Connect with us

অর্থনীতি

বাজার স্থিতিশীল রাখতে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চাইলেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

Published

on

বাজার স্থিতিশীল রাখতে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চাইলেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

বাজারে পণ্যের প্রাপ্যতা নিশ্চিতকরণ এবং সাপ্লাইচেইন ব্যবস্থা সুসংহত বা স্থিতিশীল রাখতে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চেয়েছেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু।

মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে নিজ দপ্তরে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সভাপতি আশরাফ আহমেদের নেতৃত্বে পরিচালনা পর্ষদের সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তিনি এ সহযোগিতা চান।

সাক্ষাৎকালে বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের পর্যাপ্ত উৎপাদন থাকা সত্ত্বেও সাপ্লাইচেইন ব্যবস্থার অব্যবস্থাপনার কারণে বাজারে পণ্য সরবরাহ স্বাভাবিক হচ্ছে না, এমতাবস্থায় বাজারে পণ্যের প্রাপ্যতা নিশ্চিতকরণ এবং সাপ্লাইচেইন ব্যবস্থা সুসংহতকরণের পাশাপাশি ব্যবসায়ী সমাজের সহযোগিতা কামনা করেন।

তিনি বলেন, হস্তশিল্পকে চলতি বছরের জন্য বর্ষপণ্য হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে এবং দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে থাকা হস্তশিল্পের পাশাপাশি অপ্রচলিত পণ্যের প্রসারের লক্ষ্যে ‘একটি গ্রাম-একটি পণ্য’ উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। যার মাধ্যমে স্থানীয় পর্যায়ে উৎপাদিত এ ধরনের পণ্যের জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশে সুযোগ সৃষ্টি হবে।

পণ্য আমদানিতে এলসি জটিলতা বিষয়ে বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের উদ্যোক্তারা এলসি খুলছে, তবে বিষয়টি মূলত নির্ভর করে ব্যাংক ও আমদানিকারকের মধ্যকার পারস্পরিক আস্থা ও বিশ্বাসের ওপর।

ঢাকা চেম্বারের সভাপতি আশরাফ আহমেদ বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে পণ্য রপ্তানি সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বাংলাদেশের ইতোমধ্যে ভুটান, ডি-৮ এবং আপটার সঙ্গে তিনটি ‘অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি (পিটিএ)’ এবং ‘সাফটা’ ও ‘সার্ক অ্যাগ্রিমেন্ট অন ট্রেড ইন সার্ভিসেস (এসএটিআইএস)’ দুটি মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (এফটিএ) রয়েছে। এ ছাড়া আরও ১২টি দেশের সঙ্গে ‘পিটিএ’ ও ‘এফটিএ’ স্বাক্ষরের লক্ষ্যে সম্ভাব্যতা যাচাই প্রক্রিয়াধীন রয়েছে, যেগুলো দ্রুততম সময়ের মধ্যে সম্পন্নের লক্ষ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহ্বান জানান। সেইসঙ্গে বাংলাদেশের ব্যবসা-বাণিজ্যের সম্ভাবনাময় গন্তব্যের দেশসমূহের সঙ্গে পিটিএ এবং এফটিএ স্বাক্ষরে উদ্যোগী হওয়ার প্রতি জোরারোপ করেন ডিসিসিআই সভাপতি।

ডিসিসিআই’র ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি মালিক তালহা ইসমাইল বারী এবং সহ-সভাপতি মো. জুনায়েদ ইবনে আলীসহ পরিচালনা পর্ষদের সদস্যরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

অর্থনীতি

এমডি নিয়োগের যোগ্যতা যাচাইয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কমিটি

Published

on

ক্যাটাগরি

ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে ব্যাংকের মনোনীত ব্যক্তির যোগ্যতা যাচাইয়ের চার সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কমিটির নাম দেওয়া হয়েছে ব্যবস্থাপনা পরিচালক বা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পদে নিয়োগ/পুনঃনিয়োগ বিষয়ক মূল্যায়ন কমিটি।

