ডিএসই’র লেনদেন হাজার কোটি ছাড়িয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-০২-১৮ ১৭:২৮:০২

বাংলাদেশ ব্যাংকের বিশেষ ফান্ড এবং প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের ফলে ইতিবাচক প্রবণতায় ফিরতে শুরু করে পুঁজিবাজার। টানা ৫ কার্যদিবস উত্থানের পর মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) আজ কিছুটা দর কারেশন হয়েছে বাজারে। তবে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জে (ডিএসই) আজ টাকার পরিমাণে লেনদেন হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে।

ডিএসইতে আজ টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২১ কোটি ৩৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট। যা ১ বছর ১৮ দিন বা ২৫০ কার্যদিবসের মধ্যে সর্বোচ্চ। এর আগে ২০১৯ সালের ৩০ জানুয়ারি ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ২৪ কোটি টাকার।

আজ ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছ ৪ হাজার ৭৪০ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ২, ডিএসই-৩০ সূচক ৮ এবং সিডিএসইটি সূচক ৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১০৮১, ১৫৯১ ও ৯৫১ পয়েন্টে।

আজ ডিএসইতে ৩৫৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৩২টির বা ৩৭ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ১৮৮টির বা ৫৩ শতাংশের এবং ৩৫টি বা ১০ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

পুঁজিবাজারে বিনিয়োগে প্রত্যেক ব্যাংক ২০০ কোটি টাকা করে বিশেষ ফান্ড গঠন করতে পারবে মর্মে গত ১০ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় ব্যাংক এক সার্কুলার জারি করে। ওই সার্কুলারের পর ১৩ থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৫ কার্যদিবস টানা উত্থানে ছিল পুঁজিবাজার। একইসঙ্গে প্রতি কার্যদিবসেরই বেড়েছে টাকার পরিমাণে লেনদেন। তবে আজ (১৮ ফেব্রুয়ারি) পতন হলেও ডিএসইতেই হয়েছে ১ হাজার ২১ কোটি টাকা।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।