই মালবাহী ট্রেনটিকে রেড সিগন্যাল দেখানো হয়েছিল। কোনোভাবে সেই সিগন্যাল চালকের নজর এড়িয়ে যায় এবং সজোরে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের পেছনে ধাক্কা মারে মালবাহী ট্রেনটি। রেল সূত্রে জানা গেছে, কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস ১৫০০ যাত্রী নিয়ে কলকাতার উদ্দেশে রওনা দিয়েছিল।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

আন্তর্জাতিক

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবি, ১০ অভিবাসীর মৃত্যু

Published

on

ন্যায্য

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবির ঘটনায় ১০ অভিবাসীর মৃত্যু হয়েছে। এসময় নৌকাটি থেকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে ৫১ জনকে। সোমবার (১৭ জুন) এই তথ্য জানিয়েছে একটি জার্মান দাতব্য সংস্থা। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই খবর জানিয়েছে।

নাদির নামে একটি অভিবাসী উদ্ধারকারী জাহাজ পরিচালনা করে রেসকিউশিপ নামক একটি দাতব্য সংস্থা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে সংস্থাটি জানিয়েছে, তারা একটি ডুবে যাওয়া কাঠের নৌকা থেকে মোট ৬১ জনকে উদ্ধার করেছে। তাদের মধ্যে ১০ জন মৃত ছিল।

দাতব্য এই সংস্থাটি আরও জানিয়েছে, জীবিতদের মধ্যে দুজনকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তাদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। উদ্ধারকৃতদের জরুরি নিরাপদ আশ্রয়ে স্থানান্তর করা প্রয়োজন।

ঠিক কোন অঞ্চল থেকে বা কখন এই উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করা হয়েছিল সে সম্পর্কে বিস্তারিত কোনও তথ্য জানায়নি রেসকিউশিপ। তবে মেরিনেটট্রাফিক ডটকমের ট্র্যাকিং অনুসারে, সোমবার (১৭ জুন) পূর্ব তিউনিসিয়ার স্ফ্যাক্স বন্দর থেকে দূরে অবস্থান করছিলেন নাদির।

২০১৫ সাল থেকে মধ্য ভূমধ্যসাগরে ২০ হাজারটিরও বেশি মৃত্যু ও নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা নিবন্ধন করেছে জাতিসংঘ।

চলতি মাসের শুরুর দিকে লিবিয়ার উপকূলে সমুদ্র থেকে ১১ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

আন্তর্জাতিক

যাত্রাপথে বিকল নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর বিমান

Published

on

ন্যায্য

জাপান যাওয়ার পথে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ক্রিস্টোফার লুক্সনকে বহনকারী প্রতিরক্ষা বাহিনীর বিমানটি বিকল হয়ে পড়েছে। রোববার (১৬ জুন) পাপুয়া নিউ গিনির পোর্ট মোরসবিতে তেল ভরার সময় বিমানটি বিকল হয়ে যায়।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় জানায়, বোয়িং (বিএ.এন) বিকল হয়ে পড়ায় একটি বাণিজ্যিক ফ্লাইটে করে বেইজিং পৌঁছান ক্রিস্টোফার লুক্সন। এসময় তার ব্যবসায়িক প্রতিনিধি এবং সাংবাদিকরা পোর্ট মোরসবিতেই আটকা পড়ে।

জাপানের সঙ্গে নিউজিল্যান্ডের ব্যবসার প্রচারে চারদিনের সফরে এখনও বেইজিংয়ে অবস্থান করছেন ক্রিস্টোফার। সেখানে জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদার সাথে দেখা করবেন তিনি।

নিউজিল্যান্ডের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জুডিথ কলিন্স জানিয়েছেন, নিউজিল্যান্ড প্রতিরক্ষা বাহিনীর দুটি বিমান ৭৫৭ এর বয়স ৩০ বছরেরও বেশি। ফলে এই দুই বিমান নিয়ে প্রায়ই ঝামেলায় পড়তে হয়। এছাড়া বহু পুরাতন মডেলের অস্ত্র ও সরঞ্জাম নিয়ে ধুকছে দেশটির প্রতিরক্ষা বাহিনী। বাহিনীতে সেনার সংখ্যাও কম।

এমন পরিস্থিতিতে নিউজিল্যান্ড সরকার প্রতিরক্ষা খাতে ব্যয় বাড়াতে চায়। তবে অর্থনৈতিক চাপের মুখে ব্যয় কমানোর চেষ্টা করছে দেশটি।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

