সর্বোচ্চ পতনের মুখে যুক্তরাষ্ট্রের কয়লা উত্তোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-১১-১৬ ১৯:২৬:৩৮

নির্বাচন পরবর্তী চরম অনিশ্চয়তার ভেতর দিয়ে সময় পার করছে যুক্তরাষ্ট্র।নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের বিজয় সুনিশ্চিত মানতে নারাজ বর্তমান প্রেসিডেন্ট ও রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। এমন পরিস্থিতিতে আগামী জানুয়ারিতে শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তর নিয়ে চরম সংকটে পড়তে পারে বিশ্বের সবচেয়ে বড় অর্থনীতির এ দেশটি। এর মধ্যেই আরো দুঃসংবাদ শুনিয়েছে মার্কিন এনার্জি ইনফরমেশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (ইআইএ)।

প্রতিষ্ঠানটি বলছে, ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রে কয়লা উত্তোলন আগের বছরের তুলনায় এক-চতুর্থাংশের বেশি কমতে পারে। এর মধ্য দিয়ে দেশটিতে জ্বালানি পণ্যটির উত্তোলনে ৫৬ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ পতন দেখা দিতে পারে। একই সঙ্গে বছর শেষে দেশটি থেকে জ্বালানি পণ্যটির রফতানিও গত চার বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে নেমে আসার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। মার্কিন কয়লা শিল্পে সম্ভাব্য এ ধসের পেছনে নভেল করোনাভাইরাসের মহামারীকে দায়ী করছে প্রতিষ্ঠানটি।

যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের তৃতীয় শীর্ষ কয়লা উত্তোলনকারী দেশ। ইআইএর সম্প্রতি প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছর দেশটির খনিগুলো থেকে সব মিলিয়ে ৫২ কোটি ৬ লাখ শর্টটন কয়লা উত্তোলনের সম্ভাবনা রয়েছে, যা আগের বছরের তুলনায় এক-চতুর্থাংশের বেশি বা ২৬ দশমিক ২ শতাংশ কম। গত বছর দেশটিতে সব মিলিয়ে ৭০ কোটি ৫৩ লাখ শর্টটন কয়লা উত্তোলন হয়েছে। সে হিসেবে করোনা মহামারীর কারণে এক বছরের ব্যবধানে যুক্তরাষ্ট্রে জ্বালানি পণ্যটির উত্তোলন কমতে পারে প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি শর্টটন।

গত মাসে প্রকাশিত অন্য এক প্রাক্কলনের তুলনায় সর্বশেষ প্রতিবেদনে জ্বালানি পণ্যটির উত্তোলন পূর্বাভাস প্রায় ৪৩ লাখ শর্টটন বা দশমিক ৮ শতাংশ কমিয়ে এনেছে ইআইএ। প্রতিষ্ঠানটির ভাষ্য অনুযায়ী, এর মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে কয়লার বার্ষিক উত্তোলন গত ৫৬ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে নামতে পারে। এর আগে ১৯৬৪ সালে দেশটিতে মোট ৫০ কোটি ৪১ লাখ ৮০ হাজার শর্টটন কয়লা উত্তোলন হয়েছিল। এর পর যুক্তরাষ্ট্রের কয়লা উত্তোলন আর কখনই এতটা কমে আসেনি।

তবে চলতি বছরের পতনের ধাক্কা সামলে ২০২১ সালে ঘুরে দাঁড়াতে পারে যুক্তরাষ্ট্রের কয়লা উত্তোলন খাত। ইআইএর হালনাগাদ পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী বছর যুক্তরাষ্ট্রে সব মিলিয়ে ৬২ কোটি ৬৯ লাখ শর্টটন কয়লা উত্তোলনের সম্ভাবনা রয়েছে। সে হিসবে এক বছরের ব্যবধানে দেশটিতে জ্বালানি পণ্যটির উত্তোলন বাড়তে পারে ১০ কোটি ৬৩ লাখ শর্টটন।

যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের চতুর্থ শীর্ষ কয়লা রফতানিকারক দেশ। গত বছর জ্বালানি পণ্যটির মোট বৈশ্বিক রফতানির ৮ দশমিক ৩ শতাংশ এককভাবে জোগান দিয়েছে দেশটি। এ সময় কয়লা রফতানি করে মার্কিন রফতানিকারকরা মোট ৯৮০ কোটি ডলার আয় করেছেন। করোনাকালে উত্তোলন খাতের মন্দা ভাবের জের ধরে চলতি বছর যুক্তরাষ্ট্রে থেকে কয়লা রফতানিতেও ধস নামতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে ইআইএ। প্রতিষ্ঠানটির হালনাগাদ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্র থেকে কয়লা রফতানির পরিমাণ দাঁড়াতে পারে ৬ কোটি ৩৬ লাখ শর্টটনে। গত বছর দেশটি থেকে মোট ৯ কোটি ২৯ লাখ শর্টটন কয়লা রফতানি হয়েছিল। সে হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে যুক্তরাষ্ট্র থেকে জ্বালানি পণ্যটির রফতানি কমতে পারে ২ কোটি ৯৩ লাখ শর্টটন। সূত্র রয়টার্স ও সিএনবিসি।

অর্থসংবাদ/ এমএস/১৯:২৪/১১:১৬:২০২০

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।