Connect with us

খেলাধুলা

টাইব্রেকারে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

Published

on

আলিফ

সাফের বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্টের ফাইনালে কয়েকদিন আগেই খেলেছিলো বাংলার মেয়েরা। সেবার প্রতিপক্ষ ছিলো ভারত। ফাইনালে খেলা ট্রাইব্রেকারে গড়ালে নানান নাটকীয়তা শেষে উভয় দলকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়।

সাফ অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলে ড্র ছিল। তবে আর টস নাটকীয়তা আসেনি। টাইব্রেকারে ৩-২ ব্যবধানে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ।

নির্ধারিত সময়ের খেলায় আগে এক গোল হজম করে পরে সমতায় ফেরে বাংলাদেশ। টাইব্রেকারেও প্রথম শট মিস করেন বাংলাদেশের ফরওয়ার্ড সুরভী আকন্দ প্রীতি। যদিও পরে গোলকিপার ইয়ারজান বেগমের দুর্দান্ত তিনটি সেভে সাফ শিরোপা জয় করে বাংলাদেশ।

রাউন্ড রবিন লিগের মোকাবেলায় ভারতকে ৩-১ গোলে হারায় সাইফুল বারী টিটুর শিষ্যরা। তাই আজ মনস্তাত্ত্বিকভাবে বাংলাদেশের মেয়েরাই এগিয়েছিল। ফাইনালেও জিতল লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। আনুষ্কা কুমারী এগিয়ে দিয়েছিলেন ভারতকে। দ্বিতীয়ার্ধে মারিয়ামের গোলে সমতা আনে বাংলাদেশ। অতিরিক্ত সময়ে খেলা না থাকায় টাইব্রেকারে শিরোপার মীমাংসা হয়।

অনূর্ধ্ব-১৫, অনূর্ধ্ব-১৬, অনূর্ধ্ব-১৭ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে এটা বাংলাদেশের দ্বিতীয় শিরোপা। ভারতও জিতেছে দুটি। এছাড়া অতিথি দল রাশিয়া ও নেপাল একবার করে শিরোপা জিতেছে।

গত বছর বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৭ নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে অতিথি দল হিসেবে অংশ নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল রাশিয়া। এবার অনূর্ধ্ব-১৬ ক্যাটাগরির সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ আয়োজন করেছে সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (সাফ)। এতে শিরোপার স্বাদ পেল বাংলাদেশের কিশোরীরা।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

খেলাধুলা

বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল শনিবার

Published

on

আলিফ

আগামী ২০ এপ্রিল শনিবার বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠেয় ফাইনালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আজ টুর্নামেন্টের বিস্তারিত তুলে ধরেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী রুমানা আলী এমপি।

তিনি বলেন দল ও খেলোয়াড় সংখ্যা বিবেচনায় ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট’ ও ‘বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামন্টে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ফুটবল টুর্নামেন্টে পরিণত হয়েছে।

তিনি জানান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ২০১০ সাল থেকে স্বাধীনতার মহানায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট’ এবং ২০১১ সাল থেকে বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণীর নামে ‘বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট’ চালু করেছে।

২০২৩সালে ৬৫ হাজার ৩৫৪ টি স্কুলের ১১ লাখ ১১ হাজার ১৮ জন ছাত্র ও ৬৫ হাজার ৩৫৪টি স্কুলের ১১ লাখ ১১ হাজার ১৮ জন ছাত্রী এ টুর্নামেন্টে ইউনিয়ন থেকে জাতীয় পর্যায় পর্যন্ত অংশগ্রহণ করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রণালয়ের সচিব ফরিদ আহাম্মদ, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শাহ রেজওয়ান হায়াত প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

খেলাধুলা

বাংলাদেশের নতুন স্পিন বোলিং কোচ মুশতাক আহমেদ

Published

on

আলিফ

পাকিস্তানের সাবেক লেগস্পিনার এবং বিশ্বকাপজয়ী মুশতাক আহমেদকে বাংলাদেশ জাতীয় দলের নতুন স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

চলতি মাসের শেষদিকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের আগে প্রস্তুতি ক্যাম্পে যোগ দেবেন তিনি।

মুশতাকের সঙ্গে বিসিবির চুক্তি হয়েছে চলতি বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত। ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং যুক্তরাষ্ট্রে ১ জুন থেকে মাঠে গড়াবে এই বিশ্বকাপ।

৫৩ বছর বয়সী মুশতাক এর আগে ২০০৮ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ইংল্যান্ড দলের স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে কাজ করেছেন। নিজ দেশ পাকিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজেরও স্পিন কোচ ছিলেন মুশতাক।

খেলোয়াড়ি জীবনও বেশ সমৃদ্ধ ছিল মুশতাকের। পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে ১৫২ টেস্টে ১৮৫ এবং ১৪৪ ওয়ানডেতে নিয়েছেন ১৬১ উইকেট। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তার নামের পাশে ১৪০৭ উইকেট!

