Connect with us

ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার

ডক্টরেট ডিগ্রি নিতে থিসিস করছেন সায়মা ওয়াজেদ

Published

on

লেনদেন

ডক্টরেট ডিগ্রি নিতে থিসিস করছেন শেখ হাসিনার কন্যা সায়মা ওয়াজেদ হোসেন। এক্স বার্তায় তিনি জানান, আমি শিক্ষায় ডক্টরেট ডিগ্রি নিতে থিসিস করছি। থিসিসের বিষয়বস্তু প্রাতিষ্ঠানিক নেতৃত্ব। এরসঙ্গে মানব সম্পদ উন্নয়নের স্পেশালাইজেশান।

এর আগে সায়মা ওয়াজেদ এক্সয়ে বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)-র এসইএআরও’র আঞ্চলিক পরিচালক হিসেবে বাংলাদেশ সরকার আমাকে মনোনীত করায় আমি অত্যন্ত সম্মানিত বোধ করছি।

নির্বাচিত হলে এ অঞ্চলের জনস্বাস্থ্য নীতি ও অনুশীলনে তার দৃষ্টিভঙ্গি বাস্তবায়নে সদস্য রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতায় কাজ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

সায়মা ওয়াজেদ বলেন, আমি অংশীদারত্বে কাজ করতে বিশ্বাসী এবং কমিউনিটির কথা শুনে স্থায়ী সমাধান তৈরি করতে আগ্রহী, যা মাঠ পর্যায়ে কাজ করে। এটি আজ পর্যন্ত আমার কাজকে বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত করেছে এবং এটি আমি এই ভূমিকা নিয়ে আসবো বলে আশা করি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা সায়মা ওয়াজেদ হোসেন ১৯৯৭ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ব্যারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মনোবিজ্ঞানে স্নাতক এবং ২০০২ সালে ক্লিনিক্যাল মনস্তত্ত্বে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। ২০০৪ সালে স্কুল সাইকোলজির ওপর বিশেষজ্ঞ ডিগ্রি অর্জন করেন। ব্যারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নের সময় তিনি বাংলাদেশের নারীদের উন্নয়নের ওপর গবেষণা করেন। এ বিষয়ে তার গবেষণাকর্ম ফ্লোরিডার অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সের কাছ থেকে শ্রেষ্ঠ সায়েন্টিফিক উপস্থাপনা হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে।

অর্থসংবাদ/এমআই

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার

ফেসবুকে ছড়ানো ভিডিও নতুন শিক্ষাক্রমের অংশ নয়

Published

on

লেনদেন

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের যে ভিডিও ছড়িয়েছে তা নতুন শিক্ষাক্রমের অংশ নয় বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

তিনি বলেন, ‘ছড়িয়ে পড়া এসব বিষয় আমাদের শিক্ষাক্রমের অংশ নয়, আমাদের ক্লাসের অংশ নয়। অতীতে আমাদের শিক্ষকদের দীর্ঘ প্রশিক্ষণের ফাঁকে বিনোদনের জন্য তাদের অংশগ্রহণে এসব ভিডিও তৈরি করা হয়েছিল। এখন সেগুলো ছড়িয়ে দিয়ে একটি বিশেষ গোষ্ঠী অপপ্রচার চালাচ্ছে। আবার অনেকে অপপ্রচার করতে নতুন করে এসব ভিডিও তৈরি করছে।’

রবিবার (৩ ডিসেম্বর) রাজধানীর বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

সন্তানদের প্রায়োগিক শিক্ষার উপযোগী করে গড়তে তোলার ওপর গুরুত্বারোপ করে দীপু মনি বলেন, আগামী দিনের বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমাদের সন্তানদের গড়ে তুলতে হবে। তাদের প্রায়োগিক শিক্ষার উপযোগী করে গড়তে হবে। প্রযুক্তির জগতের জন্য প্রস্তুত করতে আমাদের সন্তানদের প্রযুক্তি বিষয়ে দক্ষ করেও গড়ে তুলতে হবে। তারা যাতে উদ্ভাবন করতে পারে, তাদের মধ্যে সেই মনোভাব তৈরি করতে হবে। সে অনুযায়ী নতুন শিক্ষাক্রম তৈরি করা হচ্ছে।

