টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথমবার ডিআরএস

স্পোর্টস ডেস্ক প্রকাশ: ২০২১-১০-১০ ১৩:০১:০২

প্রথমবারের মতো আইসিসি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমের (ডিআরএস) অন্তর্ভুক্তি হচ্ছে আসন্ন বিশ্বকাপ দিয়ে। বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানিয়েছে, ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য নতুন এই প্লেয়িং কন্ডিশন চালু করা হচ্ছে।

প্রত্যেক দল প্রতি ইনিংসে সর্বোচ্চ দুটি করে রিভিউ পাবে। গভর্নিং বডি গত বছর জুনে এক ঘোষণায় জানায়ি, কোভিড মহামারির কারণে অনভিজ্ঞ আম্পায়ারের কথা মাথায় রেখে সব ফরম্যাটের ম্যাচের প্রত্যেক ইনিংসে একটি করে বাড়তি ডিআরএস রাখা হয়। তাতে করে সাদা বলের ফরম্যাটের প্রত্যেক ইনিংসে রিভিউর সংখ্যা বেড়ে দুটি হয় আর টেস্টে তিনটি।

এছাড়া বৃষ্টি বিঘ্নিত বা বিলম্বিত ম্যাচে নূন্যতম ওভারের সংখ্যাও বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে আইসিসি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের খেলায় ডিএলএস মেথডে ফল পেতে অন্তত পাঁচ ওভার ব্যাট করতে হবে প্রত্যেক দলকে। যে কোনো টি-টোয়েন্টিতেই এমন নিয়ম। কিন্তু সেমিফাইনাল ও ফাইনালে ফল কার্যকরে প্রত্যেক দলকে ব্যাট করতে হবে অন্তত ১০ ওভার করে।

২০১৬ সালে পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গত আসরে ডিআরএস ছিল না, কারণ ওই সময় টি-টোয়েন্টিতে রিভিউ সিস্টেমের আবির্ভাব হয়নি। প্রথমবার আইসিসির টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে ডিআরএসের ব্যবহার হয় ২০১৮ সালে মেয়েদের বিশ্বকাপে। একটি করে রিভিউ পেত দলগুলো। ২০২০ সালে মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও সমানসংখ্যক ডিআরএস ছিল।

আগের প্লেয়িং কন্ডিশন অনুযায়ী, পুরুষ ও নারীদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ডিআরএস ব্যবহার করা হতো দ্বিপাক্ষিক সিরিজে অংশগ্রহণ করা দলের সম্মতিক্রমে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।