গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডের ৬৩তম আসর বসবে ১৪ মার্চ

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২১-০১-০৬ ১০:৪৯:০৮

বিশ্ব সংগীতের সবচেয়ে বড় আসর গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড। গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডের ৬৩তম আসর করোনাভাইরাস মহামারির কারণে এ আসর আগামী ১৪ মার্চ বসবে । অনুষ্ঠানটির আয়োজকরা এ তথ্য জানিয়েছে। খবর বিবিসি।

সংগীত শিল্পের সবচেয়ে বড় ও মর্যাদাকর পুরস্কার গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড। এবারের অনুষ্ঠান আগামী ৩১ জানুয়ারি হওয়ার কথা ছিল। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া ও লস অ্যাঞ্জেলসে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আগামী মার্চ পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে।

গত নভেম্বরে গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড-২০২১ এর মনোনয়ন প্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করা হয়। বিয়ন্স নোলস, টেইলর সুইফট ও ডুয়া লিপা মনোনয়ন পাওয়াদের মধ্যে এগিয়ে রয়েছেন।

গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড পরিচালনা একাডেমির বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটি জানায়, ‘আমাদের সংগীত গোষ্ঠী এবং অনুষ্ঠানটির আয়োজনে নিরলস কাজ করা শত শত ব্যক্তির স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তার চেয়ে আর গুরুত্বপূর্ণ কিছু নেই।’

করোনাভাইরাস মহামারির পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে বেশিরভাগ পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান অনলাইনে হয়েছে। এ ব্যাপারে এএফপি’র বরাত দিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এবারের গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান ভার্চুয়ালি হতে পারে বলে এর আগে জানিয়েছিল আয়োজক সংগঠন। এর বেশি আর কোনো তথ্য জানা যায়নি।

এদিকে কোরিয়ান গানের দল হিসেবে প্রথমবারের মতো গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডের মনোনয়ন পেয়ে নতুন ইতিহাসও তৈরি করেছে দক্ষিণ কোরিয়ার গানের দল বিটিএস। তারুণ্যনির্ভর এই দল ‘ডাইনামাইট’ গান দিয়ে বাজিমাত করেছে সারাবিশ্বের সংগীত অনুরাগীদের মনে।এবার তাদের প্রাপ্তির স্বীকৃতি ও সাফল্যর ঝুলিতে যোগ হলো সংগীতের সম্মানজনক পুরস্কার গ্র্যামির মনোনয়ন।

এটি যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে সম্মানজনক সংগীত পুরস্কার।গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড হলো যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল আক্যাডেমি অব রেকর্ডিং আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস কর্তৃক বার্ষিক পুরস্কার, যা সংগীত শিল্পে অসাধারণ কৃতিত্বের জন্য দেয়া হয়

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।