Connect with us

অর্থনীতি

রাজশাহীর সিল্ক সুতা বিশ্বমানের : শিল্পমন্ত্রী

Published

on

রিলায়েন্স

রাজশাহীতে যে সিল্ক সুতা উৎপাদন হয় তা বিশ্বমানের বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

শনিবার (২৬ নভেম্বর) দুপুর ২টার দিকে রাজশাহী সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের শিল্পমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এর আগে সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসন ও বিসিক আয়োজিত জেলার ব্যবসায়ী ও অংশীজনদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি অংশগ্রহণ করেন।

অর্থসংবাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

শিল্পমন্ত্রী বলেন, সিল্ক ইন্ডাস্ট্রি থাকবে। লোকাল ‘র’ ম্যাটেরিয়ালসে আমাদের যে সিল্ক সুতা উৎপাদন হয় তা অনেক ভালো মানের। এমনকি বিশ্বমানের। চায়নার চেয়েও ভালো। সেটাকে আমরা রিভাইব (পুনরায় চালু) করার জন্য আমরা কাজ করব। সুগার মিলসহ বন্ধ শিল্পকারখানাগুলো পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপে চালু করার চিন্তা ভাবনা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, রাজশাহী ট্যুরিজম শহর হয়ে গেছে। শুধু ট্যুরিজম শহর না, এটি একটা শিক্ষা ও সিল্কসিটি নগরী। বিসিক শিল্প নগরী আছে, সেটা নিয়ে আমরা কাজ করছি। এখানে ট্যুরিজম সেন্টার অলরেডি হয়ে গেছে। কলকারখানা, হোটেল, মোটেল হয়েছে। আমরা পর্যটনের সুযোগ-সুবিধা আরও বাড়ানোর চেষ্টা করছি। এটি সরকারের দৃষ্টিতে আছে।

নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেন, প্রথমত রাজশাহীতে একটি বিশাল চামড়া শিল্প নগরী করছি। এখান থেকে এক্সপোর্ট করা হবে। যেমন আমরা গার্মেন্টসের তুলা বাইরে থেকে আনি। কিন্তু চামড়া আমাদের ‘র’ ম্যাটেরিয়ালস। এগুলো কাজ করে আমরা বাইরে পাঠাবো। এই রিলেটেট ইন্ডাস্ট্রিগুলো হবে। এর পরিকল্পনা করা হয়েছে। আমরা সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা করছি। পাঁচ বছরব্যাপী পরিকল্পনা করছি।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, দেশে চিনির কোনো অভাব নেই, কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করা হয়েছিল। দ্রুত বাজার নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। রমজান মাস সামনে রেখে পর্যাপ্ত চিনি আছে। আমাদের সংগ্রহ থেকে বাজারে চিনি ছাড়া হচ্ছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে যেন আরও এক লাখ টন চিনি আমদানি করে।

জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিলের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন, বিভাগীয় কমিশনার জিএসএম জাফর উল্লাহ, পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিকসহ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ভয়েসনিউজ/এনএন

শেয়ার করুন:
বিজনেস নিউজ পোর্টাল অর্থসংবাদে প্রকাশিত ও প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Advertisement

অর্থনীতি

আন্তর্জাতিক হিসাববিজ্ঞান সম্মেলন শুরু

Published

on

রিলায়েন্স

দেশে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক হিসাববিজ্ঞান সম্মেলন শুরু হয়েছে। বাংলাদেশ একাউন্টিং এসোসিয়েশন (বিএএ) এবং ইন্ডিয়ান একাউন্টিং এসোসিয়েশন রিসার্চ ফাউন্ডেশন (আইএএআরএফ) যৌথভাবে এ সম্মেলনের আয়োজন করে।

শনিবার (২৮ জানুয়ারি) সকালে রাজধানীর হোটেল শেরাটনে প্রধান অতিথি হিসেবে দুই দিনব্যাপী এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন। সম্মেলনের সভাপতিত্ব করেন সরকারের মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, ইন্ডিয়ান একাউন্টিং এসোসিয়েশন রিসার্চ ফাউন্ডেশনের (আইএএআরএফ) প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. ভবতোষ ব্যানার্জি এবং আমেরিকান একাউন্টিং এসোসিয়েশনের (এএএ) সাবেক প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. শ্যাম সুন্দর। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ একাউন্টিং এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. মো. হারুনুর রশিদ।

