২৫ বীমা কোম্পানিকে আইপিওতে আসতে আইডিআরএর তাগিদ

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-১০-১০ ১৩:২৯:৩৪

পুঁজিবাজার থেকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনের জন্য ২৬টি বীমা কোম্পানিকে তাগিদ দিয়েছে বীমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। এর মধ্যে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স ইতোমধ্যে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়েছে। সে হিসাবে অ-তালিকাভুক্ত বীমা কোম্পানি রয়েছে ২৫টি।

সম্প্রতি এই ২৫ বীমা কোম্পানিকে আইপিওতে ন্যূনতম অর্থ উত্তোলেনের ক্ষেত্রে ছাড় দিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

গত ৭ সেপ্টেম্বর আইডিআরএ থেকে পাঠানো তাগিদপত্রে বলা হয়, ২৫ বীমা কোম্পানিকে ফিক্স প্রাইস মেথডের মাধ্যমে আইপিওতে ৩০ কোটি টাকা উত্তোলনের বাধ্যবাধকতা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। এর ফলে এই ২৬ কোম্পানি ফিক্স প্রাইস মেথডে আইপিওতে সর্বনিম্ন ১৫ কোটি টাকা বা তার বেশি মূলধন উত্তোলন করতে পারবে।

এ পরিস্থিতিতে ২৫ বীমা কোম্পানিকে শিগগিরই ফিক্স প্রাইস মেথডের মাধ্যমে আইপিওতে মূলধন উত্তোলন করে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়ার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

ছাড় পেল যে ২৫ কোম্পানি-

বায়রা লাইফ, গোল্ডেন লাইফ, হোমল্যান্ড লাইফ, সানফ্লাওয়ার লাইফ, বেস্ট লাইফ, চার্টার্ড লাইফ, এনআরবি গ্লোবাল লাইফ, প্রোটেক্টিভ ইসলামী লাইফ, সোনালী লাইফ, জেনিথ ইসলামী লাইফ, আলফা ইসলামী লাইফ, ডায়মন্ড লাইফ, গার্ডিয়ান লাইফ, যমুনা লাইফ, মার্কেন্টাইল ইসলামী লাইফ, স্বদেশ লাইফ, ট্রাস্ট ইসলামী লাইফ, লাইফ ইন্স্যুরেন্স করপোরেশন অব বাংলাদেশ, মেঘনা ইন্স্যুরেন্স, সাউথ এশিয়া, ইসলামী কমার্শিয়াল, ইউনিয়ন, দেশ জেনারেল, সেনাকল্যাণ এবং সিকদার ইন্স্যুরেন্স।

এর আগে গত ২৩ সেপ্টেম্বর এই কোম্পানিগুলোকে ন্যূনতম মূলধন উত্তোলনের ক্ষেত্রে ছাড় দেয় বিএসইসি। সে সময় বিএসইসি থেকে জানানো হয়, ফিক্স প্রাইস মেথডে বা ১০ টাকা অভিহিত মূল্য আইপিওতে শেয়ার ছেড়ে কমপক্ষে ৩০ কোটি টাকা উত্তোলনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) আবেদনের ক্ষেত্রে অতালিকাভুক্ত ২৬ বীমা কোম্পানিকে এক্ষেত্রে ছাড় দেয়া হয়।

এই ২৬ বীমা কোম্পানি ফিক্সড প্রাইস মেথডে আইপিতে সর্বনিম্ন ১৫ কোটি টাকা উত্তোলন করতে পারবে। এ বিষয়ে শিগগিরই বিএসইসি একটি নোটিফিকেশন জারি করবে।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।