টেলিটকে ১শ’ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে সৌদি আরব

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-০২-১৫ ০১:৪৪:৩০

টেলিটকের গ্রাম পর্যায়ে ৪জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ এবং শহরে ৫জি সেবা প্রদানে ১০০ কোটি ডলারের বিনিয়োগ করবে সৌদি আরব। এছাড়া বাংলাদেশ থেকে পর্যাপ্ত চিকিৎসক, নার্স ও ধাত্রী নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য একটি কার্যনির্বাহী কর্মসূচি প্রস্তুত করতে সম্মত হয়েছে উভয় দেশ।

গত বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ-সৌদি আরব যৌথ কমিশনের (জেসি) ১৩তম সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।

ইআরডি সূত্র জানায়, গ্রাম পর্যায়ে ৪জি টেলিটকের নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ এবং শহরে ৫জি সেবা প্রদানে ১০০ কোটি ডলারের প্রস্তাব দিয়েছে সৌদি আরব। তাদের বিনিয়োগের মাধ্যমে রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের (টিবিএল) অবকাঠামো উন্নয়ন করা হবে। সৌদির টেলিকম খাতে বিনিয়োগ করা বড় প্রতিষ্ঠান আল-জমিয়াহ গ্রুপ টিবিএলকে এই বিষয়ে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে। প্রতি ডলার সমান ৮৫ টাকা ধরে বাংলাদেশি মুদ্রায় টেলিকম খাতে ৮ হাজার ৫০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে সৌদি আরব।

ইআরডি সূত্র জানায়, সৌদি আরবের শ্রমশক্তির ১৩ শতাংশই বাংলাদেশি। তারা দেশটির উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন বলে জানান দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মাহির আব্দুল রাহমান গাসিম।

দুই দিনের বৈঠকে সৌদি আরব জানিয়েছে, তারা আরো দক্ষ জনশক্তি নেবে। শ্রমশক্তি নেয়ার বিষয়ে এই ধারা চলমান থাকবে। শ্রম মন্ত্রণালয় ও সৌদি আরবের শ্রম মন্ত্রণালয়ের টেকনিক্যাল কমিটি এই বিষয়ে আরো বৈঠক করবে। কোন কোন খাতে দক্ষ জনশক্তি পাঠানো যায়, বছরে কত সংখ্যক জনশক্তি পাঠানো যায় তা নির্ধারণ করবে উভয় দেশের টেকনিক্যাল কমিটি।

ইআরডি সচিব মনোয়ার আহমেদ বলেন, উভয় দেশের মধ্যে ৬০টি ইস্যু নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এরমধ্যে ৩০টা বিষয়ে চুক্তি সই হয়েছে। সৌদি আরব বাংলাদেশের অধিকাংশ খাত নিয়েই আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তারা টেলিকম খাতে এক বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে।

শ্রমশক্তির বিষয়ে ইআরডি সচিব বলেন, বাংলাদেশের শ্রমশক্তি নিয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছে দেশটি। এখন সৌদি আরব বাংলাদেশ থেকে আরও মেডিক্যালকর্মী নিতে চায়। এ বিষয়ে উভয় দেশের টেকনিক্যাল কমিটি ঠিক করবে।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।