ওমরাহ যাত্রীদের জন্য টিকার সনদ বাধ্যতামূলক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, অর্থ সংবাদ.কম প্রকাশ: ২০২১-০৮-০৮ ১০:৫৫:৪৮

করোনা টিকার ডোজ সম্পূর্ণ করা মুসল্লিদেরই ওমরাহ পালনে সৌদি আরবে প্রবেশের অনুমতি দেবে দেশটির সরকার।

রোববার (৮ আগস্ট) হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে করা এক প্রতিদেবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে সৌদির রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদসংস্থা স্টেট নিউজ এজেন্সি (এসপিএ)।

মন্ত্রণালয়ের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এসপিএকে এ সম্পর্কে বলেন, ‘সৌদি আরব এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলিম জনগোষ্ঠী, যারা চলতি বছর ওমরাহ পালনে ইচ্ছুক, তাদের আবেদনপত্রের সঙ্গে অবশ্যই টিকার সনদপত্রের অনুলিপি সংযুক্ত করতে হবে। এটি বাধ্যতামূলক করেছে সরকার।’

তিনি আরও জানান, করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে যেসব দেশের যাত্রীদের সৌদি আরবে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দেশটির সরকার, সেসব দেশের ওমরাহ পালন ইচ্ছুক মুসল্লিদেরও সৌদিতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে।

তবে সে দেশসমূহের নাগরিকদের সৌদি আরবে পৌঁছানোর পর সরকার অনুমোদিত কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রগুলোতে নির্দিষ্ট সময় ঘরবন্দি থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন ওই কর্মকর্তা।

২০২০ সালে করোনা মহামারি শুরু পর থেকে এ রোগের ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে হজ ও ওমরাহ পালন অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত ঘোষণা করেছিল সৌদি সরকার। ছয় মাসেরও বেশি সময় স্থগিতাদেশ জারি রাখার পর গত বছর অক্টোবরে দেশীয় নাগরিকদের ওমরাহ পালনের অনুমতি দেয় সরকার, তবে শর্ত দেওয়া হয়- ওমরাহ ও হজ পালনের সময় যাত্রীদের অবশ্যই সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে।

সম্প্রতি অন্যান্য দেশের মুসল্লিদেরও ওমরাহ পালনে সৌদি আরবে প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে দেশটির সরকার। সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, চলতি বছর ১ মোহররম বা ১০ আগস্ট থেকে বাইরের দেশসমূহের মুসল্লিরা ওমরাহ পালনে প্রবেশ করতে পারবেন সৌদিতে। তবে ১৮ বছর বা তার ঊর্ধ্ববয়সীরাই কেবল প্রবেশের অনুমতি পাবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।