Connect with us

জাতীয়

জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন শেখ হাসিনা

Published

on

পুঁজিবাজার

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার (৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টায় এ ভাষণ শুরু করেন তিনি। তার এই ভাষণ বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতার, বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ও রেডিও স্টেশনে একযোগে সম্প্রচার করা হচ্ছে।

জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণের শুরুতে তিনি সবাইকে খ্রিষ্টীয় নতুন বছরের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান।

এর আগে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছিল, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগের ইশতেহার নিয়ে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন দলটির প্রধান শেখ হাসিনা।

২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুলভোটে বিজয়ী হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ’৭৫-পরবর্তী সময়ে চতুর্থবারের মতো সরকার গঠন করে বর্তমান মেয়াদ শেষ করতে যাচ্ছে। আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণের শুরুতে ৭৫-এ নিহত তার নিজের পরিবার এবং বিএনপি-জামায়াত জোটের অগ্নিসন্ত্রাস ও পেট্রোল বোমা হামলায় যারা নিহত হয়েছেন তাদের স্মরণ করেন। আহত ও স্বজনহারা পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান তিনি।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

জাতীয়

বাংলাদেশকে সমৃদ্ধ ও নিরাপদে রাখতে পুলিশ সচেষ্ট থাকবে: রাষ্ট্রপতি

Published

on

পুঁজিবাজার

রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন বলেছেন, পেশাদারিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশ জনগণের জানমালের নিরাপত্তা বিধান ও দেশের আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। দেশে নির্বাচনকালীন আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখার ক্ষেত্রে পুলিশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। সততা, নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে বাংলাদেশকে একটি সুখী, সমৃদ্ধ ও নিরাপদ দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে তারা সদা সচেষ্ট থাকবে।

‘পুলিশ সপ্তাহ ২০২৪’ উপলক্ষ্যে সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) এক বাণীতে রাষ্ট্রপতি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় বাংলাদেশ এখন বিশ্বে একটি প্রশংসনীয় নাম। বর্তমান বিশ্বে প্রযুক্তির দ্রুত বিকাশ ঘটছে। পরিবর্তন ঘটছে অপরাধের ধরন ও প্রকৃতিতেও। অপরাধীরা বিভিন্ন ধরনের প্রযুক্তি ব্যবহার করে নতুন নতুন অপরাধ ঘটাচ্ছে।

রাষ্ট্রপতি সাহাবুদ্দিন বলেন, ক্রমবর্ধমান সাইবার অপরাধ নির্ণয় ও দমনে বাংলাদেশ পুলিশের তথ্য-প্রযুক্তিগত সক্ষমতা বাড়াতে হবে। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, বিগ ডেটা অ্যানালাইসিস ইত্যাদি প্রযুক্তি ব্যবহারে উদ্যোগী ভূমিকা গ্রহণ করতে হবে।

মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ পুলিশ সদস্যদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে তিনি বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে সাড়া দিয়ে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাতে রাজারবাগে সামান্য ‘থ্রি-নট-থ্রি’ রাইফেল দিয়ে আধুনিক সমরাস্ত্রে সজ্জিত পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল পুলিশ।

সাহাবুদ্দিন বলেন, বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ পুলিশকে ‘জনগণের পুলিশ’ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন। আমি আশা করি, বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথ ধরে ‘জনগণের পুলিশ’ হওয়ার লক্ষ্যে প্রত্যেক পুলিশ সদস্য বিপদে-আপদে জনগণের পাশে থাকবেন। পুলিশের সহায়তা চেয়ে কোথাও কোনো নিরপরাধ মানুষ যেন অযথা হয়রানি বা অবহেলার শিকার না হয় এ বিষয়ে আপনারা আরও তৎপর হবেন।

বাণীতে তিনি পুলিশ সপ্তাহ ২০২৪ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ পুলিশের সব সদস্যকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান এবং দিবসটির সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

