Connect with us

টেলিকম ও প্রযুক্তি

জুন পর্যন্ত আইসিটি বিভাগের সব কর্মকর্তার বিদেশ সফর বাতিল

Published

on

আইপিও

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিদেশ সফর না করার নির্দেশ দিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

সময়, মেধা ও অর্থের অপচয় কমাতে মিতব্যয়িতার কৌশল হিসেবে এ নির্দেশনা সবাইকে মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

পলক বলেন, বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয়ে আগামী ছয়মাসে আমি, সচিব এমনকি আইসিটি বিভাগের কেউ বিদেশে যাবেন না। ক্রয় কমিটিকে আরও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে। কোনো সিন্ডিকেট সহ্য করা হবে না।

রোববার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রতিমন্ত্রী এ নির্দেশনা দেন। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইসিটি টাওয়ারে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের সম্মেলনকক্ষে এ সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় উপস্থিত আইসিটি সচিব মো. সামসুল আরেফিনকে এ নির্দেশনা প্রতিপালনের পাশাপাশি আইসিটি খাত থেকে রপ্তানি ও রেমিট্যন্স বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

বৈঠকে আইসিটি বিভাগের কর্মকর্তারা ছাড়াও তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বাণিজ্যিক সংগঠনগুলোর শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

টেলিকম ও প্রযুক্তি

ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য বড় সুখবর

Published

on

আইপিও

ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ জিপনের বিশেষ সাশ্রয়ী প্যাকেজের ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশনস কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল)।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ ঘোষণা দেন।

প্রতিমন্ত্রী জানান, বিটিসিএলের ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ জিপনের বিশেষ সাশ্রয়ী প্যাকেজের আওতায় ৫ এমবিপিএসের বিদ্যমান মূল্যে ৫০০ টাকা থেকে কমিয়ে ৩৯৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এখন সাশ্রয়ী এই প্যাকেজের আওতায় ১০ এমবিপিএস ইন্টারনেট ব্যান্ডউথ পাওয়া যাবে ৫০০ টাকায়। ১০ এমবিপিএস ইন্টারনেটের বিদ্যমান মূল্য ৮০০ টাকা।

তিনি জানান, তবে এখন থেকে ১৫ এমবিপিএস পাওয়া যাবে ৮০০ টাকায়। ১২৫০ টাকার ২০ এমবিপিএস মিলবে ১০৫০ টাকায়। ১৪৫০ টাকার ২৫ এমবিপিএস মিলবে ১৩০০ টাকায়। ১৬৫০ টাকার ৩০ এমবিপিএসের নতুন মূল্য ১৫০০ টাকা। ২০৫০ টাকার ৪০ এমবিপিএসের মূল্য ২০০০ টাকা। ২৪৫০ টাকার ৫০ এমবিপিএস মিলবে ২৪০০ টাকা।

প্রতিমন্ত্রী জানান, জিপনের নতুন ঘোষিত প্যাকেজের এ সুযোগ সীমিত সময়ের জন্য প্রযোজ্য হবে।

এদিন টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের ই-সিমও উদ্বোধন করা হয়। সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভাষা শহীদদের স্মরণে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন বাংলা ভাষাভিত্তিক তিনটি অ্যাপ ও নতুন একটি বাংলা ফন্ট ‘পূর্ণ’ উন্মুক্ত করা হয়।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

টেলিকম ও প্রযুক্তি

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন বাংলা ভাষার তিন সফটওয়্যার উন্মুক্ত

Published

on

আইপিও

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভাষা শহিদের স্মরণে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন বাংলা ভাষাভিত্তিক তিনটি সফটওয়্যার বাংলা টেক্সট টু স্পিচ ‘উচ্চারণ’ বাংলা স্পিচ টু টেক্সট ‘কথা’ এবং বাংলা ওসিআর ‘বর্ণ’ -সহ নতুন একটি বাংলা ফন্ট ‘পূর্ণ’ উন্মুক্ত করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এছাড়া তিনি অমর একুশের ভাষা শহীদদের স্মরণে বিটিসিএলের ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যান্ডউইডথ জিপনের বিশেষ সাশ্রয়ী প্যাকেজ ঘোষণা ও টেলিটকের ই-সিম উদ্বোধন করেন।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) মহান একুশের দিনে প্রতিমন্ত্রী ঢাকায় বিসিসি মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও ভাষা শহিদ স্মরণে, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব অ্যাপস ও বাংলা ফন্ট অবমুক্ত এবং টেলিটকের ই-সিম উদ্বোধন করেন।