আন্তর্জাতিক

ঈদের দিন পশ্চিমবঙ্গে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা

Published

on

ন্যায্য

পশ্চিমবঙ্গে ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনা। এবার দুর্ঘটনার শিকার শিয়ালদাহগামী কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস। সোমবার (১৭ জুন) সকালে ঘটা এই দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন আরও অনেকে।

জানা যায়, কয়েক দিন ধরেই উত্তরবঙ্গে মুষলধারে বৃষ্টি চলছে। এই বৃষ্টির মধ্যেই নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন থেকে সোমবার সকালে নির্ধারিত সময়ে রওয়ানা দিয়েছিল কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস। নীচবাড়ি ও রাঙামাটি স্টেশনের মাঝে ঢুকতেই একটি মালগাড়ি পিছন দিক থেকে ট্রেনটিকে ধাক্কা মারে।

সংঘর্ষের তীব্রতা এতটাই ছিল যে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের পেছন দিক থেকে পরপর দুটি কামরা লাইনচ্যুত হয়ে ছিটকে পড়ে উলটে যায়। দুমড়েমুচড়ে গেছে অসংরক্ষিত কামরা। সেখানে আটকে পড়েছেন অসংখ্য যাত্রী। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন পশ্চিমঙ্গ রেলওয়ে কর্মকর্তা, এনডিআরএফ বাহিনী, জিআরপি ও আরপিএফের জওয়ানরা।

দ্রুত উদ্ধার কাজে হাত লাগায় সবাই। দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া কামরা থেকে পাঁচ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। আহত হয়েছেন ৩০ থেকে ৪০ জনের মতো। উদ্ধার কাজ এখনো চলছে।

যেহেতু অসংরক্ষিত কামরায় প্রচুর মানুষের ভিড় ছিল, তাই আশঙ্ক করা হচ্ছে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। গ্যাস কাটার দিয়ে বগি কেটে উদ্ধার কাজ চলছে। দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া কামরার ভেতর থেকে এখনো গোঙানির শব্দ ভেসে আসছে।

যেহেতু একটি প্রত্যন্ত এলাকায় দূর্ঘটনাটি ঘটেছে, সেহেতু ঘটনাস্থল থেকে হাসপাতালে অনেকটা দূরে। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পাঠানো হচ্ছে। পরে যাদের আঘাত গুরুতর, তাদেরকে অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হচ্ছে।

এদিকে, এই দুর্ঘটনা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া একটি পোস্টে তিনি লিখেছেন, দার্জিলিংয়ের ফাঁসিদেওয়া এলাকায় ট্রেন দুর্ঘটনার খবর পেলাম। এখনো বিস্তারিত জানতে পারিনি। ঘটনাস্থলে জেলা প্রশাসক, এসপি, চিকিৎসক ও পর্যাপ্তসংখ্যক অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছেছে।

সোমবার সকাল থেকেই উত্তরবঙ্গে মুষলধারে বৃষ্টি চলছে। তার মধ্যেই উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাচ্ছে প্রশাসন। যদিও বৈরী আবহাওয়ার কারণে উদ্ধারকাজে বেগ পেতে হচ্ছে প্রশাসনকে।

এদিকে, এ দুর্ঘটনায় সংকেত ব্যবস্থার ত্রুটি রয়েছে নাকি অন্য কোনো কারণ রয়েছে, তা খতিয়ে দেখছে ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

আন্তর্জাতিক

পারিশ্রমিক ছাড়াই মক্কায় মসজিদের নকশা করেন তিনি

Published

on

ন্যায্য

মসজিদ আল-হারাম ও আন-নাবাওয়ি (মসজিদে নববি হিসেবেও পরিচিত) মসজিদের নকশা এবং তা পুন:নির্মাণ করেন প্রকৌশলী মোহাম্মদ কামাল ইসমাইল। তিনিই প্রথম প্রকৌশলী হিসেবে হারামাইন শরীফাইনের সব রকম নকশা ও পুন:নির্মাণের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত হন। এ বিষয়ে তার দীর্ঘ অভিজ্ঞতা ও অসাধারণ দক্ষতা থাকলেও, এই কঠিন ও সময়সাপেক্ষ কাজটি সম্পূর্ণ করার জন্য তিনি কোনো রকম পারিশ্রমিক নিতে অস্বীকার করেন।

রাজা ফাহাদ এবং বিন লাদেন কোম্পানি চেষ্টা করেও তার তৈরি করা নকশা ও নির্মাণ কাজের তত্ত্বাবধানের জন্য তাকে এক পয়সাও দিতে পারেনি।

তিনি বলেন, আমি কেন পৃথিবীর সবচেয়ে পবিত্র জায়গায় কাজ করার জন্য টাকা নেব, তাহলে শেষ বিচারে আমি আল্লাহকে কী জবাব দেব?

