ব্যাচেলরদের আবাসন ‘সুপার হোস্টেল’ এখন ‘সুপার হোম’

ডেস্ক রিপোর্টার প্রকাশ: ২০১৯-১২-২৭ ০৩:১০:৫৮

রাজধানীতে ব্যাচেলরদের আবাসন সুবিধা দিতে চালু হওয়া ‘সুপার হোস্টেল’ নাম পাল্টে এখন ‘সুপার হোম’।

বৃহস্পতিবার এ কোম্পানির শাহবাগ শাখায় এক ‘মিট দ্যা প্রেস’ অনুষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে এই সেবার নাম ও লোগো পরিবর্তন করা হয়।

বাংলাদেশে ব্যাচেলরদের জন্য এই আবাসন ব্যবস্থা পরিচালনা করছে চীনা কোম্পানি নিউওয়েজ ইন্টারন্যাশনাল।

প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা বলেন, ব্যাচেলরদের ঝামেলামুক্ত জীবন ও আধুনিক সুবিধা দিতে তারা ‘ঘরোয়া পরিবেশ’ তৈরির চেষ্টা করেছেন। তাই নাম পরিবর্তন করে ‘সুপার হোম’ রাখা হয়েছে।

নিউওয়েজ ইন্টারন্যাশনালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ঝ্যাং লি গুয়াং বলেন, “এর মাধ্যমে শুধুই যে ব্যাচেলরদের জীবনযাপন বদলে যাবে তা নয়, বরং এ জনপদের পরিবহন, শিক্ষা, সামাজিক দর্শন, কর্মসংস্থানসহ বহু ক্ষেত্রে সুদূরপ্রসারী এবং গভীর ভূমিকা রাখবে সুপার হোম।”

ঢাকার উত্তরায় ১টি, মিরপুরে ২টি, বারিধারা ও বাড্ডায় ৫টি শাখা পরিচালনা করছে এ কোম্পানি। এখন থেকে সবগুলো শাখাই ‘সুপার হোম’ নামে পরিচিতি পাবে।

কোম্পানির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার রাসেল কবির বলেন, ব্যাচেলরদের ‘দুর্বিষহ জীবন’ থেকে রক্ষা করতে নিউওয়েজ ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি লিমিটেড বাংলাদেশে প্রথম ‘আন্তর্জাতিক মানের আবাসন সেবা’ নিয়ে এসেছে।
“নানান ঝামেলার কারণে বাসা পাওয়া থেকে শুরু করে খাওয়া-দাওয়ায় অসুবিধায় ভুগতে হয় এই শহরের ব্যাচেলরদের। মেয়েই হোক কিংবা ছেলে, বিশেষ করে মফস্বল থেকে ঢাকায় পড়াশোনা অথবা চাকরির জন্য আসা ব্যাচেলরদের থাকার জায়গা বা বাসা ভাড়া পাওয়াটা দীর্ঘদিনের সমস্যা, যা নিয়ে কেউ কখনোও চিন্তা করেনি।

“বিভিন্ন কারণে তাদের কাছে বাসা ভাড়া পাওয়া যেন সোনার হরিণ পাওয়ার মত। এ সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যেই বাংলাদেশে প্রথম আর্ন্তজাতিক মানের আবাসন ব্যবস্থা সুপার হোম তৈরি হয়েছে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায়।’’

ছাত্রছাত্রী ও চাকরিজীবী ব্যাচেলরদের জন্য সুপার হোম ২৫ ধরনের সুবিধা দেবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

শীতাতাপ নিয়ন্ত্রিত শোবার ঘর, মাল্টিফাংশনাল বেড, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন মনোরম পরিবেশে তিন বেলা স্বাস্থ্যসম্মত গরম খাবার, জিমনেশিয়াম, ওয়াশিং মেশিন ও ড্রাইয়ার, হাইস্পিড ইন্টারনেট, এলইডি টিভি, কমন রুম ও রিডিং রুম রয়েছে প্রতিটি আবাসন কেন্দ্রে।

পাশাপাশি ২৪ ঘণ্টা নিরাপত্তা ব্যবস্থা, নিরবিচ্ছন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য জেনারেটর, ফোর স্টার মানের লবিও থাকছে বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

রাজধানীতে সুপারহোমের বিভিন্ন শাখায় আবাসন সুবিধা পেতে ব্যাচেলরদের খরচ হবে স্ট্যান্ডার্ড ক্লাস ৬ হাজার ৯৯৯ টাকা, বিজনেস ক্লাস ৭ হাজার ৯৯৯ টাকায় এবং ফার্স্ট ক্লাস ৮ হাজার ৯৯৯ টাকা।

কোম্পানির প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা ঝ্যাং জিমিনও উপস্থিত ছিলেন অনুষ্ঠানে।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।