Connect with us

আন্তর্জাতিক

ভারতের আবাসন খাতে কমেছে বিদেশি বিনিয়োগ

Published

on

জেমিনি সি

ভারতের আবাসন খাতে বিদেশি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ কমেছে। ২০২৩ সালে ভারতের আবাসন খাতে বিদেশি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের অংশীদারত্ব ৩০ শতাংশ কমে ২৭৩ কোটি ডলারে নেমে এসেছে, আগের বছরে যা ছিল ৩৯০ কোটি ডলার। হিন্দুস্তান টাইমসের সংবাদে এ তথ্য দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া ভারতের আবাসন খাতে সামগ্রিকভাবেই প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে। ২০২৩ সালে এ খাতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ১২ শতাংশ কমে ৪৩০ কোটি ডলারে নেমে এসেছে। ভারতের আবাসন খাতে বিনিয়োগ পাঁচ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে এলেও আশা করা হচ্ছে, ২০২৪ সালে ভারতীয় অর্থনীতির উচ্চ প্রবৃদ্ধির সঙ্গে আবাসন খাতেও বিনিয়োগ বাড়বে। সেই সঙ্গে চলতি বছর ভারতে অবকাঠামো খাতে বড় ধরনের উন্নয়ন পরিকল্পনা আছে। সে জন্য ধারণা করা হচ্ছে, আবাসন খাত ঘুরে দাঁড়াবে।

মূলত অর্থনীতির গতি কমে যাওয়ার জন্যই বিদেশি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে বলে ভারতের আবাসন খাতের সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ভেস্টিয়ানের প্রতিবেদনের সূত্রে হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে।

ভারতের আবাসন খাতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের মধ্যে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের প্রাধান্য ছিল। ২০২৩ সালে এ খাতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগের ৬৫ শতাংশ করেছেন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা, যদিও তার আগের বছর এটা ছিল ৭৯ শতাংশ। বিদেশি বিনিয়োগের প্রায় ৭২ শতাংশ বাণিজ্যিক সম্পদে করা হয়েছে। এরপর আছে শিল্প ও গুদাম খাতে, যদিও এই দুই খাতে বিনিয়োগ মোট বিনিয়োগের মাত্র ১৫ শতাংশ।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের আবাসন খাতে অভ্যন্তরীণ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ২০২৩ সালে দ্বিগুণ হয়েছে। গত বছর এই বিনিয়োগ ১৫০ কোটি ডলারে উন্নীত হয়েছে। ২০২২ সালে এই বিনিয়োগের পরিমাণ ছিল ৬৮ কোটি ৭০ লাখ ডলার। ফলে ভারতের আবাসন খাতে অভ্যন্তরীণ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ গত বছর ৩৫ শতাংশে উন্নীত হয়েছে, ২০২২ সালে যা ছিল ১৪ শতাংশ।

ভারতের অভ্যন্তরীণ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা বাণিজ্যিক সম্পদ, যেমন অফিস, খুচরা দোকান ও হোটেল-রেস্তোরাঁয় বিনিয়োগ করেছেন।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আন্তর্জাতিক

২৪০ কোটি ডলারের শেয়ার বিক্রি করেছেন বেজোস

Published

on

জেমিনি সি

অ্যামাজনের আরো ২৪০ কোটি ডলারের শেয়ার বিক্রি করেছেন বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী জেফ বেজোস। যার শেয়ার সংখ্যা এক কোটি ৪০ লাখ (১৪ মিলিয়ন)। এ নিয়ে তিনি গত নয় কর্মদিবসে এ প্রতিষ্ঠানের মোট পাঁচ কোটি শেয়ার বিক্রি করেছেন। যার মূল্য প্রায় ৮৫০ কোটি ডলার।

অ্যামাজন প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) প্রধান বেজোস গত নভেম্বরে ঘোষণা করেছিলেন, ২০২৪ সালে পাঁচ কোটি শেয়ার বিক্রি করবেন তিনি। গত বছর অ্যামাজনের শেয়ার ৭৬ শতাংশের বেশি বেড়ে যায়। এর পরই অ্যামাজনের স্টক বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেন বেজোস। এর আগে সর্বশেষ ২০২১ সালে অ্যামাজনের শেয়ার বিক্রি করেছিলেন তিনি।

সর্বশেষ এ শেয়ার বিক্রির বিষয়ে বিবিসি তার সঙ্গে যোগাযোগ করলেও বেজোস কোনো জবাব দেননি।