রবিবার (৩ মার্চ) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করেছে।

ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা স্বেচ্ছায় বা পর্ষদের চাপে যেকোনোভাবে ব্যাংকের এমডি পদ ছাড়তে গেলেও বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন লাগবে। এমডি নিয়োগের আগে তার শিক্ষাগত যোগ্যতা, কর্ম অভিজ্ঞতাসহ প্রস্তাব পাঠাতে হবে বাংলাদেশ ব্যাংকে। মনোনীত ব্যক্তির সাক্ষাৎকার নেবে বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি কমিটি। ওই কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে এমডি নিয়োগে অনুমোদন দেবে বাংলাদেশ ব্যাংক।

প্রজ্ঞাপনে কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানায়, ব্যাংকের এমডি হিসেবে ব্যাংকের মনোনীত ব্যক্তির যোগ্যতা, উপযুক্ততা, অভিজ্ঞতা, বয়স ও নেতৃত্বের গুণাবলীর বিষয়াদি যাচাইয়ের একজন ডেপুটি গভর্নরের নেতৃত্বে চার সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। এমডি নিয়োগ মূল্যায়ন কমিটিতে সভাপতি হিসেবে থাকবেন ডেপুটি গভর্নর (ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত)। বাকি তিন সদস্যের মধ্যে রয়েছেন- নির্বাহী পরিচালক (ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত), নির্বাহী পরিচালক (ডিপার্টমেন্ট অব অফসাইট সুপারভিশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত) এবং পরিচালক (ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ, ডিভিশন-২)।

ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার নিয়োগের মেয়াদ হবে সাধারণভাবে তিন বছর। তবে তিনি পুনর্নিয়োগের যোগ্য হবেন। পুনর্নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রার্থীর বয়স যদি ৬৫ বছর অতিক্রান্ত হতে তিন বছরের কম সময় থাকে তবে সেক্ষেত্রে উক্ত সময়ের জন্যও তাকে নিয়োগ দেওয়া যাবে। তবে যে মেয়াদের জন্যই প্রস্তাব করা হোক না কেন বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক প্রার্থীর সাক্ষাৎকার গ্রহণের পর তার উপযুক্ততা পরীক্ষান্তে যে মেয়াদের জন্য নিয়োগ সুপারিশ করা হবে সে মেয়াদের জন্য তাকে ব্যাংক নিয়োগ প্রদান করবে।

এর আগের গত ২৭ ফেব্রুয়ারি এক নির্দেশনায় বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, এমডিকে অপসারণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমতি লাগবে। কোনো এমডি চরম স্খলন বা বিচ্যুতিপূর্ণ কাজ না করলে চুক্তির মেয়াদপূর্তির আগে কাউকে তার পদ থেকে অপসারণ বা চুক্তি বাতিল করা যাবে না। চুক্তি বাতিল বা অপসারণ করতে চাইলে সুনির্দিষ্ট কারণ উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে পাঠাতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক এরূপ প্রস্তাব অনুমোদন করলে এক মাস পর তা কার্যকর হবে। একইভাবে বাংলাদেশ ব্যাংক নাকচ করলে মেয়াদের অবশিষ্ট সময় এমডি স্বপদে বহাল থাকবেন। মেয়াদ শেষের আগে কেউ পদত্যাগ করতে চাইলে পরিচালনা পর্ষদের সুপারিশসহ বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠাতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকে ব্যক্তিগত শুনানির পর যে সিদ্ধান্ত দেবে, তা কার্যকর হবে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

অর্থনীতি

বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধিতে পোশাক খাতে খরচ বাড়বে: বিজিএমইএ সভাপতি

Published

on

ক্যাটাগরি

বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, দেশে ব্যাংকঋণের সুদের হার বাড়িয়ে উচ্চ মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করা হচ্ছে। বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির কারণে সেই প্রচেষ্টা বাধাগ্রস্ত হবে। বিদ্যুতের দাম আগের জায়গায় নিতে সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

