রাজধানীতে পাইকারি বাজারে সবজির দাম কমেনি

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-১১-১৩ ১১:০৩:৪৫

শীতের মৌসুম চলে আসলেও রাজধানীর পাইকারি বাজারে কমেনি সবজির দাম। এখনো বৃষ্টি ও বন্যার অজুহাতে প্রতিটি সবজিই বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকার উপরে। সরবরাহ ঘাটতি হওয়ায় কিছু সবজি বিক্রি হচ্ছে দ্বিগুণ দামে।

সারি সারি ট্রাক আর ঝাঁকা ভরা সবজির ডালা নিয়ে ব্যস্ত রাজধানীর অন্যতম কারওয়ানবাজার। কোনটির মৌসুম শেষ, তাই আমদানি কম হলেও নতুন সবজি ওঠায় বাজারে ঘাটতি নেই সবজির সরবরাহে। কিন্তু বাজারে এখনো প্রভাব কমেনি বৃষ্টি ও বন্যার।

দু’একটির দাম কমে ৫০ এর নীচে আসলেও বেড়েছে বেশিরভাগ সবজির দর। বাজার ভরা ফুলকপি থাকলেও কমছে না দাম। পাইকারি পর্যায়ে ৭ দিন আগের ২৫ টাকা পিসের লাউ এখন বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকায়। এক মাস আগের ১৬ টাকা কেজির কুমড়া বিক্রি হচ্ছে ৩০-৩৫ টাকা কেজি দরে।

বিক্রেতারা বলেন, ‘আজকে বিক্রি হচ্ছে ৩৫/৩৬ টাকা। গতকাল বিক্রি হয়েছে ৩৮/৪০ টাকা। আগে বিক্রি করছি ৫০ টাকা কিন্তু এখন ৬০ টাকা কেজি। এর আগে কিছু কম ছিল এখন বাড়তি কারণ মালের দাম কম। দুই সপ্তাহ ধরে বাড়তি কারণ আমদানি কম।’

এদিকে কৃষি বিপণন অধিদপ্তর কর্তৃক নির্ধারিত দামেই বিক্রি হচ্ছে করলা, পটল, শিম, বেগুনসহ কয়েকটি সবজি। আমদানি বাড়ায় দাম কমছে বলে জানান পাইকাররা।

পাইকাররা বলেন, ‘বাজার কোনসময় কোন দামে বিক্রি হয় সেটার তো কোন ঠিক নেই। মাল বেশি আসলে দাম কমে আর কম আসলে দাম বাড়ে। সপ্তাহখানেক আগে ছিল ৮০/৮৫ টাকা, বর্তমানে দামটা কম আছে। আজকে বিক্রি করছি ৫০/৫২ টাকা কেজি, গতকাল বিক্রি করছি ৪৫ টাকা। আমদানি বেশি তাই এখন দাম কমে গেছে।’

শীতের সবজি পুরোপুরি আসলেই দাম হাতের নাগালে আসবে বলে আবারো আশ্বাস দেন ব্যবসায়ীরা।

অর্থসংবাদ/এসএ

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।