তার পুরোটা জীবন বিশ্বাসের উপর দাঁড়িয়ে ছিল। তিনি তার ব্যক্তিগত জীবনকে গোপনীয় রাখতে পছন্দ করতেন। এ কারণে তার বেশিরভাগ সময় কাটত ইবাদত করে।

তিনি যখন মসজিদ আল-হারাম ও মসজিদ আন-নাবাওয়ির নকশা ও পুন:নির্মাণের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন সেসময় তার বয়স ৮০ পেরিয়ে গেছে। এরপর তিনি তার বাকি জীবন পুরোটা এসব পবিত্র জায়গায় কাজ করে কাটিয়ে দেন এবং সেটা সম্পর্কে গণমাধ্যমকে কিছু না জানিয়েই।

১৯০৮ সালে জন্মগ্রহণ করা এই ব্যক্তি মিশরের হাইস্কুল থেকে সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে স্নাতক সম্পন্ন করেন এবং সবচেয়ে কম বয়সে লন্ডনের রয়্যাল কলেজ অব ইঞ্জিনিয়ারিং থেকে পড়াশোনা সম্পন্ন করেন। এরপর তিনি ইউরোপে যান ইসলামিক স্থাপত্যকলা সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জ্ঞান অর্জনের জন্য।

তিনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন ৪৪ বছর বয়সে। তার স্ত্রী মারা যাওয়ার আগে এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন, এরপর তিনি আর কখনো বিয়ে করেননি এবং মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি নিজেকে আরাধনার কাজে সমর্পণ করেন।

মোহাম্মদ কামাল ১০০ বছরের বেশি সময় বেঁচে ছিলেন।

আল হারাম ও আন-নাবাওয়ির অসাধারণ নকশা ছাড়াও, ভবনগুলো পুন:নির্মাণে যেসব উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে তা ছিল খুবই দুষ্প্রাপ্য।

যদি এসব পবিত্র জায়গায় যাওয়ার সুযোগ হয়ে থাকে, তাহলে দেখবেন সৌদি আরবে যতই গরম পড়ুক, আল হারাম মসজিদের মেঝে স্পর্শ করলেই ঠাণ্ডা লাগে। যে কারণে এই মেঝেটা সবসময় ঠাণ্ডা থাকে তা হলো এতে সাদা মার্বেল ব্যবহার করা হয়েছে। এই স্নো হোয়াইট মার্বেল খুবই দুষ্প্রাপ্য, যা লেবানন থেকে আনা হয়।

ড. মোহাম্মদ কামাল গ্রীসে গিয়ে আরেকটা দুষ্প্রাপ্য মার্বেল পাথর কিনে আনেন যা কিনা অস্বাভাবিক উজ্জ্বল এবং এর সাদা রং গরম আবহাওয়ায় ঘর ঠাণ্ডা রাখতে সাহায্য করে।

যখন আন-নাবাওয়ি মসজিদের নির্মাণকাজ শুরু হয় সেই সময় সৌদি আরবের বাদশা ড. কামালকে স্নো হোয়াইট মার্বেল ব্যবহার করতে বলেন।

মসজিদ আল-হারাম বা মক্কার মসজিদ, ইসলামের পবিত্রতম স্থান যা সৌদি আরবের মক্কায় অবস্থিত।

ইতিহাসে অসংখ্যবার এটির আকার বর্ধিত করা হয়, যাতে প্রতি বছর হজ্জ ও উমরাহ পালনের জন্য আসা অসংখ্য মুসল্লিদের এতে জায়গা দেয়া যায়।

বাদশাহ ফাহাদের সময়কালে এটিকে বর্ধিত করার পর মসজিদটির পুরো এলাকার আয়তন দাঁড়িয়েছে তিন লক্ষ ৫৬ হাজার ৮০০ বর্গমিটার।

সাধারণ সময়ে এটি আট লক্ষ ২০ হাজার মুসল্লিকে জায়গা দিতে সক্ষম। তবে হজের সময় কিংবা মুসলিমদের পবিত্র মাস রমজানে এখানে ১০ লাখেরও বেশি মুসল্লি জায়গা পেয়ে থাকেন।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