বেজোস গত বছর ওয়াশিংটনের সিয়াটল থেকে ফ্লোরিডার মিয়ামিতে চলে আসায় তার বিক্রি করা ৮৫০ কোটি ডলার মূল্যের শেয়ারের ওপর প্রায় ৬০ কোটি ডলার ট্যাক্স সাশ্রয় করলেন। শেয়ার বিক্রি বা অন্যান্য দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগ থেকে আড়াই লাখ ডলারের ওপরে লাভ হলে ওয়াশিংটন স্টেটে ৭ শতাংশ হারে ট্যাক্স দিতে হয়। কিন্তু ফ্লোরিডায় আয় বা মূলধনের লাভের ওপর রাষ্ট্রীয় কর নেই। তবে বেজোসকে ফেডারেল কর পরিশোধ করলেই হবে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

আন্তর্জাতিক

ইন্দোনেশিয়ায় তাপীয় কয়লা রফতানি বেড়েছে ২৪ শতাংশ

Published

on

জেমিনি সি

বিশ্বে তাপীয় কয়লা রফতানিতে শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে ইন্দোনেশিয়া। চলতি বছরের প্রথম ২ মাসে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এ দেশ থেকে জ্বালানিটির রফতানি আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ২৪ শতাংশ বেড়েছে। সে হিসেবে বছর শেষে রফতানি গত বছরের রেকর্ড ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। খবর রয়টার্স।

বাজার বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান কেপলারের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে ইন্দোনেশিয়া নয় কোটি টনের ওপরে তাপীয় ও বিটুমিনাস কয়লা রফতানি করেছে, আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় যা ২৪ শতাংশ বেশি।

২০২৩ সালে দেশটি-এ যাবৎকালের সর্বাধিক কয়লা রফতানি করেছিল। রফতানির পরিমাণ ছিল ৫০ কোটি ৪৬ লাখ টন। চলতি বছরের প্রথম দুই মাসের মতো রফতানিতে যদি ঊর্ধ্বমুখী ধারা অব্যাহত থাকে, তাহলে এ বছরের শেষে রফতানি নতুন রেকর্ড স্পর্শ করতে পারে বলে জানিয়েছে কেপলার। চলতি বছরের এখন পর্যন্ত ইন্দোনেশীয় কয়লার শীর্ষ বাজার ছিল চীন, ভারত, দক্ষিণ কোরিয়া ও ফিলিপাইন। এর মধ্যে মোট রফতানির ৩৩ শতাংশ চীনে, ১৫ শতাংশ ভারতে, ৫ দশমিক ৮ শতাংশ দক্ষিণ কোরিয়ায় ও ৫ দশমিক ১ শতাংশ ফিলিপাইনে সরবরাহ করা হয়েছে। গত বছরও এ পাঁচ দেশই ছিল ইন্দোনেশীয় তাপীয় কয়লার শীর্ষ গন্তব্য।

চলতি মাসের এখন পর্যন্ত চীনে ২১ কোটি ৯৪ লাখ টন তাপীয় কয়লা রফতানি করেছে ইন্দোনেশিয়া, যা আগের বছরের প্রথম দুই মাসের তুলনায় ৯ শতাংশ কম। তবে কেপলারের তথ্যমতে, ২ কোটি ১০ লাখ টন কয়লা জাহাজে লোডিং পর্যায়ে রয়েছে। এসব কয়লা কোন দেশে সরবরাহ করা হবে, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে চীনই সম্ভাব্য গন্তব্য বলে মনে করছে বাজার বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠানটি।

এদিকে ফেব্রুয়ারির এখন পর্যন্ত ভারতে ১ কোটি ৩৫ লাখ টন তাপীয় কয়লা রফতানি করেছে ইন্দোনেশিয়া। ২০২০ সালের পর বছরের শুরুর দিকে দেশটিতে এত বেশি কয়লা আর কখনো রফতানি হয়নি। ২০২৩ সালে ইন্দোনেশিয়া থেকে মোট ১০ কোটি ৮ লাখ ৫০ হাজার টন তাপীয় কয়লা আমদানি করেছিল ভারত। চলতি বছরের এখন পর্যন্ত আমদানি বেড়েছে প্রায় ৩ দশমিক ৫ শতাংশ। তবে দক্ষিণ কোরিয়া, ফিলিপাইন, জাপান ও মালয়েশিয়ায় রফতানি গত বছরের একই সময়ের তুলনায় কিছুটা কমেছে। এ মাসের শেষ দিকে রফতানি ফের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরতে পারে। এসব দেশে রফতানি প্রবৃদ্ধি নির্ভর করছে চীনের অর্থনৈতিক পরিস্থিতির ওপর।

