করোনাভাইরাস : স্থল ও নৌ বন্দরে সতর্কতা

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-০২-০২ ২৩:৫৩:৩২

বিমানবন্দরের পাশাপাশি করোনাভাইরাস নিয়ে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন চট্টগ্রাম, মোংলা, পায়রা নৌবন্দর এবং বেনাপোল স্থলবন্দরসহ অন্য বন্দরগুলো।

চট্টগ্রাম, মোংলা ও পায়রা বন্দরে দু’স্তরের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। থার্মাল ও কোয়ারেন্টাইন টেস্টের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সতর্কতার অংশ হিসেবে চীনা নাগরিকদের জন্য ‘অন এরাইভাল’ ভিসা সুবিধাও স্থগিত করা হয়েছে।

রোববার নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মন্ত্রণালয়ের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়ন-সংক্রান্ত বৈঠকে এসব তথ্য জানানো হয়। এতে আরও জানানো হয়, করোনাভাইরাস ঠেকাতে নৌবন্দরে আসা জাহাজের ক্যাপ্টেন এবং এজেন্টকে জাহাজ বহির্নোঙরে আসার সঙ্গে সঙ্গে যথাযথ ঘোষণা দেওয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

বন্দরে আসা জাহাজ মাস্টারকে পোর্ট লিমিটে আসার সঙ্গে সঙ্গে ঘোষণা দিতে হবে যে, ওই জাহাজে করোনাভাইরাস আক্রান্ত কোনো নাবিক নেই। এ ছাড়া পূর্ব এশিয়ার দেশগুলো থেকে আসা জাহাজগুলোর সব নাবিককে পোর্ট হেলথ অফিসার স্ক্যানিংয়ের মাধ্যমে নিরাপদ ঘোষণা করলেই বন্দরে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হবে। জাহাজ থেকে হাসপাতালে দ্রুত রোগী স্থানান্তরের জন্য বন্দরে অ্যাম্বুলেন্স শিপ রাখা হয়েছে।

বৈঠকে জানানো হয়, বন্দর ইমিগ্রেশন ডেস্কে পোর্ট হেলথ অফিসারের তত্ত্বাবধানে একটি মেডিকেল টিম সার্বক্ষণিক নিয়োজিত থাকবে। কোনো নাবিক বাইরে যেতে চাইলে মেডিকেল স্কিনিংয়ে সুস্থতা সাপেক্ষেই শুধু অনুমতি দেওয়া হবে। এ ছাড়া সতর্কতামূলক ব্যবস্থার অংশ হিসেবে মাস্ক ও অন্যান্য প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সবাইকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বৈঠকে আরও জানানো হয়, চট্টগ্রাম, মোংলা ও পায়রা বন্দর এলাকায় কর্মরত চীনা নাগরিকদের নিজ দেশে যেতে এ মুহূর্তে ছুটি দেওয়া হচ্ছে না। যারা ছুটিতে গেছেন, তাদের এখন না আসার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। বন্দরে জাহাজে কর্মরত লোকদের করোনাভাইরাস সম্পর্কে সচেতন করা হচ্ছে। বেনাপোল বন্দরসহ অন্যান্য স্থলবন্দরেও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা এবং সহায়তায় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আবদুস সামাদসহ সংশ্নিষ্ট দপ্তর ও সংস্থাপ্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।