বাংলাদেশ ব্যাংকের দুই ডেপুটি গভর্নর চূড়ান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-১১-১৩ ১২:১৯:৫২, আপডেট: ২০২০-১১-১৩ ১২:২০:২০

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের এক বছর পর অবশেষে বাংলাদেশ ব্যাংক আরও দুইজন ডেপুটি গভর্নর পেতে যাচ্ছে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে অনুমোদনের জন্য দুইজন ডেপুটি গভর্নরের নাম চূড়ান্ত করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

নির্বাচিত দুইজন ডেপুটি গভর্নর প্রার্থী হচ্ছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক কাজী সাইদুর রহমান ও বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. আলী হোসেন প্রধানিয়া। নতুন দুইজনের নিয়োগ হলে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নরের সংখ্যা হবে চার।

২০১৬ সালে রিজার্ভ চুরির পর ডেপুটি গভর্নর নাজনীন সুলতানা ও আবুল কাশেমকে অপসারণ করা হয়। বেশ কয়েক বছর হলেও ওই দুই ডেপুটি গভর্নরের পদ আর পূরণ করা হয়নি।

মঙ্গলবার চূড়ান্ত দুই প্রার্থীর নিয়োগ অনুমোদনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সারাংশ পাঠিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের অতিরিক্ত সচিব এবিএম রুহুল আজাদ বলেন, নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির সব শর্ত ও যোগ্যতা অনুযায়ী, দুই ডেপুটি গভর্নর প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে।

সংক্ষিপ্ত তালিকার প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার নেয়া হয়েছে কিনা, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ডেপুটি গভর্নর পদের জন্য সাক্ষাৎকার নেয়া হয় না। কারণ, তারা আগে থেকেই নিযুক্ত রয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে ডেপুটি গভর্নর নিয়োগ দিতে দেরি হয়েছে। তবে প্রার্থী চূড়ান্ত হওয়ায় খুব শিগগিরই প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

এতদিন বাংলাদেশ ব্যাংকে ডেপুটি গভর্নরের পদ ছিল তিনটি। গত বছর পদ সংখ্যা বৃদ্ধি করে চারটি করা হয়েছে। তবে শর্ত দেয়া হয়েছে চারজন ডেপুটি গভর্নরের মধ্যে একজনকে নিয়োগ দিতে হবে বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে।

২০১৯ সালের অক্টোবরে ডেপুটি গভর্নর নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেয় সরকার। পরবর্তী সময় চলতি বছরের ফেব্রম্নয়ারিতে দুইজন ডেপুটি গভর্নর নিয়োগ দিতে আবারও বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। বাণিজ্যিক ব্যাংকে ২৫ বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্নরা ডেপুটি গভর্নর পদে আবেদন করতে পারবেন বলে পরের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে একটি শর্ত অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

অর্থসংবাদ/ এমএস

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।