১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন ডিএসইতে

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২১-০১-০৫ ১৫:২০:৪৬

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মঙ্গলবার মূল্য সূচকের বড় উত্থানে লেনদেন শুরু হয়েছিল। তবে শেষ রক্ষা হয়নি তা। শেষ পরযন্ত টানা ৮ কর্মদিবস পর আজ মূল্য সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে পুঁজিবাজারে। এদিন ডিএসইতে লেনদেনে ঊর্ধ্বগতি ধারা বজায় রয়েছে। মঙ্গলবার ডিএসইর লেনদেন আড়াই হাজার কোটি টাকার ঘর অতিক্রম করেছে। যা গত ১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ডিএসইতে আজ টাকার পরিমাণে দুই হাজার ৫৪৬ কোটি ৮২ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে; যা গত ১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। এর আগে ২০১০ সালের ৬ ডিসেম্বর ডিএসইতে ২ হাজার ৭১০ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

মঙ্গলবার ডিএসইতে আগের দিন থেকে ৩৫৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা বেশি লেনদেন হয়েছে। গতকাল লেনদেন হয়েছিল দুই হাজার ১৯৩ কোটি ১ লাখ টাকার।

এদিন ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৪২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৫ হাজার ৬০৯ পয়েন্টে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই৩০ সূচক ৩২ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১৯ পয়েন্ট কমেছে।

মঙ্গলবার ডিএসইতে মোট ৩৬০টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১৩টির, দর কমেছে ১৯৭টির এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৫০টি কোম্পানির।

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই কমেছে ১৩৪ পয়েন্ট। সূচকটি ১৬ হাজার ২৩৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১৫৫ কোটি ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার।

সিএসইতে মোট ২৯৮টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১৫টির, দর কমেছে ১৪৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টির।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।