বাংলা টেক্সট টু স্পিচ ‘উচ্চারণ’ হলো একটি টিটিএস সফটওয়্যার। লেখাকে ম্যাশিনের মাধ্যমে উচ্চারিত কথায় রূপান্তর করার প্রযুক্তিকে টিটিএস বা টেক্সট টু স্পিচ অ্যাপ্লিকেশন বলা হয়ে থাকে। টিটিএস ডকুমেন্ট, ওয়েবসাইট, স্ক্রিনের উইন্ডোতে থাকা টেক্সট পড়ে শোনাতে পারে। একই সঙ্গে তা দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তির জন্য উপযোগী হয়ে পড়ে শোনাতে পারে। সফটওয়্যারটিতে নারী ও পুরুষ উভয় কণ্ঠই রয়েছে। বর্তমানে read.bangla.gov.bd ঠিকানা থেকে সফটওয়্যারটি ব্যবহার করা যাবে।

কথা হচ্ছে বাংলা ভয়েস টাইপিং সফটওয়্যার। মুখের কথার মাধ্যমে কম্পিউটারে লেখার প্রযুক্তি হলো ভয়েস টাইপিং বা ‘স্পিচ টু টেক্সট’। এটি প্রমিত স্পষ্ট ও নীরব পরিবেশে উচ্চারিত বাংলা কথাকে লেখায় রূপান্তর করতে পারে। সফটওয়্যারটির চূড়ান্ত ভার্সন বাংলা প্রধান বিরাম চিহ্নগুলোকে লিপিবদ্ধ করতে পারে। ব্রাউজার থেকে একটি ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন হিসেবে voice.bangla.gov.bd ঠিকানা লিখে সফটওয়্যারটি ব্যবহার করা যাবে।

বাংলা ওসিআর এর নাম হলো ‘বর্ণ’। ওসিআরের সাহায্যে কম্পিউটারের অপরিবর্তনযোগ্য ডকুমেন্টের লেখাকে এডিটেবল টেক্সটে রূপান্তর করা যায়। ওসিআর হলো পিডিএফ ফাইলের লেখাকে পরিবর্তনযোগ্য লেখায় রূপান্তর করা। এই বর্ণ ওসিআরটি বাংলা লেখাকে কম্পোজকৃত লেখার অনুরূপ টেক্সটে রূপান্তর করে থাকে। অর্থাৎ কোনো ডকুমেন্টকে ছবি তুলে বা স্ক্যান করে ওসিআর করলে তা কম্পোজড হয়ে যায়। বর্ণ ওসিআরটি বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এটি কম্পিউটার কম্পোজ ডকুমেন্ট বিশেষ করে সরকারি পত্র, বিজ্ঞপ্তি ওসিআর করতে পারে। এর মাধ্যমে টেবিল, কমন ইংরেজি শব্দ ও প্রতিষ্ঠানের নাম, সরকারি প্রতিষ্ঠানের লোগো শনাক্ত করা যায়। এছাড়াও, পুরোনো টাইপরাইটার ডকুমেন্ট ও লেটার প্রেস বইও ওসিআর করতে পারে অ্যাপ্লিকেশনটি। ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন হিসেবে যেকোনো ব্রাউজার থেকে ocr.bangla.gov.bd ঠিকানা লিখে সফটওয়্যারটি ব্যবহার করা যায়।

‘পূর্ণ’ ফন্ট একটি অনন্য সাধারণ বাংলা ইউনিকোড ফন্ট যা ফন্ট সংক্রান্ত সমস্যাগুলো চিহ্নিত করার পর ডিজাইন ও ডেভেলপ করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে বাংলা প্রকাশনায় প্রয়োজনীয় সকল টাইপোগ্রাফিক ফিচার। একই সঙ্গে বাংলা ভাষার বৈশিষ্ট্যকেও যথাযথভাবে প্রকাশ করছে এই ফন্ট। ফন্টটি httpsbangla.gov.bdfonts ঠিকানা থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

জুনাইদ আহমেদ পলক প্রযুক্তিতে বাংলা ভাষার প্রচলনকে বাংলা ও বাঙালি বিশেষ করে বিশ্বে ৩৫ কোটি বাংলাভাষী মানুষের জন্য এক ঐতিহাসিক ঘটনা উল্লেখ করে বলেন, স্মার্ট প্রযুক্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রজ্ঞাবান নেতৃত্বে বাংলা ভাষার বিকাশে এক নতুন মাত্রা সংযুক্ত হলো।

