২৭ অক্টোবর ৩০% শেয়ার ধারণের শেষ সময়

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-০৯-২৯ ১০:১১:৪২

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) উদ্যোগ নিয়েছে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর পরিচালকদের সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ এবং এককভাবে ২ শতাংশ শেয়ার ধারণ করার।পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) পুনর্গঠিত হওয়ার পর পুঁজিবাজারে স্বচ্ছতা ও জবাবদীহিতা নিশ্চিত করতে কাজ করছে কমিশন।

বিএসইসির সূত্র মতে, আগামী ২৭ অক্টোবর শেষ হচ্ছে ৩০ শতাংশ ধারণের সময়। এই সময়ের মধ্যে কোম্পানিগুলোর পরিচালকরা নির্দেশনাটি পরিপালন না করলে আইনি ব্যবস্থা করবে কমিশন। ইতোমধ্যে ২ শতাংশ শেয়ার ধারণের সময় শেষ হয়েছে। নির্ধারিত সময়ে ২% শেয়ার ধারণ না করায় পদ হারিয়েছে ১৭ পরিচালক। ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ না করলে কঠিন অবস্থানে যাবে বিএসইসি।

বিএসইসির সূত্র মতে, ইতোমধ্যে তালিকাভুক্ত তিনটি কোম্পানির পরিচালকরা সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ সংক্রান্ত নির্দেশনা পরিপালন করেছে। বিএসইসির নির্দেশনা পরিপালন করা তিনটি কোম্পানি হলো বিজিআইসি.বিডি থাই এবং এমারেল্ড অয়েল লিমিটেড।

বিএসইসি সূত্র মতে, ৪১ কোম্পানি এখনো ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারনে ব্যর্থ। এগুলো হচ্ছে- সিটি ব্যাংক, অগ্নি সিস্টেমস,আলহাজ্ব টেক্সটাইল, একটিভ ফাইন কেমিক্যাল, আফতাব অটোমোবাইলস, এপেক্স ফুটওয়্যার, এ্যাপোলো ইস্পাত, বারাকা পাওয়ার, বে লিজিং অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, সিঅ্যান্ডএ টেক্সটাইল, সেন্ট্রাল ফার্মাসিউটিক্যালস, ডেল্টা স্পিনার্স, ফ্যামিলিটেক্স, ফাস ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, ফাইন ফুডস, ফু-ওয়াং সিরামিক, ফু-ওয়াং ফুডস, জেনারেশন নেক্সট ফ্যাশনস, ইমাম বাটন, ইনটেক, ইনফরমেশন সার্ভিসেস নেটওয়ার্ক, ম্যাকসন্স স্পিনিং মিলস, মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, মেট্রো স্পিনিং, মিথুন নিটিং অ্যান্ড ডাইং, নর্দার্ণ জুট ম্যানুফ্যাকচারিং, নর্দার্ণ ইসলামী ইন্স্যুরেন্স, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ, পিপলস ইন্স্যুরেন্স, ফার্মা এইডস, পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স, সালভো কেমিক্যাল, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ, , স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক,কে অ্যান্ড কিউ, তাল্লু স্পিনিং, ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ, বেক্সিমকো, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস এবং সাউথইস্ট ব্যাংক।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।