গত সপ্তাহে পাট খাতে বেশি রিটার্ন পেল বিনিয়োগকারীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২১-০১-০২ ১৫:০৮:০৭

বছরের (২০২০) শেষ সপ্তাহে পাট খাতে পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকারীরা ভালো রিটার্ন পেয়েছেন। এ খাতের বিনিয়োগের রিটার্নের হার ১৭ শতাংশের কাছাকাছি। ডিসেম্বর দ্বিতীয় সপ্তাহেও আলোচ্য খাতে বিনিয়োগ করে ১১ শতাংশের বেশি রিটার্ন পেয়েছিলাম বিনিয়োগকারীরা। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, পুঁজিবাজারে ২০টি খাতের কোম্পানির মধ্যে গেলো সপ্তাহে বিনিয়োগকারীরা ১৭টি থেকে ভালো রিটার্ন পেয়েছে। এর মধ্যে পাট খাত থেকে সবচেয়ে বেশি রিটার্ন পেয়েছে। যার হার ১৬ দশমিক ৯ শতাংশ। এ খাতের বাজার মূলধন অন্যান্য খাতের চেয়ে অনেক কম। যার পরিমাণ ২৮৬ কোটি টাকা।

এদিকে, রিটার্নের দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে টেলিকম খাত। এ খাতের কোম্পানিগুলোতে বিনিয়োগ করে বিনিয়োগকারীরা গেলো সপ্তাহে ১৫ দশমিক ২ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছেন। এ খাতে বাজার মূলধন ৬৫ হাজার ২১৭ কোটি টাকা।

এছাড়া রিটার্নের দিক দিয়ে তৃতীয় অবস্থানে আছে প্রকৌশল খাত। এ খাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা গেলো সপ্তাহে ১০ দশমিক ৫ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছে।

নন ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতের রিটার্নের হার ১০ দশমিক ৫ শতাংশ। এ খাতের সার্বিক পরিস্থিতি খারাপ থাকলেও বিনিয়োগকারীরা ব্যাংকে আমানতের সুদের হারের চেয়ে বেশি রিটার্ন পেয়েছে। বিবিধ খাতে বিনিয়োগ করে বিনিয়োগকারীরা ৮ দশমিক ৪ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছে।

অন্য খাতগুলোর মধ্যে সেবা খাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা ৭ দশমিক ২ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছে। খাদ্য আনুষাঙ্গিক খাত থেকে ৬ দশমিক ১ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছে বিনিয়োগকারীরা।

ফার্মাসিউটিক্যালস খাতের রিটার্নের হার ৩ দশমিক ৯ শতাংশ। এছাড়া কাগজ খাতের ৩ দশমিক ৮ শতাংশ, আইটি খাতে ২ দশমিক ৮ শতাংশ, বস্ত্র খাতে ২ দশমিক ৭ শতাংশ, মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতের রিটার্নের হার দশমিক ২ দশমিক ৫ শতাংশ, ব্যাংক খাতের রিটার্নের হার ১ দশমিক ৭ শতাংশ, চামড়া খাতের ১ শতাংশ, সিরামিক খাতের শূন্য দশমিক ৯ শতাংশ, ভ্রমণ খাতে শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ এবং জ্বালানি খাত থেকে শূন্য দশমিক ২ শতাংশ রিটার্ন পেয়েছেন বিনিয়োগকারীরা।

কয়েকদিন আগে ইন্স্যুরেন্স খাত বাজারে বেশ আলোচনায় থাকলেও গেলো সপ্তাহে এ খাত থেকে বিনিয়োগকারীরা রিটার্ন পায়নি।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।