তিনি বলেন, বাঙালির পরিচয়ের মূলভিত্তি তার ভাষিক পরিচয়। আর্থ-সামাজিক জীবনে বাংলা ভাষা যথাযথ গুরুত্ব না পেলে তার শক্তি ক্রমশ দুর্বল হয়ে যাবে।

জিপনের বিশেষ সাশ্রয়ী প্যাকেজ
পলক জানান, বিটিসিএলের ইন্টারনেট ব্যান্ডউইডথ জিপনের বিশেষ সাশ্রয়ী প্যাকেজের আওতায় ৫ এমবিপিএসের বিদ্যমান মূল্যে ৫০০ টাকা থেকে কমিয়ে, ৩৯৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এখন সাশ্রয়ী এই প্যাকেজের আওতায় ১০ এমবিপিএস ইন্টারনেট ব্যান্ডউডথ পাওয়া যাবে ৫০০ টাকায়। ১০ এমবিপিএস ইন্টারনেটের বিদ্যমান মূল্য ৮০০ টাকা। এখান থেকে ১৫ এমবিপিএস পাওয়া যাবে ৮০০ টাকায়। ১৫ এমবিপিএস বিদ্যমান মূল্য ১০৫০ টাকা, এখন থেকে সমপরিমাণ টাকা অর্থাৎ ১০৫০ টাকায় পাওয়া যাবে ২০ এমবিপিএস। বিদ্যমান মূল্যে ২০ এমবিপিএস এর দাম ছিল ১২৫০ টাকা। বিদ্যমান মূল্যে ২৫ এমবিপিএসের দাম ১৪৫০ টাকা। ২৫ এমবিপিএস এর পরিবর্তিত প্যাকেজ মূল্য ১৩০০ টাকা। ৩০ এমবিপিএস এর বিদ্যমান মূল্য ১৬৫০ টাকা। পরিবর্তিত মূল্য নির্ধারিত করা হয়েছে ১৫০০ টাকা। ৪০ এমবিপিএস এর মূল্য ২০৫০ টাকা, পরিবর্তিত মূল্য ২০০০ টাকা। ৫০ এমবিপিএস এর বিদ্যমান মূল্য ২৪৫০ টাকা, পরিবর্তিত দাম রাখা হয়েছে ২৪০০ টাকা। এ সুযোগ সীমিত সময়ের জন্য প্রযোজ্য হবে।

টেলিটকের ই-সিম
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ই-সিম হলো এমবেডেড সাবস্ক্রাইবার আইডেন্টিটি মডিউল। এটি ফিজিক্যাল সিম কার্ডের মতো নয়। এটি ফোনে ইনস্টল করা ভার্চ্যুয়াল সিম, যেটি কোনো মোবাইল অপারেটরের মাধ্যমে তৃতীয় পক্ষীয় সফটওয়্যারের সহায়তায় মোবাইল নম্বর বরাদ্দপূর্বক অনলাইনে সক্রিয় করা হয়। ই-সিমের সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো, বারবার খোলার ঝামেলাই যেহেতু নেই, তাই এ সিম নষ্ট হওয়ারও আশঙ্কা নেই। এ ছাড়া একই সঙ্গে একাধিক নম্বর ব্যবহার করা যায়। একসঙ্গে এক ফোনে পাঁচটি পর্যন্ত ই-সিম ব্যবহার করা যায়। প্রযুক্তিবিদরা বলছেন, ২০২৫ সালের মধ্যে বিশ্বজুড়ে ই-সিমের ব্যবহার বেড়ে হবে ৩.৪ বিলিয়ন।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক রণজিৎ কুমারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব আবু হেনা মোরশেদ জামান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব মো. সামসুল আরেফিন, বিটিআরসির চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মো. মহিউদ্দিন আহমেদ এবং বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

এর আগে পুস্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে অমর ভাষা শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