অর্থনীতি

হিলিতে পাঁচ বছরে ৮৫ লাখ টন পণ্য আমদানি

Published

on

পুঁজিবাজার

গত পাঁচ বছরে হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানির পরিমাণ ৮৫ লাখ ৯০ হাজার ৪০০ মেট্রিক টন। এর মধ্যে আমদানির পরিমাণ ৮৪ লাখ ৮১ হাজার মেট্রিক টন এবং রপ্তানির পরিমাণ ১ লাখ ৯ হাজার ৪০০ মেট্রিক টন।

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে ডুপ্লেক্স বোর্ড, নিউজপ্রিন্ট, পেপার বোর্ড, পেপার, সুতা, গুঁড়া দুধ ও জুসসহ বিভিন্ন পণ্য আমদানি করা হয়।

এছাড়া এ স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশের বিভিন্ন পণ্য ভারতে রপ্তানি করা হয়। গত পাঁচ বছরে হিলি স্থলবন্দর থেকে আয় হয়েছে ৩৯ কোটি টাকা।

উল্লেখ্য, হিলি স্থলবন্দর দিনাজপুর জেলার হাকিমপুর উপেজলার বাংলা হিলি সীমান্তে অবস্থিত। এ স্থলবন্দরের পাশে রয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা। ২০০২ সালে হিলি শুল্ক স্টেশনকে স্থলবন্দর ঘোষণা করা হয়।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

জাতীয়

সুগন্ধা সৈকতের নাম ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ করার প্রস্তাব বাতিল

Published

on

পুঁজিবাজার

কক্সবাজারের সুগন্ধা সমুদ্র সৈকতের নাম পরিবর্তন করে ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ করার প্রস্তাব নানা আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে বাতিল করা হয়েছে।

সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. এনায়েত হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মো. এনায়েত হোসেন জানান, সিদ্ধান্তটি বাতিল করা হয়েছে, এ বিষয়ে চিঠিও ইস্যু করা হয়েছে।

জানা গেছে, গত ৮ ফেব্রুয়ারি মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ নামের একটি সংগঠন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে একটি চিঠি দেয়। সংগঠনের সভাপতি মো. সোলায়মান মিয়া স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে কক্সবাজারের সুগন্ধা সমুদ্র সৈকতের নাম ‌‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ এবং সুগন্ধা ও কলাতলী বিচের মাঝখানের জায়গাটিকে ‌‘মুক্তিযোদ্ধা বিচ’ নামকরণের দাবি জানানো হয়।

এরপর গত ১৯ ফেব্রুয়ারি এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসককে নির্দেশ দিয়ে চিঠি পাঠায় মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়।

চিঠিতে বলা হয়, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে সুগন্ধা বিচকে ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ এবং সুগন্ধা ও কলাতলী বিচের মাঝখানের খালি জায়গার নাম হবে ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা বিচ’।

বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। অবশেষে আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেই সিদ্ধান্তটি বাতিল করলো সরকার।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

জাতীয়

ঢাকা মেয়র কাপের কলেবর দিনে দিনে বৃদ্ধি পাবে: তাপস

Published

on

পুঁজিবাজার

ঢাকা মেয়র কাপ আন্তঃওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতার কলেবর দিনে দিনে বৃদ্ধি পাবে বলে জানিয়েছেন দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ ইনডোর স্টেডিয়ামে ঢাকা মেয়র কাপের ব্যাডমিন্টন খেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

মেয়র তাপস বলেন, আমাদের তরুণদেরকে কীভাবে খেলাধুলায় আরো বেশি সম্পৃক্ত করাতে পারি সেই প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। শুধু তাই নয়, ভবিষ্যতে আমাদের ঢাকা শহরের খেলোয়াড়রা কীভাবে বহির্বিশ্বের অন্যান্য শহরের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারে, সেই চিন্তা-চেতনা ও পরিকল্পনাও আমরা সন্নিবেশ করছি। সুতরাং ঢাকা মেয়র কাপের কলেবর দিনে দিনে বৃদ্ধি পাবে।

