পুঁজিবাজারে স্বচ্ছতা-সুশাসনের জন্য প্রযুক্তির বিকল্প নেই : ড. শেখ সামসুদ্দিন আহমেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-১০-০৭ ২৩:৪৪:০৭

ভবিষ্যতের পুঁজিবাজারে স্বচ্ছতা ও সুশাসন নিশ্চিতে প্রযুক্তির বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার ড. শেখ সামসুদ্দিন আহমেদ।

বুধবার (০৭ অক্টোবর) ‘বিশ্ব বিনিয়োগকারী সপ্তাহ’ উপলক্ষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) আয়োজিত ‘বর্তমান মহামারি পরিস্থিতিতে পুঁজিাবাজারে ডিজিটালাইজেশনের প্রয়োজনীয়তা’ শীর্ষক ওয়েবিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন সিএসইর চেয়ারম্যান আসিফ ইব্রাহিম।

৩টি কারণে প্রযুক্তি গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করে তিনি। প্রথমত- প্রযুক্তি কাজের গতি বাড়িয়ে দেয়। দ্বিতীয়ত-ব্যয় কমায়। আরেকটি বিষয় হচ্ছে-স্টেকহোল্ডারদের সহজেই এক জায়গায় নিয়ে আসে।

শেখ সামসুদ্দিন বলেন, ‘করোনা প্রযুক্তির গুরুত্ব বুঝিয়ে দিয়েছে। আগের তুলনায় ব্যাপকভাবে এর প্রয়োজনীয়তা ফুটিয়ে তুলেছে। এই করোনায় অনেক খাতের ক্ষতি হয়েছে। কিন্তু প্রযুক্তি এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের এখানেও করোনার মধ্যে প্রযুক্তির অভাবে বিভিন্ন সমস্যা হয়েছে। আমরা আমাদের মতো করে নির্দেশনা দিয়ে তা সমাধানের চেষ্টা করেছি।’

তিনি বলেন, ‘করোনা হওয়ার পর বিএসইসি টেকনোলজি নির্ভর অনেকগুলো পদক্ষেপ নিয়েছে। যেগুলো প্রমাণ করে ডিজিটালাইজড স্টক এক্সচেঞ্জ খুব উপকারি। যেমন-এজিএম, ইজিএম, বোর্ড মিটিং, রিপোর্ট জমা ইত্যাদি অনলাইনে করার ব্যবস্থা করেছি। এতে করে ব্যয় ও সময় লাঘব হয়েছে। ’

বিএসইসির কমিশনার বলেন, ‘বিএসইসির প্রাথমিক একটি লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে শেয়ারবাজারকে কত বেশি মানুষের কাছে সহজ করা যায়। এজন্য স্টক এক্সচেঞ্জের প্রত্যেকটি কাজকে ডিজিটালাইজড করা হবে। এ নিয়ে কমিশন কাজ করছে। ’

তিনি আরও বলেন, ‘স্টক এক্সচেঞ্জের চাওয়ার আগেই কমিশন অনেক কিছু করে ফেলেছে। আমরা সফটওয়্যার ডেভেলপ করেছি। অন্যান্য আরও অনেক পরিকল্পনা আমাদের আছে। আমরা সেগুলো দ্রুততার সঙ্গে করার চেষ্টা করছি। এজন্য আমাদের নিজেদেরও টেকনিক্যাল লোকবলের প্রয়োজন হচ্ছে। সে কারণে আমরা একজন আন্তর্জাতিকমানের আইটি বিশেষজ্ঞকে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার জন্য টেন্ডার দিয়েছি। ’

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।