হাসপাতাল থেকে কারাগারে সম্রাট

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-১০-০৮ ১৭:১২:০১

ক্যাসিনোকাণ্ডে গ্রেপ্তার হওয়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাটকে হাসপাতাল থেকে কারাগারে ফেরত নেওয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইইউ) হাসপাতাল থেকে তাকে ঢাকার কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়া হয়।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জ্যেষ্ঠ জেল সুপার (ভারপ্রাপ্ত) সুভাষ কুমার দাশ গতকাল দিবাগত রাত ১২টার দিকে সম্রাটকে কারাগারে ফিরিয়ে নেওয়ার বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘সম্রাটকে কারাগারের হাসপাতালে রাখা হয়েছে।’

কারা কর্মকর্তারা জানান, আজ বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসক কারাগার পরিদর্শনে আসেন। এ সময় তিনি সম্রাটের স্বাস্থ্যের খোঁজখবর নেন।

গত বছরের ৬ অক্টোবর সম্রাটকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। গ্রেপ্তারের পর কারাগারে আসার এক দিন পর সম্রাটকে রাজধানীর জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে এক সপ্তাহ থাকার পর সমালোচনার মুখে তাকে কারাগারে ফেরত পাঠানো হয়। এরপর গত বছরের ২৪ নভেম্বর কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারের চিকিৎসক ‘বুকে ব্যথা’ জানিয়ে সম্রাটকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। চিকিৎসা শেষে সম্রাটকে কারাগারে ফেরত পাঠাতে বিএসএমএমইউকে দফায় দফায় চিঠি দেয় কারা কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এত দিন তাকে কারাগারে ফেরত পাঠানো হয়নি।

এ বিষয়ে বিএসএমএমইউতে সম্রাটের চিকিৎসক চৌধুরী মেসকাত আহম্মেদ গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, ‘রোগীর (সম্রাট) যে সমস্যা, তাতে যেকোনো সময় সংকট হতে পারে। বিশেষ করে তার হৃৎস্পন্দনের অনিয়মের কারণে হাসপাতাল থেকে তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে না।’

সম্রাটকে গতকাল হঠাৎ করে হাসপাতালের ছাড়পত্র দিয়ে কারাগারে ফেরত নিতে চিঠি পাঠানো হয়। পরে প্রায় এক বছর বিএসএমএমইউ হাসপাতালে কাটানো সম্রাটকে কারাগারে ফেরত নেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, সম্রাটের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য ও অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনে এবং দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) করা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা আছে।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।