মুজিববর্ষে এক লাখ স্বাবলম্বী নারী তৈরির কর্মসূচি নিয়েছে সরকার : আমু

জেলা প্রতিনিধি প্রকাশ: ২০২০-০২-২৫ ১৭:১৭:৫১, আপডেট: ২০২০-০২-২৫ ২১:৫৯:১৮

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু বলেছেন, মুজিববর্ষে সারাদেশে এক লাখ আত্মকর্মী নারী তৈরির বিশেষ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সরকার।

তিনি বলেন, নারী এগিয়ে গেলেই দেশ ও জাতি উপকৃত হবে। কারণ অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারী সমাজকে বাদ দিয়ে দেশের সার্বিক উন্নয়ন সম্ভব নয়।

আজ ঝালকাঠিতে নারীদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা গ্লোবাল রুরাল এনভায়রনমেন্ট সোসাইটি-(জিআরইএস) যৌথভাবে এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন আমির হোসেন আমু।

আমু আরো বলেন, এজন্য সরকার প্রতিটি ক্ষেত্রে নারীকে ক্ষমতায়নসহ তাদেরকে এগিয়ে নেয়ার জন্য কাজ করছে। আমির হোসেন আমু আজ দুপুরে জেলার সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে হাঁস-মুরগী ও গাভী পালন বিষয়ে ২১ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

আমির হোসেন আমু বলেন, হাঁস-মুরগী ও গাভী যারা পালন করবে, শুধু তারাই যে শুধু উপকৃত হবে তাই নয়, দেশও উপকৃত হবে। বিদেশ থেকে যে গুড়ো দুধ আমদানি করা হয়, তা নিয়ে অনেক সময় প্রশ্ন দেখা দেয়। কারণ সেই গুড়ো দুধ অনেক সময় মানসম্মত হয় না।
তিনি বলেন, তাই দেশে বেশি করে গাভী পালন করলে আর দুধের ঘাটতি থাকবে না। বিদেশ থেকেও তা আমদানিও করতে হবে না।

ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সরদার মো. শাহ আলম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান আরিফুর রহমান ও নলছিটি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. সিদ্দিকুর রহমান।
নারীর অর্থনৈতিক ও সামাজিক ক্ষমতায়নে টেকসই উন্নয়ন প্রশিক্ষণ প্রদান শীর্ষক কর্মসূচির আওতায় ঝালকাঠি জেলার নলছিটি, রাজাপুর ও কাঁঠালিয়া উপজেলার ২৪০ প্রান্তিক নারী এ প্রশিক্ষণে অংশ নিচ্ছে।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।