মার্জিন বন্ধ করায় বিএসইসিতে উকিল নোটিশ বিনিয়োগকারীদের

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-১০-১৩ ১৩:০১:৪৮

কোন ধরণের নোটিশ ছাড়া নির্ধারিত একটি খাতে মার্জিন বন্ধ করে দিয়েছে দেশের শীর্ষ কয়েকটি ব্রোকারেজ হাউজ। এ খবর বাজারে ছড়িয়ে পড়লে সোমবার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে পুরো বাজারে। ফলে বাজারে সূচকের ব্যপক পতন হয়েছে। দর হারিয়েছে ৬৭ শতাংশ শেয়ার ও ইউনিটের। ফলে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা।

তাদের অভিযোগ অবৈধভাবে প্রতিষ্ঠানগুলো আমাদের ক্ষতিগ্রস্থ করেছে। এর প্রেক্ষিত সুপ্রিম কোর্টের একজন আইনজীবির সহায়তা চেয়েছে তারা। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি ব্যারিস্টার সাইফুল আলম চৌধুরী বিনিয়োগকারীদের পক্ষ হয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যানের কাছে উকিল নোটিশ দিয়েছেন।

এ বিষয়ে ব্যারিস্টার সাইফুল আলম চৌধুরী বলেন, বিএসইসির আইন লঙঘন করে কোন ধরণের নোটিশ ছাড়া মার্জিন ঋণ বন্ধ করে দিয়েছে। এর প্রভাব পুরো বাজারে পড়েছে। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারী। এই বিষয়টি বিএসইসির নজরে আনতে তাদের হয়ে আমি উকিল নোটিশ দিয়েছি। আশা করছি বিএসইসি একটি ভালো উদ্যোগ নিবে।

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়। ওইদিন ৬৭ দশমিক ২০ শতাংশ বা ২৩৮টি কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে।

মার্জিন ঋণের বিষয়ে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মূখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম অর্থসংবাদকে বলেন, বিএসইসি মার্জিনের বিষয়ে নতুন কোন সিদ্ধান্ত নেয়নি। কোন নির্দিষ্ট খাতের জন্য মার্জিন কমানো বা বৃদ্ধির বিষয় নেই। মার্জিন আগের মতোই থাকবে।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।