ভারতে ভ্যাকসিন নেয়ার ৯ দিন পর স্বেচ্ছাসেবীর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২১-০১-১১ ১২:৪৩:১৯

ভারতে কোভ্যাকসিন টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে অংশ নেয়ার ৯ দিন পর স্বেচ্ছাসেবীর মৃত্যু হয়েছে। এ খবরে গোটা ভারতে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। তবে শনিবার কোভ্যাকসিন নির্মাতা ভারত বায়োটেক একটি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, বিষপ্রয়োগের ফলে ওই স্বোচ্ছাসেবীর মৃত্যু হয়েছে। এর সঙ্গে কোভ্যাকসিন নেয়ার কোনও সম্পর্ক নেই। পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে বলেও জানায় তারা।

ভোপালের গান্ধী মেডিক্যাল কলেজের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট উল্লেখ করে ভারত বায়োটেক জানিয়েছে, ২১ ডিসেম্বর পিপলস মেডিক্যাল কলেজে দীপক মারওয়াই নামে স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায় । তিনি মধ্যপ্রদেশের রাজধানী ভোপালের সরকারি হাসপাতালে দীপক মারওয়াই ট্রায়ালে অংশ নেন ১২ই ডিসেম্বর। প্রথম ডোজ দেওয়ার সাতদিন পর নিয়মমাফিক তাকে ফোন করে স্বাস্থ্যের খোঁজও নেওয়া হয়। তখনও কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়নি তার শরীরে। কিন্তু ৯ দিনের মাথায় মৃত্যু হয় তার। এর সঙ্গে টিকা প্রয়োগের কোনও সম্পর্ক নেই।

প্রসঙ্গত, তৃতীয় পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের কোনো তথ্য এখনও প্রকাশ্যে আনেনি ভারত বায়োটেক। এমনকী টিকার কার্যকারিতা কত শতাংশ তাও সরকারি ভাবে জানায়নি এই সংস্থা। তবুও কেন্দ্র জরুরি প্রয়োগের জন্য কোভ্যাকসিন অনুমোদন দিয়েছে। সেই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কংগ্রেসসহ বিরোধী দলগুলো।

তবে ভারত বায়োটেকের কর্ণধার স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছেন, তাদের টিকা নিয়ে অহেতুক রাজনীতি হচ্ছে। এই মৃত্যুর ঘটনায় পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কোনও তথ্য পায়নি বলে জানিয়েছে বায়োটেক। তদবে তদন্তে তারা মধ্যপ্রদেশ পুলিশকে সম্পূর্ণ সহযোগিতা করতে রাজি বলে জানিয়েছে। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।