ফারইস্টের সাবেক সিইও হেমায়েত উল্লাহকে বীমা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, অর্থসংবাদ.কম, ঢাকা প্রকাশ: ২০২১-১২-২১ ১৭:১৪:৫১, আপডেট: ২০২১-১২-২১ ১৯:৫৫:০২

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের সাবেক মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হেমায়েত উল্লাহকে কোন বীমা প্রতিষ্ঠানে নিয়ােগ প্রদানে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)।

মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) আইডিআরএ এ সংক্রান্ত একটি চিঠি সকল লাইফ ও নন-লাইফ বীমা প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যানদের কাছে পাঠিয়েছে। এছাড়া সকল লাইফ ও নন-লাইফ বীমা কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক/মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাছেও চিঠিটি পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, ফারইষ্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডে বিগত কয়েক বছরে ব্যাপক অনিয়ম, অব্যবস্থাপনা, আর্থিক অনিয়ম সংঘটিত হয়েছে। এসব ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে নেতিবাচক খবর প্রকাশিত হয়েছে। হেমায়েত উল্লাহ বিগত ২০১১ সাল থেকে ২০২১ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিমা খাতের কোম্পানিটিতে দায়িত্ব পালন করেছেন। কোম্পানিটিতে এসময় তিনি উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তার দায়িত্বে নিয়ােজিত ছিলেন।

চিঠিতে আরও বলা হয়, তিনি বীমা আইন, ২০১০ ও বীমা আইনের বিভিন্ন বিধি বিধান অনুযায়ী কোম্পানি পরিচালনা করার জন্য দায়ী থাকবেন। তার নিয়ােগপত্রে সুস্পষ্টভাবে এবিষয়ে শর্ত আরােপ করা হয়েছিল। কিন্তু তার দায়িত্বকালীন সময়ে কোম্পানিতে ব্যাপক অনিয়ম সংঘটিত হয়েছে। সম্প্রতি বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় এসব নিয়ে খবর প্রকাশিত হয়েছে, যার জন্য তিনি প্রত্যক্ষ ও পরােক্ষভাবে দায়ী। হেমায়েত উল্লাহর বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করে তা নিজ ভোগ দখলে রেখে এবং মিথ্যা তথ্যসংবলিত সম্পদ বিবরণী দাখিলের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) মামলা করেছে। তাঁর বিদেশ গমনেও নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

এছাড়াও চিঠিতে বলা হয়, হেমায়েত উল্লার এসব কর্মকান্ডের ফলে বীমা শিল্পের ভাবমূর্তি মারাত্মকভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। এসব কোম্পানিতে বীমা পলিসি গ্রাহকগণ তাদের ন্যায্য দাবী পাচ্ছে না। ফলে জনমনে বীমা শিল্পের প্রতি নেতিবাচক ধারণা তৈরি হচ্ছে। এসবের জন্য বীমা প্রতিষ্ঠানসমূহ নতুন ব্যবসা সম্প্রসারণে ব্যাপক চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হচ্ছে।

বীমা শিল্প তথা বীমা গ্রাহকগণের স্বার্থ রক্ষার্থে এবং দুদক ও কর্তৃপক্ষের চলমান কার্যক্রম সমাপ্ত না হওয়া পর্যন্ত ফারইষ্ট ইসলামী লাইফ ইস্যুরেন্সের সাবেক মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা হেমায়েত উল্লাহকে কোন বীমা প্রতিষ্ঠান নিয়োগ দিতে পারবে না। তাকে নিয়োগ দেওয়ার ক্ষেত্রে আইডিআরএর অনাপত্তি গ্রহণ করতে হবে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।