মেয়র কাপ আয়োজনের মাধ্যমে ঢাকার সন্তানেরা খেলাধুলায় এগিয়ে যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে তাপস বলেন, ইতোমধ্যে ফুটবল ও ক্রিকেট খুবই জমজমাট হয়ে গেছে। আজকেও অনেকগুলো খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে তীব্র প্রতিযোগিতা হয়েছে। এর মাধ্যমে আমাদের ঢাকার সন্তানেরা ফুটবল, ক্রিকেট এবং ব্যাডমিন্টনে এগিয়ে যাবে। সংস্কৃতিতে এগিয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সভাপতি ও প্রধান তথ্য কমিশনার ডক্টর আবদুল মালেক বলেন, নিয়মিতভাবে ঢাকা মেয়র কাপের আয়োজনের মধ্য দিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস তরুণ প্রজন্মকে উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা যুগিয়ে চলেছেন। তিনি খেলাধুলাকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিয়ে জীবনের অনুষঙ্গে পরিণত করার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। সেজন্য আমি তাকে বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাই।

পরে মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এবং বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সভাপতি ও প্রধান তথ্য কমিশনার ডক্টর আবদুল মালেক ‘শাটল (ফেদার) সার্ভ’ এর মাধ্যমে ব্যাডমিন্টন খেলার উদ্বোধন করেন।

১০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মারুফ আহমেদ মনসুর ও ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান আসাদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, দক্ষিণ সিটির ক্রীড়া ও সংস্কৃতি বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাদ্দেস হোসেন জাহিদ প্রমুখ।

উল্লেখ যে, গত ১০ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেয়র কাপ আন্তঃওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০২৪ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠিত হয়। আগামী ৯ মার্চ ঢাকা মেয়র কাপের সমাপনী খেলা ও এবারের আয়োজনের সমাপনী অনুষ্ঠিত হবে। ফুটবল, ক্রিকেট ও ব্যাডমিন্টন নিয়ে ৪র্থ বারের মতো এই ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ফুটবল ও ক্রিকেটের ইতোমধ্যে প্রথম পর্ব (রাউন্ড) শেষ হয়েছে। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ক্রিকেটের ২য় পর্ব এবং ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ফুটবলের ২য় পর্ব শুরু হয়েছে।

এবারের আয়োজনে ব্যাডমিন্টনে মোট ৬৪টি দল অংশ নিচ্ছে। ব্যাডমিন্টনের ফাইনাল খেলার বিজয়ী দল ৩ লাখ টাকা এবং বিজিত দলকে ২ লাখ টাকা অর্থ পুরস্কার দেওয়া হয়।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

জাতীয়

প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাংলাদেশকে বদলে দিয়েছেন: সাঈদ খোকন

Published

on

পুঁজিবাজার

ঢাকা-৬ আসনের সংসদ সদস্য ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেছেন, গত ১৫ বছরে আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের সামগ্রিক চিত্র পাল্টে দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাংলাদেশকে পুরোপুরিভাবে বদলে দিয়েছে। বাংলাদেশের বর্তমান পরিবর্তনকে শুধু ‘উন্নয়ন’ শব্দের মাধ্যমে পরিপূর্ণভাবে প্রকাশ করা সম্ভব নয়। এটা একটা পরিবর্তন, এটা একটা সম্পূর্ণভাবে বদলে যাওয়া বাংলাদেশ।

সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) পুরান ঢাকার বংশালের সুরিটোলা সরকারি মডেল বিদ্যালয় মাঠে মেয়র মোহাম্মদ হানিফ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আসন্ন পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষ্যে মাসব্যাপী খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

সাঈদ খোকন বর্তমান সরকারের উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে বলেন, বিএনপি সরকারের আমলে বাংলাদেশের মানুষের মাথাপিছু আয় ছিল ৫৯৩ মার্কিন ডলার। বর্তমান সরকারের সময়ে মাথাপিছু আয় দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৭৩৫ মার্কিন ডলারে। এই হচ্ছে পরিবর্তন। আজকে দেখবেন পদ্মাসেতু, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, মেট্রোরেলের মতো উন্নয়ন। চারদিকে এমন বহু উন্নয়ন এখন দেখতে পাবেন যা এক সময় মানুষ চিন্তাও করতে পারতো না।