১৯৯২ সালে ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন বিশ্বকাপজয়ী পাকিস্তান দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন মুশতাক আহমেদ।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

খেলাধুলা

রহমতগঞ্জকে হারিয়ে সেমিফাইনালে বসুন্ধরা কিংস

Published

on

আলিফ

ঈদ উল ফিতরের বিরতির পর ফেডারেশন কাপ দিয়ে মাঠে ফিরল ঘরোয়া ফুটবল। ঈদের আগে প্রথম দল হিসেবে আসরের সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছিল মোহামেডান।

গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে আজ রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটিকে ২-০ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে কিংস। একটি করে গোল করেছেন সোহেল রানা এবং এমফন উদোহ।

শুরু থেকে প্রতিপক্ষের ওপর আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে বসুন্ধরা কিংস। রহমতগঞ্জের রক্ষণের কঠিন পরীক্ষা নিতে থাকে কিংসের আক্রমণভাগ। ফলও পায় দ্রুতই। ম্যাচের ২৪তম মিনিটেই এগিয়ে যায় অস্কার ব্রুজোনের শিষ্যরা। রবসন রবিনহোর পাসে বাঁ পায়ের জোরালো শটে দলকে এগিয়ে দেন সোহেল রানা।

৪২তম মিনিটে মিনিটে ঘানার ফরোয়ার্ড স্যামুয়েল মেনসা কনির বক্সে ঢুকে জোরালো শট সরাসরি আসায় আটকে দেন কিংসের গোলকিপার মেহেদী হাসান শ্রাবণ। ফলে সমতায় ফেরা হয়নি রহমতগঞ্জের। এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় কিংস।

বিরতির পর আক্রমণের ধার বাড়ায় কিংস। সমতায় ফিরতে মরিয়া হয়ে ওঠে রহমতগঞ্জও। ৬২তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে নেয় কিংস। রবিনহোর থ্রু পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বক্সে ঢুকে উদোহ আগুয়ান আলিফের মাথার উপর দিয়ে চিপ শটে বল জড়িয়ে দেন জালে।

যোগ করা সময়ের শেষ মিনিটে রহমতগঞ্জ গোল পেতে পারতো। স্যামুয়েল কনে বক্সের ভেতরে বল পেয়ে সরাসরি গোলকিপার শ্রাবণের শরীরে মেরে সুযোগ নষ্ট করে সতীর্থদের চূড়ান্ত হতাশ করেন।

রেফারির শেষ বাঁশি বাজার পর কনের সঙ্গে বিশ্বনাথের হালকা বাদানুবাদ হয়। তবে ইয়াসিন আরাফাতের হস্তক্ষেপে তা বেশিদূর এগোয়নি। কিংস সেমিতে ওঠার আনন্দ নিয়ে মাঠ ছেড়েছে। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ হবে ফর্টিস এফসি ও আবাহনীর মধ্যকার চতুর্থ কোয়ার্টার ফাইনালের জয়ী দল।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

খেলাধুলা

ম্যাচসেরা ক্যাচে মুস্তাফিজের আয় ১ লাখ রুপি

Published

on

আলিফ

ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে অতীতটা ভাল ছিল না মুস্তাফিজের জন্য। ফিজের প্রধান অস্ত্র কাটার এবং স্লোয়ার। মুম্বাইয়ের মাঠে সেটা খুব একটা কাজে আসেনি। বল হাতে টাইগার পেসার ছিলেন খরুচে, ৪ ওভারে দিয়েছেন ৫৫ রান। তবে দিনশেষে মুম্বাইয়ের বিপক্ষে ম্যাচে জয়ের এক্স-ফ্যাক্টর হয়ে ছিলেন টাইগার পেসারই।

টি-টোয়েন্টির নাম্বার ওয়ান ব্যাটার সূর্যকুমার যাদবকে শূন্য রানে ফিরিয়েছিলেন মাথিশা পাথিরানা। সেটায় বড় ভূমিকা ছিল বাংলাদেশি পেসারের। পাথিরানার বলে ডিপ থার্ডম্যান সীমানায় দাঁড়িয়ে দারুণ এক ক্যাচ নিয়েছেন মুস্তাফিজ। বিপজ্জনক ব্যাটার সূর্যকুমার যাদবকে ফিরতে হয়েছে ফিজের সেই অসাধারণ ক্যাচের কল্যাণে। সূর্যকুমারের এই ক্যাচ চলতি আইপিএলের সেরা ক্যাচ হতেই পারে।

