Connect with us

পুঁজিবাজার

শেয়ারবাজারে কারসাজিতে জড়িত বাজার বিশ্লেষক

Published

on

শেয়ারবাজারে অনিয়মে অভিযুক্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের মনগড়া মন্তব্যে তোলপাড় শুরু হয়েছে। সম্প্রতি ট্রেড সাসপেন্ড হওয়া ব্রোকারেজ হাউজ তামহা সিকিউরিটিজের মাধ্যমে অনিয়মে জড়িত হন এই শিক্ষক।

জানা গেছে, তামহা সিকিউটিজের বিশাল অংকের অর্থের অনিয়মের সঙ্গে জড়িত থাকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আল আমিন বিভিন্ন সময় নিজের স্বার্থ উদ্ধারে শেয়ারবাজারে বিভ্রান্তিকর মন্তব্য করেন। সম্প্রতি তাঁর নিজের ফেসবুক আইডিতে শেয়ারবাজারকে ক্যাসিনোর সঙ্গে তুলনা করে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। যা নিয়ে শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্টদের মধ্যে সমালোচনার ঝড় বইছে।

সূত্র মতে, শেয়ারবাজার নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করা এই শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগও রয়েছে। শুধু তামহা সিকিউরিটিজ থেকে তিনটি হিসাবের মাধ্যমে ১ কোটি ৬০ লাখ টাকার বেশি জালিয়াতির অভিযোগ রয়েছে। তামহা সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের সই করা একটি চিঠির মাধ্যমে এ অভিযোগ করা হয়। সেখানে তিনটি বিও হিসাবের মাধ্যমে শাহি আহমেদ (বিও নং: ১২০৩১২০৪৪৯৪২২০), রুহুল আমিন (বিও নং: ১২০৩১২০০৫৮৫৯০১২৯) এবং দিল আফরোজ পারভিন (বিও নং: ১২০৩১২০০০৫২৩৮৪৪৪) এই তিন হিসাবের মাধ্যমে শিক্ষক আল আমিন ১ কোটি ৬১ লাখ ৪৭ হাজার ৬৪৩ টাকা জালিয়াতি করেছেন। বিষয়টি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের তদন্তাধীন রয়েছে।

জানা যায়, আল আমিন তাঁর আত্মীয়দের মাধ্যমে এ জালিয়াতি করেন। তামহা সিকিউরিটিজ এ শিক্ষকের থেকে ৫০ লাখ টাকা পাওনা থাকলেও উল্টো তিনি আরও অনেক টাকা প্রতিষ্ঠানটি থেকে দাবি করে ডিএসইতে অভিযোগ করেন।

Nogod-22-10-2022

জানা গেছে, শেয়ারবাজারের মন্দাভাব কাটাতে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) বিভিন্ন উদ্যোগ নিচ্ছে। ফলে গতি ফিরতে শুরু করেছে শেয়ারবাজারে। তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আল আমিনের বক্তব্যে আবারও অস্থির হয়ে উঠছে দেশের শেয়ারবাজার। বাজারকে অস্থিতিশীল করে সরকার ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের বিপদে ফেলতে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছে ঢাবির এই শিক্ষক।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বহুদিন থেকে আল আমিন তার ফেসবুকসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে শেয়ারবাজার সম্পর্কে নেতিবাচক কথা বলে বিনিয়োগকারীদের বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন। গত বুধবার (১৯ অক্টোবর) ঢাবির এই শিক্ষক শেয়ারবাজারকে ক্যাসিনোর সঙ্গে তুলনা করে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন। একই স্ট্যাটাসে করেন বিএসইসির সমালোচনা।

অর্থসংবাদের পাঠকদের জন্য শিক্ষক আল আমিনের স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হলো:

