জানুয়ারি থেকে মাস্টার্স কোর্স চালু করবে বিআইসিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-০৯-০৭ ১৫:১৬:১৯, আপডেট: ২০২০-০৯-০৭ ১৮:৩৯:৪১

পুঁজিবাজারের একমাত্র প্রশিক্ষণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব ক্যাপিটাল মার্কেট (বিআইসিএম) আগামী জানুয়ারি মাস থেকে মাস্টার্স কোর্স চালু করতে চায়। প্রতিষ্ঠানটি পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট সকল স্টেক হোল্ডারদের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য এই উদ্যোগ নিয়েছে।

জ্ঞানভিত্তিক শেয়ারবাজার গড়ে তুলতে এখাতে মাষ্টার্স কোর্স চালু হচ্ছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতাধীন ২ বছর মেয়াদী কোর্সটি চালু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ক্যাপিটাল মার্কেট (বিআইসিএম)। ইতিমধ্যে প্রাথমিক অনুমোদন মিলেছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ২০২১ সালের জানুয়ারিতে কোর্সটি চালু হবে। রাজধানীর তোপখানা রোডে বিআইসিএমের কার্যালয়ে সোমবার শেয়ারবাজারের সাংবাদিকদের সংগঠন ক্যাপিটাল মার্কেট জার্নালিস্টস ফোরামের (সিএমজেএফ) নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. মাহমুদা আক্তার এসব কথা জানান। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিএমজেএফের সভাপতি হাসান ইমাম রুবেল, সহ-সভাপতি এমএম মাসুদ এবং সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন প্রমুখ।

মাহমুদ আক্তার বলেন, শিল্পায়নে পুঁিজ সরবরাহে শেয়ারবাজার অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর পরিপক্ষ শেয়ারবাজারের জন্য প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই। এসব কারণে আমরা শেয়ারবাজারসহ পুরো আর্থিকখাতে দক্ষতা বাড়াতে ব্যাপক কর্মসূচী হাতে নিয়েছে। এখাতে মাষ্টার্স কোর্স তারই অংশ। তিনি বলেন, যেহেতু প্রথমবারের মতো এই কোর্স চালু হচ্ছে, ফলে এখানে কিছু চ্যালেঞ্জ রয়েছে। এরমধ্যে অন্যতম হল, দক্ষ প্রশিক্ষক। এক্ষেত্রে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের খ্যাতনামা শিক্ষকদের এখানে আনতে হবে।

তিনি বলেন, কোর্সের নাম দেয়া হয়েছে মাস্টার্স অফ অ্যাপ্লাইড ফাইন্যান্স অ্যান্ড ক্যাপিটাল মার্কেট (এমএফসিএম)। কোর্সটি সবার জন্য উম্মুক্ত। নির্ধারিত শর্তপূরণ স্বাপেক্ষে যে কেউ আবেদন করতে পারবেন। তবে আসন সংখ্যা সীমিত হওয়ায় মেধাবীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। তিনি আরও বলেন, বিআইসিএমের কাজ হচ্ছে পুঁজিবাজারে যারা রয়েছেন, তাদের সহায়তা করা। এরই মধ্যে পুঁজিবাজারে বেশ কিছু বন্ড ইস্যু করা হয়েছে। তাই বন্ড সম্পর্কে ধারণা দিতে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ দিনব্যাপী বন্ড ইস্যু সার্টিফিকেট কোর্স নামে একটি ট্রেনিং প্রোগ্রাম শুরু করতে যাচ্ছি। এছাড়া বেশকিছু ট্রেনিং প্রোগ্রাম হাতে নেয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠান সিএমজেএফের সভাপতি হাসান ইমাম রুবেল বলেন, বিআইসিএমের জন্মলগ্ন থেকে সিএমজেএফের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। এটি অব্যাহত রয়েছে। তিনি বলেন, শেয়ারবাজারে স্বচ্ছতা বাড়াতে অতীতে সব সময় সাহসী ভুমিকা রেখে গণমাধ্যম। আগামী দিনগুলোতে সাংবাদিকরা শক্তিশালী পুঁজিবাজার গড়ে তুলতে ভুমিকা রাখবে।অতীতেও সিএমজেএফের সদস্যরা বিআইসিএম থেকে একাধিক প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। আগামীতে এ প্রশিক্ষণ অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি। সাংবাদিকদের দক্ষতা বাড়াতে সিএমজেএফ সব সময় প্রশিক্ষণকে গুরুত্ব দিয়ে থাকে।

এ সময়ে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএসআইসিএমের সহকারি অধ্যাপক মো. হাবিবুল্লাহ এসিসিএ, কাশফিয়া শারমিন, সিএমজেএফের যুগ্ম সম্পাদক এসএমএ কালাম, অর্থ সম্পাদক আবু আলী, কার্যনির্বাহী সদস্য মাহফুজুর রহমান, নিয়াজ মাহমুদ, গিয়াস উদ্দিন ও নাজমুল ইসলাম ফারুক।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।