পাথিরানার বলে তুলে দিয়েছিলেন থার্ডম্যানে। আর একটু হলেই ছয় হয়ে যাচ্ছিল। কিন্তু মুস্তাফিজ সেই ক্যাচ ধরেন। ভারসাম্য সামলাতে না পেরে বল উপরে ছুড়ে দিয়েছিলেন। বাউন্ডারির ভেতরে একটি পা রেখে ভারসাম্য ফিরিয়ে আবার মাঠের ভেতরে এসে ক্যাচ লোফেন। রিভিউ দেখার পর আউট দেওয়া হয়। পাথিরানার ওই ওভারেই আউট হয়েছিলেন ঈশান কিশান।

পরে সূর্যকুমারের আর এই ক্যাচটিই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয়। আর সেইসঙ্গে হয়ে যায় ম্যাচের সেরা ক্যাচ। যার জন্য ম্যাচ শেষে মুস্তাফিজ পেয়েছেন ভারতীয় ১ লক্ষ রুপি। বাংলাদেশের অর্থমূল্যে যা ১ লাখ ৩১ হাজার ৪৯৫ টাকা।

বল হাতে খরুচে হলেও ফিজ প্রশংসায় ভেসেছেন ক্যাচের জন্য। যেই তালিকায় আছেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি উইকেটরক্ষক অ্যাডাম গিলক্রিস্টও। সাবেক এই উইকেটরক্ষক মনে করেন পাথিরানার সেই এক ওভারেই খেলার মোমেন্টাম ঘুরে গেছে, ‘মুস্তাফিজের ক্যাচটা দারুণ ছিল। ওই এক ওভারে দুই উইকেট যাওয়ায় মোমেন্টাম ঘুরে যায়।’

রোববার মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়েতে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে রুতুরাজ গায়কোয়াড় ও শিভাম দুবের জোড়া ফিফটি ও শেষ দিকে ধোনির হ্যাটট্টিক ছয়ে ২০৬ রানের বড় পুঁজি গড়েছিল চেন্নাই। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ভালো শুরু পেয়েছিল মুম্বাই। এক পাথিরানার তাণ্ডবে ধস নামে স্বাগতিক শিবিরে। ৬৩ বলে ১০৫ রানে অপরাজিত থেকেও দলকে জেতাতে পারলেন না রোহিত শর্মা। ৪ ওভারে ২৮ রান খরচায় ৪ উইকেট শিকার করেছেন পাথিরানা।

এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

খেলাধুলা

রাতে মাঠে নামছে চেন্নাই, একাদশে থাকবেন মুস্তাফিজ?

Published

on

আলিফ

২০১৮ আইপিএল। সানরাইজার্স হায়দরাবাদ থেকে ২ কোটি ২০ লাখ রূপিতে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে যোগ দিয়েছিলেন বাংলাদেশের পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। মুম্বাই অধ্যায় খুব একটা ভালো যায়নি ফিজের। ৭ ম্যাচে পেয়েছিলেন ৭ উইকেট। গড় ছিল ৩৩ এর কাছাকাছি আর ইকোনমি ছিল ৮.৩৬। সে বছরই শেষ হয়েছে ফিজের মুম্বাই অধ্যায়।

চার বছর পর ফিজ এখন মুম্বাইয়ের বড় প্রতিপক্ষ চেন্নাইয়ের বোলার। আইপিএলের সবচেয়ে সফল দুই দল এই চেন্নাই এবং মুম্বাই। দুই দলেরই ট্রফি ক্যাবিনেটে আছে ৫টি করে আইপিএল শিরোপা। রোববারের বড় ম্যাচে রাতে মুম্বাইয়ের হোমভেন্যু ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে চেন্নাই এবং মুম্বাই।

চলতি মৌসুমটা এখন পর্যন্ত বেশ দারুণই কেটেছে মুস্তাফিজের। চার ম্যাচে পেয়েছেন নয় উইকেট। এখন পর্যন্ত টিকে আছেন মৌসুমের সেরা বোলারের স্বীকৃতির দৌড়ে। তবে আজকের ম্যাচটিই হতে পারে ফিজের সবচেয়ে বড় পরীক্ষা। রোহিত শর্মা, সূর্যকুমার যাদব, ঈশান কিশান, টিম ডেভিডদের নিয়ে গড়া মুম্বাইয়ের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ নিশ্চিতভাবেই পরীক্ষা নেবে চেন্নাইয়ের।

