দর কমার শীর্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্স

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২১-০১-০৮ ২১:০৩:৩৭

বড় উত্থানের মাধ্যমে গত সপ্তাহ পার করেছে দেশের শেয়ারবাজার। এতে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) বাজার মূলধন ২২ হাজার কোটি টাকার ওপরে বেড়েছে। প্রধান মূল্য সূচক বেড়েছে দুই’শ পয়েন্টের ওপরে। দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে প্রায় দুই হাজার কোটি টাকা।

দেশের শেয়ারবাজারের জন্য গত সপ্তাহ খুব ভালো কাটলেও বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্সের শেয়ারের বিনিয়োগকারীদের জন্য সপ্তাহটি মোটেই ভালো ছিল না। বিনিয়োগকারীদের একটি বড় অংশ কোম্পানিটির শেয়ার কিনতে আগ্রহী না হওয়ায় সপ্তাহজুড়েই দাম কমেছে। এতে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারিয়ে ডিএসইতে দাম কমার শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্স।

সপ্তাহজুড়ে তাদের শেয়ারের দাম কমেছে ১৪ দশমিক ২৯ শতাংশ। টাকার অঙ্কে দাম কমেছে ১৩ টাকা ৫০ পয়সা। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে কোম্পানিটির শেয়ারের দাম দাঁড়িয়েছে ৬৩ টাকা, যা তার আগের সপ্তাহ শেষে ছিল ৭৩ টাকা ৫০ পয়সা।

অপরদিকে, দাম কমে যাওয়ায় বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ কোম্পানিটির শেয়ার বিক্রি করে দেয়ার চেষ্টা করেছেন। ফলে সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হয়েছে ২৩ কোটি ১৮ লাখ ১২ হাজার টাকা। আর প্রতি কার্যদিবসে গড় লেনদেন হয়েছে ৪ কোটি ৬৩ লাখ ৬২ হাজার টাকা।

বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্সের পরেই গত সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর তালিকায় ছিল দেশ গার্মেন্টস। সপ্তাহজুড়ে এই কোম্পানিটির শেয়ার দাম কমেছে ১৩ দশমিক ৭৭ শতাংশ। এরপরেই রয়েছে শাইনপুকুর সিরামিক। সপ্তাহজুড়ে এই কোম্পানিটির শেয়ার দাম কমেছে ১২ দশমিক ৮০ শতাংশ।

এছাড়া, গত সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা- সোনালী আঁশের ১২ দশমিক ৭৬ শতাংশ, ফাইন ফুডের ১২ দশমিক ৫৪ শতাংশ, এশিয়া প্যাসেফিকের ১২ দশমিক ১৫ শতাংশ, ড্যাফোডিল কম্পিউটারের ১২ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ, এশিয়া ইন্স্যুরেন্সের ১১ দশমিক ৬০ শতাংশ, রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্সের ১১ দশমিক ৩৩ শতাংশ এবং প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সের ১০ দশমিক ১৯ শতাংশ দাম কমেছে।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।