আন্তর্জাতিক বাজারে বর্তমানে কয়লার সরবরাহ চাহিদার চেয়েও বেশি। তার ওপর এবার শীতের তীব্রতা কম থাকায় হিটিং জ্বালানি হিসেবে এর ব্যবহার কমেছে। উত্তর গোলার্ধের দেশগুলোয় শীত শেষ হয়ে এলে তা আরো কমে যেতে পারে। বাড়তি সরবরাহের বিপরীতে ব্যবহার কমায় চলতি বছরজুড়ে তাপীয় কয়লার বৈশ্বিক দাম নিম্নমুখী থাকবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

আন্তর্জাতিক

ভারতে নিষিদ্ধ হচ্ছে ‘হাওয়াই মিঠাই’

Published

on

জেমিনি সি

হাওয়াই মিঠাইয়ের নমুনা পরীক্ষায় ক্যানসারের ঝুঁকি তৈরি করে এমন রাসায়নিক পাওয়ার পর ভারতের তামিলনাড়ু প্রদেশে তা বেচাকেনা নিষিদ্ধ করা হচ্ছে। ভারতের অন্যান্য অঞ্চলেও এখন হাওয়াই মিঠাইয়ের নমুনা পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

তামিলনাড়ুর চেন্নাই শহরের ফুড সেফটি অফিসার পি সতীশ কুমার ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে জানান, হাওয়াই মিঠাইয়ে থাকা রাসায়নিকগুলো ক্যানসার তৈরির সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে।

ভারতে হাওয়াই মিঠাইগুলো বিভিন্ন বিক্রেতারা নিজ উদ্যোগে তৈরি করেন। তাদের কারোই এ খাবার তৈরির অনুমোদিত কারখানা নেই। তাদের কাছ থেকে সংগৃহীত নমুনায় রোডামিন-বি নামের রাসায়নিক পাওয়া যায়, যার ফলে হাওয়াই মিঠাই বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হচ্ছে। মূলত হাওয়াই মিঠাইকে ঝলমলে গোলাপি রঙে রাঙাতে রোডামিন-বি ব্যবহার করা হয়। এটি সাধারণত কাপড়, প্রসাধনী এবং কালির রং হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

খাবারের রং হিসেবে রোডামিন-বি এর ব্যবহার ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় নিষিদ্ধ।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

আন্তর্জাতিক

বিশ্ববাজারে কমেছে তামার দাম

Published

on

তামা

ডলারের বিনিময় হার বেড়ে যাওয়ায় আন্তর্জাতিক বাজারে কমেছে তামার দাম। চান্দ্রবর্ষের ছুটি শেষে ধাতুটির শীর্ষ ব্যবহারকারী দেশ চীনে চাহিদা গতিশীল হওয়া নিয়েও উদ্বেগ দেখা গেছে।

লন্ডন মেটাল এক্সচেঞ্জে (এলএমই) মঙ্গলবার তামার তিন মাস সরবরাহ চুক্তির দাম দশমিক ২ শতাংশ কমেছে। প্রতি টনের মূল্য স্থির হয়েছে ৮ হাজার ৪১৫ ডলারে। অন্যদিকে সাংহাই ফিউচারস এক্সচেঞ্জে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হওয়া তামার সরবরাহ চুক্তির দামও দশমিক ২ শতাংশ কমে নেমেছে ৬৮ হাজার ২৭০ ইউয়ানে (৯ হাজার ৪৮৪ ডলার ৪৫ সেন্ট)।

বিশ্লেষকরা বলছেন, শীত শেষে অবকাঠামো নির্মাণ গতিশীল হয়ে উঠলে এ খাতে তামার চাহিদা আবারো বাড়তে পারে। এছাড়া নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতও চাহিদায় রসদ জোগাতে পারে। কিন্তু চীনে বর্তমান ধীর অর্থনৈতিক পরিস্থিতির কারণে এসব সম্ভাবনা নিয়ে ব্যাপক অনিশ্চয়তা রয়েছে। দেশটির অর্থনীতি গতিশীল হলে তামার বাজার ঊর্ধ্বমুখী হয়ে উঠবে বলেও জানান তারা।

এদিকে সাম্প্রতিক সময়ে কমলেও দুই বছরের মধ্যে ধাতুটির দাম ৭৫ শতাংশের বেশি বাড়তে পারে বলে মনে করছেন বাজার বিশ্লেষকরা। সরবরাহ ও চাহিদার মধ্যে ক্রমবর্ধমান ব্যবধানের কারণে দাম আকাশচুম্বী হয়ে উঠবে বলে জানান তারা।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

