আরও একটি নতুন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-০১-১৩ ০০:৪৩:৫৩, আপডেট: ২০২০-০১-১৩ ০০:৫১:১২

আর্থিক খাতে কেলেঙ্কারিসহ সংকটের মধ্যে আরও একটি নতুন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। গতকাল (১২ জানুয়ারি) রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভায় স্ট্র্যাটেজিক ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট নামের ওই প্রতিষ্ঠানটি অনুমোদনের নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়।

প্রস্তাবিত আর্থিক প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান আঞ্জুমান আরা শহীদ, যিনি পদ্মা ব্যাংকের (সাবেক ফারমার্স ব্যাংক) চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সারাফাতের স্ত্রী।

গভর্নর ফজলে কবিরের সভাপতিত্বে পর্ষদের সভায় বেশির ভাগ পরিচালক উপস্থিত ছিলেন।

বর্তমানে দেশে ব্যাংক বহির্ভূত ৩৪টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান কার্যক্রম চালাচ্ছে। পূঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত অবসায়ন প্রক্রিয়ায় রয়েছে পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস। কার্যক্রমে থাকা ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস, এফএএস ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড ও বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানিও (বিআইএফসি) আমানতকারীদের টাকা ফেরত দিতে পারছে না। পূঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত এসব প্রতিষ্ঠানের মালিকানায় রয়েছে রিলায়েন্স ফাইন্যান্স ও এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার (পিকে) হালদার। এ ছাড়া ব্যাংক বহির্ভূত আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের অবস্থা নাজুক।

বর্তমানে প্রশান্ত কুমার হালদার পলাতক। আর আমানতকারীরা দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন টাকা ফেরত পাওয়ার আশায়। প্রায় ২৭৫ কোটি টাকা অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ৮ জানুয়ারি পি কে হালদারের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।