এইচএসসির ফল প্রকাশের অধ্যাদেশ খসড়া সোমবার

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২১-০১-১০ ১৭:৪৩:৩২

করোনা মহামারির কারণে পরীক্ষা ছাড়াই এইচএসসির ফল প্রকাশ করতে অনুমোদনের জন্য একটি অধ্যাদেশ সোমবার (১১ জানুয়ারি) মন্ত্রিসভায় উঠতে যাচ্ছে। মন্ত্রিসভার বৈঠকে উত্থাপনের জন্য অধ্যাদেশের খসড়া সম্প্রতি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। রবিবার দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সোমবারের মন্ত্রিসভা বৈঠকের এজেন্ডায় রাখা হয়েছে এ সংক্রান্ত অধ্যাদেশ।

জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (মন্ত্রিসভা ও রিপোর্ট অনুবিভাগ) মো. আব্দুল বারিক বলেন, ‘রেসপেক্টিভ মিনিস্ট্রিতে যোগাযোগ করুন। সেখানে বিকালেই (এজেন্ডাসহ সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র) সব পৌঁছে যাবে। আমাদের গোপনীয়তা রক্ষা করতে হয়।’

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ফলাফল প্রকাশের জন্য খসড়া অধ্যাদেশ সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে উত্থাপনের জন্য পাঠানো হয়েছে। মন্ত্রিসভার বৈঠকে অনুমোদন দিলে অধ্যাদেশ আকারে জারি করা হবে। এরপর দ্রুত এইসএসসি’র ফল প্রকাশ করা হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘অধ্যাদেশটি আগামী সোমবার মন্ত্রিসভায় অনুমোদনের পর আইন মন্ত্রণালয় থেকে ভেটিং সাপেক্ষে রাষ্ট্রপতির অনুমতির জন্য পাঠানো হবে। এরপর অধ্যাদেশ আকারে জারি করা হবে। অধ্যাদেশ জারির পর প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি সাপেক্ষে ফলাফলের তারিখ ঘোষণা করা হবে।’

এর আগে গত ২৯ ডিসেম্বর অক্টোবর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছিলেন, ‘আনুষ্ঠানিকভাবে পরীক্ষা না নিয়ে এইচএসসির ফল প্রকাশ করতে আইনি প্রক্রিয়া হিসেবে অধ্যাদেশ জারি করতে হবে। পরীক্ষা সংক্রান্ত আইন রয়েছে। বিশেষ পরিস্থিতিতে ফল প্রকাশে একটি অধ্যাদেশ জারি করতে হবে। খুব সহসাই এটি জারি করা হবে।’

উল্লেখ্য,করোনা মহামারির কারণে চলতি বছরের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা বাতিল করা হয়। এখন পরীক্ষার্থীদের জেএসসি ও এসএসসি এই দুই পরীক্ষার ফলের গড় করে এইচএসসির ফল প্রকাশ করা হবে।ফল প্রকাশ করা হলে ঘরে বসেই পরীক্ষার্থীরা তা সংগ্রহ করতে পারবেন মোবাইল ফোনে মেসেজের মাধ্যমে।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।