আন্তর্জাতিক

ভেনেজুয়েলায় সোনার খনিতে ধস, ২৩ জনের প্রাণহানি

Published

on

জেমিনি সি

ভেনেজুয়েলায় একটি সোনার খনিতে ধসের ঘটনা ঘটেছে। এতে কমপক্ষে ২৩ জন নিহত হয়েছেন। তবে, নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। দুর্ঘটনার সময় সেখানে ২০০ জন শ্রমিক কাজ করছিলেন বলে মনে করা হচ্ছে।

বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ভেনেজুয়েলার মধ্যাঞ্চলীয় প্রদেশ বলিভারের শহর লা প্যারাগুয়ার একটি উন্মুক্ত সোনার খনিতে এ ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় আরও অন্তত ১১ জন গুরুতর আহত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন শহরটির মেয়র ইয়োর্গি আরসিনিয়েগা।

স্থানীয় কর্মকর্তা ইয়োর্গি আরসিনিয়েগার বরাতে বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

মেয়রের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বেআইনিভাবে পরিচালিত ওই স্বর্ণের খনিটিতে মাটির দেয়াল ধসে পড়ার ঘটনায় ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এদিকে ভেনেজুয়েলার বেসামরিক নিরাপত্তা উপমন্ত্রী কার্লোস পেরেজ অ্যাম্পুয়েদা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্সে এই দুর্ঘটনার একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন এবং ধসের ঘটনায় নিহতের সংখ্যাকে ‘বিশাল’ বলে উল্লেখ করেছেন। যদিও তিনি নিহতের কোনও সংখ্যা উল্লেখ করেননি।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, একটি উন্মুক্ত খনির অগভীর পানিতে কর্মরত লোকদের ওপর ধীরে ধীরে মাটির একটি প্রাচীর ভেঙে পড়ছে। অনেকেই ঘটনার সময় সেখান থেকে পালাতে সক্ষম হলেও বেশ কয়েকজন তার নিচে চাপা পড়ে যান।

বলিভার প্রদেশের নাগরিক নিরাপত্তা বিষয়ক সেক্রেটারি এডগার কোলিনা রেয়েস বলেছেন, আহতদের আঞ্চলিক রাজধানী সিউদাদ বলিভারের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। পরিস্থিতি বিবেচনা করে সামরিক বাহিনী, দমকল বাহিনী এবং অন্যান্য সংস্থাগুলো আকাশপথে ওই এলাকায় যাচ্ছে। তিনি বলেন, অনুসন্ধানে সহায়তার জন্য রাজধানী কারাকাস থেকেও উদ্ধারকারী দল পাঠানো হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, স্বর্ণ, হীরা, লোহা, বক্সাইট, কোয়ার্টজ এবং কোল্টান সমৃদ্ধ অঞ্চল বলিভার। রাষ্ট্রীয় খনি ছাড়াও এ অঞ্চলে বেশ কয়েকটি উন্মুক্ত খনিতে অবৈধভাবে এসব মূল্যবান ধাতু উত্তোলন চলে।

এর আগে গত বছরের ডিসেম্বরে একই অঞ্চলের ইকাবারুর আদিবাসী সম্প্রদায়ের একটি খনি ধসে কমপক্ষে ১২ জন নিহত হয়েছিলেন।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন
জেমিনি সি
পুঁজিবাজার10 mins ago

রাইট শেয়ার ইস্যু করবে জেমিনি সি ফুড

জেমিনি সি
জাতীয়37 mins ago

প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন আজ

জেমিনি সি
লাইফস্টাইল11 hours ago

ডায়াবেটিস থেকে দূরে রাখবে এই ফল

জেমিনি সি
আন্তর্জাতিক11 hours ago

২৪০ কোটি ডলারের শেয়ার বিক্রি করেছেন বেজোস

জেমিনি সি
অর্থনীতি11 hours ago

চিনির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার

জেমিনি সি
কর্পোরেট সংবাদ12 hours ago

ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশন ও আইসিএমএবির মধ্যে কর্পোরেট চুক্তি স্বাক্ষর

জেমিনি সি
কর্পোরেট সংবাদ12 hours ago

আইসিএমএবি ও আইবিএফের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

জেমিনি সি
কর্পোরেট সংবাদ12 hours ago

বাণিজ্য মেলায় গোল্ড ট্রফি পেলো ওয়ালটন

জেমিনি সি
পুঁজিবাজার12 hours ago

র‌্যানকন মোটরবাইকের পনেরশো মিলিয়ন টাকার বন্ড অনুমোদন

জেমিনি সি
জাতীয়12 hours ago

কাউন্সিলরদের সম্মানী ভাতা বাড়ল আড়াইগুণের বেশি

Advertisement
Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