ব্যাগ ও জুতা রপ্তানিতে আরও ৪ শতাংশ ভর্তুকি

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-০২-০৫ ২১:৪২:৩০

সিনথেটিক ও ফেব্রিকসের মিশ্রণে তৈরি জুতা এবং ব্যাগ রপ্তানির বিপরীতে বাড়তি ভর্তুকির ঘোষণা দিয়েছে সরকার। রপ্তানির নতুন বাজার তৈরি ও সম্প্রসারণে এ খাতে বাড়তি চার শতাংশ হারে ভর্তুকি দেওয়া হবে। বর্তমানে এ খাতের রপ্তানিকারকরা ১৫ শতাংশ নগদ প্রণোদনা পেয়ে আসছেন। সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংক এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, সিনথেটিক ও ফেব্রিকসের জুতা ও ব্যাগ রপ্তানিতে শুল্ক বন্ড, ডিউটি ড্র-ব্যাক সুবিধার বিকল্প হিসেবে ১৫ শতাংশ হারে নগদ প্রণোদনার সুবিধাটি অব্যাহত থাকবে। কিন্তু পণ্যের নতুন রপ্তানি বাজার ধরতে ও সম্প্রসারণে পণ্য তৈরিতে ব্যবহৃত উপকরণ সংগ্রহে শুল্ক বন্ড, ডিউটি ড্র-ব্যাক সুবিধা গ্রহণ করা হলে চার শতাংশ হারে নগদ সহায়তা দেওয়া হবে।

অর্থাৎ পণ্যের নতুন বাজার তৈরি বা সম্প্রসারণের ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীরা এই ভর্তুকি পাবেন। এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন বাংলাদেশে কার্যরত সব তফসিলি ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে।

গত অর্থবছরে সরকার ৩৫টি পণ্যের বিপরীতে নগদ প্রণোদনা দিয়েছিল। চলতি অর্থবছরে এই সংখ্যা ৩৭-এ উন্নীত করেছে।

প্রসঙ্গত, রপ্তানিতে উৎসাহ বৃদ্ধিতে সরকার প্রতিনিয়ত বিভিন্ন সুবিধা দিয়ে আসছে ব্যবসায়ীদের। এবার সিনথেটিক ও ফেব্রিকসের মিশ্রণে তৈরি জুতা-ব্যাগ রপ্তানিতে অতিরিক্ত চার শতাংশ ভর্তুকি দিল। ফলে এ খাতের ব্যবসায়ীরা রপ্তানি পণ্য মূল্যের বিপরীতে মোট ১৯ শতাংশ হারে প্রণোদনা পাবেন।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।