একদিনে নতুন শিক্ষাক্রমের রূপরেখা তৈরি করা হয়নি মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেন, আমরা বিভিন্ন গবেষণার মাধ্যমে নতুন শিক্ষাক্রম তৈরি করেছি। আটশ’র বেশি বিশেষজ্ঞের সঙ্গে পরামর্শ করেছি। বিভিন্ন পর্যায়ে পাইলটিং করেছি। ২০১৭ থেকে ২০২৭ সাল পর্যন্ত ১১ বছরের দীর্ঘ প্রক্রিয়ায় ধাপে ধাপে এটি বাস্তবায়ন করা হবে।

মুখস্তনির্ভর পড়া থেকে বেরিয়ে আসায় গুরুত্বারোপ করে দীপু মনি বলেন, আমরা এমন একটা যুগ পার করে এসেছি, যেখানে পরীক্ষার হল থেকে বের হলেই অভিভাবকরা জিজ্ঞাসা করতেন ‘কয়টা প্রশ্ন কমন পড়েছে?’। যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা বেশি কমন প্রশ্ন বলে দিতে পারতেন, সেই প্রতিষ্ঠানকে সেরা বলা হতো। আমরা সেই মুখস্তনির্ভর পড়া থেকে বের হতে চাই।’

অনুষ্ঠানে সারাদেশে ৩১ লাখ বই বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। কর্মসূচির আওতায় দেশের ৩০০ উপজেলার ১৫ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এসব বই বিতরণ করা হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ এবং বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের সভাপতি ও পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কর্মসূচির টিম লিডার অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আবু সায়ীদ।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার

অবশেষে পাঠ্যবই ছাপানো শুরু এনসিটিবির

Published

on

লেনদেন

অর্থ সংকটে নতুন পাঠ্যবই ছাপানো বন্ধ রেখেছিল জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। দফায় দফায় চেষ্টা করেও সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত অর্থছাড় না পাওয়ার কথা জানিয়েছিলেন বোর্ডের চেয়ারম্যান। অবশেষে গত বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) অর্থছাড় মিলেছে। এতে মুদ্রণচুক্তি করে পুরোদমে বই ছাপানো শুরু করেছে এনসিটিবি।

তবে এখনো যত বই ছাপানো বাকি তাতে ডিসেম্বরের মধ্যে শতভাগ বই ছাপিয়ে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে পাঠানো সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন ছাপাখানার মালিক-কর্মীরা।

এনসিটিবি সূত্র জানায়, অষ্টম-নবমের বই ছাপানো নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছিল। এ লটের বইগুলো ছাপাতে কাজের চুক্তি করার মতো অর্থ ছিল না এনসিটিবির। অর্থছাড়ে দেরি হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরেও চিঠি চালাচালি করতে হয়েছে বোর্ড চেয়ারম্যানকে। অবশেষে ৩০ নভেম্বর অর্থছাড় মিলেছে।

এনসিটিবি চেয়ারম্যান ফরহাদুল ইসলাম বলেন, অর্থছাড় পেয়েছি। এখন আর সমস্যা নেই। নবম শ্রেণির বই ছাপানোর কাজও শুরু করেছি। দ্রুত বই ছাপাতে যেসব প্রেস প্রাথমিকের বই ছাপিয়ে এখন ফাঁকা রয়েছে, তাদের সঙ্গেও চুক্তি করবো। আশা করি, যথাসম্ভব দ্রুত বই ছাপিয়ে উপজেলা পর্যায়ে পাঠিয়ে দিতে পারবো।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড শুরু

Published

on

লেনদেন

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগে প্রথম ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী (৮ ডিসেম্বর)। এদিন সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত প্রার্থীরা নিজ নিজ জেলার কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেবেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, প্রথম ধাপে রংপুর, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের ১৮ জেলার ৫৩৫টি কেন্দ্রে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ ধাপে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ লাখ ৬০ হাজার ৬৯৭ জন।

এদিকে আজ (শনিবার) সকাল থেকে প্রথম ধাপের প্রার্থীরা প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারছেন।