অর্থসংবাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

বাংলাদেশ একাউন্টিং এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. সাইয়েদুজ্জামান, কোষাধ্যক্ষ হায়দার আহমেদ খান এফসিএ, ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির প্রেসিডেন্ট হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণসহ বিএএ’র সদস্যরা সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অ্যাকাউন্টিংয়ের গুরুত্ব তুলে ধরেন।

দুই দিনব্যাপী এ সম্মেলন শেষ হবে আগামীকাল (রোববার)। এদিন সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর রউফ তালুকদার।

শেয়ার করুন:
বিজনেস নিউজ পোর্টাল অর্থসংবাদে প্রকাশিত ও প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

অর্থনীতি

২৪ দিনে রেমিট্যান্স এল ১৫৫ কোটি ৫০ লাখ ডলার

Published

on

রিলায়েন্স

চলতি জানুয়ারি মাসের ২৪ তারিখ পর্যন্ত ১৫৫ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে দেশে। গত ডিসেম্বর মাসে দেশে রেমিট্যান্স বা প্রবাসী আয় এসেছিল ১৬৯ কোটি ৯০ লাখ ডলার। সুতরাং জানুয়ারির বাকি সাত দিনের প্রবাসী আয় ডিসেম্বর মাসকে ছাড়িয়ে যাবে বলে ব্যাংকাররা মনে করছেন। বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ডলার-সংকটের মধ্যে প্রবাসী আয় বৃদ্ধি পাওয়ার তথ্যে স্বস্তি বোধ করেছেন ব্যাংকাররা। কারণ, ডলার-সংকটের কারণে ব্যাংকগুলো ঋণপত্র (এলসি) খোলা কমিয়ে দিয়েছে। ফলে অনেক ব্যবসায়ীই রমজানের নিত্যপণ্য আনার জন্য ঋণপত্র খুলতে পারছেন না। এদিকে ডলারের দাম বাড়ায় আমদানি করা পণ্যের দাম বেড়ে গেছে, যার প্রভাবে সার্বিক মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। গত বছরের জানুয়ারিতে ডলারের দাম ছিল ৮৬ টাকা, যা বেড়ে এখন ১০৬ টাকা হয়েছে। অর্থাৎ এক বছরে ডলারের দাম প্রায় ২০ টাকা বেড়েছে।

প্রবাসীদের পাঠানো প্রতি ডলারের জন্য ১০৭ টাকা দিচ্ছে ব্যাংকগুলো। আর রপ্তানি আয় নগদায়ন হচ্ছে ১০২ টাকা দামে। বাংলাদেশ ব্যাংকও বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বা মজুত থেকে ডলার বিক্রি করছে ১০২ টাকায়। ফলে আমদানিতে ডলারের দাম পড়ছে ১০৫-১০৬ টাকা।

অর্থসংবাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

দেশে বিদায়ী ২০২২ সালে ২০২১ সালের তুলনায় দেশে প্রবাসী আয় কমেছে ৭৯ কোটি ডলার। ২০২২ সালে প্রবাসী আয় আসে ২ হাজার ১২৮ কোটি ৫০ লাখ ডলার। আগের বছরে এসেছিল ২ হাজার ২০৭ কোটি ২৫ লাখ ডলার।

অর্থসংবাদ/এসএম

শেয়ার করুন:
বিজনেস নিউজ পোর্টাল অর্থসংবাদে প্রকাশিত ও প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

অর্থনীতি

প্রথম আন্তর্জাতিক হিসাববিজ্ঞান সম্মেলন শুরু ২৮ জানুয়ারি

Published

on

রিলায়েন্স

দেশে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক হিসাববিজ্ঞান সম্মেলন শুরু হচ্ছে আগামী শনিবার (২৮ জানুয়ারি)। রাজধানীর বনানীর হোটেল শেরাটনে দুই দিনব্যাপী এ সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। বাংলাদেশ একাউন্টিং এসোসিয়েশন (বিএএ) ও ইন্ডিয়ান একাউন্টিং এসোসিয়েশন রিসার্চ ফাউন্ডেশন (আইএএআরএফ) যৌথভাবে এ সম্মেলনের আয়োজন করছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেস ক্লাবের মানিক মিয়া হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান বাংলাদেশ একাউন্টিং এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. হারুনুর রশিদ। একাউন্টিং এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো. সাইয়েদুজ্জামান, কোষাধ্যক্ষ হায়দার আহমেদ খান এফসিএ, নির্বাহী সদস্য মো. মনিরুজ্জামান, ঢাকা রিজিওনের সভাপতি অধ্যাপক মাসুম রাব্বানী খান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয় একাউন্টিং অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম হাওলাদার এবং ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দুই দিনব্যাপী সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন সরকারের মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী। প্রথম দিন বিশেষ অতিথি থাকবেন অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন। ২৯ জানুয়ারি সমাপনী অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার।

