বড় পতনে সূচক আবারও সাত হাজারের নিচে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, অর্থ সংবাদ.কম, ঢাকা প্রকাশ: ২০২১-১১-২৪ ১৪:৫৭:৪৩, আপডেট: ২০২১-১১-২৪ ১৬:০৫:০৪

সপ্তাহের চতুর্থ কর্মদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজারে সূচকের বড় পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। বুধবার (২৪ নভেম্বর) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক আবারও ৭ হাজারের নিচে নেমেছে। এদিন শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর বেশির ভাগেরই দর কমেছে।

বুধবার ডিএসইর প্রধান সূচক ‘ডিএসই এক্স’ আগের দিনের তুলনায় ৯৫ পয়েন্ট কমেছে। যার ফলে সূচকটি নেমে এসেছে সাত হাজারের নিচে। বর্তমানে প্রধান সূচক ৬ হাজার ৯১৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

চলতি বছরের ৫ সেপ্টেম্বর প্রথমবারের মতো প্রধান সূচক ৭ হাজার পয়েন্টের মাইফলক স্পর্শ করে। পরে ২৫ সেপ্টেম্বর শতাধিক পয়েন্টের পতনে সূচকটি সাত হাজারের নিচে নেমে আসে। পরের দিন অবশ্য বড় উত্থান ‘ডিএসই এক্স’ কে পুণরায় সাত হাজারের উপরে তোলে। এরপর চলতি মাসের প্রথম দিন (১ নভেম্বর) সূচকটি পুণরায় ৬ হাজার ৯৯৮ পয়েন্টে নেমে আসে।

প্রধান সূচকের সঙ্গে ডিএসইর অপর দুই সূচকেরও এদিন পতন হয়েছে। শরীয়াহ ভিত্তিক কোম্পানিগুলো নিয়ে গঠিত ‘ডিএসই এস’ আজ ১৬ পয়েন্ট কমেছে। আর বাছাই করা কোম্পানিগুলো নিয়ে গঠিত ‘ডিএসই ৩০’ কমেছে ২৯ পয়েন্ট।

সূচকের বড় পতনে ওয়ালটন হাই-টেক, স্কয়ার ফার্মা ও ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকোর অবদান ছিল বেশি। এ তিন কোম্পানির কারণে আজ সূচক হারিয়েছে ১৭ দশমিক ৯৮ পয়েন্ট পয়েন্ট।

আর লাফার্জ হোলসিম, আইএফআইসি ব্যাংক, ডাচ বাংলা ব্যাংক, বেক্সিমকো ফার্মা, গ্রামীণফোন, ব্র‌্যাক ব্যাংক ও এনআরবিসি ব্যাংকের কারণে সূচক কমেছে আরও ১৯ দশমিক ৩৬ পয়েন্ট।

অর্থাৎ আজ এই ১০ কোম্পানির কারণে সূচক হারিয়েছে ৩৭ দশমিক ৩৪ পয়েন্ট।

সূচকের পতনের দিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে টাকার অংকে লেনদেনও কমেছে। আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কমেছে ১৮৫ কোটি টাকা। আজ ডিএসইতে ১ হাজার ১২৯ কোটি ৫৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। গতকাল (মঙ্গলবার) লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৩১৪ কোটি টাকার।

সপ্তাহের চতুর্থ কর্মদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজারে মোট ৩৬৫টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ২৫৯টি কোম্পানির শেয়ারদর আজ কমেছে। বেড়েছে ৭৫টির। আর ৩১টি কোম্পানির শেয়ারদর আজ অপরিবর্তিত ছিল।

বেশিরভাগ খাতের কোম্পানিগুলোর শেয়ারদর পতনের দিন বেশি কমেছে ব্যাংকের। এ খাতের ৩২টি কোম্পানির মধ্যে সবগুলোর শেয়ারদরই এদিন কমেছে।

দুই শতাধিক কোম্পানির দরপতনের দিন সবচেয়ে বেশি শেয়ারদর কমেছে এলআর গ্লোবাল বাংলাদেশ মিউচ্যুয়াল ফান্ডের। আজ কোম্পানিটির শেয়ারদর আগের দিনের তুলনায় ১০ শতাংশ কমেছে। কাট্টালি টেক্সটাইলের শেয়ারদর কমেছে ৯ দশমিক ০৬ শতাংশ। বুধবার এই দুই কোম্পানি ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে অবস্থান করে নিয়েছে।

বুধবার ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষ পাঁচ কোম্পানি

এছাড়াও প্রিমিয়ার লিজিং, জেমিনি সি ফুড, হামিদ ফেব্রিক্স, তমিজউদ্দিন টেক্সটাইল, বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স, এডিএন টেলিকম, ফিনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও আইএফআইসি ব্যাংক এদিন ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকায় স্থান পেয়েছে।

ডিএসই দরবৃদ্ধির তালিকায় থাকা কোম্পানিগুলোর মধ্যে চারটির শেয়ারদর যতটুকু বাড়া সম্ভব ততটুকুই বেড়েছে। সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ারদর আজ ৯ দশমিক ৯২ শতাংশ বেড়েছে।

এছাড়াও একমি পেস্টিসাইডসের ৯ দশমিক ৯০ শতাংশ, সেনাকল্যাণ ইন্স্যুরেন্সের ৯ দশমিক ৭৩ শতাংশ ও লাভেলোর শেয়ারদর ৯ দশমিক ৫৭ শতাংশ বেড়েছে। কোম্পানিগুলো আজ ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।