বিশ্বকাপ বাংলাদেশের

স্পোর্টস ডেস্ক প্রকাশ: ২০২০-০২-০৯ ২২:৪০:২৮

না, আকবর আলী রকিবুল হাসান হাল ছাড়েননি। জয়ের জন্য ৫৪ বলে ১৫ রান দরকার বাংলাদেশের। স্নায়ুক্ষয়ী ম্যাচে ধৈর্য্যের পরীক্ষায় উত্তীর্ন অধিনায়ক আকবর আলী আর রকিবুল হাসান। ধীরে সুস্থে দলকে বিশ্বজয়ের বন্দরে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্য তাদের। বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪১ ওভার শেষে ৭ উইকেটে ১৬৩। আকবর অপরাজিত আছেন ৪২ রানে। রকিবুল ১৯ বল খেলে করেছেন ৩।

এমন একটা অবস্থায় বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ ছিল কিছুক্ষণ। ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে এ মুহূর্তে ১৬ রানে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। বৃষ্টি আইনে এ মুহূর্তে বাংলাদেশের নতুন লক্ষ্য ৩০ বলে ৭।

এর আগে, দারুণই হয়েছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব–১৯ দলের। দুই ওপেনার পারভেজ হোসেন আর তানজীদ হাসান আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই রান তাড়ার ভিতটা গড়ে দিয়েছিলেন। বাঁ হাতি পারভেজের সঙ্গে ডান হাতি তানজীদ ভারতীয় বোলারদের খেলছিলেন উইকেটের চারদিকেই। কিন্তু রবি বিষনয়ের লেগ স্পিনের দৃশ্যত এলোমেলো বাংলাদেশের রান তাড়া। ৫০ রানের ওপেনিং জুটি ভাঙার পর বিষনয় তুলে নেন আরও ৩ উইকেট। টপ অর্ডারের ইনফর্ম ব্যাটসম্যানদের হারিয়ে ১৭৮ রানটাকেও অনেক বড় মনে হচ্ছে বাংলাদেশের যুবাদের।

বিষনয় রীতিমতো কাল হয়েই এসেছেন বাংলাদেশের যুবাদের সামনে। এখনো পর্যন্ত ৪ ওভার বোলিং করে ১১ রান দিয়ে তিনি তুলে নিয়েছেন ৪ উইকেট। তানজীদের পর বিষনয় তুলে নিয়েছেন ইনফর্ম মাহমুদুল হাসান, তৌহিদ হৃদয় আর শাহদাত হোসেনকে। সুশান্ত মিশ্র নিয়েছেন ২ উইকেট।

হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে পড়ে মাঠের বাইরে চলে গিয়েছিলেন এই পারভেজ। উইকেটে সেট হয়ে যাওয়া এই ব্যাটসম্যানের বিদায় বড় ধাক্কা ছিল বাংলাদেশের। পারভেজ আবারও ক্রিজে ফিরেছেন। পরে আকবরের সঙ্গে জুটি বেঁধে তিনি যদি দলকে লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে দিয়েছেন অনেকটা পথ। এখন রকিবুল আর আকবর বাকি ৭টা রান যদি নিতে পারেন, তাহলে বিশ্বকাপটা চলে আসবে হাতের মুঠোতেই।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।