টেলিকম ও প্রযুক্তি

টেলিটকের ই-সিম কার্যক্রম উদ্বোধন

Published

on

টেলিটকের ই-সিম কার্যক্রম উদ্বোধন

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে একগুচ্ছ প্রযুক্তি সেবা উদ্বোধন করেছে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি)। এদিন টেলিটকের ই-সিম কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। একইসাথে আরও ১টি বাংলা ফন্ট, বিটিসিএলের ২টি ইন্টারনেট সেবা প্যাকেজও উদ্বোধন করেছে সংগঠনটি।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর প্রশাসনিক এলাকার আইসিটি টাওয়ারে নতুন এ প্রযুক্তি সেবাগুলো উদ্বোধন করেন ডাক, টেলিযোগাযাগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এগুলো হলো, বাংলা টেক্সট টু স্পিচ- উচ্চারণ; বাংলা স্পিচ টু টেক্সট- কথা; বাংলা ওসিআর-বর্ণ; বাংলা ফন্ট-পূর্ণ উদ্বোধন করেন। এছাড়া বিটিসিএল এর ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট জিপন-এর ঘোষণা করা হয় ‘সুলভ’ ও ‘ভাষা’ নামের ‍দুটি সাশ্রয়ী প্যাকেজ। এই প্যাকেজে গ্রাহককে বিনামূল্যে রাউটার দেবে সরকারি টেলিকম প্রতিষ্ঠানটি।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক রণজিৎ কুমারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব আবু হেনা মোরশেদ জামান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব মো. সামসুল আরেফিন, বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ, বিটিআরসি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মহিউদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আনোয়ার হোসেন ও টেলিটক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. হাবিবুর রহমান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রযুক্তিতে বাংলা ভাষা উন্নয়ন প্রকল্পের পরামর্শক মামুন অর রশীদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, শোকের সঙ্গে একুশ আমাদের গর্ভের। একুশের চেতনায় ডাক ও তথ্য প্রযুক্তি একসঙ্গে করে অন্তর্ভুক্তি ও সমন্বিত পদক্ষেপের নতুন একটি ভিত্তি রচনা করলাম। দেশের গবেষক ও উদ্ভাবকরাই এসব প্রযুক্তি সেবা তৈরি করেছেন। তারা ১৬ ধরনের কম্পোনেন্ট ও ৪০ ধরনের সফটওয়্যার তৈরি করেছেন নিজেদের নকশায়। এটাই আত্মনির্ভরশীল বাংলাদেশ-এর স্বাক্ষর।

তিনি বলেন, নতুন সেবার মধ্যে গুগল জি-বোর্ডের মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে এর অ্যাকিউরিসি রেট। উচ্চারণ, কথা, বর্ণমালা, পূর্ণ, অনুভব, ধ্বনি, গুরু সব কিছুই বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের ওয়েবসাইটে সবার জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। এটা আগামী দিনের সার্চ ইঞ্জিন, সোশ্যাল মিডিয়ায় আত্মনির্ভরশীলতার সুদূরপ্রসারী পদক্ষেপ।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

টেলিকম ও প্রযুক্তি

প্লে স্টোর থেকে ১৮ অ্যাপ সরিয়ে নিলো গুগল

Published

on

আইপিও

প্লে স্টোর থেকে ক্ষতিকর ১৮টি অ্যাপ সরিয়ে ফেলেছে গুগল। এসব অ্যাপ ফোনে ঢুকে ভয়ংকর ক্ষতি করতে পারে। তাই ব্যবহারকারীদের সুরক্ষায় গুগল প্লে স্টোর থেকে এসব অ্যাপ সরিয়ে নিয়েছে। গুগল সরালেও আপনার ফোনে আছে কি না, তা দেখে নিন। থাকলে দ্রুত আনইনস্টল করে ফেলতে হবে অ্যাপগুলো।

এই সমস্ত মোবাইল অ্যাপে স্পিলওয়ান ম্যালওয়্যার পাওয়া গিয়েছে, যা ব্যবহারকারীদের সমস্ত ডাটা চুরি করছিলো। এই সমস্ত অ্যাপ প্লে স্টোর থেকে কয়েক লাখ বার ডাউনলোড করা হয়েছে।

স্পিলওয়ান কীভাবে কাজ করে?

