বাইডেন পেল ৩০৬, ট্রাম্প ২৩২

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-১১-১৪ ০৯:২০:৫৩, আপডেট: ২০২০-১১-১৪ ০৯:২৯:২৯

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির বিজয়ী প্রার্থী জো বাইডেন জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যেও জয়ী হতে চলেছেন। আজ শনিবার ‘নিউইয়র্ক টাইমস’-এর প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। ১৯৯২ সালের পর থেকে এবারই প্রথম জর্জিয়ায় ডেমোক্র্যাটরা জয় পেতে যাচ্ছে। আর ডোনাল্ড ট্রাম্প জয়ী হয়েছেন নর্থ ক্যারোলাইনায়।

সিএনএনের খবরে বলা হয়, জর্জিয়ায় বাইডেন ১৬টি ইলেক্টোরাল ভোট পেলেন। এ নিয়ে তাঁর ইলেক্টোরাল ভোটের সংখ্যা দাঁড়াল ৩০৬। আর ট্রাম্পের ইলেক্টোরাল ভোট ২৩২।

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে জর্জিয়া ও নর্থ ক্যারোলাইনা অঙ্গরাজ্যের ভোট গণনা বাকি ছিল। বাইডেন বেশি ভোট পেয়েছেন আটলান্টায়।

দুই প্রার্থীর মধ্যে সামান্য ব্যবধানের কারণে জর্জিয়ায় ভোট পুনর্গণনা করা হয়। তবে বাইডেনের দল বলছে, এতে ফলাফলে কোনো পরিবর্তন হবে বলে তারা মনে করে না।
বাইডেনের জয় এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হয়নি। যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট হতে কোনো প্রার্থীর ২৭০টি ইলেক্টোরাল কলেজ ভোটের দরকার হয়। ইতিমধ্যে নির্ধারিত হয়ে গেছে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী বাইডেনই দেশটির পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন। এই লক্ষ্যে তিনি তাঁর প্রশাসন গোছানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

সিএনএনের খবরে বলা হয়, জর্জিয়ায় বাইডেন ১৬টি ইলেক্টোরাল ভোট পেলেন। এ নিয়ে তাঁর ইলেক্টোরাল ভোটের সংখ্যা দাঁড়াল ৩০৬। আর ট্রাম্পের ইলেক্টোরাল ভোট ২৩২।
আর ভোটে কারচুপির অভিযোগ তুলেছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ট্রাম্প বলছেন, তিনি পরাজয় মানবেন না। আদালতে যাবেন। তবে ট্রাম্পের তোলা ভোট জালিয়াতির অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছেন মার্কিন নির্বাচন কর্মকর্তারা।

এ বিষয়ে গঠিত একটি কমিটি নির্বাচন নিয়ে ট্রাম্প শিবিরের তোলা বিতর্কের মধ্যেই বলেছে, ‘এই নির্বাচন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের অন্যতম সুরক্ষিত নির্বাচন। কোন ভোট হারিয়েছে, বদল হয়েছে বা অন্য কোনোভাবে পরিবর্তন হয়েছে—এমন কোনো প্রমাণ মেলেনি।’

অর্থসংবাদ/ এমএস

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।