সাত বছরের ‘যুগ্ম অধিনায়কে’র টোটকার পরেও চাপে অস্ট্রেলিয়া

ডেস্ক রিপোর্টার প্রকাশ: ২০১৮-১২-২৭ ১৩:১৪:০৯

গত মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলেছে অস্ট্রেলিয়া। জাস্টিন ল্যাঙ্গারের কাছ থেকে তখন ফোনে সুখবরটা পেয়েছিলেন আর্চি শিলার। ভারতের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ডাক পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়া দলে। তখনই হইচই পড়ে যায়। শিলারের বয়স যে মাত্র ৭ বছর! আরও অবাক করা বিষয়, মেলবোর্নে আজ ‘বক্সিং ডে’ টেস্টে শিলার অস্ট্রেলিয়া দলের যুগ্ম-অধিনায়ক! অধিনায়ক টিম পেইনের সঙ্গে মাঠে গিয়েছিলেন টস করতে।

আর্চি ক্রিকেট পাগল ছেলে হলেও জটিল হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত। এ জন্য প্রথমবার অস্ত্রোপচারের টেবিলে গিয়েছিল তিন মাস বয়সে। এরপর এই সাত বছরের ছোট্ট জীবনে তাঁর ছোট্ট শরীরে অস্ত্রোপচার হয়েছে আরও ১২ বার। চিকিৎসকদের মত, সামনের দিনগুলোতে আর্চির শরীরে আরও অস্ত্রোপচার লাগবে। ওদিকে আর্চির ইচ্ছা ক্রিকেটার হওয়ার। একদিন সে অস্ট্রেলিয়া দলের হয়ে খেলতে চায়। আর্চির এই স্বপ্নকে প্রতীকীভাবে বাস্তবে অনূদিত করতে ‘মেক অ্যা উইশ’ নামে একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠান এবং ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ভারতের বিপক্ষে সিরিজে আর্চিকে অস্ট্রেলিয়া দলে সুযোগ করে দেয়। শুধু কী তাই! দলের সঙ্গে অনুশীলনের পাশাপাশি ম্যাচ চলাকালে ড্রেসিংরুমও ভাগাভাগি করছে ফুটফুটে এই শিশু।

মেলবোর্নে আজ বল গড়ানোর আগে নিজের আদর্শ নাথান লায়নের কাছ থেকে অস্ট্রেলিয়া দলের ঐতিহ্যবাহী ব্যাগি গ্রিন টুপি বুঝে নেয় আর্চি। এ সময় তাঁর চারপাশে অস্ট্রেলিয়া দলের খেলোয়াড়েরা করতালির বৃষ্টিতে সিক্ত করেন আর্চিকে। পেইনদের সঙ্গে ওয়ার্মআপও করেছেন আর্চি। সবচেয়ে মজার দৃশ্য দেখা গেল টসের সময়। অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক পেইনের মতোই ব্লেজার পড়ে মাঠে গিয়েছেন আর্চি। টস জিতে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর আর্চির মতামত জানতে চাওয়া হয় উইকেট নিয়ে। পেইন জানান, ‘আর্চি ব্যাট করতে চেয়েছিল। যদিও তাঁকে বলেছি, আমি ঠিক নিশ্চিত নই।’ এ সময় ‘সহ-অধিনায়ক’ আর্চির কাছে জানতে চাওয়া হয় অস্ট্রেলিয়া দলের প্রতি তাঁর কি পরামর্শ? খুদে ক্রিকেটভক্তের জবাব, ‘ছক্কা মারো আর উইকেট নাও।’

পেইনরা আগে ফিল্ডিংয়ে নামায় আর্চির পরামর্শমতো ছক্কা মারার কাজটি তুলে রাখতে হয়েছে। তবে উইকেট নেওয়ার কাজটি সেভাবে পালন করতে পারেনি অস্ট্রেলিয়ার বোলাররা। বরং এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত প্রথম দিনটি ভালোভাবে পার করার পথেই রয়েছে ভারত। দলীয় ১২৩ রানের মধ্যে দুই ওপেনার মৈনাক আগারওয়াল (৭৬) ও হনুমা বিহারিকে (৮) ফিরিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার প্যাট কামিন্স। এরপর তৃতীয় উইকেটে অবিচ্ছিন্ন ৫১ রানের জুটি গড়েছেন কোহলি ও চেতেশ্বর পূজারা। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত প্রথম ইনিংসে ভারতের স্কোর ২ উইকেটে ১৭৪।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।