‘পুঁজিবাজার বন্ধ করে দেয়া উচিত। এটা কেসিনোকেও হার মানিয়েছে, কিছু কিছু দুর্বল মৌল ভিত্তির স্বল্প মূলধনী শেয়ারের বেলায়। নানা কিচ্ছা কাহিনী বলা হচ্ছে বাজারে, তার মধ্যে সর্বাধিক আলোচিত বিষয়, চেক নগদায়ন ইস্যু নিয়ে বিসেকের নির্দেশনা, অন্যদিকে অর্থনীতির অবস্থা খারাপ। যদি এসব হবে, তাহলে শুধু খারাপ শেয়ার বাড়বে কেন? নগদ টাকা দিয়ে যেসব শেয়ার কেনা লাগে, সেসব শেয়ার লাগামহীন গতিতে বাড়ছে আর যেসব ভাল শেয়ার অধিকাংশ ফ্লোরে। আর যেসব ফ্লোরের উপরে ছিল, কত দ্রুত গতিতে ফ্লোরে যাবে, সেই প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে গেছে। তাই বিনিয়োগ নিয়ে কোন কথা বলে কাজ হচ্ছে না, এমন সময় কাজ হবে তখন কারো কিছু করার থাকবে না। আবাসন খাতের একটা শেয়ার ৫৩.৬০ থেকে বেড়ে ১৫২ টাকা হলো স্বল্প সময়ের ব্যবধানে। বলা হল প্রথম প্রান্তিক দিলে ৪০০-৫০০ যাবে। কেন যাবে কেউ জানে না। আজকেই ক্রেতা শূন্য করে ১২৪.২০ টাকা হয়েছে। সেটা সমস্যা না। সমস্যা হলো সেল প্রেশার ছিল ৭ লক্ষ শেয়ারের বেশি, যা বলছে আগামীকালও ক্রেতা শূন্য থাকতে পারে। তাহলে কোথায় গেল, ঐসব ফেরিওয়ালারা? আমার কি? আমি কম বুঝি, যারা বেশি বুঝে তারা বুঝলেই হলো। এটা যার যার বুঝ, কেউ রাখবে দাঁড়ি, কেউ রাখবে মুচ, তাই আমি চুপ।’

শেয়ারবাজারকে ক্যাসিনোর সঙ্গে তুলনা করায় বিরুপ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। তাঁরা বলছেন, শেয়ারবাজার বন্ধ করে দিলে লাখ লাখ বিনিয়োগকারীর কি হবে। আর দেশের অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ স্তম্ভ শেয়ারবাজার বন্ধের আহ্বান তিনি কিভাবে জানাতে পারেন।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক আল আমিন অর্থসংবাদকে বলেন, কিছু সংখ্যক স্বল্প মূলধনী শেয়ারের দাম বাড়তে থাকায় ওই ইস্যুতে ক্যাসিনো মার্কেট বলেছি। পুরো শেয়ারবাজারকে ক্যাসিনো মার্কেট বলিনি। এটা শুধুমাত্র জনগনকে সচেতন করার উদ্দেশ্যে বলেছি। চেক নগদায়ন ইস্যুতে তিনি বলেন, নগদ টাকায় যেসব শেয়ার কেনা যায় সেগুলোরই দাম বাড়ে, যেগুলো ভালো মূলধনী শেয়ার সেগুলো ফ্লোরে (ফ্লোর প্রাইস) যায়, বিষয়টি তো সাংঘর্ষিক।

তামহা সিকিউরিটিজের বিরুদ্ধে ডিএসইতে অভিযোগ দায়েরের বিষয়ে তিনি বলেন, আমি কোথাও কোন অভিযোগ করিনি। আমার নিজের কোন বিও অ্যাকাউন্টও নেই। তামহা সিকিরিটিউজের মালিক দীর্ঘদিনের অনিয়ম ঢাকতে এবং আমার প্রাপ্য টাকা না দিতেই আমার বিরুদ্ধে বিএসইসিতে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

শেয়ার করুন:
Advertisement

পুঁজিবাজার

ব্লকে ৪০ কোটি টাকার লেনদেন

Published

on

সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবসে দেশের প্রধান শেয়ার বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লকে ৫৯টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মোট ৬১ লাখ ৪২ হাজার ৫৫১টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার আর্থিক মূল্য ৪০ কোটি ৭৮ লাখ টাকা।

ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

ব্লকে সবচেয়ে বেশি টাকার লেনদেন হয়েছে রেনেটা লিমিটেডের। কোম্পানিটি ১৫ কোটি ৫৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করেছে। ২ কোটি ৫৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইন্ট্রাকো রি-ফুয়েলিং স্টেশন লিমিটেড।

২ কোটি ১২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে ব্রাক ব্যাংক।

Nogod-22-10-2022

ব্লকে লেনদেন করা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে বিডি থাই ফুড ১ কোটি ৬৭ লাখ, বেক্সিমকো ১ কোটি ৫৫ লাখ, আইএফআইসি ব্যাংক ১ কোটি ৮২ লাখ, ওরিয়ন ইনফিউশন ১ কোটি ৭৩ লাখ, সোনালী পেপার ১ কোটি ৮৫ লাখ ও সামিট পাওয়ার ১ কোটি ৩৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করেছে।

