আইপিও’র অনুমোদন পেল এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স

ডেস্ক রিপোর্টার প্রকাশ: ২০২০-০২-১৮ ১৭:৪৪:৩২

বীমা খাতের কোম্পানি এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে ২৬ কোটি অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিএসইসি’র চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেনের সভাপতিত্বে ৭১৯তম কমিশন সভায় এ আইপিও’র অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, কমিশন আজকের সভায় এক্সপ্রেস ইস্যুরেন্স লিমিটেডের প্রতিটি শেয়ার ১০ টাকার ইস্যু মূল্যে ২ কোটি ৬০ লাখ,৭৯ হাজারটি সাধারণ শেয়ার আইপিও’র মাধ্যমে ইস্যু করার প্রস্তাব অনুমোদন প্রদান করেছে। এই আইপিও’র মাধ্যমে কোম্পানিটি ২৬ কোটি ৭ লাখ ৯০ হাজার টাকা পুঁজি উত্তোলন করে ট্রেজারি বন্ডে ও অন্যান্য ক্ষেত্রে বিনিয়োগ এবং আইপিও খরচ খাতে ব্যয় করবে। কোম্পানিটির ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ সালের সমাপ্ত বৎসরের নিরীক্ষিত আর্থিক বিবরণী অনুযায়ী যথাক্রমে শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদ মূল্য (পুনঃমূল্যায়ন সঞ্চিতিসহ) ১৮.৭২ টাকা ও শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদ মূল্য (পুনঃমূল্যায়ন সঞ্চিতি ব্যতীত) ১৬.৬৫ টাকা এবং বিগত ৫টি আর্থিক বিবরণী অনুযায়ী কর পরবর্তী নিট মুনাফার ভারিত গড় হারে শেয়ারপ্রতি আয় ১.৪২ টাকা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছে এএএ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, আইআইডিএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড এবং বিএলআই ক্যাপিটাল লিমিটেড।

উল্লেখ্য যে, কমিশন আলোচ্য কোম্পানিটির আইপিও’র ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (পাবলিক ইস্যু) বিধিমালা, ২০১৫
এর বিধি ৩(৩)(সি) এর বিধানাবলী পরিপালনের বাধ্যবাধকতা থেকে অব্যাহতি প্রদান এবং আইপিও’র মাধ্যমে উত্তোলিত মূলধনের ন্যূনতম ২০ শতাংশ অর্থ ‘বীমা (নন-লাইফ বীমাকারীর সম্পদ বিনিয়োগ ও সংরক্ষণ) প্রবিধানমালা, ৯ এর বিধানাবলী পরিপালন সাপেক্ষে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করার শর্ত আরোপ করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।