আয়কর রিটার্নের সময়সীমা বাড়ালো ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ২০২১-০৫-০৪ ১৫:০৬:২৫, আপডেট: ২০২১-০৫-০৪ ১৫:০৭:২৯

করদাতাদের জন্যে স্বস্তির খবর দিল কেন্দ্র সরকার। করোনার সংক্রমণের উত্তরোত্তর বৃদ্ধির কারণে সরকার ২০২০ অর্থবছরের জন্য ITR,Tax compliance সময়সীমা বাড়িয়েছে। উল্লেখ্য, ব্যক্তিগত আয়কর রিটার্ন দাখিলের চূড়ান্ত সময়সীমা ছিল ৩১ এপ্রিল। এই সময়সীমা বাড়িয়ে ৩১ মে পর্যন্ত করা হল।রিটার্ন জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত অতিমারির কারণে নিয়মকানুন মেনে চলার ক্ষেত্রে করদাতারা যে প্রতিবন্ধতকার সম্মুখীন হচ্ছেন, তারই পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে আয়কর বিভাগ জানিয়েছে।

কেন্দ্রীয় প্রত্যক্ষ কর বোর্ড (CBDT) জানিয়েছে, করোনা সঙ্কটের বর্তমান পরিস্থিতির কথা ভেবে সরকার করদাতা, কর পরামর্শদাতা এবং অন্যান্য পক্ষের পরামর্শ বিবেচনা করে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ তারিখ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।CBDT জানিয়েছে, Tax compliance-এর ক্ষেত্রে ছাড়ের আবেদন করেছিলেন।এরপরে, সরকার সময়সীমা ৩১ মে পর্যন্ত বাড়িয়েছে।যার মধ্যে ২০১৯-২০ অর্থবছরের আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়ানো হয়েছে।

সিবিডিটি জানিয়েছে, মূল্যায়ন বছর ২০২০-২১ এর আয়কর রিটার্নের তারিখটি আগে ২০২১ সালের ৩১ মার্চ ছিল, যা বাড়িয়ে ৩১ মে ২০২১ করা হয়েছে।এছাড়াও, যে ক্ষেত্রে করদাতাদের নোটিশ প্রেরণ করা হয়েছে এবং তাদের উত্তর দেওয়ার জন্য তাদের এপ্রিল ১ পর্যন্ত মঞ্জুর করা হয়েছিল, তারা এখন ৩১ ই মেয়ের মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে পারবেন।একইভাবে, যে কোনও ব্যক্তি আয়কর সংক্রান্ত যেকোন বিষয়ে ৩১ মে পর্যন্ত কমিশনারের কাছে আবেদন করতে পারবেন।প্রথম এই সময়সীমা ৩০ এপ্রিল ছিল।অপরদিকে Dispute Resolution Panel (DRP)-এর শেষ তারিখটিও ৩১ মে করা হয়েছে।১৪৪ সি ধারা অনুযায়ী ডিআরপি বরখাস্ত করতে আপত্তি দায়েরের তারিখ ৩১ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।