তুলাবিহীন বা নন-কটন পোশাক রপ্তানি-সংক্রান্ত এক গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তৈরি পোশাকশিল্পের মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান এসব কথা বলেন। আজ রোববার রাজধানীর উত্তরায় বিজিএমইএ কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়।

ফারুক হাসান বলেন, ‘বিশ্বের ফ্যাশন বাজার এখন নন-কটন পোশাকের দিকে সরে যাচ্ছে। বর্তমান বিশ্বে ভোক্তাদের ক্রমাগত জীবনযাত্রার পরিবর্তনের কারণে টেকসই এবং পরিবেশবান্ধব পণ্য ও পোশাকের চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে। বৈশ্বিক পোশাক ব্যবহারের মধ্যে ৭৫ শতাংশ নন-কটন। আর বৈশ্বিক বস্ত্র খাতের বাণিজ্যের মধ্যে ৫৭ দশমিক ৫০ শতাংশ নন-কটন। যদিও আমাদের রপ্তানির মাত্র ২৯ শতাংশ নন-কটন পোশাক।’

নন-কটন পোশাক রপ্তানিতে বিনিয়োগ ও বাজার সম্প্রসারণের সুযোগ রয়েছে উল্লেখ করে বিজিএমইএর সভাপতি বলেন, ‘গত ৩ বছরে আমাদের রপ্তানিতে নন-কটন পোশাকের হিস্যা ২৫ শতাংশ থেকে বেড়ে ২৯ শতাংশ হয়েছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আমাদের পোশাকশিল্পে নন-কটন পণ্য উৎপাদনে বিনিয়োগ এসেছে। নন-কটন পোশাকে জোর দিলেও তুলার পোশাক থেকে আমরা মোটেও দৃষ্টি সরাচ্ছি না; বরং তুলার পোশাকের ক্ষেত্রে আমরা নতুন নতুন সম্ভাবনা তৈরিতে মনোযোগ দিচ্ছি।’

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

অর্থনীতি

সাকিবের ব্র্যান্ড ‘এসএএইচ ৭৫’র আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

Published

on

ক্যাটাগরি

বিশ্বতারকা ক্রিকেট অলরাউন্ডার এবং মাগুরা ১ আসনের সংসদ সদস্য সাকিব আল হাসানের নতুন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘এসএএইচ ৭৫’ আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করেছে। স্টেপ ফুটওয়্যারের সাথে যৌথ উদ্যোগে শুরু করা নতুন ব্র্যান্ডের অধীন বিভিন্ন পরিধেয় সামগ্রী উৎপাদন, বিপণন ও বাজারজাত করবে স্টেপ ফুটওয়্যার। দেশের বিভিন্ন স্থানে থাকা স্টেপ ফুটওয়্যারের ৯৫টি শোরুমে এসব পণ্য মিলবে।

আজ রাজধানীর একটি হোটেলে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই ব্র্যান্ডের পথচলা ঘোষণা করেন সাকিব আল হাসান ও স্টেপ ফুটওয়্যারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শামীম কবির।

অনুষ্ঠানে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘আমি এক বছর ধরে এই ব্র্যান্ডের সঙ্গে কাজ করছি। এই ব্র্যান্ড বড় করতে আপনাদের সহায়তা প্রয়োজন। আপনাদের ভালো পরামর্শ এই ব্র্যান্ডের পণ্যের মানোন্নয়নে কাজে লাগবে।’

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘আমার সব ধরনের ব্যবসা ভালো লাগে। মাছের ব্যবসা আমাকে অনেক টানে। খেলাধুলা যেহেতু আমার কাজের জায়গা, তাই স্টেপের সঙ্গে যাত্রা শুরু হলো।’

অন্য প্রশ্নের জবাবে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘বেশি টাকা দিয়ে বিদেশি পণ্য, কম টাকা দিয়ে দেশি পণ্য—এই ধ্যানধারণা থেকে আমাদের বের হয়ে আসতে হবে। এসএএইচ ৭৫-এর পণ্য হবে প্রিমিয়াম মানের। তাই দাম একটু বেশি হতে পারে।’