শেয়ারবাজারের সর্বশেষ

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার1 day ago

মূলধন বাড়ানোর অনুমতি পেল আল-আমিন কেমিক্যাল

পুঁজিবাজারে ওভার দ্য কাউন্টার (ওটিসি) মার্কেটে তালিকাভুক্ত কোম্পানি আল-আমিন কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডকে পরিশোধিত মূলধন বাড়ানোর বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার2 days ago

ডিএসইর পিই রেশিও কমেছে

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন -১৩ জুন) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পিই রেশিও (সার্বিক মূল্য আয় অনুপাত) কমেছে। আগের সপ্তাহের তুলনায়...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার2 days ago

বাংলাদেশ ফাইন্যান্সের সর্বোচ্চ দরপতন

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন-১৩ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হওয়া ৩৯৪ কোম্পানির মধ্যে ৩২৩টির শেয়ারদর কমেছে।...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার2 days ago

সাপ্তাহিক দরবৃদ্ধির শীর্ষে সমতা লেদার

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন-১৩ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হওয়া ৩৯৪ কোম্পানির মধ্যে ৫৪টির শেয়ার ও...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার2 days ago

সাপ্তাহিক লেনদেনের শীর্ষে বিকন ফার্মা

বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন-১৩ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৩৯৪ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে লেনদেনের...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার3 days ago

ঈদের আগে নেতিবাচক শেয়ারবাজার

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বিদায়ী সপ্তাহে (৯ জুন থেকে ১৩ জুন) গড় লেনদেন ১৬ শতাংশের বেশি কমেছে।...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার3 days ago

কাস্টমস লাইসেন্স পেয়েছে সামিট পোর্টের সহযোগী কোম্পানি

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট লিমিটেডের সাবসিডিয়ারি কনটেইনার ট্রান্সপোর্টেশন সার্ভিসেস লিমিটেড (সিটিএসএল) ফ্রেইট ফরোয়ার্ডিং ও শিপিং এজেন্সি ব্যবসার জন্য...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার3 days ago

বন্ড ছেড়ে ৫০০ কোটি টাকা তুলবে ট্রাস্ট ব্যাংক

সাব-অর্ডিনেটেড বন্ড ইস্যু করে পুঁজিবাজার থেকে ৫০০ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে তালিকাভুক্ত ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন)...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার3 days ago

ভিআইপিবি ফিক্সড ইনকাম ফান্ডের প্রসপেক্টাস অনুমোদন

সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোাম্পানি লিমিটেডের ফিক্সড ইনকাম ফান্ডের খসড়া প্রসপেক্টাস অনুমোদন করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

ইউনাইটেড ফাইন্যান্সের লভ্যাংশ অনুমোদন

সমাপ্ত ২০২৩ অর্থবছরের জন্য ঘোষিত ৬ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইউনাইটেড ফাইন্যান্স লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ। বৃহস্পতিবার (...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

সিকদার ইন্স্যুরেন্সের লভ্যাংশ ঘোষণা

গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২৩ তারিখে সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সিকদার ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। আলোচ্য বছরের জন্য...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

এনআরবিসি ব্যাংকের নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন

সমাপ্ত ২০২৩ হিসাববছরের জন্য ঘোষিত ১১ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এনআরবিসি ব্যাংক পিএলসি। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) অনুষ্ঠিত...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

টেকনো ড্রাগসের আইপিওতে বিনিয়োগকারীদের ব্যাপক সাড়া

টেকনো ড্রাগস পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের নিকট থেকে ১০০ কোটি টাকার প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) আহ্বান করে। আজ বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) কোম্পানিটির...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

ব্লকে ৯৫ কোটি টাকার লেনদেন

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লকে ৩৪টি কোম্পানির মোট ৯৫ কোটি ৪৬ লাখ ৫৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

এনসিসি ব্যাংক পরিচালকের দুই কোটি শেয়ার হস্তান্তরের ঘোষণা

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল ক্রেডিট অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের (এনসিসি) এক পরিচালক দুই কোটি ১৪ লাখ শেয়ার হস্তান্তরের ঘোষণা...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

নগদ লভ্যাংশ পাঠিয়েছে ইউনিলিভার

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইউনিলিভার কনজিউমার কেয়ার লিমিটেড গত ৩১ ডিসেম্বর,২০২৩ সমাপ্ত হিসাববছরে জন্য ঘোষিত নগদ লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের কাছে পাঠিয়েছে। ঢাকা স্টক...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

