বৃহৎ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো ঝুঁকির মুখে

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-১২-১৫ ১৬:২৫:৩৪, আপডেট: ২০২০-১২-১৫ ১৬:২৬:৪৩

টেক জায়ান্টরা মিথ্যা বা ভুল তথ্য ছড়ানো নিয়ে বিশ্বজুড়ে চাপের মুখে রয়েছে। এমন কনটেন্ট ছড়ানো ঠেকাতে ও বিজ্ঞাপন নীতি মানতে ব্যর্থ হওয়ায় গুগল, ফেসবুক ও অ্যামাজন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো বিভিন্ন দেশে জরিমানার মুখোমুখিও হচ্ছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) এবার বিধি মানতে ব্যর্থ হলে গুগল ও ফেসবুকের মতো বৃহৎ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোকে বড় অংকের জরিমানার বিধান রেখে একটি খসড়া আইন করছে। রয়টার্স সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

আগামী সপ্তাহে ঘোষিত হতে যাওয়া খসড়া আইনে বলা হয়েছে, অবৈধ কনটেন্ট মোকাবেলা এবং প্লাটফর্মে বিজ্ঞাপন সম্পর্কিত বিস্তারিত প্রকাশ না করলে সংস্থাগুলোকে রাজস্বের ৬ শতাংশ পর্যন্ত জরিমানা দিতে হবে। ১৫ ডিসেম্বর ডিজিটাল সার্ভিসেস অ্যাক্ট (ডিএসএ) নামে খসড়া বিধিটি উপস্থাপন করবেন ইইউর ডিজিটাল প্রধান থিয়েরি ব্রেটন। তিনি বলেন, বড় সংস্থাগুলোর আরো বেশি দায়িত্বশীল হওয়া উচিত।

ডিজিটাল সার্ভিসেস অ্যাক্টে টেক জায়ান্টের সংজ্ঞায় বলা হয়েছে, ইইউর মোট জনসংখ্যার ১০ শতাংশের সমতুল্য অর্থাৎ ৪ কোটি ৫০ লাখের বেশি ব্যবহারকারী হলে সেটি খুব বড় অনলাইন প্লাটফর্ম হিসেবে গণ্য হবে। নথিতে বলা হয়েছে, জননীতি উদ্বেগ ও তাদের পরিষেবাগুলোর পদ্ধতিগত ঝুঁকি মোকাবেলায় খুব বড় প্লাটফর্মগুলোকে আরোপিত অতিরিক্ত বাধ্যবাধকতাগুলোর প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।

 

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।