স্টেপ ফুটওয়্যারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শামীম কবির বলেন, ‘সাকিব আল হাসান বাংলাদেশের আস্থার জায়গা।’ তিনি কথা প্রসঙ্গে একবার প্রশ্ন তুললেন, ‘দেশে কেন ভালো খেলার জুতা তৈরি হয় না। কেন খেলার ভালো পরিধেয় সামগ্রী দেশে নেই। সেই জায়গা থেকে আজকের এই পথচলার শুরু। এটা কোনো ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে শুরু হয়নি। এই ব্র্যান্ড বাঁচিয়ে রাখতে গুণগত মানের পণ্য দিতে হবে। আমরা সেই বিষয়ে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। এই ব্র্যান্ড নিয়ে আমরা অনেক দূর যেতে চাই, দেশের পাশাপাশি বিশ্ববাজারে ছড়িয়ে দিতে চাই।’

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, স্টেপ ফুটওয়্যার নিজেরা এই ব্র্যান্ডের অধীন কিছু জুতা উৎপাদন করবে। বাকি পণ্য দেশ ও বিদেশ থেকে সংগ্রহ করা হবে। এরপর পণ্যগুলো বিক্রি করা হবে স্টেপের শোরুম থেকে। জুতা, স্যান্ডেল, বুট, ব্যাট, প্যাড, ক্রীড়ার পোশাক ও পরিধেয় নানা সামগ্রী মিলবে এই ব্র্যান্ডের অধীন।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

অর্থনীতি

প্রবাসী আয়ে সুবাতাস, ফেব্রুয়ারিতে এলো ২১৭ কোটি ডলার

Published

on

ক্যাটাগরি

ডলার সংকটের মাঝে সুবাতাস ছড়াচ্ছে প্রবাসী আয়। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে প্রথমবারের মতো প্রবাসী আয় ২ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছে। গত মাসে ব্যাংকিং চ্যানেলে প্রবাসীরা প্রায় ২ দশমিক ১৭ বিলিয়ন বা ২১৭ কোটি ডলার দেশে পাঠিয়েছেন।

এর আগে ফেব্রুয়ারিতে রেমিট্যান্স কখনও ২ বিলিয়ন ডলার ছাড়ায়নি। মূলত ফেব্রুয়ারি মাসে দিন সংখ্যা কম হওয়ায় রেমিট্যান্স কম থাকে। তবে সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাংকের মাধ্যমে ডলারের ভালো দর পাওয়াসহ বিভিন্ন কারণে ফেব্রুয়ারিতে রেমিট্যান্স বাড়ছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতে ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স আসে ২১০ কোটি ডলার। সব মিলিয়ে চলতি অর্থবছরের প্রথম ৮ মাসে প্রবাসীরা এক হাজার ৫০৬ কোটি ডলার পাঠিয়েছেন।

গত অর্থবছরের একই সময়ে রেমিট্যান্স এসেছিল এক হাজার ৪০১ কোটি ডলার। এ হিসেবে প্রথম ৮ মাসে রেমিট্যান্স বেড়েছে ১০৫ কোটি ডলার বা ৭ দশমিক ৫১ শতাংশ।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে প্রবাসীরা ১৫৬ কোটি ডলার দেশে পাঠিয়েছিলেন। এর আগে একক কোনো ফেব্রুয়ারি মাসে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছিল ২০২১ সালে ১৭৮ কোটি ডলার। ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে এসেছিল ১৪৯ কোটি ডলার।

দেশের ইতিহাসে ২০২০-২১ অর্থবছরে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছিল। ওই অর্থবছরে প্রবাসীরা ২ হাজার ৪৭৮ কোটি ডলারের সমপরিমাণ অর্থ দেশে পাঠান। গত ২০২২-২৩ অর্থবছরে রেমিট্যান্সের পরিমাণ ছিল ২ হাজার ১৬১ কোটি ডলার।