বিমা খাতের তিন কোম্পানির ক্রেডিট রেটিং সম্পন্ন

পুঁজিবাজারে বিমা খাতে তালিকাভুক্ত তিন কোম্পানির ক্রেডিট রেটিং সম্পন্ন করা হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

রেসের সকল ফান্ডের ব্যাংক হিসাবের লেনদেন স্থগিতাদেশ বিএফআইইউয়ের

বাংলাদেশ রেস অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট পিসিএল এবং তার অধীনে পরিচালিত ফান্ডসমূহের সকল ব্যাংক হিসাবের লেনদেন স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

বাংলাদেশ ফাইন্যান্সের সর্বোচ্চ দরপতন

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৯৬টি কোম্পানির মধ্যে ১১৩টির দর কমেছে। সবচেয়ে বেশি দর কমেছে...

ন্যায্য ন্যায্য
পুঁজিবাজার4 days ago

দর বৃদ্ধির শীর্ষে লিগ্যাসি ফুটওয়্যার

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩৯৬ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২২৪টির শেয়ারদর বেড়েছে। এর...

Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

ন্যায্য
জাতীয়23 mins ago

দক্ষিণ সিটির ৪৪ ওয়ার্ডের শতভাগ বর্জ্য অপসারণ

ন্যায্য
আন্তর্জাতিক39 mins ago

পশ্চিমবঙ্গে রেল দুর্ঘটনায় নিহত বেড়ে ৮

ন্যায্য
স্বাস্থ্য2 hours ago

ঈদের দিন আকস্মিক হাসপাতাল পরিদর্শনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ন্যায্য
জাতীয়2 hours ago

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের ঈদ উপহার পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

ন্যায্য
জাতীয়2 hours ago

২৪ ঘণ্টার আগেই বর্জ্য অপসারণে সক্ষম হবো: মেয়র তাপস

ন্যায্য
আন্তর্জাতিক2 hours ago

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবি, ১০ অভিবাসীর মৃত্যু

ন্যায্য
অর্থনীতি2 hours ago

সর্বোচ্চ ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে গরুর চামড়া

ন্যায্য
অর্থনীতি3 hours ago

পদ্মা সেতুতে ঈদযাত্রায় টোল আদায় প্রায় ২৫ কোটি টাকা

ন্যায্য
জাতীয়3 hours ago

রাত ৮টার মধ্যেই কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করবে ডিএনসিসি

ন্যায্য
জাতীয়4 hours ago

শান্তিরক্ষা মিশনে আফ্রিকা গেলেন ১২৫ বিমানসেনা

ন্যায্য
রাজধানী4 hours ago

প্রণোদনার পরও নির্ধারিত স্থানে পশু কোরবানিতে আগ্রহ নেই

ন্যায্য
আন্তর্জাতিক5 hours ago

যাত্রাপথে বিকল নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর বিমান

ন্যায্য
জাতীয়5 hours ago

ডিএমপির সর্বোচ্চ নিরাপত্তায় ঢাকা মহানগরীতে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত

ন্যায্য
জাতীয়5 hours ago

সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান রাষ্ট্রপতির

ন্যায্য
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার5 hours ago

চাকরির সুযোগ দিচ্ছে কর্ণফুলী গ্রুপ

ন্যায্য
পর্যটন6 hours ago

পানাম-সোনারগাঁ জাদুঘর বন্ধ আজ

ন্যায্য
প্রবাস6 hours ago

মালয়েশিয়ায় পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত

ন্যায্য
জাতীয়6 hours ago

ঈদুল আজহা ত্যাগের কথা স্মরণ করিয়ে দেয়: শিক্ষামন্ত্রী

ন্যায্য
জাতীয়6 hours ago

কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ শুরু

ন্যায্য
রাজধানী6 hours ago

রাজধানীতে কোরবানি দিতে গিয়ে আহত ৫৫ জন

ন্যায্য
সারাদেশ7 hours ago

ভারি বর্ষণে জলমগ্ন সিলেট, ম্লান ঈদ আনন্দ

ন্যায্য
আন্তর্জাতিক8 hours ago

ঈদের দিন পশ্চিমবঙ্গে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা

ন্যায্য
জাতীয়8 hours ago

ঈদের দিনও ঢাকা ছাড়ছেন অনেকে

ন্যায্য
টেলিকম ও প্রযুক্তি8 hours ago

হোয়াটসঅ্যাপে পাঁচ ভাষায় ভয়েস-টেক্সট সুবিধা

ন্যায্য
জাতীয়9 hours ago

দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা রাষ্ট্রপতির

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০