৩০ কোম্পানির ইপিএস একনজরে দেখে নিন

ডেস্ক রিপোর্টার প্রকাশ: ২০২০-০১-৩০ ০০:০৭:০৭

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত অর্ধশতাধিক কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে ২৯ জানুয়ারি, বুধবার। বৈঠকে সর্বশেষ প্রান্তিকের (অক্টোবর’১৯-ডিসেম্বর’১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুমোদন করা হয়।

এই ৩০টি কোম্পানির সর্বশেষ প্রান্তিকের ইপিএস, এনএভিপিএসসহ অন্যান্য তথ্য আমাদের হাতে এসেছে। পাঠকদের সুবিধার্থে কোম্পানিগুলোর সর্বশেষ ইপিএসের তথ্য এখানে পরিবেশন করা হল।

এসিআই

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির কনসোলিডেটেড শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৬ টাকা ৯৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ৮০ পয়সা।

সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৩৫ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৩৪ পয়সা।

ফার্মা এইডস

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯ টাকা ৭৭ পয়সা। আগের বছর একই সময় ছিল ৯ টাকা ৩১ পয়সা।

এস্কয়ার নিট কম্পোজিট

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৮৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১ টাকা ১৬ পয়সা।

ইয়াকিন পলিমার

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৪ পয়সা (রিস্টেটেড)।

সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৪৯ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৫৩ পয়সা।

গ্লোবাল হেভি কেমিক্যাল

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ২১ পয়সা।

পদ্মা অয়েল

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৫ টাকা ৮৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৭ টাকা ৩৪ পয়সা।

ফু-ওয়াং ফুডস

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ২৫ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ২৩ পয়সা।

এস আলম কোল্ড রোলড

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৫৯ পয়সা। আগের বছর একই সময় ছিল ৭৬ পয়সা।

মেঘনা পেট্রোলিয়াম

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৬ টাকা ১৯ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৭ টাকা ৫৬ পয়সা।

ইষ্টার্ণ লুব্রিক্যান্টস

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ৪৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১ টাকা ৩৪ পয়সা।

এসকে ট্রিমস

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৭১ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৬১ পয়সা।

সোনারগাঁও টেক্সটাইল

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ২৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৬২ পয়সা।

শাহজিবাজার পাওয়ার

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির সমন্বিত শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ২৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৭৮ পয়সা।

সাইফ পাওয়ারটেক

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৩৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ২৮ পয়সা।

স্কয়ার টেক্সটাইল

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৪৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৪৯ পয়সা।

প্যাসিফিক ডেনিমস

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ২৯ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৩৩ পয়সা।

সিলভা ফার্মা

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ২৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ২৬ পয়সা।

জেনারেশন নেক্সট ফ্যাশনস

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১৫ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ২০ পয়সা।

ফাইন ফুডস

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ০.৫০১ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ০.০০৭ পয়সা।

জাহিন স্পিনিং মিলস

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৯২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১৮ পয়সা।

অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ২ টাকা ৪৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ২ টাকা ২০ পয়সা।

এসিআই ফরমুলেশনস

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ০২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১ টাকা ৮১ পয়সা।

ডেল্টা স্পিনার্স

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি কনসুলেটেড আয় হয়েছে ০৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ০৬ পয়সা।

খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০১ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ০৬ পয়সা।

এমবি ফার্মাসিটিক্যালস

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৮৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৮৫ পয়সা।

অলিম্পিক এক্সেসরিজ

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ১৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১৪ পয়সা।

একমি ল্যাবরেটরিজ

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ৭৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১ টাকা ৮৫ পয়সা।

স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যালস

আলোচ্য সময়ে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি কনসুলেটেড আয় হয়েছে ৪ টাকা ১৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৩ টাকা ৭০ পয়সা।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।