অর্থসংবাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, হিসাববিজ্ঞান সম্পর্কিত পেশায় নিয়োজিত ব্যক্তিদের নিয়ে হিসাববিজ্ঞান সেবা উন্নতকরনের মধ্য দিয়ে দেশের শাসনব্যবস্থা উন্নত করা, পেশাভিক্তিক এবং সামাজিক বন্ধন দৃঢ় করা ও দেশ-বিদেশে প্রতিনিধিত্ব করাই অ্যাকাউন্টিং এসোসিয়েশনের মূল লক্ষ্য। এর প্রেক্ষিতে ‘হিসাববিজ্ঞান ও আর্থিক ব্যবস্থাপনার নবতর ইস্যুসমূহে শিক্ষাবিদ ও পেশাজীবিদের ভূমিকা’ প্রতিপাদ্য নিয়ে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক হিসাববিজ্ঞান সম্মেলনের আয়োজন করা হচ্ছে।

এবারের সম্মেলনে উদীয়মান অর্থনীতিতে হিসাববিজ্ঞান শিক্ষা ও গবেষণা, সরকারি আর্থিক ব্যবস্থাপনা, সরকারি প্রতিষ্ঠান ব্যবস্থাপনা, বাণিজ্য জগতের পরিপার্শ্বিক ব্যবস্থাপনা, প্রতিষ্ঠানের প্রতিযোগিতা সক্ষমতা বৃদ্ধিকরণে ব্যবস্থাপনার ভূমিকা এবং আর্থিক অন্তর্ভুক্তিকরণসহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রায় ৫০টি গবেষণাপত্র প্রকাশ করা হবে।

দুই দিনব্যাপী এ সম্মেলনে আমেরিকান অ্যাকউন্টিং এসোসিয়েশনের প্রাক্তন সভাপতি প্রফেসর ড. শ্যাম সুন্দর এবং আইএএআরএফ সভাপতি প্রফেসর ড. ভবতোষ ব্যানার্জিসহ বিভিন্ন দেশের অতিথিরাও অংশ নেবেন।

শেয়ার করুন:
বিজনেস নিউজ পোর্টাল অর্থসংবাদে প্রকাশিত ও প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

অর্থনীতি

বেপজায় ৬ মিলিয়ন ডলারে নির্মাণ হচ্ছে পোশাক কারখানা

Published

on

রিলায়েন্স

বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চলে ৬.০৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগে একটি তৈরি পোশাক কারখানা স্থাপন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশি কোম্পানি ভাইয়া অ্যাপারেলস লিমিটেড।

বুধবার বাংলাদেশ রপ্তানী প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষ (বেপজা) এবং ভাইয়া অ্যাপারেলস লিমিটেডের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

বেপজার সদস্য (বিনিয়োগ উন্নয়ন) আলী রেজা মজিদ এবং ভাইয়া অ্যাপারেলস লিমিটেড এর চেয়ারম্যান মোঃ শাখাওয়াত হোসেন মামুন নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। বেপজার নির্বাহী চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল আবুল কালাম মোহাম্মদ জিয়াউর রহমান চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান প্রত্যক্ষ করেন।

অর্থসংবাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

দেশীয় এ প্রতিষ্ঠানটি বার্ষিক ৬ মিলিয়ন পিস বিভিন্ন ধরনের জ্যাকেট, ভেস্ট, কাভারঅল, প্যান্ট, শার্ট, সুইমিং ট্রাংক, টি-শার্ট, বক্সার, ট্যাংক টপ প্রভৃতি উৎপাদন করবে। কারখানাটিতে ২২০৬ জন বাংলাদেশি নাগরিকের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প নগরে বেপজার সর্ববৃহৎ প্রকল্প বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপিত হচ্ছে। একসময়ের জোয়ারের পানিতে তলিয়ে থাকা অনাবাদী এই এলাকা একটি প্রাণচঞ্চল শিল্প এলাকায় পরিণত হতে চলেছে। বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চলে শিল্প স্থাপনের লক্ষ্যে ভাইয়া অ্যাপারেলস লিমিটেডসহ ১৬টি প্রতিষ্ঠানকে অনুমতি দিল বেপজা। প্রতিষ্ঠানসমূহের মোট প্রস্তাবিত বিনিয়োগের পরিমাণ ৩৭০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বেপজার নির্বাহী পরিচালক (প্রশাসন) মোঃ জাকির হোসেন চৌধুরী, নির্বাহী পরিচালক (জনসংযোগ) নাজমা বিন্তে আলমগীর, নির্বাহী পরিচালক (এন্টারপ্রাইজ সার্ভিসেস) মোঃ খুরশীদ আলম, নির্বাহী পরিচালক নাহিদ মুন্সী, বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চলের প্রকল্প পরিচালক মোঃ এনামুল হক এবং অতিরিক্ত নির্বাহী পরিচালক (বিনিয়োগ উন্নয়ন) মোঃ ফজলুল হক মজুমদার উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:
বিজনেস নিউজ পোর্টাল অর্থসংবাদে প্রকাশিত ও প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন

