৪ দেশে সাহেদ অর্থ পাচার করত

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশ: ২০২০-০৭-২৬ ২৩:৪৯:৩৭

রিজেন্টকাণ্ডে গ্রেপ্তারকৃত আসামি সাহেদের উত্তরার অফিস থেকে উদ্ধারকৃত পাসপোর্টে চার দেশের ভিসা ছিল এবং ওই চার দেশেই সাহেদে অর্থ পাচার করত বলে জানিয়েছে র‍্যাব।

রোববার (২৬ জুলাই ) র‍্যাব সদর দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি জানান র‍্যাবের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ। তিনি বলেন, আগামীকাল ঢাকা কারাগার থেকে সাহেদকে খুলনায় র‌্যাব ৬ দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে অস্ত্র মামলার রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে সেটির কার্যক্রম পরিচালিত হবে। তবে তার কার্যালয় থেকে যে পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে, সেটিতে চারটি দেশের ভিসা লাগানো ছিল। সাহেদ ওই চারটি দেশেই যাতায়াত করেছেন এবং সেখানেই অর্থ পাচার করেছেন বলে তথ্য পেয়েছি।

এদিকে প্রতারণা ও আত্মসাতের চার মামলায়, রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদ করিমকে সাতদিন করে মোট ২৮ দিনের রিমান্ড দিয়েছে আদালত। রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আজ এই আদেশ দেন। চারটি মামলায় রিজেন্ট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদ পারভেজকেও ২৮ দিনের রিমান্ড দেয়া হয়েছে। দু’জনকেই রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি পেয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ।

শুনানির এক পর্যায়ে সাহেদ আদালতের অনুমতি নিয়ে তিনি বিচারককে বলেন, ‘আমি তো অন্যায় করেছি। সব অপরাধের সাথে আমি জড়িত। যারা আমার বিরুদ্ধে মামলা করেছে, তাদের সব টাকা-পয়সা পরিশোধ করে দেবো। গত ১২-১৩ দিন ধরে আমি কী অবস্থার মধ্যে আছি। আমি আর পারতেছি না। প্রেশারের মধ্যে আছি। আমি অসুস্থ।’

এ সময় ঈদের পর রিমান্ড শুনানির তারিখ ধার্য করার প্রার্থনা জানান সাহেদ।

 

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।