পবিত্র রমজান মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম মানুষের নাগালের মধ্যে চলে আসবে জানিয়ে সাবেক এই মেয়র বলেন, বর্তমানে কিছু জিনিসপত্রের দাম মাঝেমধ্যে বেড়ে যাচ্ছে, এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত কষ্টকর। আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা প্রতিদিন এই বিষয়টা মনিটর করছেন, কীভাবে এই জিনিসপত্রের দাম আমাদের নাগালের মধ্যে রাখা যায় তা নিয়ে তিনি দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন। আপনারা কয়েকটা দিন সময় দেন ইনশাআল্লাহ দ্রব্যমূল্য আপনাদের নাগালের মধ্যে চলে আসবে। এই কষ্ট যাতে কিছুটা কম হয় সেজন্য আমরা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে প্রতিবছরের মতো এবারও আমার সাধ্যানুযায়ী আপনাদের পাশে থাকার চেষ্টা করছি।

এই সংসদ সদস্য বলেন, আল্লাহ রব্বুল আলামিনের মেহেরবানিতে এবং আপনাদের দোয়ায় ও ভোটে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছি। ইনশাআল্লাহ প্রধানমন্ত্রীর সার্বিক সাহায্য এবং সহযোগিতায় আগামী দিনগুলোতে এই কার্যক্রম ব্যাপকভাবে পরিচালিত করতে পারব। আমি যখন আপনাদের কাছে ভোট প্রার্থনা করতে গিয়েছি তখন এই কথা দিয়েছিলাম, আমি আমার কথা রাখব ইনশাআল্লাহ।

এদিন ঢাকা-৬ আসনের আওতাধীন ৩৪ নম্বর ওয়ার্ডের দুইশ পরিবারের মধ্যে মিনিকেট চাল ১০ কেজি, পোলাওর চাল ২ কেজি, সয়াবিন তেল ২ লিটার, সরিষার তেল ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ ২ কেজি, আলু ৫ কেজি, ঘি ১০০ গ্রাম, সেমাই এক প্যাকেট, ছোলা বুট এক কেজি, খেজুর ২৫০ গ্রাম, চিনি ১ কেজি, লবণ ১ কেজি, লাক্স সাবান ১টি, দুধ ২০০ গ্রাম, মসুরের ডাল ১ কেজি, মুড়ি ১ কেজি, ডাবলি ১ কেজি, মটরের ডাল ১ কেজি, বেসন ১ কেজিসহ মোট ৩১ কেজির বস্তা বিতরণ করা হয়।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন
পুঁজিবাজার
ধর্ম ও জীবন6 hours ago

এক বৈঠকে পুরো কোরআন মুখস্ত শোনালো রাহাতুল ইসলাম

পুঁজিবাজার
সারাদেশ6 hours ago

সুন্দরবনে পথ হারানো ৩১ পর্যটককে উদ্ধার

বিআইসিএমে চাকরির সুযোগ, বেতন প্রায় দুই লাখ
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার7 hours ago

ইউনিয়ন পরিষদ সচিব পদে চাকরির সুযোগ

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার সূচিতে ফের পরিবর্তন
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার7 hours ago

আগামীকাল শেষ হচ্ছে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আবেদন

পুঁজিবাজার
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার7 hours ago

জনবল নিয়োগ দেবে মেঘনা গ্রুপ

পুঁজিবাজার
ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার7 hours ago

ভিকারুননিসার গণিত শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত

পুঁজিবাজার
জাতীয়7 hours ago

বাংলাদেশকে সমৃদ্ধ ও নিরাপদে রাখতে পুলিশ সচেষ্ট থাকবে: রাষ্ট্রপতি

পুঁজিবাজার
অর্থনীতি7 hours ago

হিলিতে পাঁচ বছরে ৮৫ লাখ টন পণ্য আমদানি

পুঁজিবাজার
জাতীয়7 hours ago

সুগন্ধা সৈকতের নাম ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ করার প্রস্তাব বাতিল

পুঁজিবাজার
খেলাধুলা8 hours ago

ফের সাকিব-তামিম মহারণ, ফাইনালে কুমিল্লা

Advertisement
Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

২০১৮ সাল থেকে ২০২৩

অর্থসংবাদ আর্কাইভ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