অর্থসংবাদ/কেএ

শেয়ার করুন:
পুরো সংবাদটি পড়ুন

পুঁজিবাজার

ইজিএম করবে এমারেল্ড অয়েল

Published

on

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি এমারেল্ড অয়েলের পরিচালনা পর্ষদ বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কোম্পানিটি পরিশোধিত মূলধন বাড়াতে শেয়ারহোল্ডারদের সম্মতি নেবে।

ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

সূত্র জানায়, কোম্পানিটি পরিশোধিত মূলধন বাড়াতে মাইনোরি বাংলাদেশের পক্ষে শেয়ার বরাদ্দ করবে। কোম্পানিটির ইজিএম আগামী ৮ জানুয়ারি সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে। ইজিএমের ভেন্যু পরে জানানো হবে।

ইজিএম সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট আগামী ১৫ জানুয়ারি নির্ধারণ করা হয়েছে।

Nogod-22-10-2022

অর্থসংবাদ/কেএ

শেয়ার করুন:
পুরো সংবাদটি পড়ুন

পুঁজিবাজার

দর পতনের শীর্ষে ওরিয়ন ইনফিউশন

Published

on

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে লেনদেনে অংশ নেয়া কোম্পানিগুলোর দর পতনের প্রথম অবস্থানে আছে ওরিয়ন ইনফিউশন লিমিটেড। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, রোববার (২৭ নভেম্বর) কোম্পানিটির শেয়ার দর কমেছে ৭ দশমিক ৪৯ শতাংশ। ফলে ডিএসইর টপটেন লুজারের তালিকার প্রথম অবস্থানে রয়েছে ওরিয়ন ইনফিউশন লিমিটেড।

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা অ্যাডভেন্ট ফার্মা লিমিটেডের শেয়ার দর কমেছে ৬ দশমিক ০২ শতাংশ। আর তালিকার তৃতীয় স্থানে থাকা পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের শেয়াদর কমেছে ৫ দশমিক ২২ শতাংশ।

ক্ষতির তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হলো- রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি, প্রগ্রেসিভ লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি, হাওয়া ওয়েল টেক্সটাইল (বিডি), বসুন্ধরা পেপার মিলস, প্রাইম ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, এএফসি অ্যাগ্রো বায়োটেক অ্যান্ড সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড।

Nogod-22-10-2022

অর্থসংবাদ/এনএন

শেয়ার করুন:
পুরো সংবাদটি পড়ুন

পুঁজিবাজার

কাল বন্ধ থাকছে ১০ কোম্পানির লেনদেন

Published

on

আগামীকাল সোমবার রেকর্ড ডেটের কারণে বন্ধ থাকবে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ১০ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন।

ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

কোম্পানিগুলো হচ্ছে- আমান ফিড, স্কয়ার টেক্সটাইল, স্কয়ার ফার্মা, সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ, নাভানা ফার্মা, ঢাকা ডাইং, বঙ্গজ, ইন্দো-বাংলা ফার্মা, মিথুন নিটিং, তাল্লু স্পিনিং মিলস লিমিটেড।

রেকর্ড ডেটের পর আগামী ২৯ নভেম্বর থেকে কোম্পানিগুলোর লেনদেন চালু হবে।

Nogod-22-10-2022

অর্থসংবাদ/কেএ

শেয়ার করুন:
পুরো সংবাদটি পড়ুন

পুঁজিবাজার

কাল স্পট মার্কেটে যাচ্ছে ৮ কোম্পানি

Published

on

রেকর্ড ডেটের আগে আগামীকাল (২৮ নভেম্বর) স্পট মার্কেটে যাচ্ছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৮ কোম্পানি।

ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

কোম্পানিগুলো হচ্ছে- পাওযার গ্রীড, ড্রাগন সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং, ন্যাশনাল টিউবস, প্রিমিয়ার লিজিং, শমরিতা হসপিটাল, অ্যাসোসিয়েটেড অক্সিজেন, তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ এবং জেএমআই হসপিটাল রিকুইজিট অ্যান্ড ম্যানফ্যাকচারিং লিমিটেড।

কোম্পানিগুলোর স্পট মার্কেটে লেনদেন শেষ হবে আগামী ২৯ নভেম্বর। আলোচ্য কোম্পানির রেকর্ড তারিখ ৩০ নভেম্বর। রেকর্ড ডেটের দিন কোম্পানিগুলোর শেয়ার লেনদেন বন্ধ থাকবে।

Nogod-22-10-2022

অর্থসংবাদ/কেএ

শেয়ার করুন:
পুরো সংবাদটি পড়ুন
Advertisement
November 2022
S M T W T F S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930  

কর্পোরেট সংবাদ

ক্যাম্পাস টু ক্যারিয়ার

ফেসবুকে অর্থসংবাদ