ব্যাংকাররা জানান, নির্বাচনের পর হুন্ডি চাহিদা অনেক কমেছে। আবার আমদানি নিয়ন্ত্রণের ধারা অব্যাহত আছে। তবে ব্যাংকগুলো এখনও ১২১ থেকে ১২২ টাকা দরে বিদেশি এক্সচেঞ্জ হাউজ থেকে রেমিট্যান্স কিনছে। যদিও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মধ্যস্ততায় দর নির্ধারিত রয়েছে ১০৯ টাকা ৫০ পয়সা। এর মধ্যে রপ্তানি আয় দেশে আসা বেড়েছে। সব মিলিয়ে ডলারের বাজার পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি হয়েছে।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

অর্থনীতি

রপ্তানি সম্প্রসারণে ই-কমার্স গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

Published

on

ক্যাটাগরি

রপ্তানি সম্প্রসারণে ই-কমার্স গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু। তিনি বলেন, রপ্তানি বাড়াতে পণ্যকে ই-কমার্সের সঙ্গে যুক্ত করা হবে। উদ্যোক্তাদের কারিগরি ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা করবে সরকার।

রোববার (৩ মার্চ) দুপুরে সচিবালয়ে বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রীর অফিসকক্ষে ইউএনডিপির প্রতিনিধি স্টেফান লিলারের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে তিনি এসব কথা বলেন।

আহসানুল ইসলাম টিটু বলেন, সরকার সারাদেশ থেকে যোগ্য উদ্যোক্তা ও পণ্যকে জাতীয় ও রপ্তানি বাজারে নিয়ে আসতে কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী হস্তশিল্পকে বর্ষপণ্য ঘোষণার পর হস্তশিল্পকে কেন্দ্র করে সারা দেশে একযোগে কাজ করছে সরকার। এখন পণ্যের সঙ্গে এর কারিগর ও অবস্থানকে স্বীকৃতি দেওয়া হবে।

ইউএনডিপির প্রতিনিধি স্টেফান লিলার বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রীকে তার নতুন দায়িত্বভারের জন্য অভিবাদন জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় বিশেষকরে এলডিসি গ্রাজুয়েশন সময়ে বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে ইউএনডিপি সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। সেলক্ষ্যে কারিগরি ও প্রশিক্ষণমূলক কর্মকাণ্ডে সহযোগিতা সম্প্রসারিত করবে ইউএনডিপি।

এ সময় মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ নাভিদ শফিউল্লাহ, ইউএনডিপির সহকারী প্রতিনিধি আনোয়ার হক, সহকারী প্রতিনিধি সরদার এম আসাদুজ্জামান, যুগ্মসচিব নাহিদ আফরোজ, উপসচিব মো. রফিকুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন
ক্যাটাগরি
আন্তর্জাতিক5 hours ago

পাকিস্তানে ভারী বৃষ্টি, ২৯ জনের প্রাণহানি

ক্যাটাগরি
কর্পোরেট সংবাদ6 hours ago

ওয়ালটনের ‘এসি সার্ভিস পার্টনার কনফারেন্স’ অনুষ্ঠিত

ক্যাটাগরি
কর্পোরেট সংবাদ6 hours ago

দিনাজপুরের আফতাবগঞ্জে এসবিএসি ব্যাংকের উপশাখা উদ্বোধন

ক্যাটাগরি
কর্পোরেট সংবাদ6 hours ago

সিটি ব্যাংকের ‘ব্যাংকাস্যুরেন্স’ পরিষেবা উদ্বোধন

ক্যাটাগরি
জাতীয়6 hours ago

কেমিক্যালের অপব্যবহার বন্ধ করতে চায় সরকার

ক্যাটাগরি
জাতীয়6 hours ago

বড় পীরের মাজার জিয়ারতে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ

ক্যাটাগরি
খেলাধুলা6 hours ago

লঙ্কা বধের মিশনে কাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ

ক্যাটাগরি
অর্থনীতি7 hours ago

এমডি নিয়োগের যোগ্যতা যাচাইয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কমিটি

ক্যাটাগরি
আবহাওয়া7 hours ago

তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রিতে উঠার পূর্বাভাস!

ক্যাটাগরি
সারাদেশ7 hours ago

অগ্নিনির্বাপক না থাকায় চার রেস্টুরেন্টকে জরিমানা

Advertisement
Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১