স্পিলওয়ান হরো এক ধরনের ম্যালওয়্যার, যা এই ১৮টি অ্যাপে পাওয়া গিয়েছে। এটি যেকোনো ব্যবহারকারীর ফোন থেকে ডাটা চুরি করতে পারে। ফোনে উপস্থিত সব ধরনের তথ্য হ্যাকারদের কাছে পাওয়া যাবে। এছাড়াও আপনার মেসেজ পড়তে পারে। এই ম্যালওয়্যার ব্যবহারকারীদের ব্ল্যাকমেইল করতে পারে। ভারত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, আফ্রিকার মতো দেশের ব্যবহারকারীরা স্পিলওয়ানের শিকার হয়। তাই যেসব অ্যাপ গুগল ইতিমধ্যেই সরিয়ে দিয়েছে, তা ফোন থেকে দ্রুত আনইনস্টল করা উচিত।

চলুন দেখে নেয়া যাক কোন অ্যাপগুলো মুছে দিয়েছে গুগল

AA Credit, Love Cash, GuayabaCash, EasyCredit, Dinner, CrediBus, FlashLoan, LoansCredit, Credit Loans-YumiCash, Go Credit, Instant Loan, large wallet, Fast Credit, Finupp Lending, 4S Cash, TrueNaira, EasyCash।

কাফি

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

টেলিকম ও প্রযুক্তি

যেসব এলাকায় তিন দিন ইন্টারনেট বন্ধ থাকবে

Published

on

আইপিও

বগুড়া শহর ও উপজেলাগুলোতে ৭২ ঘণ্টা টেলিফোন ও ইন্টারনেট সেবা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল)।

আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৫টা থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৫টা পর্যন্ত টেলিফোন ও ইন্টারনেট সেবা বন্ধ থাকবে।

মূলত বগুড়া শহরের সাতমাথায় তিনতলা টেলিফোন ভবনটি বুয়েট কর্তৃক ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করা হয়েছে। ওই ভবন থেকে সুইচ রুমের যাবতীয় যন্ত্রপাতি অন্যত্র স্থানান্তর করা হবে। এ কারণে ৭২ ঘণ্টা ইন্টারনেট সেবা বন্ধ থাকবে।

উপমহাব্যবস্থাপক (টেলিকম) বগুড়া কার্যালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এটি জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বগুড়া সাতমাথায় অবস্থিত তিনতলা টেলিফোন ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করেছে বুয়েট। সেজন্য এই ভবন থেকে সুইচরুমের যাবতীয় যন্ত্রপাতি অন্যত্র স্থানান্তর করে পুনঃস্থাপন করা হবে। তাই আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৫টা থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৫টা পর্যন্ত টেলিফোন ও ইন্টারনেট সেবা বন্ধ থাকবে। ডাটা নির্ভর বর্তমান এই সময়ে টেলিযোগাযোগ সেবায় সাময়িকভাবে বিঘ্ন ঘটবে বলে বিটিসিএল কর্তৃপক্ষ দুঃখ প্রকাশ করছে।

বিটিসিএলের জিপন, লিজড লাইন ইন্টারনেট, ভিপিএন এবং কপার ক্যাবলের মাধ্যমে সংযোগ দেওয়া টেলিফোন (এজিডব্লিউ) সেবা বন্ধ থাকবে। এর মধ্যে বগুড়া শহর ও উপজেলাসমূহে জয়পুরহাট জেলার বিটিসিএল এর মাধ্যমে বাস্তবায়িত সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বেতার ও গ্রন্থাগারে সংযোগ দেওয়া ইন্টারনেট এবং বগুড়া শহরে টেলিফোন সেবা বন্ধ থাকবে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন
আইপিও
পুঁজিবাজার7 mins ago

এশিয়াটিক ল্যাবরেটরিজের আইপিওর শেয়ার বরাদ্দ

আইপিও
পুঁজিবাজার18 mins ago

রাইট শেয়ার ইস্যু করবে জেমিনি সি ফুড

আইপিও
জাতীয়44 mins ago

প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন আজ

আইপিও
লাইফস্টাইল11 hours ago

ডায়াবেটিস থেকে দূরে রাখবে এই ফল

আইপিও
আন্তর্জাতিক11 hours ago

২৪০ কোটি ডলারের শেয়ার বিক্রি করেছেন বেজোস

আইপিও
অর্থনীতি11 hours ago

চিনির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার

আইপিও
কর্পোরেট সংবাদ12 hours ago

ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশন ও আইসিএমএবির মধ্যে কর্পোরেট চুক্তি স্বাক্ষর

আইপিও
কর্পোরেট সংবাদ12 hours ago

আইসিএমএবি ও আইবিএফের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

আইপিও
কর্পোরেট সংবাদ13 hours ago

বাণিজ্য মেলায় গোল্ড ট্রফি পেলো ওয়ালটন

আইপিও
পুঁজিবাজার13 hours ago

র‌্যানকন মোটরবাইকের পনেরশো মিলিয়ন টাকার বন্ড অনুমোদন

Advertisement
Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