এরসঙ্গে যুক্ত হবে ওয়াংখেড়ের বিশাল নীলের স্রোত। মুম্বাইয়ের হোম ভেন্যু বরাবরই দর্শক সমর্থনে পুষ্ট। বোলারদের স্নায়ুতে চাপ ফেলতে ওয়াংখেড়ের দর্শকদের জুড়ি মেলা ভার। এবারের আসরেও টানা ব্যর্থতায় ঘুরপাক খাচ্ছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। হার্দিক পান্ডিয়ার নেতৃত্বাধীন দলে বিতর্ক আর হারই ছিল সঙ্গী। সেখান থেকে অবশ্য কিছুটা হলেও ঘুরে দাঁড়িয়েছে দলটি। সবশেষ দুই ম্যাচে জয় পেয়েছে ৫ বারের চ্যাম্পিয়নরা। আর মুম্বাইয়ের ঘুরে দাঁড়ানোর মিশনে এক্স-ফ্যাক্টর হয়ে ছিল ঘরের মাঠ ওয়াংখেড়ে।

হোমগ্রাউন্ডের এই সুবিধা পুরোপুরি কাজে লাগিয়েছে মুম্বাই। সেইসঙ্গে গড়েছে অনন্য এক নজিরও। আইপিএলের প্রথম দল হিসেবে যেকোন মাঠে ৫০ জয়ের কীর্তি গড়েছে তারা। নিজেদের হোমগ্রাউন্ড ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে এখন পর্যন্ত ৮১ ম্যাচ খেলেছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। তাতে ১ টাই এবং ৩০ হারের পাশাপাশি আছে ৫০ জয়।

সেইসঙ্গে এখানকার নিঁখাদ ব্যাটিং পিচও হতে পারে ফিজের জন্য দুশ্চিন্তার কারণ। এবারের আসরে এখন পর্যন্ত হাইস্কোরিং সব ম্যাচ দেখেছে ওয়াংখেড়ে। সবশেষ ম্যাচেই বেঙ্গালুরুর দেয়া ১৯৭ রানের টার্গেট মুম্বাই পার করেছে মোটে ১৫.৩ বলে। এই মাঠেই দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে ২৩৪ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছিল মুম্বাই। ছোট মাঠ এবং কুইক আউটফিল্ড এই মাঠে রান করা অনেকখানি সহজ করেছে।

এবারের আসরে এখন পর্যন্ত ৯ উইকেটের ৮টিই ফিজ শিকার করেছেন চিপাকের অপেক্ষাকৃত ধীরগতির পিচে। দারুণ সব সুইংয়ে বিভ্রান্ত করেছেন ব্যাটারদের। সে তুলনায় ওয়াংখেড়েতে তাকে খেলতে হবে ফাস্ট বোলিংয়ের উপযুক্ত পিচে। স্বাভাবিকভাবেই কিছুটা পরীক্ষা দিতেই হবে ফিজকে।

মুম্বাইয়ের এই লাল মাটির পিচ বরাবরই রানসহায়ক। পরিসংখ্যান বলছে বোলারদের এই মাঠে প্রতিটি উইকেটের জন্য ২৭ এর বেশি রান দিতে হয়েছে। ইকোনমিটাও সাড়ে আটের কিছু বেশি। আগে ব্যাট করে এখানে গড় স্কোর ১৬৯.৪৩। আবার পরে ব্যাট করে জয়ের শতকরা হারও বেশি।

এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন
আলিফ
অর্থনীতি4 hours ago

রমজানে কমলেও ঈদের পর বাড়ল ডিমের দাম

আলিফ
জাতীয়4 hours ago

প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ শুরু বৃহস্পতিবার

আলিফ
খেলাধুলা5 hours ago

বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল শনিবার

আলিফ
পুঁজিবাজার5 hours ago

বিনিয়োগকারীদের আস্থা বাড়াতে ৫০ লাখ শেয়ার ছাড়বে ক্রাফটসম্যান ফুটওয়্যার

মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের শেয়ার ক্রয়-বিক্রয় সম্পন্ন
পুঁজিবাজার5 hours ago

মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের লভ্যাংশ ঘোষণা

আলিফ
জাতীয়5 hours ago

চিকিৎসায় অবহেলা মেনে নেয়া হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আলিফ
জাতীয়6 hours ago

জিম্মিদশার ৩১ দিনের লোমহর্ষক বর্ণনা দিলেন জাহাজের ক্যাপ্টেন

আলিফ
আন্তর্জাতিক6 hours ago

জাপানে শক্তিশালী ভূমিকম্পের আঘাত

আলিফ
জাতীয়6 hours ago

টেকসই সমুদ্র ব্যবস্থাপনায় সম্মিলিত প্রয়াসের আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

আলিফ
পুঁজিবাজার7 hours ago

অগ্নি সিস্টেমসের তৃতীয় প্রান্তিক প্রকাশ

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০