অর্থনীতি

রিজার্ভ থেকে ৮৫০ কোটি ডলার বিক্রি

Published

on

রিলায়েন্স

ডলারের তীব্র সংকট দীর্ঘদিন ধরেই। সংকট কাটাতে উচ্চাভিলাসী পণ্য আমদানিতে নিরুৎসাহিত করার পাশাপাশি নানা পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্রীয় বাংক। তবে সংকট যে সহসা কাটছে না, এ এখন অনেকটাই স্পষ্ট। এ অবস্থায় বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থেকে প্রতিনিয়ত ডলার সহায়তা দিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। মূলত, জরুরি আমদানির দায় মেটাতেই এ ডলার সহায়তা।

এরপরও আটকে আছে কোটি কোটি টাকার পণ্য। ডলার সংকটে আমদানিকারকদের চাহিদা মেটাতে ব্যর্থ হচ্ছে ব্যাংকগুলো। এসব সমস্যার সমাধান দিতে ২০২২-২৩ অর্থবছরের সাত মাসে (জুলাই-জানুয়ারির ২৩ তারিখ পর্যন্ত) ৮৫০ কোটি বা ৮ দশমিক ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিক্রি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। দেশের ইতিহাসে এর আগে কোনো এক পুরো অর্থবছরেও রিজার্ভ থেকে এতো পরিমাণ ডলার বিক্রি হয়নি।

সবশেষ গত ২০২১-২২ অর্থবছরের পুরো সময়ে রিজার্ভ থেকে ৭ দশমিক ৬২ বিলিয়ন ডলার বিক্রি করেছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।

অর্থসংবাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থেকে ডলার সহায়তা দেওয়ার কারণে রপ্তানি আয় ও প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স বাড়ার পরও রিজার্ভ কমছে। সবশেষ গত সোমবার (২৩ জানুয়ারি) বাংলাদেশ ব্যাংক রিজার্ভ থেকে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের কাছে পাঁচ কোটি ডলার বিক্রি করেছে। ফলে দিনশেষে রিজার্ভের পরিমাণ কমে দাঁড়িয়েছে ৩২ দশমিক ৪৭ বিলিয়ন ডলার।

ব্যাংক সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রিজার্ভ থেকে ডলার বিক্রিতে নতুন রেকর্ড তৈরি হয়েছে। গত ২০২১-২২ অর্থবছরে রিজার্ভ থেকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ৭৬২ কোটি বা ৭ দশমিক ৬২ বিলিয়ন ডলার বিক্রি করেছিল। ২০২০-২১ অর্থবছরে ডলারের সরবরাহ বেড়ে যাওয়ায় বাজার থেকে উল্টো প্রায় ৮০০ কোটি বা ৮ বিলিয়ন ডলার কিনেছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

চলতি অর্থবছরের সাত মাস না পেরোতেই ৮৫০ কোটি বা ৮ দশমিক ৫০ বিলিয়ন ডলার বিক্রি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, রেমিটেন্স ব্যাংকিং চ্যানেলে আরও বাড়াতে হবে। পাশাপাশি রপ্তানি বাড়াতে পারলে অভ্যন্তরীণ ডলার সংকট অনেকাংশে কমে আসবে। চলতি মাস জানুয়ারির প্রথম ২০ দিনে দেশে এক হাজার ৩১৫ মিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স এসেছে।

শেয়ার করুন:
বিজনেস নিউজ পোর্টাল অর্থসংবাদে প্রকাশিত ও প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
পুরো সংবাদটি পড়ুন
Advertisement

ফেসবুকে অর্থসংবাদ