এশিয়ার ‘প্যারাসাইট’ অস্কারের সেরা ছবি

বিনোদন ডেস্ক প্রকাশ: ২০২০-০২-১০ ২০:১৩:১২

এশিয়ার ‘প্যারাসাইট’ অস্কারের সেরা ছবি

Mandatory Credit: Photo by Rob Latour/Shutterstock (10548150jf) Bong Joon Ho - Best International Feature Film - Parasite 92nd Annual Academy Awards, Show, Los Angeles, USA - 09 Feb 2020

অস্কারের মঞ্চে নীরবে বিপ্লব ঘটে গেল। একবার নয়, বার বার। একদিকে এই প্রথম সেরা ছবির শিরোপা জিতে নিল এমন এক ছবি, যা ইংরেজি ভাষার নয়। অন্যদিকে, পুরস্কার মঞ্চেই প্রতিবাদ জানালেন অনেকে। তাঁদের দাবি, এবারের মনোনয়ন তালিকায় মহিলাদের প্রতিনিধিত্ব কার্যত নেই। নেই, কৃষ্ণাঙ্গদের জায়গাও। একবার নয়, প্রতিবাদ হল বার বার।

রবিবার রাতে আমেরিকার লসএঞ্জেলসে অনুষ্ঠিত হয় ৯২তম একাডেমি পুরস্কার বা অস্কারের অনুষ্ঠান। সকলকে চমকে দিয়ে সেরা ছবির শিরোপা জিতে নেন দক্ষিণ কোরিয়ার পরিচালক বং জুন হো। ২০১৯ সালে ‘প্যারাসাইট’ ছবিটি তৈরি করেছেন তিনি। মোট চারটি পুরস্কার পেয়েছে ছবিটি। ডার্ক থ্রিলার ও কমেডির আধারে আপাদমস্তক একটি রাজনৈতিক ভাষ্য দেখানো হয়েছে বং-এর ছবিতে। গরিব মানুষের সঙ্গে ধনীদের সম্পর্ক নিপুণ দক্ষতায় ফুটিয়ে তোলা হয়েছে প্যারাসাইটে। দেখানো হয়েছে কীভাবে মিথ্যের উপর দাঁড়িয়ে রয়েছে গোটা বিশ্ব। ছবিটি মুক্তি পাওয়ার পর দুনিয়া জুড়ে তা নিয়ে প্রভূত বিতর্ক হয়েছে। আবার চলচ্চিত্র সমালোচকদের মনও জিতে নিয়েছে। অস্কারের আগে বেশ কিছু আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়ে গিয়েছেন বং। তবে একাডেমি পুরস্কারের ওজন সব সময়ই বেশি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অ-ইংরেজি ছবি হয়েও যেভাবে প্যারাসাইট সেরা ছবির পুরস্কার ছিনিয়ে নিল তা অভূতপূর্ব।

বিপ্লবের রেশ নিয়েই বছর শুরু করেছিল আরও একটি ছবি– ‘জোকার’। মার্কিন পরিচালক টড ফিলিপসের জোকার নৈরাজ্যের শেষ সীমানায় পৌঁছে দিয়েছিল দর্শককে। বুঝিয়ে দিয়েছিল কোন পথে এগোচ্ছে মানব সভ্যতা। সেরা ছবির শিরোপা জিততে না পারলেও জোকারের প্রধান অভিনেতা হোয়াকিন ফিনেক্স জিতে নিয়েছেন সেরা অভিনেতার শিরোপা। বস্তুত, হোয়াকিন ছবিতে জোকারের চরিত্রে যে অভিনয় দক্ষতা দেখিয়েছেন, তা-ও অভূতপূর্ব বলেই মনে করছেন চলচ্চিত্র সমালোচকেরা।

মার্কিন গায়িকা এবং অভিনেত্রী জুডি গারল্যান্ডের জীবনী নিয়ে তৈরি ‘জুডি’ ছবিতে অভিনয় করার জন্য সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতে নিয়েছেন রেনে জেনওয়েগার। ছয় বছর হলিউডের সঙ্গে কোনও রকম সম্পর্ক রাখেননি রেনে। ইন্ডাস্ট্রিতে ফিরে এসেই ফের চমক দেখালেন তিনি। বুঝিয়ে দিলেন, তাঁর অভিনয় দক্ষতা শেষ হয়ে যায়নি। প্রযোজক হিসেবে অস্কার জিতলেও এই প্রথম অভিনেতা হিসেবে পুরস্কার নিলেন ব্র্যাড পিট। কোয়েনটিন ট্যারেনটিনোর ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন হলিউড’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য এই পুরস্কার পেলেন তিনি।

প্রতিবছর আমেরিকার একাডেমি অফ মোশন পিকচার আর্টস এ্যান্ড সায়েন্সেস প্রদান করে থাকে একাডেমি এ্যাওয়ার্ড যা বেশি পরিচিত অস্কার পুরস্কার নামেই৷ ২০২০ সালে ৯২তম একাডেমি এ্যাওয়ার্ডের জয়ীদের নাম ঘোষণা হবে ১০ ফেব্রুয়ারি৷ প্রতিবছরের মতো এবারও অনুষ্ঠানটি হবে লস এঞ্জেলেসের বিখ্যাত হলিউড ডলবি থিয়েটারে৷

সেরা অ্যানিমেডেট ছবির পুরস্কার পেয়েছে ‘টয় স্টোরি ফোর’। সেরা পোশাকের পুরস্কার পেয়েছে ‘লিটল ওম্যান’। যুক্তরাজ্যের রক অ্যান্ড রোল গায়ক তথা বিশিষ্ট গিটার বাদক এলটন জন ‘রকেটম্যান’ ছবির গানের জন্য অস্কার পেয়েছেন। এলটনের গানের নাম ‘লাভ মি আগেইন।’

পুরস্কার দেওয়া হল, অনুষ্ঠানও হল, তবে সব কিছু ছাপিয়ে এবারের অস্কার আলাদা মাত্রা পেল প্রতিবাদের ভাষায়। বিশিষ্ট অভিনেত্রী ন্যাটালি পোর্টম্যান এ দিন অস্কারের অনুষ্ঠানে এসেছিলেন বিভিন্ন মহিলা পরিচালকদের নাম লেখা গাউন পরে। তাঁর বক্তব্য, যাঁদের নাম তিনি লিখেছেন তাঁদের প্রত্যেকের ছবিই অস্কারে মনোনয়ন পেতে পারত। কিন্তু তাঁরা মহিলা বলেই মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। গায়িকা জেনাল মনেয়ে মঞ্চে গান গাইতে উঠেও একই কথার পুনরাবৃত্তি করেন। অভিনেতা ক্রিস রক মঞ্চে উঠে বলেন, মাত্র একজন কৃষ্ণাঙ্গ অভিনেতাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। এটাও এক ধরনের বৈষম্য। ক্রিস রককে সমর্থন করেছেন আরও অনেকে।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।