প্রবেশপত্র পেতে প্রার্থীদের প্রথমে admit.dpe.gov.bd-এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। এরপর ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে অথবা এসএসসির রোল, বোর্ড ও পাসের সন দিয়ে লগইন করে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর জানিয়েছে, পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য প্রার্থীদের অবশ্যই ডাউনলোডকৃত প্রবেশপত্রের রঙিন প্রিন্ট কপি এবং জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি/স্মার্ট কার্ড) সঙ্গে আনতে হবে। ওএমআর শিট পূরণের নির্দেশনা ও পরীক্ষা সংক্রান্ত অন্যান্য তথ্যও প্রবেশপত্রে উল্লেখ থাকবে।

প্রতিবারের মতো এবারও পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশে কড়াকড়ি থাকবে। কোনো বই, উত্তরপত্র, নোট বা অন্য কোনো কাগজপত্র, ক্যালকুলেটর, মোবাইল ফোন, ভ্যানিটি ব্যাগ, পার্স, হাতঘড়ি বা ঘড়িজাতীয় বস্তু, ইলেকট্রনিক হাতঘড়ি বা যেকোনো ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস, কমিউনিকেটিভ ডিভাইস বা এ জাতীয় বস্তু সঙ্গে নিয়ে প্রবেশ করা বা সঙ্গে রাখা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। যদি কোনো পরীক্ষার্থী এসব সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করে তাকে তাৎক্ষণিক বহিষ্কারসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এর আগে গত ২৪ নভেম্বর প্রথম ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। ৮ নভেম্বর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, ২৪ নভেম্বরের পরিবর্তে ১ ডিসেম্বর পরীক্ষা হবে। তবে ২১ নভেম্বর আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সভায় তা পিছিয়ে ৮ ডিসেম্বর নতুন তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার

রাজবাড়ী জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতির নেতৃত্বে সাব্বির-রবিন

Published

on

লেনদেন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) আগামী এক বছরের জন্য ‘রাজবাড়ী জেলা ছাত্র কল্যাণ সমিতি’র আংশিক কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে সভাপতি হিসেবে অর্থনীতি বিভাগের ১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের সাব্বির হাসান এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের বাংলা বিভাগের পারভেজ আহমেদ রবিন নির্বাচিত হয়েছেন।

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) রাজবাড়ী জেলার সকল উপদেষ্টা শিক্ষকমন্ডলীর স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে সহ-সভাপতি হিসেবে তানজিমুল ইসলাম, শরিফুল ইসলাম, মো. শরিফ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আশরাফুল ইসলাম, রাজিব সরদার, সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে মো. সোহাইল ইসলাম, জালাল মোল্লা নির্বাচিত হয়েছেন।

নব নির্বাচিত সভাপতি সাব্বির হাসান বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হলো এমন একটি জায়গা যেখানে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শিক্ষার্থীরা পরিবার ছেড়ে এখানে আসেন। জেলা কল্যাণ মূলত একটা ছোট্ট পারিবারিক বন্ধনের জায়গা। আমাদের জেলা কল্যাণে যে বন্ধন আগে থেকে চালু রয়েছে ,আমিও সেই ধারাবাহিকতা বজায় রাখার চেষ্টা করবো। আমার উপর অর্পিত এই দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করবো।

উল্লেখ্য, সাংগঠনিক কার্যক্রম গতিশীল করার লক্ষে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং এ কমিটির এক বছর মেয়াদকাল প্রদান করা হয়েছে।

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার

নারী কর্মী নিয়োগ দেবে মেরী স্টোপস

Published

on

লেনদেন

আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান মেরী স্টোপস বাংলাদেশে ‘মিডওয়াইফ’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ০৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: মেরী স্টোপস বাংলাদেশ

পদের নাম: মিডওয়াইফ
পদসংখ্যা: ০১ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতা: ৪ বছর মেয়াদি মিডওয়াইফ কোর্স পাস হতে হবে
অভিজ্ঞতা: ০১ বছর
বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে
চাকরির ধরন: ফুল টাইম
প্রার্থীর ধরন: নারী
বয়স: নির্ধারিত নয়
কর্মস্থল: ঢাকা (কেরানীগঞ্জ)

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহীরা jobs.bdjobs.com এর মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময়: ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩

সূত্র: বিডিজবস ডটকম

শেয়ার করুন:-
অর্থসংবাদে প্রকাশিত কোনো সংবাদ বা কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন
Advertisement
Advertisement IBBL_AD_300 x 250

ফেসবুকে অর্থসংবাদ

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ

December 2023
S M T W T F S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31